Thursday 2nd of April 2020 08:50:59 PM

কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যসচিব মোহাম্মদ আসাদুল ইসলাম।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত ৩ জনের সংস্পর্শে এসেছে এমন ৪০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যসচিব মোহাম্মদ আসাদুল ইসলাম। আজ সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে এ কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম। স্বাস্থ্যসচিব বলেন, বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার প্রটোকল অনুযায়ী, তাদের আমরা ফার্স্ট কন্ট্রাক্ট ধরব, এক্সটেন্ডেড কন্ট্রাক্ট ধরব, তাদের কীভাবে কোয়ারেন্টাইল করব- সবকিছু ফলো করেই আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, অবশ্যই আছে। এ আশঙ্কা রোধের জন্য আমরা ব্যবস্থাও করেছি। তাদের কন্ট্রাক্ট ট্র্যাকিং করে কোথায় গেছে, কাদের সঙ্গে মিশেছে- সবকিছু করে…আমরা প্রথমজনের জন্য ৪০ জনকে ট্র্যাক করেছি। কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করেছি। তিনি বলেন, স্কুল-কলেজ বন্ধ করার মতো অবস্থা এখনো সৃষ্টি হয়নি। তবে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আপাতত বড় ধরনের জমায়েত এড়িয়ে চলতে হবে। সবাইকে সাবধান থাকতে হবে। এ সময় মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, স্কুল-কলেজ বন্ধের প্রয়োজনীয়তা, আক্রান্ত দেশগুলোর সঙ্গে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ করার মতো বিষয়সহ সার্বিক আরো সিদ্ধান্ত বিকেল ৪টার সভায় জানানো হবে।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় গরুর ঘাস কাটাকে কেন্দ্র করে ৯বছরের স্কুল ছাত্রকে কুপিয়ে জখম করেছে এক নরপশু।
আহত শিশু মইনুল ইসলাম (৯) কে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সুমন বর্মন। আহত মইনুল ইসলাম পাঠাবুকা গ্রামের আব্দুল আলিমের পুত্র এবং পাঠাবুকা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র।
 
সোমবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার শ্রীপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের পাঠাবুকা গ্রামে। এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে পার্শ্ববর্তী জীবনপুর গ্রামের আহাদ নুর নামের এক যুবক।
মইনুল ইসলামের আপন বড় ভাই দিলোওয়ার হোসেন ও পাঠাবুকা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্যা লাকি আক্তার জানান,সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টায় পাঠাবুকা গ্রামের পশ্চিমের কান্দায় গরুর জন্য ঘাস কাটতে গেলে কান্দার পাশে জীবনপুর গ্রামের আহাদনুরের জমি থাকায় জমির রোপিত ধান গাছ কেটে নেয়ার অজুহাতে শিশু মইনুলের হাত থেকে কাঁচি কেরে নিয়ে তার হাত কেটে রক্তাক্ত জখম করে। এ অবস্থায় রক্তাক্ত মইনুলকে নিয়ে তার বড় ভাই দিলোয়ার তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। মইনুলকে কুপিয়ে আহত করা যুবক জীবণপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের পুত্র আহাদনূর।
তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ সুমন বর্মন বলেন,শিশু মইনুলকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তার শারিরীক অবস্থা আশঙ্খাজনক বিধায় তাকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি(তদন্ত) শফিকুল ইসলাম জানান,এই বিষয়ে অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

এম এস জিলানী আখনজী,চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড কৃষকলীগের সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে। ৮ই মার্চ রবিবার রাতে ঘনশ্যামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে এই সম্মেলন সম্পন্ন হয়।

সম্মেলনে উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড সভাপতি হিসেবে মোঃ মনির পাঠান, সাধারণ সম্পাদক শিবলু আহমেদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক পিন্টুর নাম ঘোষনা করা হয়।

আহম্মদাবাদ ইউনিয়ন কৃষকলীগের আহবায়ক মোঃ সেলিম মাষ্ঠারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক ও আহম্মদাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবেদগ হাসনাত চৌধুরী সনজু।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের তথ্য বিষয়ক সম্পাদক হাসান আলী মেম্বার, উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক মোঃ মুজিবুর রহমান মুজিব, উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ জামাল আহমদ, সমাজসেবক জাকির হোসেন পলাশ প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ আরো অনেকেই।

সম্মেলন সমাপ্তির পূর্বমুহুর্তে উপস্থিত সকলের সামনে উপরে ঘোষনাকৃত সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিকসহ ৩১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটির অনুমোদন প্রদান করা হয়।

করোনাভাইরাসের তিন রোগী শনাক্ত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানসূচি পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। প্যারেড গ্রাউন্ডে বড় পরিসরে মুজিববর্ষের যে অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল সেটি স্থগিত করা হয়েছে।

রোববার রাত পৌনে ১১টার দিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনিস্টিটিউটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানের উদ্বোধন হবে, তবে বড় পরিসরে কোনো আয়োজন থাকছে না। এ বিষয়ে বিস্তারিত আগামীকাল সোমবার (০৯ মার্চ) জানানো হবে।

রোববার সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন বাস্তবায়ন কমিটি এবং জাতীয় কমিটির এক যৌথসভা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বঙ্গবন্ধুর আরেক কন্যা শেখ রেহানাও উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে ব্রিফিংয়ে কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, যৌথ সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, ১৭ মার্চ মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আগে দেশে করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে জন্মশত বার্ষিকীর অনুষ্ঠানটি পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। কারণ বঙ্গবন্ধু জনগণের কষ্ট লাঘব করতে চেয়েছেন। তাই জনকল্যাণ ও জনস্বাস্থ্য বিবেচনায় রেখে সামগ্রিক প্রোগ্রামটি পুনর্বিন্যাস করা হয়।

তিনি আরও বলেন, সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আপাতত মুজিববর্ষের অনুষ্ঠান ঘিরে জনসমাগম পরিহার করা হবে। তবে ১৭ মার্চ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান চলবে। এর আওতায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা এবং পরবর্তী সময়ে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানো হবে। সারাদেশে দোয়া মাহফিল চলবে এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে সীমিত আকারে অনুষ্ঠান চলবে। প্রকাশনা, স্মারক ডাকটিকিট ও স্মারক মুদ্রা প্রকাশ করা হবে।

কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে জনসমাগম এড়ানোর কথা বলা হয়েছে। তাই ১৭ মার্চ জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে মুজিববর্ষের যে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা করা হয়েছিল, তা পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। সেটি কোথায়, কখন হবে, তা আমরা পরবর্তী সময়ে জানিয়ে দেবো। ওই অনুষ্ঠানে আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী বন্ধুরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের যেসব অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানোর কথা ছিল, তাদের নিয়েই পরে ওই অনুষ্ঠান আয়োজন করা হবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। পুনর্বিন্যস্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি আসবেন কি না— সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক বলেন, এটি এই মুহূর্তে বলতে পারছি না। তবে আমরা পরবর্তী সময়ে বড় পরিসরে অনুষ্ঠানটি করব। আমাদের আমন্ত্রিত অতিথিরা পরবর্তী ওই সময় আসবেন।

রাজধানীর মহাখালীতে আইইডিসিআর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, তিন আক্রান্তে মধ্যে একজন নারী ও দুইজন পুরুষ। তিনজনই বাংলাদেশি নাগরিক। সম্প্রতি তাদের মধ্যে দুইজন ইতালি ভ্রমণ করেছিলেন।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ “প্রজন্ম হোক সমতার সকল নারীর অধিকার ” এ শ্লোগানকে সামনে নিয়ে নড়াইলে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন উপলক্ষে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার হিউম্যান রাইটস্ ডিফেন্ডার ফোরামের আয়োজনে আদালত সড়কে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।এ সময় হিউম্যান রাইটস্ ডিফেন্ডার ফোরাম, নড়াইলের সভাপতি অ্যাডঃ এস, এ মতিন, সাধারন সম্পাদক কাজী হাািফজুর রহমান,সাংবাদিক আব্দুস সাত্তারসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
পরে নড়াইল রাইফেল ক্লাবের সভাকক্ষে জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর আয়োজনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা। মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর নড়াইলের উপ-পরিচালক মোঃ আনিছুর রহমানের সভাপতিত্বে নারী নেত্রী আঞ্জুমান আরা, রওশন আরা কবির লিলি, মহিলা যুবলীগ নেত্রী পলি রহমানসহ সরকারি কর্মকর্তা, বিভিন্ন নারী সংগঠনের প্রতিনিধি, এনজিও প্রতিনিধি, সাংবাদিক, বিভিন্ন শ্রেনী পেশার নারীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
সভায় আর্ন্তজাতিক নারী দিবসের গুরুত্ব এবং নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কি কি করনীয় সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন ববি ও সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের হোসেন মানিকের বিরুদ্ধে অর্থসাত্মসাৎ, মাদক, অছাত্রসহ সংগঠন পরিপন্থী কার্যকলাপে লিপ্ত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। রবিবার গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চঞ্চল শাহরিয়ার মীম ও সাধারণ সম্পাদক রকিবুজ্জামান পলাশ স্বাক্ষরিত প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়েছে, সংগঠনের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন ববির বিরুদ্ধে ভিক্টোরিয়া কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীর কাছ থেকে অর্থআত্মসাৎ, মাদকের সাথে সংশ্লিষ্টতা ও সংগঠন পরিপন্থী কার্যকলাপে লিপ্ত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে।
এদিকে সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের হোসেন মানিক নিয়মিত ছাত্রত্বের প্রমাণ দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ও সংগঠন পরিপন্থী কার্যকলাপে লিপ্ত থাকায় নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখা কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হলো।

এছাড়া নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে পদ-প্রত্যাশীদের ১০ মার্চের মধ্যে জেলা শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদকের নিকট জীবন বৃত্তান্ত প্রদানের জন্য বলা হয়েছে।
জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চঞ্চল শাহরিয়ার মীম জানান, শনিবার (৭ মার্চ) রাত ১১টার দিকে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়।

নারীর জন্য গণমাধ্যম বিষয়ক ১৫ দিনব্যাপী একটি প্রচারাভিযান শুরু করছে বাংলাদেশ এনজিওস নেটওয়ার্ক ফর রেডিও এন্ড কমিউনিকেশন (বিএনএনআরসি)।

গণমাধ্যম ও গণমাধ্যমে সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানে নারী-পুরুষ সমতা, নারীর সম-উপস্থাপন ও ক্ষমতায়ন নিশ্চিতকরণে সকলকে নিজ নিজ ভূমিকা রাখতে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে ৮ মার্চ, ২০২০ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে নারীর জন্য গণমাধ্যম বিষয়ক ১৫ দিনব্যাপী একটি প্রচারাভিযান শুরু করছে বাংলাদেশ এনজিওস নেটওয়ার্ক ফর রেডিও এন্ড কমিউনিকেশন (বিএনএনআরসি) ।

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যুগে গণমাধ্যমে নারীর অন্তর্ভুক্তি, অবস্থা ও অবস্থানে সমতা-এই প্রতিপাদ্যে সারাদেশের প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক গণমাধ্যম তথা সংবাদপত্র, রেডিও, টেলিভিশন এবং অনলাইন নিউজ পোর্টালসমূহকে বিবেচনায় রেখে ৮ মার্চ থেকে ২২ মার্চ, ২০২০ পর্যন্ত ১৫ দিনব্যাপী এই প্রচারাভিযান পরিচালিত হবে। ৪৫টি প্রিন্ট এবং ইলেকট্রনিক গণমাধ্যম ও এর সাথে সংশ্লিষ্ট বেসরকারী ও স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা এই প্রচারাভিযানে অংশগ্রহণ করছে।

প্রচারাভিযানের উদ্দেশ্য হলো গণমাধ্যমে নারীদের কাজের ধরণ, অবস্থান ও উপস্থাপনে নারীর যথোপযুক্ত মূল্যায়ন বিবেচনায় তাদের পুরুষ সহকর্মীসহ সকলের গতানুগতিক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন ও কার্যকর ভূমিকা পালনে পারস্পরিক সংলাপ আয়োজনে উৎসাহিত করা।

৮ মার্চ, ২০২০, জাতিসংঘ ঘোষিত ‘আন্তর্জাতিক নারী দিবস’। মার্চ মাস বাংলাদেশের জন্য বিশেষভাবে স্মরণীয়, এই মার্চ মাসেই শুরু হয়েছিলো মহান মুক্তিযুদ্ধ। ১৯২০ সালের এ মাসের ১৭ তারিখেই জন্ম নিয়েছিলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাই এ বছর রাষ্ট্রীয়ভাবে পালিত হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর জন্ম-শতবার্ষিকী ‘মুজিব বর্ষ’। আর এ জন্যই বছরের আন্তর্জাতিক নারী দিবস একটি বিশেষ গুরুত্ব বহন করছে। মুজিব বর্ষে শপথ নিয়ে গণমাধ্যমে নারী-পুরুষের সমতা নিশ্চিত করতে হবে।

সারা বিশ্বে গণমাধ্যম উন্নয়ন নিয়ে কর্মরত সংগঠনগুলোর নারী সাংবাদিকদের বিষয়ে নানাবিধ উদ্যোগ ও কর্মপ্রচেষ্টা থাকা সত্ত্বেও নারী সাংবাদিকদের সম-অধিকার প্রতিষ্ঠা একটি বড় চ্যালেঞ্জ এবং এখনো দুঃস্বপ্ন। ‘গ্লোবাল জেন্ডার গ্যাপ ইনডেক্স’ অনুযায়ী বর্তমান সমাজে নারী-পুরুষের অসমতা এতই প্রবল যা সমতায়ন করতে গেলে প্রায় ১০৮ বছর সময় লেগে যাবে। এ জন্য নারী-পুরুষের সমতায় বর্তমান ও ভবিষ্যত প্রজন্ম বিশেষ করে নারীদের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক শিক্ষায় প্রণোদনাসহ সুযোগ সৃষ্টি করা জরুরি। তাই গণমাধ্যমে নারীদের প্রতি সংবেদনশীল তথ্য ও সংবাদ পরিবেশন এখন সময়ের দাবি।

গণমাধ্যম, তথ্য এবং বিনোদন শিল্পে কর্মরত নারীদের অন্তর্ভুক্তি, অবস্থা ও অবস্থানে সমতা বিষয়ে ব্যাপক নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসছে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব। গণমাধ্যমে কর্মরত নারীদের স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজেদেরকে রি-স্কিলিং (Re-skilling), আপ-স্কিলিং (Up-skilling) ও ডি-স্কিলিং (De-skilling) করতে হবে।

প্রচারাভিযানের অংশ হিসেবে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক গণমাধ্যম তথা- জাতীয় ও আ লিক সংবাদপত্র, রেডিও, টেলিভিশন এবং অনলাইন নিউজ পোর্টালসমূহের কার্যালয়ে বিশেষ আলোচনা ও পর্যালোচনা সভা এবং কমিউনিটি রেডিও এলাকায় সংবাদপত্র, রেডিও ও অনলাইন নিউজ পোর্টালে কর্মরত নারী সাংবাদিকদের অবস্থা ও অবস্থান এবং সাফল্য, চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করা হবে।

নারী ও পুরুষ সমতা একটি মানবাধিকার, তাই মানবাধিকার নিশ্চিতকরণে অন্যান্য ক্ষেত্রের মতো গণমাধ্যম ও গণমাধ্যমে সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানমালায়ও এর অনুশীলনে সকলের কার্যকরী উদ্যোগ এখন সময়ের দাবি।

নারী-পুরুষের সমতা বা সর্বজনীন মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান ও গণমাধ্যম কর্মী উভয়েরই গুরুত্বপূর্ণ ও দায়িত্বশীল ভূমিকা রয়েছে। উক্ত প্রচারাভিযানের মাধ্যমে গণমাধ্যমের সম্পাদক, মালিকপক্ষসহ সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় সংশ্লিষ্ট সকলকে  নিম্নোক্ত আহবান জানানো হচ্ছে:

প্রতিটি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানে ইউনেসকো কর্তৃক তৈরিকৃত  Media Development Indicator (MDI) Ges Gender Sensitive Indicator for Media (GSIM) অনুশীলন; গণমাধ্যম, তথ্য এবং বিনোদন সেক্টরে কর্মরত সাংবাদিকদের বিশেষ করে নারীদের চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দ্রুত রি-স্কিলিং (Re-skilling), আপ-স্কিলিং (Up-skilling) ও ডি-স্কিলিং (De-skilling) করণে উদ্যোগ গ্রহণ; চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নতুন করে গণমাধ্যম ব্যবস্থাপনা ও গণমাধ্যমে ব্যবসায়িক মডেল প্রবর্তনে উদ্যোগ গ্রহণ; গণমাধ্যমে কর্মরত নারীর অন্তর্ভুক্তি, অবস্থা ও অবস্থানে সমতা যাচাই এর লক্ষ্যে গবেষণা এবং এর ফলাফল ও সুপারিশমালার ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ; প্রেসক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়ন এবং রিপোর্টার্স ইউনিটিসমূহে পদ/পদবী এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে নারী ও পুরুষ গণমাধ্যম কর্মীদের সমঅংশগ্রহণ ও অধিকার নিশ্চিতকরণে অনুশীলন; প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমে কর্মরত সংবাদকর্মীদের নারী-পুরুষের অসমতা বিষয়ক প্রচলিত ধ্যান-ধারণাকে চ্যালেঞ্জ করে বিজ্ঞাপনসহ প্রতিবেদন ও সংবাদ পরিবেশনে শক্তিশালী ভূমিকা রাখা।
এই প্রচারাভিযানের জন্য একটি ওয়েবসাইট খোলা হয়েছে (www.media4women.bnnrc.net) । প্রেস বার্তা

কক্সবাজারে স্থানীয় যুব সংগঠকদের জলবায়ু অবরোধ কর্মসূচি পালিত।

জলবায়ু সংকটের হাত থেকে কক্সবাজারকে বাঁচাতে জলবায়ু  অবরোধ করেছে স্থানীয় যুব সংগঠকরা।‘বাঁচাও কক্সবাজার, বাঁচাও দেশ, জলবায়ু ঝুঁকিতে বাংলাদেশ’ শ্লোগানে কক্সবাজারে জলবায়ু অবরোধ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।
বিভিন্ন দাবিসম্বলিত প্লাকার্ড হাতে কক্সবাজারের ১২টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের শতাধিক যুবরা জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় সকলে একাত্বতা প্রকাশ করেন অবরোধ কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন।পরে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মাধ্যমে “জলবায়ু পরিবর্তন জনিত ক্ষয়-ক্ষতি কমানোর লক্ষে গ্লোবাল ক্লাইমেট একশন উইক এর আহ্বানে ‘জলবায়ু জরুরী অবস্থা’ ঘোষণার জন্য প্রধাণমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
রোববার (৮ মার্চ) বিকাল ৩টায় কক্সবাজার কেন্দ্রিয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে একশনএইডের সহযোগিতায় ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিস এর আয়োজনে এই কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়।
ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিস এর কক্সবাজারের প্রতিনিধি জাবেদ নূর শান্ত সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কর্মসূচীতে বক্তারা বলেন, ইয়ুথনেট এর এমন একটি কর্মসূচী আসলেই প্রশংসনীয়। একটি দেশের নাগরিক হিসেবে এই দেশকে জলবায়ু সংকট মোকাবেলায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে এবং ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। এটা সকলের নাগরিক দায়িত্ব এবং কর্তব্য।
কর্মসূচীর সার্বিক প্রসঙ্গে ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিস এর  কক্সবাজার প্রতিনিধি জাবেদ নূর শান্ত বলেন, জলবায়ু সংকটে বাংলাদেশ যেমন ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর তালিকায় সবার শীর্ষে। আমি মনে করি আমাদের তরুণ-তরুণীদের হাত ধরে এই জলবায়ু সংকট মোকাবেলায় ব্যাপক অবদান রাখায় সারা বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান হবে সব দেশগুলোর শীর্ষে! জলবায়ু সংকট মোকাবেলায় সকল তরুণ-তরুণী এবং বাংলাদেশের সকল স্বেচ্ছাসেবী যুব সংগঠনের সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।
কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন নতুন জীবন সংগঠনের সহ-সভাপতি মিনহাজ চৌধুরী, স্বপ্নজালের পরিচালক সাকির, মেডিটেটিভ ইয়ুথ এর পরিচালক আবতাহী আবরার, ইয়াসিদ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কায়সাদ হামিদ, কক্সবাজার ব্লাড ডোনারস সোসাইটি’র এডমিন আশরাফুল হাসান ও জাহাঙ্গীর আলম, বিআইবিও’র সহ-সভাপতি আদিল, অদম্য’র সদস্য হাসান, টেকপাড়া তরুণ ঐক্য পরিষদের সভাপতি আসিফ উল করিম, এসটিআর ফর চেইঞ্জ’র পরিচালক কাওসার, প্রতীকি যুব সংসদের কক্সবাজার শাখার সদস্য জিমরান মাহমুদ সায়েদ, দিভা অর্গানাইজেশন’র সিইও সাবরিনা রহিম প্রিয়া, এক টাকায় আলোকিত কক্সবাজার’র অর্থ সম্পাদক সাবেকুন্নাহার,  চট্টগ্রামস্থ কক্সবাজার জেলা ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি গাজী নাজমুল হক।
এছাড়াও কক্সবাজারের বিভিন্ন যুব এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অংশগ্রহণ করেন। প্রেস বার্তা

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc