Thursday 24th of September 2020 12:24:10 PM

মিনহাজ তানভীরঃ  দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম এর উপর বাসভবনে ঢুকে রাতের আঁধারে বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে শ্রীমঙ্গলে নিন্দা ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্টিত হয়েছে।
সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শ্রীমঙ্গল পেট্রোল পাম্প চত্বরে দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলা বীর মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী শেখ এবং তার সন্তান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম এর উপর হামলার প্রতিবাদে এ সমাবেশ অনুষ্টিত হয়।
মানব্বন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম।
শ্রীমঙ্গল উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার মোয়াজ্জেম হোসেন ছমরুর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সহকারি কমান্ডার অমলেন্দু পাল, ছোবহান মিয়া, সানু মিয়া। জেলা সহকারি কমান্ডার মোঃ আনসার আলী, রতি কান্ত রায়, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড কাউন্সিলের উপজেলা শাখার আহবায়ক রোটারিয়ান মিঠন পাল, সদস্য সচিব মোঃ জসিম উদ্দিন প্রমুখ।
উল্লেখ্য,গত ২ সেপ্টেম্বর বুধবার দিবাগত রাতে সরকারি বাসভবনে ঢুকে ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলী শেখকে হাতুড়ি ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে গুরুতর আঘাত করে দুর্বৃত্তরা। বর্তমানে ওমর আলী রংপুর মেডিক্যালে ও ইউএনও ওয়াহিদা খানম ঢাকায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। জানা গেছে তাদের কিছুটা উন্নতির দিকে। এই ঘটনায়  এখন পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইউএনওর বাসার গৃহকর্মী জোবাইদা বেগম (৩৮) সহ ছয় জনকে আটক করা হয়েছে।একইসঙ্গে ওই ঘটনার আলামাত হিসেবে একটি লাল শার্ট, প্লাস্টিকের লাঠি ও পিপিই জব্দ করেছে পুলিশ।

মিনহাজ তানভীরঃ  যুক্তরাজ্যে বসবাসরত শ্রীমঙ্গল ব্রিটিশ চেম্বার্স এন্ড কমার্সের ডিরেক্টর, বাংলাদেশ ক্যাটারার্স এসোসিয়েশন, ইউকে’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক, যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশী প্রবাসীদের অতি সুপরিচিত সিনিয়র ব্যক্তিত্ব শ্রীমঙ্গল সুরমা ভেলীর মালিক বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী এটিএম ওয়াহিদ গাজী উরফে সাদ গাজী (৭৭) রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) তাঁর যুক্তরাজ্যস্থ নিজ বাসভবনে স্থানীয় সময় সাড়ে আটটায় যুক্তরাজ্যের ওয়েলিংটন, স্যুরে শহরের ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মৃতুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ কন্যা, জামাতাসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

জানা যায়,সাদ গাজী বিট্রিশ সিটিজেন হলেও তিনি অধিকাংশ সময় দেশেই থাকতেন দেশের মানুষের শিক্ষা ও আর্থসামাজিক উন্নয়নে কাজ করতেন। তিনি শিক্ষা বিস্তারে শ্রীমঙ্গলে আসাদ গাজী ফাউন্ডেশন করে তার সমস্ত সম্পতি সেখানে দান করে গেছেন। মৃত্যুর আগে তিনি তার নিজ জন্মভুমি উপজেলার বৌলাশী বাজারে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়,হাই স্কুল,মাদ্রাসা, মসজিদ, দাত্যব্য চিকিৎসালয়, বিনামুল্যে সেলাই প্রশিক্ষন কেন্দ্র, কম্পিউটার প্রশিক্ষন কেন্দ্রসহ আরো বেশ কিছু প্রতিষ্টান গড়ে গেছেন।
তাঁর মৃত্যুতে হৃদয়ে শ্রীমঙ্গল পরিবারসহ শ্রীমঙ্গলের বিভিন্ন মহল মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে তাঁর আত্মার শান্তিকামনা করেছেন। মরহুমের দাফন কোথায় করা হবে দেশে না যুক্তরাজ্যে তা এখন ও নিশ্চিত করা হয়নি বলে মরহুমের স্বজনদের সুত্রে জানা গেছে।

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জ থেকে:  সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের মাধবপুরে যাত্রীবাহি বাস ও পাজেরো জীপের মুখোমুখি সংঘর্ষেে যশোর বাঘারপাড় উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ৪ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ১ জন আহত হয়েছেন। গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের উপজেলার নয়াপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন- যশোর বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম কাজল, ঢাকা তালতলা এলাকার সুমন মিয়ার মেয়ে আখিঁ আক্তার (২০), যশোর জেলার আরিফুল ইসলাম (৩৫)। বাকি ১ জন পুরুষের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। আহত একজন হলো- মগফিরাত নওরিন (৩৫)।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ। তিনি জানান- সিলেট থেকে ঢাকাগামী একটি পাজেরো জীবের সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি যাত্রীবাহি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হন।

খবর পেয়ে শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিরকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠালে সেখানে আরও ২ জন মারা যান।

মিনহাজ তানভীর:  শ্রীমঙ্গল মৌলভীবাজার জেলার শ্রমিক নেতা সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে সিলেটে  চিকিৎসাধীন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মৌলভীবাজার জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং চট্র ১২২৩ এর মৌলভীবাজার জেলার সাবেক কোষাধ্যক্ষ ও বর্তমান শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সম্পাদক পদপ্রার্থী ও শেভরন বাংলাদেশ লি: এর কালাপুর গ্যাস ফিল্ডের গাড়ি চালক ইসমাইল হোসেন সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল সাতটায় মৌলভীবাজার রোড ৫ নং পুল সংলগ্ন মোটরসাইকেল ও মিনি ট্রাক সংঘর্ষে মারাত্মক আহত হয়ে বর্তমানে ইবনে সিনা হাসপাতাল সিলেটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহত ইসমাইল হোসেন শ্রীমঙ্গল শাহীবাগ এলাকার বাসিন্দা।

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান নিহতের ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটি।

আজ সোমবার দুপুরের দিকে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে প্রতিবেদন হস্তান্তর করেন কমিটির প্রধান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) ও সরকারের যুগ্মসচিব মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন কমিটির সদস্য সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রতিনিধি সেনাবাহিনীর লে. কর্নেল এস এম সাজ্জাদ হোসেন।

তদন্ত কমিটির প্রধান মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, আমরা ভালোভাবে বিশ্লেষণ করে এই প্রতিবেদন জমা দিয়েছি। এ বিষয়ে আমরা ৬৮ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত চার সদস্যের তদন্ত কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শাহজাহান আলী ও বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর প্রতিনিধি অতিরিক্ত উপমহাপরিদর্শক জাকির হোসেন খান।

চলতি সালের গত ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান। এ ঘটনার উৎস, কারণ ও ভবিষ্যতে এমন ঘটনা যেন না ঘটে সেই বিষয়ে সুপারিশ দিতে ২ আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে।

মসজিদের ছয়টি এসির একটিও বিস্ফোরিত হয়নিঃফায়ার সার্ভিসের তদন্ত কমিটি

প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বলেছেন, বিডিআর বিদ্রোহের পেছনে কারা ছিল ? আমরা তো শুধু সরকার গঠন করেছি। এটা কোনোদিনই যুক্তিযুক্ত না, যে আমরা সরকার গঠন করেই এমন একটা ঘটনা ঘটাব, দেশে একটি অস্বাভাবিক পরিস্থিতির সৃষ্টি করব। কাজেই যারা তখন ক্ষমতায় আসতে পারেনি তারাই এটা করেছে- এতে কোনো সন্দেহ নেই। বিএনপি-জামায়াতের মিথ্যা বলার ভালো একটা আর্ট আছে। তিনি বলেন, গ্যাস লাইনের ওপর মসজিদ নির্মাণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছিল কি না তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এছাড়াও অন্য সব বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।রোববার জাতীয় সংসদের অধিবেশনে শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

অধিবেশনে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে অত্যন্ত সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন সাহারা খাতুন। তার সাহসী ভ‚মিকা দেখেছি বিডিআর বিদ্রোহের সময়। আমরা সরকার গঠনের মাত্র ৫২ দিনের মধ্যে বিডিআরের এ ঘটনা ঘটল। বিডিআরের ওই ঘটনায় যে সেনা অফিসাররা মারা যায় তাদের মধ্যে ৩৩ জন আওয়ামী লীগ পরিবারের। এমনকি বিডিআর ডিজি এ পার্লামেন্টের সংসদ সদস্য লুৎফর হাই সাচ্চুর আপন চাচাতো ভাই ছিলেন। দেখা গেছে, আমাদের আওয়ামী পরিবারের এমনকি আব্দুল মালেক উকিল সাহেবের নাতি অনেকেই সেখানে মৃত্যুবরণ করে। সেসময় ঘটনা ঘটার সাথে সাথে আমাদের চেষ্টা ছিল এটাকে থামানো। আমাদের যারা অফিসার আছে তাদের রক্ষা করা তাদের পরিবারগুলো রক্ষা করা। আমরা যখন সেখানে সেনাবাহিনী নিয়োগ করলাম সেনাবাহিনী নামার সাথে সাথে তাদের গুলিতে কয়েকজন সেনা সদস্য মারা গেল।

তিনি বলেন, বিডিআরের ঘটনাটি ছিল একটি অস্বাভাবিক ঘটনা। আগের দিন গেলাম একটি ভালো পরিবেশ, পরের দিন সেখানে এধরনের একটি ঘটনা ঘটল। এর পেছনে কারা আছে ? আমরা তো শুধু সরকার গঠন করেছি। এটা কোনো দিনই যুক্তিযুক্ত না যে আমরা সরকার গঠন করেই এমন একটা ঘটনা ঘটাব, দেশে একটি অস্বাভাবিক পরিস্থিতির সৃষ্টি হোক। কাজেই যারা তখন ক্ষমতায় আসতে পারেনি তারাই তখন তাদের পেছনে ছিল এবং তাদের সঙ্গে ওই ১/১১ যারা সৃষ্টি করেছিল তাদের ধারণা ছিল নির্বাচনটা একটা আনপার্লামেন্ট হবে; কিন্তু যখন দেখল আওয়ামী লীগ মেজরিটি নিয়ে চলে আসল তখন সবকিছু নস্যাৎ করার অপচেষ্টা যাদের ভেতর ছিল তারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। একদিন না একদিন এর সত্যতা বের হবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণের যে ঘটনা ঘটেছে তা অত্যন্ত দুঃখজনক। ইতোমধ্যে সেখানে বিস্ফোরক তদন্ত দল গেছে, তদন্ত হচ্ছে। কেন এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে তার তদন্ত হবে। মৃতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। যারা আহত হয়েছেন, তাদের চিকিৎসার জন্য সব রকম ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

সংসদ নেতা বলেন, মসজিদটি- না কি গ্যাসের লাইনের ওপরে নির্মাণ করা হয়েছে। সাধারণত গ্যাস লাইনের ওপরে কোনো স্থাপনা নির্মাণের অনুমতি দেওয়া হয় না। গ্যাস লাইনের ওপর মসজিদ নির্মাণের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল কি না তা খতিয়ে দেখা হবে। সামর্থবানরা অনেক সময় মসজিদে এসি দান করে থাকেন। এই এসির ধারণ ক্যাপাসিটি ছিল কি না তা দেখা হবে। এছাড়া মসজিদ নির্মাণে ভালোভাবে নকশা করা হয়েছিল কি না প্রত্যেক বিষয় খুঁজে বের করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, আজকাল সবার পয়সাও আছে। এয়ারকন্ডিশনও দিয়েছে। সেখানে বিদ্যুৎ সরবরাহটা, কতটা লোড নিতে পারবে সেই ক্যাপাসিটি ছিল কি না, সার্কিট ব্রেকার ছিল কি না সব বিষয় কিন্তু দেখতে হবে। অপরিকল্পিতভাবে কিছু করতে গেলে একটা দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে বলেছি। অন্য সবার কাছে আমার নির্দেশ গেছে। বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছি। এর কারণটা খুঁজে বের করা। এছাড়া সারাদেশের অন্যান্য মসজিদে যারা অপরিকল্পিতভাবে ইচ্ছামতো এয়ারকন্ডিশন লাগাচ্ছেন বা যেখানে-সেখানে একটি মসজিদ গড়ে তুলছেন, সেটা একটা স্থাপনা করার আদৌ জায়গা কি না যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নেওয়া হয়েছে কি না, নকশা করা হয়েছে কি না, সেই বিষয়গুলো দেখা একান্ত প্রয়োজন। না হলে এ ধরনের ঘটনা-দুর্ঘটনা যেকোনও সময়ে ঘটতে পারে।

ভারতের সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখার্জীর মৃত্যুতে গভীর দুঃখ ও শোক প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু প্রণব মুখার্জী। সেই মুক্তিযুদ্ধের সময় এমনকি ৭৫এও তিনি আমাদের পাশে ছিলেন। তখন আপনজন হিসেবে পেয়েছিলাম প্রণব মুখার্জী ও তার পরিবারকে। ২০০৭ সালে যখন আমি বন্দি তখনও তিনি আন্তর্জাতিকভাবে আমাদের পক্ষে দাঁড়িয়ে কথা বলেছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব ব্যাংক যখন পদ্মা সেতু নিয়ে আমার ওপর দোষারোপ করল, তখনও তিনি সেই আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে প্রতিবাদ করেছেন। সবসময় তিনি বাংলাদেশের পাশে এবং মানুষের কল্যাণে চিন্তা করতেন। আমাদের এই উপমহাদেশে এমন জ্ঞানী রাজনীতিবিদ পাওয়া খুব মুশকিল। সাথে সাথে বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু প্রণব মুখার্জীকে হারিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াতের মিথ্যা বলার ভালো একটা আর্ট আছে। যেমন ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার পর খালেদা জিয়া থেকে শুরু করে তাদের দলের লোক বললো আমি নিজেই নাকি গ্রেনেড নিয়ে নিজেই গ্রেনেড মেরেছি এবং তা ব্যাপকভাবে প্রচার করে ফেলল। ঠিক বিডিআরের ঘটনা যখন ঘটল, তখন তারা ওইভাবেই অপপ্রচার শুরু করল। কিন্তু এটা কোনো দিনই কেউ এর যুক্তি খুঁজে পাবে না। সাহারা আপাকে দেখেছি সাহসে ভর করে সেখানে গেছে। বিডিআরদের অস্ত্র সমর্পণ করতে বলেছে, রাতের বেলায় অনেক সাহস করে সেখানে গিয়ে অস্ত্র সমর্পণ করতে বলেন এবং তারা করেন। সেদিন অনেক আর্মি পরিবারকে উদ্ধার করে নিয়ে এসেছে। উদ্ধার করে আনতে গিয়ে জীবনের ওপর হুমকি বয়ে এসেছে। আমি তখন যমুনায় থাকি তখন বলল নেত্রী কোনো মতো জীবনটা নিয়ে বেঁচে এসেছি। তার ওপরেও হামলা করতে গিয়েছিল ওরা। এই অবস্থায় দুঃসাহসী ভূমিকা রেখেছিলেন সাহারা আপা।

তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে সততার সাথে তিনি কাজ করেছিলেন, যার জন্য বিএনপির আমলে বাংলা ভাই সৃষ্টি, জঙ্গিবাদ সৃষ্টি এক সাথে ৫০০ জায়গায় বোমা হামলা, গ্রেনেড হামলা এরকম যেখানে অরাজকতা। তারপর আসল ১/১১ সে সময় আর একটা অস্বাভাবিক পরিস্থিতি। এই অবস্থার মধ্যে তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দায়িত্ব নিয়ে দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে নিয়ে আসেন। মানুষের জীবন যাত্রাটাকে স্বাভাবিক করা এবং মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার মতো কঠিন সময়ে দায়িত্ব পালন করে দৃষ্টান্ত রেখে গেছেন সাহারা। তিনি নিবেদিত প্রাণ ছিলেন, তার কোনো চাওয়া-পাওয়া ছিল না। তিনি সব কিছু নেতা-কর্মীদের বিলিয়ে দিয়েছেন। সারাক্ষণ দেশের জন্যই কাজ করেছেন।

আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলম সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইসরাফিল আলম এতো অল্প বয়সে চলে যাবে বুঝতেই পারিনি। তার করোনা হয়েছিল আবার তা ভালো হয়েছিল কিন্তু আসলে তার কিডনির সমস্যা ছিল। সে কিছু মানেনি। যখন সে একটু সুস্থ হয়ে বাড়ি গেল, তারপর চলে গেল এলাকায়, আবার অসুস্থ হলেন আর ফিরে এলো না। আওয়ামী লীগের অগণিত নেতাকর্মী হারিয়েছি করোনায়। কারণ তারা রিলিফ দিতে গিয়েছে, বন্যার সময় ত্রাণ দিতে গিয়েছে, মানুষের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে জীবন দিতে হয়েছে। আমরা ভবিষ্যতের একজন ভালো পার্লামেন্টারিয়ান হারালাম।

প্রসঙ্গত নারায়ণগঞ্জের বায়তুস সালাত জামে মসজিদের ছয়টি এসির একটিও বিস্ফোরিত হয়নি। লিকেজ থেকে বের হওয়া গ্যাস এবং বিদ্যুতের স্পার্ক থেকে বের হওয়া আগুনেই এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। রোববার এ তথ্য জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের তদন্ত কমিটির প্রধান উপ-পরিচালক নূর হাসান আহমেদ। এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পর সিআইডির তদন্ত কমিটির সদস্য পুলিশ পরিদর্শক জিয়াউদ্দিন উজ্জলও একই কথা বলেছেন। তিনি বলেন, গ্যাস ও বিদ্যুৎ থেকেই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। ৬টি এসির একটিও বিস্ফোরিত হয়নি, হওয়ার কথাও নয়।

অন্যদিকে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ অবস্থায় আরও তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে মারা যান শামীম হাসান। গতকাল সকালে জুলহাস এবং আলী মাস্টার নামে আরও দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে মসজিদের ইমাম আব্দুল মালেক (৬০) ও মুয়াজ্জিনসহ ২১ জনের মৃত্যু হয়। সবমিলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৫ জনে। বার্ন ইনস্টিটিউটে বাকি ১৩ জন, যারা মৃত্যুর সাথে লড়ছেন তাদের সবার অবস্থা সঙ্কটাপন্ন। প্রত্যেকেরই শ্বাসনালি, মুখমন্ডলসহ শরীরের বেশিরভাগ অংশ পুড়ে গেছে। শ্বাসনালি পুড়ে যাওয়ায় তারা কেউ আশঙ্কামুক্ত নন। ৩ জনকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে বলে জানান হাসপাতালটির সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন।

‘অধিকার এখানে, এখনই’ এ প্রকল্পের আওতায় ঝালকাঠিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার সম্পর্কে তথ্য পরিসেবা বিষয়ক কর্মশালা। শনিবার সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সভাকক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে নারী পক্ষ। এতে সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক, স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ও সেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেয়। কর্মশালায় সহযোগিতা করে ঝালকাঠি তারুণ্যের কণ্ঠস্বর প্লাটফর্ম।

কর্মশালায় কিশোর কিশোরীদের স্বাস্থ্য অধিকার সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হয়। ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে কিশোর কিশোরীদের জন্য কর্নার স্থাপন ও তাদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার তাগিদ দেওয়া হয়। ঝালকাঠি তারুণ্যের কণ্ঠস্বর প্লাটফর্ম সমন্বয়কারী সোহানুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আরিফুল ইসলাম।

আলোচনায় অংশ নেন অধিকার এখানে, এখনই প্রকল্পের পরিচালক সামিয়া আফরীন, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সাইডোর নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ হোসাইন, সাংবাদিক কে এম সবুজ, ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রের কর্মকর্তা ও তারুণ্যের কণ্ঠস্বর প্লাটফর্মের সদস্যরা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন তারুণ্যের কণ্ঠস্বর প্লাটফর্মের নাছরিন আক্তার সারা।

মিনহাজ তানভীরঃ  মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আজিজুর রহমান গত ১৮ আগষ্ট মৃত্যুবরণ করায় চেয়ারম্যান পদ শূন্য ঘোষনা করা হয়। রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) তারিখে স্থানীয় সরকারের উপসচিব এ কে এম মিজানুর রহমান কতৃক প্রেরিত নোটিশে  নতুন চেয়ারম্যান তাহার পদে যোগদান না করা পর্যন্ত প্যানেল চেয়ারম্যান-১ তফাদার রিজুয়ানা ইয়াসমিন সুমি অস্থায়ী চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।
অস্থায়ী চেয়ারম্যান হিসেবে তফাদার রিজুয়ানা ইয়াসমিন সুমি জেলা পরিষদের আর্থিক বিষয়সহ সকল কার্যক্রম পরিষদের চেয়ারম্যানের দৈনন্দিন যাবতীয় রুটিন কার্যাদি সম্পাদন করবেন বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়।
ইতি মধ্যে তিনি সরকারি ভাবে ইন্ডিয়া ও যুক্তরাজ্য সফর করেছেন।তফাদার রিজুয়ানা ইয়াসমিন সুমি জেলা পরিষদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার (১৩,১৪ ও ১৫) নং ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত নারী আসনের ৫ নং ওয়ার্ড থেকে সদস্য নির্বাচিত হন। জেলা পরিষদের প্রথম সভায় তিনি প্যানেল চেয়ারম্যান-১ ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হন।
জেলা পরিষদের সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন তফাদার রিজুয়ানা ইয়াসমিন সুমি।
তাঁর নানান উদ্যোগ বিভিন্ন মহলে বেশ প্রশংসিত ও হয়েছেন তিনি। সুমি বাংলাদেশ জেলাপরিষদ মেম্বার’স এসোসিয়েশন এর সিলেট বিভাগীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক এর দায়ীত্ব পালন করছেন।
তার তত্ত্বাবধানেই নিজ নির্বাচনি এলাকা কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নে প্রতিষ্টিত করেছেন “বদরুন্নাহার ভূইয়া উচ্চ বিদ্যালয়।শ্রীমঙ্গলের কন্যা কমলগঞ্জের পুত্রবধূ জেলা পরিষদের অস্থায়ী চেয়ারম্যান তিনি বর্তমানে এই বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক হিসেবে বেশ সততা ও দক্ষতার সাথে দায়ীত্ব পালন করছেন বলে জানা গেছে।
তিনি মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার একটি মুসলিম সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন,তার বাবা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল মুহিত তফাদার।
তফাদার রিজুয়ানা ইয়াসমিন সুমি একজন ভদ্র ও মার্জিত ব্যাক্তিত্বের অধিকারী এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালনকারী।দেশে উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের পর রাজনৈতিক পরিবারে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তাহার স্বামী সাব্বির আহমদ ভূঁইয়া আদমপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিবেদক:   আমাদের বর্তমান প্রজন্মের তরুনেরা এখন অনেক পরিনত তারা এখন নিজেরাই উদ্যোক্তা হবার স্বপ্ন দেখে। ছোটবেলা থেকেই আত্ন নির্ভরশীল হওয়ার স্বপ্নে বিভোর নব প্রজন্মের চার সফল স্বপ্নদ্রষ্টা, উদ্যোক্তা মোঃ কামাল উদ্দিন সরকার, রাশেদ ফেরদৌস, সুমন মুন্সী ও প্রকৌশলী জুবায়ের বিন লিয়াকত নিঃসন্দেহে বর্তমান তরুন প্রজন্মের জন্য পথিকৃৎ। করোনা মহামারীর এই দুঃসময়ে আইটি খাতে নতুন যাত্রা শুরুর সাহসী পদক্ষেপ নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবী রাখে। তথ্যপ্রযুক্তিগত পন্য ও আইটি সল্যুশন নিয়ে যারা কাজ করতে চায় তাদের জন্য জেনেক্স আইটি (GENEX IT) একটি আদর্শ হতে পারে।

জেনেক্স আইটি (GENEX IT) সাধারনত কম্পিউটার, ল্যাপটপ, নেটওয়ার্কিং পণ্য বিক্রির পাশাপাশি সম্পুর্ন আইটি সল্যুশন ও অফিস নেটওয়ারকিং এর কাজ শুরুর মাধ্যমে তাদের সফল যাত্রা শুরু করেছে।

দৃঢ় সংকল্প, মেধা আর পরিশ্রমকে পুঁজি করে জেনেক্স আইটি (GENEX IT) বহুদুর পথ অতিক্রম করতে চায় এভাবে চলতে থাকলে আন্তর্জাতিক ভাবে তরুন প্রজন্মের কাছে পথ প্রদর্শক হওয়া তাদের জন্য এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। যোগাযোগ কিংবা আপনাদের মূল্যবান মতামত ও বিস্তারিত তথ্যের জন্য ঘুরে আসতে পারেন তাদের মাল্টিপ্ল্যান সেন্টারের চতুর্থ তালার অফিসে অথবা ফেসবুক পেইজে facebook.com/genexit2020

নিশাত আনজুমান,আক্কেলপুর (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি: জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বৈরি আবহাওয়ার কারনে পুকুর জলাশয়ের পানিতে গ্যাসের সৃষ্টি হয়ে অক্সিজেনের অভাব দেখা দেয়ায় মাছ মরে যাওয়ার ফলে মৎসচাষীদের কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

যার ফলে উপজেলার হাটবাজার গুলোতে এখন দেশী মাছে সয়লাব। কেউ মাছ কিনতে আবার কেউবা তা দেখতে ভীর করছেন। ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে হাটে মাছ কেনার জন্য মাইকিংও করা হয়েছে । তবুও এসব মাছের তেমন একটা ক্রেতা মেলছেনা। অনেক মাছ ব্যবসায়ী ও চাষিদের মাছ বিক্রি না হওয়ায় বাজারেই পঁচে গেছে।

বাজারে রুই-কাতলাসহ বিভিন্ন মাছে বাজার সয়লাব। সাধারণত বড় আকৃতির মাছ কেজিপ্রতি ১৮০ টাকা থেকে ২০০ টাকার নিচে মেলে না। সেখানে এদিন এমন মাছের দর চাওয়া হচ্ছিল মাত্র ২৫ টাকা থেকে ৮০ টাকা। আর ছোট আকৃতির মাছের ক্রেতাই তেমন মেলেনি।

মাছ চাষি ও মৎস্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পুকুর ও বিলের পানিতে হঠাৎকরে অক্সিজেনের অভাব দেখা দিয়েছে। এতে ব্যাপক হারে মাছ মরে গেছে। ফলে প্রচুর পরিমান মাছ বাজারে চলে আসায় তা অল্প দামে বিক্রয় হচ্ছে। সব মিলিয়ে বিরাট ক্ষতির মুখে পড়েছেন মাছ চাষিরা।

সরেজমিনে আক্কেলপুর পৌরসদরের কলেজ বাজার হাটে গিয়ে দেখা গেছে, বাজারে অল্প দামে বিভিন্ন মাছ বিক্রি করতে দেখা যায়। বড় রুই-কাতলা মিলছিল ৮০ টাকা থেকে ১৮০ কেজি দরে, যা একদিন আগেই ছিল ২০০-৩০০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। বিভিন্ন যাতের খুচরা মাছ একদিন আগে (গত মঙ্গলবার) প্রতি কেজি ছিল ৩০০-৪০০ টাকা সেই মাছ (গত বুধবার) ২০-৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। বাজারে অন্য দিনের তুলনায় লোকসমাগমও ছিল চোঁখে পড়ার মতো।

আওয়ালগাড়ি গ্রামের সাগর হোসেন নামে এক ক্রেতা বলেন, সকালে বাজার করতে হাটে এসেছিলাম। দেখি বাজারে প্রচুর মাছ উঠেছে। আমি ৮০ টাকা কেজি দরে বড় রুই, জাপানি, বড় বাটার পাঁচ কেজি মাছ কিনেছি। এর আগে কখনও এতো অল্প দামে মাছ কিনতে পারিনি।

নওগাঁর বদলগাছি উপজেলার গয়েসপুর গ্রামের মৎস্যচাষি শাহিন হোসেন বলেন, সকালে জানতে পারেন তার পুকুরের মরা মাছ ভাসছে। বিষয়টি জেনে পুকুরে গেলে ততক্ষণে অনেক মাছ মরে ভেসে ধারে লাগে। পরে মাছ গুলো কিছু অংশ তুলে বাজারে নেয় বাকি মাছ পুকুরে মরে পচে গেছে।

মাছ চাষি নুরুল হোসেন ও ইসরাফিল বলেন, বাজারে যে মাস ৩৫০ থেকে ৩৬০ টাকায় বিক্রি হতো সেই মাছ ৮০ থেকে ১৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছে। কয়েক বছরের মধ্যে এমন বড় লোকসানের মুখে এর আগে কখন পরিনি।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মহিদুল ইসলাম বলেন, দুর্যোগ পরবর্তি সময়ে পুকুর গুলোতে অক্সিজেনের সল্পতা দেখা দেয়। আবার অনেক সময় এসিড বৃষ্টি অর্থাৎ বায়ুমন্ডলে যদি কোন কারণে এসিটিক বাতাস প্রবাহিত হয় আর ঠিক ঐ সময়ে যদি বৃষ্টি হয়। তাহলে বৃষ্টির সঙ্গে বাতাসের এসিডটা মিশ্রিত হয়ে পানিতে পড়ে। আর তখন পানিতে অক্সিজেন সল্পতা দেখা দেয় এবং পানির চঐ কমে যায় যার ফলে পানি এসিটিক হয় এবং মাছ মরে ভেসে ওঠে। তিনি আরো বলেন ক্ষতিগ্রস্ত মাছ চাষিদের তালিকাও প্রস্তুত করা হচ্ছে।

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জ:  নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের মিনাজপুর গ্রামের হাওরে ঘাস কাটতে গিয়ে বিষাক্ত সাপের কামড়ে আব্দুল আউয়াল (৩৫) নামে এক যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।  রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার মিনাজপুর গ্রামের মৃত আরব উল্লার পুত্র মোঃ আব্দুল আউয়াল গ্রামের পাশের হাওরে ঘাস কাটতে যায়। সারাদিন চলে গেলেও তার কোন খোঁজ না পাওয়ায় পরিবারের লোকজন তার সন্ধানে  বের হন।

অনেক খোঁজাখুজি করে দুপুর ২ টায় জমির মধ্যে তার নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করেন।

খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আজিজুর রহমান জানান- নবীগঞ্জ থানা পুলিশ আব্দুল আউয়ালের লাশ উদ্ধার করেছে। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে  বিষাক্ত সাপের কামড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

নবীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ   হবিগঞ্জে দুর্বৃত্তের হামলায় এক সাংবাদিক আহত হয়েছেন। আহত সাংবাদিকের নাম তারেক হাবিব। তিনি দৈনিক আমার হবিগঞ্জ নামের একটি স্থানীয় পত্রিকার প্রধান প্রতিবেদক। তারেক বর্তমানে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

শনিবার দুপুরে হবিগঞ্জ থানাসংলগ্ন শনির আখড়ার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

তারেক হাবিবের ভাষ্যমতে, একটি অনুষ্ঠানের খবর সংগ্রহ শেষে শনিবার দুপুরে রিকশায় করে অফিসে ফিরছিলেন তিনি। বেলা দুইটার দিকে তিনি শনির আখড়া এলাকায় পৌঁছালে রিকশাটির গতিরোধ করেন এমদাদুল ইসলাম ওরফে সুহেল, শাওন, জুয়েলসহ কয়েকজন। কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা রড, হকিস্টিক ও লাঠি দিয়ে তাকে বেধড়ক পেটানো শুরু করেন। একপর্যায়ে রিকশা থেকে টেনেহিঁচড়ে সড়কে নামিয়ে তাকে মারধর করেন। সঙ্গে থাকা মানিব্যাগ ও মুঠোফোন সেট ছিনিয়ে নিয়ে যান তারা। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান।

তারেক হাবিব দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকায় আছেন ৭-৮ মাস ধরে। পত্রিকায় প্রধান প্রতিবেদকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি রাজনীতিসংশ্লিষ্ট প্রতিবেদনগুলো করেন। হামলার ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি।

হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুক আলী বলেন, সাংবাদিক তারেক হাবিবের ওপর হামলার ঘটনাটি শুনেছি। আমি নিজে তার সঙ্গে কথা বলেছি। ঘটনাটি থানার পাশেই ঘটেছে। এখনো থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। তারপরও আমরা হামলাকারীদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া শুরু করেছি

জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধিঃ এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ৬ সেপ্টেম্বর রবিবার দুপুর ১২ টায় জৈন্তাপুর উপজেলার ৪নং বাংলাবাজার এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে ৪৮ বিজিবির শ্রীপুর ক্যাম্পের একটি টহল টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে অভিযান পরিচালনা করে ১টি ভারতীয় টিভিএস এপাচার মটর সাইকেল আটক করে শ্রীপুর ক্যাস্পে নিয়ে যায়৷ এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী আরও জানান কাটালবাড়ী, কেন্দ্রী, কেন্দ্রী হাওর দিয়ে প্রতিদিন চোরাকারবারী সিন্ডিকেট চক্রের সদস্যরা ভারতীয় নাছির বিড়ি, বিভিন্ন ব্যান্ডের সিগারেট, মাদকের বড় বড় চালান, টাটা গাড়ীর পার্স, টায়ার ও যন্ত্রাংশ, কসমেট্রিক্স সামগ্রীসহ দেশীয় প্রজাতীর ভারতীয় গরু বাংলাদেশে নিয়ে আসছে ৷
ভারতীয় সামগ্রী প্রবেশের কারনে ধানের ফসল নষ্ট করা হচ্ছে তার প্রতিরোধে তারা এলাকার সর্ব স্তরের জনসাধারন নিয়ে সভা করেছেন পরবর্তী সভায় তারা ফসল রক্ষায় চোরাচালান প্রতিরোধের ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানান৷ তারা আরও বলেন লাইনম্যান নামে একটি চক্র বিজিবি পুলিশের নামে চোরাকারবারীদের নিকট হতে চাঁদা আদায় করে এই রোড় ব্যবহার করে বানের পানির মত চোরাকারবার অব্যাহত রেখেছে ৷
যার কারনে চোরাকারবারীরা দিনে দুপুরে সকলের চোখের সামনে দিয়ে ভারতীয় মটর সাইকেল বাংলাদেশে নিয়ে আসছে ৷ সংশ্লিষ্ট আইন শৃঙ্খলা বাহিনী টহল জোরদার করলে লাইনম্যান ও চোরাকাবরীরা এরকম সুযোগ পেত না ৷
মটর সাইকেল অটকের বিষয় জানতে শ্রীপুর ক্যাম্পের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা আটকের কথা স্বীকার করে বলেন আপনি তথ্যের জন্য আমাদের ব্যাটালিয়নে যোগাযোগ করুন ৷

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc