Saturday 30th of May 2020 01:49:13 PM

“তাহলে তারাও এই বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষা পেতঃতথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ”

ডেস্ক নিউজঃ  তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি নেতাদের কথায় মনে হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) চেয়েও তারা স্বাস্থ্য বিষয়ে বেশি জ্ঞান রাখেন। তিনি বলেন, বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল রুহুল কবির রিজভী এবং আরো কোনো কোনো নেতার বক্তব্যে মনে হয়, তাদের পরামর্শটা যদি ইউরোপ-আমেরিকা শুনত, তাহলে তারাও এই বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষা পেত।’

আজ (বৃহস্পতিবার) সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সংক্ষিপ্ত প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি একথা বলেন। বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী আওয়ামী লীগের ‘আমরা করোনার থেকেও শক্তিশালী’- এ মন্তব্যকে কটাক্ষ করার জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের সাধারণ সম্পাদক এ কথাটি প্রতীকী অর্থে বলেছিলেন। অর্থাৎ সম্মিলিতভাবে যাতে আমরা সবাই জাতি-ধর্ম-বর্ণ-দল-মত নির্বিশেষে এই করোনা মোকাবিলা করি সেই অর্থেই কথাটি বলেছিলেন। সেই কথার অর্থ না বোঝা তাদের ভাষাজ্ঞানের অভাব। আমি আশা করব, বিএনপি নেতারা এ কথার সঠিক অর্থ বুঝবেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি নেতারা শুধু সমালোচনা করছেন, কিন্তু পৃথিবীর দিকে তাকাচ্ছেন না, কারণ তাদের এই সমালোচনার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে সরকারের কর্মকাণ্ডকে প্রশ্নবিদ্ধ করা।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আজকের এই পরিস্থিতিতে পৃথিবীর প্রায় সব দেশে সমস্ত দল একযোগে সরকারের সহযোগী হিসেবে একসঙ্গে কাজ করছে জনগণকে রক্ষা করার জন্য। এমনকী ভারতেও প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসসহ কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে।কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, সেই কাজটি বিএনপি করেনি, করতে পারেনি, কারণ তারা সেই সংস্কৃতিটি লালন করে না। বরং তারা ‘পলিটিক্স অব ডিনায়াল’ আর ‘পলিটিক্স অব কনফ্রনটেশন’-এ বিশ্বাস করে।

আক্ষেপ করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমরা আশা করেছিলাম মানুষের এই দুর্যোগের সময় তারা তাদের চিরাচরিত ‘না বলার রাজনীতি আর সাংঘর্ষিক রাজনীতি’ থেকে বেরিয়ে আসবে, কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য তারা বেরিয়ে আসতে পারেনি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যেখানে স্পেন-ইতালিতে এখনো প্রতিদিন প্রায় ২শর মতো মানুষ মারা যাচ্ছে, সেখানে তারা লকডাউন শিথিল করেছে, ভারতে প্রতিদিন একশ’র বেশি মানুষ মৃত্যুবরণ করছে, সেখানেও অনেক জায়গায় লকডাউন শিথিল করা হয়েছে- এসবই মানুষের জীবিকা রক্ষার কারণে। বাংলাদেশেও মানুষের জীবনের পাশাপাশি জীবিকা রক্ষার জন্যই নানা সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, “বাংলাদেশে এখনো পর্যন্ত করোনায় মৃত্যুহার ইউরোপ, আমেরিকার চেয়ে কম। এমনকি প্রতিবেশী ভারত, পাকিস্তানের চেয়েও কম। সৃষ্টিকর্তার দয়া ও বিশ্বে করোনার প্রাদুর্ভাবের পরই বাংলাদেশে আসার আগেই প্রধানমন্ত্রীর নানা দূরদর্শী পদক্ষেপের কারণেই সেটা সম্ভব হয়েছে। আর মানুষ যাতে আক্রান্ত না হয়, সেই লক্ষ্য নিয়েই আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।”

জহিরুল ইসলাম.নিজস্ব প্রতিবেদক: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমজীবী ও অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে শ্রীমঙ্গল ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট নামের একটি নব গঠিত সমাজ সেবা সংস্থা।

আজ বৃহস্পতিবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।শ্রীমঙ্গল ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্টের সমন্বয়ক ডা.আব্দুল বাতিন তালুকদার এই প্রতিনিধিকে বলেন,করোনা পরিস্থিতিতে দেশের বাহিরে থাকা প্রবাসী বন্ধুদের সহায়তায় ও  স্থানীয় বন্ধুদের সমন্বয়ে প্রায় শতাধিক মানুষের মাঝে আমরা খাদ্যসামগ্রী গুলো তুলে দেই। শ্রীমঙ্গলের কলেজ রোড, শ্যামলী, বিরাইপুর, সুরভীপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ এই খাদ্যসামগ্রী পেয়েছে।খাদ্য সামগ্রীগুলোর মধ্যে ছিলো ৫ কেজি চাল, ৩ কেজি আলু, ১কেজি ডাল, ১ কেজি পেয়াজ, ১ লিটার সয়াবিন তেল, ১ কেজি চিনি, ২ প্যাকেট সেমাই, ১ প্যাকেট দুধ।
করোনা পরিস্থিতিতে আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।আমরা আরো বৃহত আকারে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করবো। আমরা চেষ্টা করছি করোনাকালে শ্রীমঙ্গলের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য।সমাজের সকল বিত্তবানরা যদি এগিয়ে আসে তাহলে এই দুঃসময়ে অসহায় মানুষরা বাড়িতে নিরাপদে থাকতে পারবে।

নূরুজ্জামান ফারুকী,নবীগঞ্জ থেকে:  মূল্য তালিকা না থাকা ও অনুমোদনহীন স্যালাইন এবং অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার বিক্রির দায়ে নবীগঞ্জ বাজারে ২ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।  বুধবার বিকেলে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মমিন এই অভিযান পরিচালনা করেন।
অভিযানে পরিলক্ষিত হয় শেরপুর সড়কের ফ্যামিলি শপে নেই মূল্য তালিকা। রয়েছে বিএসটিআই অনুমোদনহীন স্যালাইন। এই দুই অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটিকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই এলাকার তারিন সুইটস নামক অপর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ হওয়ায় জরিমানা আদায় করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মমিন। তিনি এই অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

শ্রীমঙ্গলে আবারও ভাড়া না দেওয়ার অজুহাতে ঘর থেকে বেড় করে দেওয়ার অভিযোগ,কলোনি মালিকের অস্বীকার। শেষ পর্যন্ত সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান আশিকের দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণে বাসায় ফিরলেন ঐ ঘর হারা নারী।

জহিরুল ইসলাম,নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশ বিদেশে করোনার ছোবলে নিম্ন ভিত্ত, নিম্ন মধ্য ভিত্ত থেকে মধ্য ভিত্তরা আজ বড় অসহায়। এর মধ্যে  মৌলভীবাজারে শ্রীমঙ্গলে শাপলাবাগ রুবেল মিয়ার কলোনি থেকে ঘর ভাড়ার জন্য দরিদ্র এক মহিলাকে দুইটি শিশু বাচ্চাসহ বাহির করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে কলোনির মালিকের বিরুদ্ধে। সামাজিক অনলাইন  নেটিজেনদের মাধ্যমে এমন সংবাদ পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান আশিক দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করে ঐ নারী ও তার সন্তানদের ফিরিয়ে দেন তার ভাড়াটিয়া বাসায় এবং সতর্ক করে দেন কলোনির মালিক পক্ষকে। যদিও প্রথমে থানার পক্ষ থেকে কে বা কারা পরের দিন বিষয়টি দেখে দিবে বলে মহিলাকে জানিয়েছিল।

বুধবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে শেখ সারওয়ার জাহান নামে এক নেটিজেন প্রথম তার ওয়ালে ছবিটি প্রকাশ করে,পরে তা ভাইরাল হয়ে যায়।

মুল ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (১৩মে) দিবাগত রাত ১১ টার দিকে শ্রীমঙ্গল থানার সামনে একটি দোকানের বারান্দায় ছেলে মেয়ে দেরকে নিয়ে ঘুমিয়ে থাকতে দেখে বেশ কজন নেটিজেন পথচারী ও পরে গণমাধ্যকর্মীসহ তারা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মহিলার ঘুমিয়ে থাকার ছবি ও ভিডিও নিয়ে রাত ১২ টার দিকে পোষ্ট দিলে বিষয়টি মুহুর্তেই আরও বেশ কয়েকটি ফেইসবুক আইডিতে ছড়িয়ে পরে। সামাজিক যোগাযোগ ফেইসবুকের মাধ্যমে এমন ঘটনার খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান আশিক মহিলা ও তার সন্তানদের থানায় নিয়ে থাকার ব্যবস্থা ও খাবারের সুবিধা করে দেন। পরে রাত ৪টার দিকে শাপলাবাগ কলোনির ভাড়া বাসাতে তোলে দিয়ে আসেন এবং নগদ টাকা তার হাতে দিয়ে আবার কোন সমস্যা হলে তাকে জানাতে অনুরোধ করেন আশরাফুজ্জামান আশিক।

মহিলাটি জানায় ৭০০টাকা বাসা ভাড়া, আড়াই মাসের ভাড়া বকেয়া ছিলো, বাসার মালিক ভাড়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করলে, কষ্ট করে ১মাসের ভাড়া পরিশোধ করে দেয়।বর্তমানে দেড় মাসের ভাড়া বকেয়া আছে।বাকি দেড় মাসের বাসা ভাড়ার জন্য শহরের শাপলাবাগ এলাকায় কলোনি মালিক রুবেল মিয়া অসহায় মহিলাকে ভাড়ার জন্য বাসা থেকে বের করে দিয়েছে।

এ ভাবেই সতর্ক করে দেন কলোনির মালিক রুবেল মিয়া ও তার বাবাকে এএসপি আশরাফুজ্জামান আশিক 

কলোনির মালিক রুবেল মিয়া জানায়, এই মহিলা এপ্রিল মাসের ২০ তারিখ তার কাছে গিয়ে কান্নাকাটি করে থাকার একটি রুম দেয়ার জন্য, পরে তার কলোনির একটি রুম ভাড়া দেয় যার ভাড়া তিনি ১ হাজার টাকা, মহিলাটি কান্নাকাটি করে বলে এতো টাকা বর্তমানে ভাড়া দিতে পারবে না, করোনাভাইরাস শেষ হলে পরে ভাড়া দিবে।পরে রুবেল মিয়া আপাদত ৭০০ টাকা ভাড়া নেয়।বর্তমানে ওই মহিলার বকেয়া কোন ভাড়া নেই।তিনি আরও বলেন,এই মহিলা গত কয়েকদিন আগে আরও একটি বিয়ে করেছে, বিয়ের কয়েক দিন পর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা হয়, তা জিআর পি থানা পুলিশ সমাধান করে দেয়, এর কিছু দিন পর থেকেই এই মহিলাকে রুবেল মিয়া খোজে পাচ্ছেন না।ওনার ধারনা ছিলো স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা শেষ হওয়ার পর হয়তো বা অন্য কোথাও গিয়েছে।

অপর দিকে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মী সৈয়দ আবু জাফর সালাউদ্দিন আমার সিলেটের এই প্রতিনিধিকে বলেন,”আমার ফেইবুকে এই মহিলার পোষ্ট দেখে বিদেশ থেকে আমার ভাগিনা ৩ মাসের ঘর ভাড়া ২১ শত টাকা ও আরেক জন ২১ শত টা আমার কাছে দিয়েছে এবং আমার বন্ধু মহল থেকে আরোও ৯ হাজার ২ শত টাকা আসে বৃহস্পতিবার বিকালে ঐ মহিলার কাছে নগদ টাকা ও কাপড় ছোপড় পৌছে দিবো।

এ ব্যাপারে এএসপি আশরাফুজ্জামান আশিক বলেন, আমরা অঙ্গিকার করেছি মানুষের সেবা করার,সেটা হউক রাত বা দিন।যখনই সমস্যা তখনই সমাধানের চেষ্টা আমাদের কর্তব্য। আজকের কাজ কালকে করা এমনটি আমি বিশ্বাস করি না।তাই যখনই সংবাদটি আমার নজরে পড়েছে তাৎক্ষনিক ভোর রাতেই ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করেছি এবং ওদের বাসায় ফিরিয়ে দিয়েছি। পূর্বের সংবাদের লিঙ্ক-

শ্রীমঙ্গলে ভাড়ার জন্য ভাড়াটিয়াকে বের করে দেয় বাসার মালিক

নূরুজ্জামান ফারুকী নবীগনজ থেকেঃ  নবীগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ২  জন স্বাস্থ্যকর্মী ও একই পরিবারের ৩ জন সহ ৬ জন  করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ১ জন স্থানীয় স্বাস্থ্যবিভাগ কর্তৃক গঠিত ‘করোনা র‌্যাপিড রেসপন্স টিম’ এর সদস্য। মঙ্গলবার (১২মে) রাত ৯ টায় বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জানা যায়,নবীগঞ্জ  উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা রেসপন্স টিমের সদস্য  ও আরেক জন উপজেলার করগাঁও ইউনিয়ন মুক্তাহার কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি হিসাবে দীর্ঘদিন থেকে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের পুরুষ উত্তমপুর গ্রামের ঢাকা ফেরত পরিবহন শ্রমিক তার স্ত্রী ও তাদের ১৮ বৎসর বয়সের ১ ছেলে সহ একই পরিবারের ৬ জন সদস্যের মধ্যে ৩ জন আক্রান্ত হয়েছে। এরা কয়েকদিন পূর্বে ঢাকা থেকে বাড়িতে এসেছিল।এছাড়া উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়ন ৬৫ বৎসর বয়েসের বৃদ্ধ আক্রান্ত হয়েছেন।একই পরিবারের আরেক সদস্য কয়েক দিন আগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এদিকে আজ মঙ্গলবার ২জন স্বাস্থ্য কর্মীর রিপোর্ট পজেটিভ আসায় নবীগঞ্জ  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।নবীগঞ্জে এ পর্যন্ত একই পরিবারের ৩ জনসহ সর্বমোট ১৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ চম্পক কিশোর সাহা জানান, আমাদের র‌্যাপিড রেসপন্স টিমের একজন সদস্য  সহ ৪ জন স্বাস্থ্যকর্মী  করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং একই পরিবারের স্বামী-স্ত্রী ও ১ ছেলে সহ ৩ জন আক্রান্ত হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আব্দুস সামাদ বলেন ২ জন স্বাস্থ্য কর্মী ও একই পরিবারের ৩ জন সহ ৬ জনের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসা-বাড়িতে অবস্থানের পরামর্শ দেন।

তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী র্দীঘ পাঁচ বছর যাবত প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে শারীরিক শক্তি সামর্থ্য হারিয়ে,নিজ বাড়িতে আছে। টাকার অভাবে পারছেন চিকিৎসা করাতে।
মঙ্গলবার এমননি সংবাদ সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হলে বুধবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ৫হাজার ও সমাজ সেবা কায্যলয় থেকে ৫হাজার টাকা,চিকিৎসা ভাতাসহ প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর বাড়ি তাহিরপুর উপজেলার মধ্য তাহিরপুর গ্রামের বাড়িতে  গিয়ে হাতে তুলে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যনাঁকড়ান
এসময় তিনি মুক্তিযুদ্ধার সার্বিক খোঁজ খবর নেন। এসময় তিনি জানান,প্রধানমন্ত্রী বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে একটি ঘর নির্মান করে দেওয়া হবে। আর উপজেলা প্রশাসন সব সময় পাশে আছে।
এসময় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার রফিকুল ইসলাম,তাহিরপুর উপজেলার  সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন,উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক ডাঃ সুমন চন্দ্র বর্মন,সালাহ উদ্দিন মুনসহ স্থানীয় লোকজন।
উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা আ,লীগের সাধারন সম্পাদক হোসোইন শরীফ বিপ্লব জানান,প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ও র্দীঘ পাঁচ বছর ধরে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে শারীরিক শক্তি সামর্থ্য হারিয়ে নিজ বাড়িতে শয্যাশায়ী মুক্তিযুদ্ধা পাশে দাড়ানোর জন্য  ইউএনওসহ সবাই ধন্যবাদ জানাই।
বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর সন্তান শাওন জানান,বুধবার ইউএনও স্যার ফোন দিয়ে সহায়তা করার আশ্বাস দিয়েছেন আজ চিকিৎসা ভাতাসহ আজ বুধবার (১৩ মে) নগদ ১১,৮০০টাকাসহ খাদ্য সহায়তা পেয়েছি। আমার বাবা পাঁচ বছর যাব প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে আছেন,টাকার অভাবে সুচিকিৎসা ও ঔষধ কিনতে পারছিলাম না।  তা আমাদের অনেক উপকার হয়েছে।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জি বলেন,বুধবার সংবাদ মাধ্যমে জানার পর মুক্তিযুদ্ধা সন্তানের সাথে ফোনে কথা বলে খোঁজ নিয়েছিলাম এবং সহায়তার আশ্বাস দিয়েছিলাম। মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর বিষয়ে আমাকে কেউ জানায় নি। জানালে আগেই সহায়তা করা হত।
উল্লেখ্য,উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী র্দীঘ পাঁচ বছর যাবত প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে শারীরিক শক্তি সামর্থ্য হারিয়ে,নিজ বাড়িতে আছে। তার মুক্তিযোদ্ধা সনদ নং:-১৮১০০৭,মুক্তিবার্তা নং (লাল বই) ০৫০২০৮১১৮,গেজেট নং-৩১১২,মোবাইল নং-০১৯০৮৩১১৯২৬। টাকার অভাবে সুচিকিৎসা করতে পারছেন না। এদিকে অসুস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা ভাতা ১লাখ টাকা ৫৫জনের মধ্যে প্রদান করা হলেও েসাদেক আলী পাঁচ বছর যাবত বিছানায় পরে থাকার পরও চিকিৎসা ভাতার তালিকাতে তার নাম নেই।

আলী হোসেন রাজন,মৌলভীবাজারঃ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ ঝুঁকি রোধে মৌলভীবাজার জেলায় চলছে লকডাউন। এতে কর্মহীন হয়ে পড়েছে লাখ মানুষ। কর্মহীন ও হতদরিদ্র এসব মানুষের মধ্যে খাদ্য সমগ্রী বিতরন করেছে আর্ত মানবতার সেবায় পরিচালিত জয়যাত্রা ফাউন্ডেশন ও মৌলভীবাজার ক্যাবল সিস্টেম্স নেটওয়ার্ক (এমসি.এন)।
মৌলভীবাজার পশ্চিম কালেঙ্গা জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, স্বাস্থ্য বিধি মেনে ৭৫ জন হতদরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন মৌলভীবাজার ক্যাবল সিস্টেম্স এমসি.এন এর ম্যানেজার কাজী রায়হান পারভেজ, কমলগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ রহিমপুরের মেম্বার মুজিব আহমদ, মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এ.এস.কাঁকন, এমসি.এন এর পুষন্য কুমার চৌধুরী ও এমসি.এন এর অন্যান্য সদস্যরা। খাদ্য সামগ্রীর প্রতিটি প্যাকেটে রয়েছে চাল, ডাল, তৈল, আলু, দুধ, সেমাই, লবন ও আটা।
খাদ্য সামগ্রী বিতরণে বক্তারা বলেন মহামারী করোনাভাইরাসের এই দূর্যোগের সময় সরকারের পাশা পাশি এভাবে ত্রান সহায়তা নিয়ে সামর্থ্যবান ও বিত্তশালীরা এগিয়ে আসলে অসহায় কর্মহীন মানুষের কষ্ট কিছুটা লাগব হবে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc