Thursday 22nd of October 2020 05:59:27 PM

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জ: ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে দিগন্ত পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর এলাকায় খাদে পড়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় বাসের আরও ২৫ জন যাত্রী আহত হয়েছে। আজ বুধবার দুপুর ১টার দিকে মহাসড়কের বিজয়নগর উপজেলার বুধন্তী ইউনিয়নের ইসলামপুর নামক এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাবুবুর রহমান জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দিগন্ত পরিবহনের (এসি) যাত্রীবাহী বাসটি সিলেট যাচ্ছিল। মহাসড়কের ইসলামপুর এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেল দ্রুত গতিতে এসে হঠাৎ থামিয়ে আবার পুনরায় উল্টো পথে ঘুড়াতে গেলে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তায় পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেল আরোহী একজন ও বাসের দুজন যাত্রী মারা যান।

ওসি আরও জানান, নিহতদের পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তারা তিনজনই পুরুষ। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট দুর্ঘটনা কবলিত বাসটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য পাশের হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।

এম ওসমান, বেনাপোল প্রতিনিধি: বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে যশোরের শার্শা উপজেলার দুুই সহদর মৃত্যু হয়েছে। সম্পর্কে তারা একে অপরের খালাতো ভাই। এসময় গুরুতর আহত হয়েছেন  মোটরসাইকেল চালক।
সোমবার রাত ১১টায় যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের নাভারণ কলোনী মোড় নামক স্থানে এই দূর্ঘটনাটি ঘটে।
মৃত দু’সহদর ভাই যশোরের শার্শা উপজেলার গয়ড়া গ্রামের লোকমান হোসেনের ছেলে বিপুল (২০) ও বেনাপোল সীমান্তের পুটখালী গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে মুরাদ হোসেন (২৩)। তারা উভয়ই ওয়াইফাই কেবল অপারেটর হিসাবে কাজ করত এবং দু’জনই ছোট বয়স থেকে কাজির বেড় গ্রামের নানা গোলাম নবীর বাড়িতে বসবাস করতো।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, বিপুল ও মুরাদ ওয়াইফাই কেবলের কাজে ভাড়ায় মোটরসাইকেল যোগে ঝিকরগাছা থেকে কাজ সেরে বাসায় ফিরছিল। পথিমধ্যে নাভারণ কলোনী মোড় নামক স্থানে আসলে বিপরীত দিক থেকে আসা ঢাকাগামী একটি পরিবহণ তাদেরকে ধাক্কা দেয়। এতে পিছন থেকে বিপুল ও মুরাদ পড়ে গিয়ে পরিবহনের পিছনের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। এঘটনায় মোটরসাইকেল চালক গুরুতর আহত হয়ে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।
এদিকে একইসাথে  দু’সহদর ভাইয়ের মৃত্যুতে শোকের ভেঙ্গে পড়েছেন নানা গোলাম নবীসহ মৃতের পরিবার। এঘটনায় এলাকায় শোকের ছাঁয়া নেমে এসেছে।
নাভারণ হাইওয়ে থানার এসআই টিটো দেবনাথ সড়ক দূর্ঘটনায় দু’জন মৃত ও একজন আহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনা ঘটার ২০ মিনিট পর আমরা জানতে পেরেছি। এসময় চারিদিকে অন্ধকার থাকায় আমরা কোন কিছু নিশ্চিত করতে পারেনি। সিসি ক্যামেরা দ্বারা গাড়ী সনাক্তকরণ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি আরো বলেন, আমাদের সিসি ক্যামেরা অনেক আগে থেকেই নষ্ট হয়ে পড়ে আছে। আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি গাড়ী সনাক্ত করার জন্য।

নজরুল ইসলাম তোফা: ফেসবুক স্ট্যাটাস মাধ্যমেই যে কোনো ব্যক্তির হাজার হাজার কমেন্ট আসে না, আবার যাদের আসে সে কমেন্টের উত্তর দেওয়াও সম্ভব হয় না কিংবা কেউ কেউ কমেন্টের উত্তর দেওয়ার জন্যই বসে থাকে। তীক্ষ্মভাবে পোষ্টের প্রতিটি কমেন্ট পড়ার চেষ্টাও করে থাকে। কেউ আবার না বুঝেই ‘দু’এক লাইন’ উত্তর দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়। সুযোগ পেলে অনেকে নিজের ফেসবুক বন্ধুদের নেতিবাচক উত্তর দেয়াতে যেন আগ্রহ পোষণ করে। প্রশংসা করবার মানসিকতা মানুষের নেই বললেই চলে। দিনে দিনে মানুষ মানষকেই প্রসংশা করা থেকে সরে পড়বে বলেই ধারণা করি। পাবলিক কমেন্টে মাঝে মাঝেই বেশকিছু অদ্ভূত সুন্দর কমেন্ট চোখে পড়ে যা থেকে মানুষের উৎসাহ বাড়ে। যাদের প্রসংশা কিংবা উৎসাহ দেওয়া হয়, তারা ভালো পোস্ট দেওয়ার ইচ্ছাটা অব্যাহত রাখে। যার যা কিছু পরিধি বা মেধা, “ফেসবুক প্রোফাইল” দেখলেই- তা বুঝা যায়। লাখো কোটি মানুষ মানুষের কখনো ভক্ত হয় না, যাদের হয় তাদের অবশ্যই অনেক গুন আছে। হিরো আলমের মতো দুএকটা ছোট খাটো উদাহরণ ছাড়া।
ফেসবুক পেইজ একটা নিউজ পেপারের অংশই বলতে পারেন। কখনো কখনো তার চাইতেও বেশী। কিছু কিছু চিরস্থায়ী গিট্টুবাজের দল সহ অধিকাংশ মানুষ এর মর্ম বুঝে না, অহরহ ফাসাদ সৃষ্টি করে। কেউ বিরোধী মতের হলে তার লেখার কটূক্তি করা চাই। ‘সত্য কথার’ সত্যতা খোঁজার ইচ্ছা একেবারেই থাকে না। আবার এটাও যেন চোখে পড়ে কিছু ভালো মানুষ আছে, তারা কম সংখ্যক হলেও ভালো লেখা বা স্ট্যাটাসের অনেক মূল্যায়ন করে ধন্যবাদ কিংবা ইংরেজিতে থ্যাংকইউ দেয়ার চেষ্টা করে, এই আকালের যুগে তাদেরকে প্রকৃত ভালো মানুষ বলে মনে করি। বিভিন্ন অনিয়মে সমাজের মানুষ আজ নীরব ভূমিকায় ক্ষুদ্ধ আছেন। দু’একটা চিন্তাশীল ভালো মানুষ আছে বলেই তরুণ প্রজন্মরা তাদের কাছ থেকেই সঠিক সু-শিক্ষা পাচ্ছে। আমার খুবই কাছের একজন বললেন, তিনি হচ্ছেন রাজশাহীর বর্নালী মোড়ের- ‘হাসান সিজার ভাই’। এক সময়ে তিনি ফেসবুক ব্যবহারকারী ফ্রেন্ডদের কমেন্টে খুব রাগ করতেন। তবে এখন তিনি রাগ করেন না। অনেক বিচার বিশ্লেষন করে তিনি দেখলেন আসলে গিট্টুবাজ সমাজে প্রতিনিয়তই- খুব ভয়ানক কিছু ঘটছে এবং আগামীতেও ঘটবে। এখান থেকেই মানুষের বাহির হওয়ার পথ তিনি দেখছে পাচ্ছে না। সুতরাং বেশী সাহস দেখাতে গেলে কর্মহীন হয়ে যেতে পারেন। তাই, বিনয়ের নামে উটপাখী হয়েই আত্মরক্ষা করছেন, নইলে বন্ধুদের রোষানলের পড়ে যাওয়ার ব্যাপার আছে। একটি প্রবাদ বাক্য তা হলো ‘সুসময়ে অনেকেই বন্ধু হয়, অসময়ে হায় হায় কেউ কারো নয়’। যুগের তালে চলছেই চিন্তার ক্ষয়, বন্ধুকে কিছু বলা অতিশয় ভয়।
যাক, আজকের লেখাটা ছোট হলেও হয়তো একটু ভিন্ন ধরনের সবার তেমন ভালো লাগবে না। যারা ফেইসবুক ব্যাবহার করি, তাদের কাছেই ফেইসবুক ফটো কমেন্টস একটি দরকারী বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। আবারও বলতে চাই, প্রতিনিয়তই যেন আমরা কম বেশী অন্যের কোনো স্ট্যাটাসের কমেন্ট করে থাকি। তার মধ্যেই এখন বেশির ভাগই করে থাকে ফটো কমেন্টস। সুতরাং ফেসবুকে যে কেউ উত্ত্যক্ত বা বাজে কমেন্ট করলেই, যা করা দরকার তা হলো, বাংলাদেশের ‘পুলিশের অফিসিয়াল ফেসবুক’ পেজের তথ্যমত বা পরামর্শ। প্রথমে ফেক অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট করতে হবে। এজন্যই ফেক আইডির প্রোফাইলে যেতে হবে। তার পর ওই পেজের message বক্সের পাশেই যেন ৩টি ডট (…) চিহ্নিত আইকনে ক্লিক করে Find Support or Report Profile-এ যেতে হয়। পুলিশকে এমন কটূক্তি উত্ত্যক্ত বা বাজে মন্তব্যের তথ্য জানানো দরকার। এখানেই আরও একটি কথা বলা প্রয়োজন ফেসবুক ব্যবহারকারী ফ্রেন্ড সেজেই হয়তো উত্ত্যক্ত করবে। এদের অনেকের আইডি ফেক হয়। এ দেশে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অর্থাৎ ফেসবুকের ব্যবহারকারী যেমন বাড়ছে, ঠিক সেই সঙ্গে বাড়ছে ফেসবুকে হেনস্থার ঘটনাও। ইনবক্স, কমেন্টস ও টাইমলাইনে বাজে মেসেজ কিংবা ছবি পাঠিয়েই উত্ত্যক্ত করেন অনেকেই। পরিশেষে, চিহ্নিত করেই বলতে পারি, বর্তমান সময়ে মানুষ মানুষের “মহাশত্রু”। মানুষের মঙ্গল কামনা করতে পারেনা। এদের অবশ্যই ফেসবুক বন্ধুকে মান সম্মান সমুন্নত রাখার চেষ্টা করতে হবে। যুগে যুগেই এই দেশে ‘মহাজ্ঞানী মহাজনদের গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা’ আছে। নতুন প্রজন্মকেই বড়দের তা সুশিক্ষা দিতে হবে।তাদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা।
লেখকঃ নজরুল ইসলাম তোফা, টিভি ও মঞ্চ অভিনেতা, চিত্রশিল্পী, সাংবাদিক, কলামিষ্ট এবং প্রভাষক।

পিন্টু অধিকারী মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ মাধবপুরে বাজারগুলোতে ভোক্তা অধিকার ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে নিশ্চিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট তাসনূভা নাশতারান এর নেতৃত্বে শাহজিবাজার সড়ক বাজারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুযায়ী মূল্য তালিকা না থাকায়,ও মেয়াদোত্তীর্ণ মালামাল রাখাসহ ইত্যাদি কারণে আজ ৬ অক্টোবর সকালে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন এ সময় ৪ টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কাজ থেকে ৫০০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাশনূভা নাশতারান জানান প্রত্যেক দোকানের মূল্য তালিকা, মেয়াদোত্তীর্ণ মালামাল, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাস ও নোয়াখালীর বেগমগঞ্জসহ দেশব্যাপী গণধর্ষন ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মানববন্ধন করেছে ব্লাড ডোনেশন গ্রুপ কমলগঞ্জ (বিডিজি)।মঙ্গলবার বেলা ১১টায় কমলগঞ্জ উপজেলার ভানুগাছ বাজার চৌমুহনায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
ব্লাড ডোনেশন গ্রুপ কমলগঞ্জের নির্বাহী পরিচালক মো. রেদওয়ানুল ইকবাল রাহীর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ব্লাড ডোনেশন গ্রুপ কমলগঞ্জের সভাপতি নোহান আহমেদ, সাংবাদিক সাজিদুর রহমান সাজ, কমলগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সাকের আলী সজিব, সিলেট এমসি কলেজের সাবেক ছাত্র সাংবাদিক শাহিন আহমদ, সোহেল আহমদ,কমলগঞ্জ সরকারী কলেজ ছাত্র লীগের সাধারন সম্পাদক হাসান আহমেদ, ছাত্র নেতা সাইফুল ইসলাম প্রমূখ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাস ও নোয়াখালীর বেগমগঞ্জসহ দেশব্যাপী গণধর্ষন ও নারী নির্যাতনে জড়িতদের অনতিবিলম্বে দৃষ্টান্তমোলক শাস্তির দাবী জানান।
মানববন্ধনে বিডিজি নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং নানা শ্রেনী পেশার মানুষজন অংশ নেন।

হাবিবুর রহমান খান,জুড়ী প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার জেলা অটো টেম্পু, সিএনজি, মিশুক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন ২৩৫৯ এর অন্তর্গত জুড়ী উপজেলা শাখার সিএনজি শ্রমিকদের এক সাধারণ সভা অনুষ্টিত হয়।
মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) বিকেল ৩ টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলার মদিনা কমিউনিটি সেন্টারে সিএনজি শ্রমিকদের সাধারণ সভায় সংগঠনের জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং উপজেলা শাখার নেতৃবৃৃন্দের উপস্থিতিতে এই সভা অনুষ্টিত হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী শ্রমিকরা বলেন,সভায় প্রথম থেকেই উপজেলা সভাপতি মতিউর রহমান চুনুর সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে তার নামে ভার ভার শ্লোগান দিতে থাকেন। অপরদিকে সাধারণ শ্রমিকরা নির্বাচনের দাবিতে শ্লোগান দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে চুনু টেবিলের উপর থাবা মারলে তার সমর্থকরা সেখানে হট্টগোল শুরু করে। সাথে সাথেই ঘটনাস্থলে উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার শুরু হয়।সভায় সংগঠনের জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং  নেতৃবৃৃন্দের উপস্থিতিতে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।
জেলা থেকে আশা নেতৃবৃন্দ বার বার চলে যেতে চাইলে শ্রমিকরা তাঁদের যেতে দেয়নি। জেলার নেতারা গাড়ীতে উ ঠে চলে যেতে চাইলে শ্রমিকরা কমিউনিটি সেন্টারের বাইরের গেইট লাগিয়ে দেন।
এতে জুড়ী উপজেলা শাখার শ্রমিকরা নির্বাচনের দাবি জানিয়ে শ্লোগান দিতে থাকে পরে দুই পক্ষের মধ্যে এক পর্যায়ে হাতাহাতি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।
উপজেলার শিশু পার্ক স্ট্যান্ড সিএনজি কমিটির সভাপতি বদরুল ইসলাম ও সাবেক সভাপতি আব্দুস সহিদসহ সিএনজি শ্রমিকগণ অভিযোগ করে বলেন, ২০০৪ সালে জুড়ী উপজেলা গঠনের পর থেকে এ পর্যন্ত ১৬/১৭ বছরেও জুড়ী উপজেলা কমিটির নির্বাচন দেয়া হয়নি। স্থানীয় শ্রমিকদের দাবি উপেক্ষা করে জেলা নেতৃবৃৃন্দ অজ্ঞাত কারণে প্যাডের মাধ্যমে বারবার কমিটি ঘোষণা দেন। দীর্ঘদিন থেকে আমরা টাকা পয়সার কোন হিসাব পাইনি। উপজেলা সভাপতি মতিউর রহমান চুনু কোন হিসাব দেয়াতো দুরের কথা উপরন্তুু বিভিন্ন শ্রমিক দিয়ে মারামারি লাগিয়ে টাকা আত্নসাৎ করে আসছেন। তিনি জুড়ীর সিএনজি অঙ্গনে একচ্ছত্র আধিপত্ত বিস্তার করে রামরাজত্ব কায়েম করছেন।
সাথে সাথে ঘটনার খবর পেয়ে জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান রুহুল ইসলাম, জুড়ী থানার ওসি সঞ্জয় চক্রবর্তী, ওসি (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাস, গোয়ালবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন লেমন, জায়ফরনগর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মিলাদ চৌধুরী প্রমূখ ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মধ্যস্থতায় এক বৈঠক অনুষ্টিত হয়। বৈঠকে সংগঠনের জেলা সভাপতি পাবেল মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সেলিম দুর্গাপুজার পর জুড়ী উপজেলা কমিটির নির্বাচন অনুষ্টানের ঘোষণা দিয়ে সভাস্থল ত্যাগ করেন।
সংগঠনের উপজেলা সম্পাদক মাসুক মিয়া বলেন, সভায় কিছুটা বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়েছিল পরে তা শেষ হয়েছে।

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:  নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে নওগাঁর আত্রাইয়ে স্থানীয় মাছ বাজার বণিক সমিতির উদ্যোগে এক নির্বাচনী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার মাছ বাজারে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন মাছ বাজার বণিক সমিতির সভাপতি বাবলু আকন্দ। প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত এমপি পদপ্রার্থী আলহাজ আনোয়ার হোসেন হেলাল, আত্রাই উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ এবাদুর রহমান, নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বীর মুক্তিুযোদ্ধা জহুরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাভেদ জাহাঙ্গীর সোহেল, আত্রাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নৃপেন্দ্রনাথ দত্ত দুলাল, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী গোলাম মোস্তফা বাদল, দপ্তর সম্পাদক ফজলে রাব্বী জুয়েল, ছাত্রলীগ নেতা সোহাগ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম, গহের আলী, স্বপন মেম্বার, মানিক খাঁন প্রমুখ।

সাদিক আহমেদ,নিজস্ব প্রতিনিধি: শ্রীমঙ্গল উপজেলার সদর ইউনিয়নের উত্তরা আবাসিক এলাকায় (মিজান সড়কে) পল্লী বিদ্যুতের একটি খুঁটির ট্রান্সফরমারে হঠাৎ আগুন ধরে যায়। প্রথমে হালকা আগুন থেকে মুহুর্তেই বিপজ্জনক ভাবে বাড়তে থাকে আগুন।তাৎক্ষণিকভাবে এলকাবাসী শ্রীমঙ্গল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জরুরি বিভাগে ফোন করলে সেখান থেকে তাদের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে দেখে শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনে ফোন করেন।
পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট বেশ কিছুক্ষণ চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।
এসময় স্থানীয়দের মধ্যে ভয় ও আতঙ্ক দেখা যায়। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট ও বিরূপ আবহাওয়ায় ট্রান্সফরমারে আগুন ধরে যায় বলে ফায়ার সার্ভিস ও পল্লী বিদ্যুৎ সুত্রে জানা গেছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc