Monday 21st of September 2020 06:38:39 PM

মিনহাজ তানভীর: শ্রীমঙ্গলে কারের ধাক্কায় আহত ব্যক্তি চিকিৎসাধীন অবস্থায়  সিলেটের একটি হাসপাতালে আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ন’টায় মৃত্যু  বরণ করেছেন।

মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার মৌলভীবাজার রোডস্থ ইসবপুর নামক স্থানে গত বুধবার বিকাল সাড়ে তিন ঘটিকায় একটি দ্রুতগতিসম্পন্ন প্রাইভেট কারের (ঢাকা মেট্রো গ ১৫-৪১৩৯) ধাক্কায় তিনি গুরুতর আহত হয়ে সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন  ছিলেন।
ঘটনার দিন সরেজমিন জানা গেছে মৌলভীবাজার থেকে ছেড়ে আসা শ্রীমঙ্গল গামী একটি দ্রুতগতিসম্পন্ন প্রাইভেট কার বাইসাইকেল আরোহী পথচারীকে পিছন থেকে রাস্তার ডান পাশে এসে ধাক্কা দিলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

পরে স্থানীয়রা সিএনজি যোগে প্রথমে শ্রীমঙ্গল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে অবস্থার অবনতি হলে আহত ব্যক্তিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহত ব্যক্তির নাম যাদু দেবনাথ (৫২) পিতা প্রফুল্ল দেবনাথ (লনি) গ্রাম ইসবপুর নাথ বাড়ি শ্রীমঙ্গল মৌলভীবাজার।

উল্লেখ্য যাদু দেবনাথের কলেজ ও স্কুলপড়ুয়া  দুই ছেলে সন্তান  রয়েছে।

পূর্বের নিউজ এর লিঙ্ক

শ্রীমঙ্গলে কারের ধাক্কায় গুরুতর আহত বাইসাইকেলারোহী

জানা গেছে তিনি খাইছাড়া চা বাগানে বিষ্ণু বাবু নামে একজনের পাট্টার দায়িত্বে রয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, বাইসাইকেল নিয়ে যাদু দেবনাথ তার বাড়ির রাস্তার মুখে প্রবেশ করার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই ঘটনাটি ঘটে। তার শরীরে প্রচন্ড জখম লেগে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গাড়ির চালক  ছিলেন মোহাম্মদ জুনাব আলী পিতা রজব আলী (সাবেক সেনাসদস্য) গ্রামের বাড়ি কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর এলাকার তেতই গ্রামে।

আলী হোসেন রাজন,জেলা প্রতিনিধি মৌলভীবাজারঃ  একটি পার্টিতে মাদক সেবন আর তারপর এক নারীকে ধর্ষণের স্বীকারোক্তি নিয়ে পাল্টাপাল্টি স্টেটাস দেয়া হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে। আর এ নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় চলছে মৌলভীবাজারে। যাকে বলে,টক অব দ্য টাউন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মৌলভীবাজারে সংবাদ২৪ নামক একটি অনলাইন পোর্টালের সম্পাদক মাহমুদ এইচ খান ২৫ আগষ্ট একটি ধর্ষণের ঘটনার বিবরণ সোশ্যাল মিডিয়ায় (তার ফেইসবুক পেইজে) তুলে ধরে, অভিযোগ করেন সামাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সজিবুল ইসলাম তুষার নেশাগ্রস্ত অবস্থায় এক মেয়েকে ধর্ষণ করেছে,অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন গত ৩ আগষ্ট তার নিজ বাসায় একটি পার্টির আয়োজন করা হয়, সেখানে একজন নারীবাদী ও এক্টিভিস্ট মার্জিয়া প্রভা, বাম নেতা রায়হান আনছারী, ছাত্রফ্রন্টের সজিবুল ইসলাম তুষার ও তার এক নারী বন্ধু যোগ দেন,খাওয়া-দাওয়া শেষে সেখানে সবাই গাঁজা সেবন করেন, এক পর্যায়ে নেশাগ্রস্থ হয়ে তুষার তার ঐ নারী বন্ধুকে জোরপূর্বক ভাবে ধর্ষণ করেন এবং এই কাজে তিনি বাঁধা দিলেও মার্জিয়া প্রভা ও রায়হান আনছারী তুষারকে এ কাজে সহযোগীতা করেছেন বলে তিনি তাঁর স্টেটাসে উল্লেখ করেন।

এর একদিন পর অভিযুক্ত তুষার সোশ্যাল মিডিয়ায় (ফেইসবুক আইডিতে) স্টেটাস দেন ঐদিন মাহমুদের বাসায় গাঁজা পার্টি বসেছিল, এবং নেশাগ্রস্থ অবস্থায় ঐ মেয়েটির সাথে তাঁর অন্তরঙ্গতা হয়,তবে ধর্ষণের বিষয়টি অস্বিকার করে তিনি ঐ মেযেটির আগ্রহে এ কাজ করেছেন তা অকপটে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্বীকার করেন। এ ঘটনার পর মাহমুদ, তুষার, মার্জিয়া প্রভা ও রায়হান আনছারী ও তুষারের সেই নারী বন্ধু মারিয়ার প্রকাশ্যে মাদক সেবন ও নারী-পুরুষের সাথে অন্তরঙ্গতার বেশ কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে, এ নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় চলছে মৌলভীবাজারে। আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ।
এদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় এ  ঘটনার সত্যতা অকপটে স্বীকার করার পর মৌলভীবাজার সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও শহর শাখার সভাপতি সজিবুল ইসলাম তুষারকে সংগঠনের সকল প্রকার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল -বাসদ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির বর্ধিত ফোরামের সদস্য রায়হান আনছারীকেও সংগঠনের সকল প্রকার দায়িত্ব থেকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

এই সংগঠনগুলোর প্যাডে লিখিত ভাবে উল্লেখ করা হয় তাদের বিরুদ্ধে সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী কার্যক্রম ও অনৈতিক জীবনযাপনে নিয়োজিত থাকার অভিযোগ রয়েছে। তাই তাদেরকে এ অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। আর মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবও মাহমুদ এইচ খানের সহযোগী সদস্যপদ বাতিল করেছে, রবিবার সন্ধ্যায় প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির এক জরুরী সভায় প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র বিরোধী কার্যকলাপের কারণে মাহমুদ এইচ খানের সহযোগী সদস্যপদ বাতিল করা হয়।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে মাহমুদ এইচ খান সুনাপুর এলাকায় (সুনাপুর প্লেইস-২২৩) নাম্বার বাসার ২য় তলায় ভারাটিয়া ছিলেন, এই বাসার মালিক সিরাজ মিয়া প্রবাসে (লন্ডনে) থাকেন, গণী মিয়া নামের একজন কেয়ার-টেকার এই বাসাটি দেখাশুনা করেন। মাহমুদ এই বাসাটি তার স্ত্রী,মা ও বোন কে নিয়ে থাকবেন বলে ভাড়া নিয়েছিলেন, কিন্তু কিছুদিন পড় তার মা -বোন এখান থেকে অন্যত্র চলে যান,আর তাঁর স্ত্রী ঢাকায় একটি স্কুলে শিক্ষকতা করেন তাই তিনিও ঢাকায় চলে যান, মাঝেমধ্যে এখানে আসা যাওয়া করতেন বলে বাড়ির কেয়ার টেকার জানান। তিনি বলেন প্রায়ই পার্টি হত তার ফ্লাটে,উচ্চ স্বরে গান-বাজনা হত, সেখানে মেয়েরাও আসত মাহমুদ তাদেরকে তার বন্ধু বলে পরিচয় দিতেন। নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক মাহমুদের এক প্রতিবেশী বলেন, মাহমুদের বাসায় মেয়েদের আসাযাওয়া ছিল নিয়মিত। তাঁর এসব পার্টিতে যোগ দিতেন মৌলভীবাজারের বাম ছাত্র সংগঠনগুলোর বেশ কয়েকজন বর্তমান ও সাবেক নেতারা।
মাহমুদ ও তুষারের মদ গাঁজা ও নারী ধর্ষণের এমন সত্যতার স্বীকারোক্তিতে এখনও নীরব রয়েছে প্রশাসন। তবে জেলার সচেতন মহল এসব কিছুকে অপরাধ হিসেবে দেখছেন। বাম সংগঠনের সাথে জড়িত কয়েজন সদস্য নিয়মিত মাদকের আসর বসাতেন এমন সত্যতার স্বীকারোক্তি দেওয়ার পরেও এ বিষয়ে প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না কেন এমন প্রশ্ন এখন জেলার সাধারণ মানুষের।
এ ব্যাপারে মৌলভীবাজার সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিয়াউর রহমান বলেন, এ ঘটনার পর থানায় গিয়ে ভিকটিম কিংবা মাহমুদ কোন লিখিত অভিযোগ করেননি। বিষয়টি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হবার পড় ভিকটিম থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন, অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
শান্ত শহর মৌলভীবাজারে সামাজিক সংগঠনের আড়ালে এমন অশ্লীল কার্যক্রম করে পরিবেশ নষ্ট না করার আহবান জানাচ্ছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এ জেলার সাধারণ মানুষ পাশাপাশি অবিলম্বে অপরাধীদের শাস্তির আওতায় নিয়ে আসার দাবী জানিয়েছেন তারা।

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগঞ্জ:  ৫ দিন লড়াই করে অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন হবিগঞ্জ শহরের ‘সেন্ট্রাল হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে’ টিউমার অপারেশ করতে গিয়ে জরায়ু কেটে দেয়া খদর চাঁন বিবি (৬৫)। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে সিলেটের ‘মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে’র আইসিইউতে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিহত খদর চাঁন বিবির ভাগ্নে মহিবুল ইসলাম শাহীন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘শঙ্কটাপন্ন রোগী তিনদিন সিলেট হাসপাতালে ভর্তি থাকলেও একদিনও খবর নেননি জরায়ু কেটে দেয়া চিকিৎসক ডাঃ আরশেদ আলী। রোগী মারা যাওয়ার পর আমরা ডা. আরশেদ আলীর সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেছি। কিন্তু তিনি এক রকম গাঁ ঢাকা দিয়ে রয়েছেন।’ তবে সেন্ট্রাল হসপিটাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি সমাধানে নিহত খদর চাঁন বিবির পরিবারের সাথে আলোচনায় বসতে চায় বলেও জানান তিনি।

শাহিন বলেন- ‘আমরা চাই ডা. আরশেদ আলী ও সেন্ট্রাল হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হোক। এজন্য ইতোমধ্যে আমরা প্রশাসনকে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানিয়েছি। যদি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ডা. আরশেদ আলীসহ দুষিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয় তাহলে আমরা আইনের আশ্রয় নেব।’

এদিকে, শুক্রবার বিকেলে যানাজা শেষে নিহত খদর চাঁন বিবির লাশ তার গ্রামের বাড়ি বানিয়াচং উপজেলার মক্রমপুর গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

বিষয়টি সম্পর্কে ডা. আরশেদ আলী বলেন- ‘ভুল হতেই পারে, তবে দীর্ঘ চিকিৎসা জীবনে অনেক অপারেশন করেছি এমন কোন ঘটনা ঘটেনি। এই রোগীর কিডনিতে আরও আগের থেকেই সমস্যা ছিল যার কারণে এমনটা হয়েছে।’
সকল অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন- ‘সেন্ট্রাল হসপিটাল ও আমার পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক একজন ব্যক্তি রোগীর খোঁজ নিচ্ছেন। এক ঘন্টা পরপরই রোগীর স্বজনদের মোবাইল কলের মাধ্যমে সর্বশেষ অবস্থার খবর নেয়া হচ্ছে। এছাড়া সিলেট চিকিৎসা করাতে যা খরচ হচ্ছে সবটাই আমাদের পক্ষ থেকে দেয়া হচ্ছে।’ বিষয়টি সমাধানের জন্য নিহত নারীর পরিবারের সাথে আলোচনায় বসে সমাধানের চেষ্টা করা হবে বলেও জানান তিনি।

টেলিভিশন, বেতার,আইপি টিভি ও ইন্টারনেট রেডিওর অনলাইন সংস্করণের পৃথক নিবন্ধন নিতে হবে। 

কেবল অনলাইন নিউজ পোর্টাল নয়, টেলিভিশন, বেতার ও দৈনিক পত্রিকাগুলোর অনলাইন সংস্করণ এবং আইপি টিভি ও ইন্টারনেট রেডিও চালাতে হলে সরকারের কাছ থেকে পৃথক নিবন্ধন নিতে হবে।
এসব ক্ষেত্রে আলাদা নিবন্ধন নেয়ার বাধ্যবাধকতা রেখে অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা সংশোধনের প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার মন্ত্রিসভা বৈঠকে ‘জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা, ২০১৭’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়।
সভা শেষে এক ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, আগের নীতিমালার নয়টি অনুচ্ছেদ সংশোধন করে পাঁচটি নতুন অনুচ্ছেদ অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধনের যোগ্যতা-অযোগ্যতা, নিবন্ধন ফি, কর্তৃপক্ষ নির্ধারণ, লাইসেন্সপ্রাপ্ত টেলিভিশন চ্যানেল এবং বেতারের নিউজ পোর্টাল হিসেবে প্রচারকাজ পরিচালনা এবং আইপি টিভি ও ইন্টারনেট রেডিওর সম্প্রচার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো নির্দেশনা (নীতিমালায়) ছিল না, এখন এগুলো যুক্ত করা হচ্ছে।
সচিব বলেন, দেশের টেলিভিশন এবং বেতারগুলো এখন নিউজ পোর্টাল চালাচ্ছে। এতদিন এজন্য অনুমতি নিতে হত না, এখন নিতে হবে। এছাড়া আইপি টিভি, ইন্টারনেট রেডিও সম্প্রচারের বিষয়ে (নীতিমালায়) সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা ছিল না, এসব বিষয় নীতিমালায় যুক্ত করা হচ্ছে।
সচিব জানান, পত্রিকাগুলো তাদের ছাপা সংস্করণ হুবহু ওয়েবসাইটে প্রকাশ করলে কোনো অনুমোদন লাগবে না। তবে পত্রিকার ছাপা সংস্করণ থেকে আলাদা কোনো কনটেন্ট অনলাইনে প্রকাশ করলে নতুন করে নিবন্ধন নিতে হবে।বৈঠকে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ (সংশোধন ) আইন, ২০২০ খসড়া, চিকিত্সা মহাবিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদ (রহিতকরণ) আইন, ২০২০ খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। এ ছাড়া সোনাদিয়া গভীর সমুদ্রবন্দর কর্তৃপক্ষ আইন, ২০১২-এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন বিষয়ে ২০১২ সালের ২ জানুয়ারি মন্ত্রিসভা কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত বাতিলের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়।
প্রসঙ্গত, দেশের অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোর নিবন্ধনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ২০১৭ সালের ৫ জুলাই জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা গেজেট প্রকাশ করে সরকার। নিবন্ধনের জন্য প্রথম দফায় গত ৩০ জুলাই ৩৪টি অনলাইন পোর্টালকে অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে সেগুলো এখনও নিবন্ধন হয়নি। অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে ফি নির্ধারণের পর নিবন্ধন শুরু হবে বলে তথ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:  নওগাঁর আত্রাইয়ে প্রেমের টানে প্রেমিকার ঘরে গিয়ে ধর্ষণ মামলার আসামি হয়ে এখন শ্রী ঘরে এক বালক। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার দিবাগত রাত সোয়া ১ টার দিকে উপজেলার বাঁকিওলমা গ্রামে।
জানা যায়, ওই গ্রামের নূরুল ইসলামের মেয়ে নবাবেরতাম্বু উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর ছাত্রীর সাথে বেশ কিছু দিন পূর্ব থেকে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে একই বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর ছাত্র বিপ্রবোয়ালিয়া গ্রামের প্রবাসী আমান খলিফার ছেলে তারিকুল ইসলাম (১৬)।
এদিকে প্রেম ও বিয়ের প্রলোভন দিয়ে কিশোরী মেয়ের সাথে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে তারিকুল। এরই এক পর্যায় গত শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে তারিকুল ওই মেয়ের বাড়িতে গিয়ে ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক মেয়ের সাথে দৈহিক মেলামেশা করে। বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয় লোকজন তাকে হাতেনাতে আটক করে। পরে দিনভর বিষয়টিকে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা এবং রফাদফা করতে ব্যার্থ হওয়ায় অবশেষে পুলিশকে সংবাদ দিলে শনিবার বিকেলে পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
আত্রাই থানার ওসি (তদন্ত) মোজাম্মেল হক বলেন, এ ব্যাপারে মেয়ের মা আমেনা বেগম বাদি হয়ে আত্রাই থানায় একটি ধর্ষণ মামলা রুজু করেছেন। এ মামলার ভিত্তিতে আমরা মেয়েটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে প্রেরন করেছি। রোববার প্রেমিক আসামি তারিকুলকে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মিজানুর রহমান,চুনারুঘাট থেকেঃ  দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বনাঞ্চল রেমা-কালেঙ্গা বন্যপ্রানী ও অভয়ারন্য সড়কের বেহাল দশা। স্বাধীনতার পর যুগে যুগে চলছে সড়ক উন্নয়ন। সরকার রদবদল হয়েছে। বদল হয়েছে স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান।

কিন্তু সড়কের উন্নয়ন রাস্তায় ধান রোপনের পর্যায়। স্থানীয় সংসদ সদস্য মাননীয় বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এড. মাহবুব আলীসহ সকল জনপ্রতিনিধির আশ্বাস রয়েছে। বাস্তবে কোন কিছুই হয়নি। এসব দেখার দায়িত্ব কার ?

চুনারুঘাট শহরের ডাক বাংলা রোড থেকে কালেঙ্গা পর্যন্ত রাস্তাটি প্রায় ১৫কিমি। উক্ত রাস্তার বড়জুষ বাজার থেকে কালেঙ্গা বাজার পর্যন্ত ৪কি.মি. রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে দুর্ভোগে পড়েছেন ১৫টি গ্রামের মানুষ। প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।

এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের প্রতি দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

জানা গেছে, উপজেলার ডাক বাংলো স্ট্যান্ড থেকে কালেঙ্গা বাজার পর্যন্ত ১৫ কিলোমিটার রাস্তা। এর মাঝে বড়জুষ বাজার থেকে কালেঙ্গা পর্যন্ত তিন কিলোমিটার এলাকায় খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকাংশেই সৃষ্টি হয়েছে বড় গর্ত। প্রায় চলাচলের অনুপযোগী কিছু অংশ। যে কারণে প্রায়ই দুর্ঘটনার শিকার হতে হয় যাত্রীদের।

স্থানীয়রা জানান, কয়েক বছর ধরে মেরামত না হওয়ায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) এ রাস্তাটিতে চলাচলে বিপাকে পড়েছেন কালিকাপুর উচ্চ বিদ্যালয়, মিরাশী উচ্চ বিদ্যালয়, চুনারুঘাট সরকারি কলেজ ও রানীগাঁও মাসুদ চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় কলেজের ছাত্রছাত্রীসহ আশপাশের ১৫টি গ্রামের মানুষ। এ বিষয়ে শীঘ্রই ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন তারা।

এ ব্যাপারে এলজিইডি’র উপজেলা প্রকৌশলী মিশুক কুমার দত্ত বলেন, শীঘ্রই সরকারের উন্নয়ন প্রকল্প দ্বারা রাস্তাটি পাকাকরণের কাজ হাতে নেওয়া হবে।

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি:  হবিগঞ্জে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের ‘আর্ট মানিয়া’ অফিস উদ্বোধন করেছেন হবিগঞ্জ পৌর সভার মেয়র মো. মিজানুর রহমান মিজান। সোমবার (৩১ আগস্ট) বিকেলে শহরের টাউন হল রোডের এ.আর প্লাজা মার্কেটে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ওই প্রতিষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন তিনি। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট সমাজসেবক মুহিবুর রহমান চৌধুরী ও মো. শহীদুল ইসলাম।
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, টেলিটোন ইলেক্ট্রনিক্স ব্যবসায়ী তপন দেব, ব্লো জুনের ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান উজ্জ্বল, আর্ট মানিয়া প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী ফটোগ্রাফার রায়হানুর রহমান চৌধুরী, সাংবাদিক সানিউর রহমান তালুকদার, আর্ট মানিয়ার সদস্য নয়েল চৌধুরী, শেখ মাহী, জি.এ কায়েস, ইশফাক আহমেদ সিয়াম, আব্দুল্লাহ আমিন, শাহরিয়ার সাকিব ও জুবায়ের শুভ প্রমুখ।
এদিকে, ওই প্রতিষ্ঠানে বিয়ে, গায়ে হলুদ, স্টেজ প্রোগ্রাম, বার্থডে পার্টিসহ প্যাকেজ অনুযায়ী যেকোনো অনুষ্ঠানের নিখুঁতভাবে ভিডিও-ফটোগ্রাফির যাবতীয় কাজ করা হয়।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc