Tuesday 25th of February 2020 05:54:44 PM

শুধু চীনেই নয়, করোনা ভাইরাস এখন বিশ্বজুড়েই আতঙ্ক। চীন ছাড়াও নানা দেশে এতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে অনেকে। এ ভাইরাস চীনে মহামারীর আকার নিলেও অবাক হওয়ার মতো খবর হচ্ছে, উইঘুর মুসলিরা এখনও এ ভাইরাসমুক্ত রয়েছে! অথচ তাদেরকে যে পরিবেশ রাখা হয়েছে, তাতে তাদেরই এতে আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কা ছিলো বেশি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও (হু) করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্কতা জারি করেছে। এতে চীনের উদ্বেগ বাড়িয়ে দিয়েছিলো উইঘুর মুসলিমদের বন্দী-শিবির। জিনঝিয়াং প্রদেশে মগজ ধোলাইয়ের নামে বিভিন্ন বন্দী-শিবিরে উইঘুর মুসলিমদের রাখা হয়েছে মানবেতর পরিস্থিতিতে। সেখানে উইঘুর মেয়েদের জোর করে বন্ধ্যা করে দেয়া হচ্ছে। কোনো ধরণের ধর্মীয় আচার পালন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে যখন প্রায় ১০ লাখ উইঘুর মুসলিমের দিন কাটছে – তখন করোনা ভাইরাস আতঙ্ক বাড়িয়ে দিয়েছিলো।

চীনে করোনা ভাইরাস মহামারী রূপ নেয়ায় পুরোপুরি অবরুদ্ধ রাখা হয়েছে দেশটির উহান ও হুবেই শহরসহ আরো কয়েকটি শহর। এতে আরো আক্রান্ত ভারত, জাপান, ভিয়েতনাম, হংকংসহ বিশ্বের প্রায় চব্বিশটি দেশ।

সম্প্রতি সিএনএন এক রিপোর্টে জানিয়েছে, চীনের অন্যান্য এলাকার তুলনায় উইঘুর মুসলিমরা করোনার গ্রাস থেকে অনেকটাই রেহাই পাচ্ছেন। কেননা, তারা হালাল খাবার খেয়ে থাকেন – যা তাদেরকে করোনা থেকে নিরাপদ দূরত্বে রেখেছে।

তবে করোনা ভাইরাস সংক্রামক বলেই তাতে উইঘুররা যে আক্রান্ত হবেন না – তা হলফ করে বলা যাবে না; আশঙ্কা থেকেই যায়। কিন্তু তারা যে এখনও এ থেকে মুক্ত, তা স্পষ্ট জানিয়েছে সিএনএন।

উল্লেখ্য, চীনাদের প্রিয় খাবার আরশোলা, টিকটিকি, ইঁদুর, ব্যাঙ ও অন্যান্য কীটপতঙ্গ – যেগুলোই মারাত্মক ভাইরাস বহন করে থাকে। মুসলিমরা এসব খাবার ধর্মীয় নিষেধের কারণে খান না। তাদের হালাল খাবারই পছন্দ।

এ ব্যাপারে জর্জ টাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের চৈনিক ইতিহাসের অধ্যাপক জেমস মিলওয়ার্ড উদ্বেগ প্রকাশ করে ট্যুইটারে লিখেছিলেন: বন্দীশিবিরে যা খারাপ অবস্থা, অস্বাস্থ্যকর ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে উইঘুর মুসলিমরা থাকছেন – তা নজরদারির প্রয়োজন। তাদের প্রতি চীন সরকার যে অবহেলা করছে আর করোনা ভাইরাস যেভাবে থাবা বসাচ্ছে – তাতে উইঘুর বন্দী শিবির মৃত্যু উপত্যকা হয়ে উঠতে পারে। এ ব্যাপারে তাই ট্যুইটোরে ‘ভাইরাস থ্রেট ক্যাম্পস’ নামে হ্যাশট্যাগ চালু করা হয়েছে। তবে আশ্চর্যজনকভাবে করোনা ভাইরাসের থাবা এখনও প্রবেশ করেনি উইঘুর বন্দীশিবিরগুলোতে। সূত্র : পূবের কলম ও সিএনএন।

নওগাঁ ,সংবাদদাতাঃ  নওগাঁর আত্রাইয়ে নিজ শয়নকক্ষে আরিফুল ইসলাম (৩৮) নামে এক ব্যবসায়ীকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

রোববার দিবাগত রাতে ঘটনাটি ঘটে। নিহত আরিফুল উপজেলার বাকা গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে।

আত্রাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসলেম উদ্দিন জানান,আরিফুল তার ব্যবসায়িক কাজে পরিবারসহ আত্রাই সদরে থাকেন। গতকাল বিকেলে তিনি তার গ্রামের বাড়ি উপজেলার বাঁকা গ্রামে যান। রাতে খাবার শেষে ঘুমিয়ে পড়েন আরিফ। রাত ২ টার দিকে তার চাচা রেজাউল ইসলাম ঘুম থেকে জেগে দেখেন আরিফুলের দরজা খোলা। সে ঘরে নেই। এ সময় বাহিরে বের হলে বাড়ির কাছেই থাকা একটি ড্রামের পাশে আরিফের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার  সন্ত্রসীদের হামলার আহত ১৫জন আহত হয়েছে ।  গুরুত্বর  আহত’রা হলেন-দুধের আউটা গ্রামের আলী মোস্তফা,কামাল হক,সিজিল মিয়া,জোনাহিদ,সাদ্দাম হোসেন ও ছোট মনি।
এদের মধ্যে গুরুতর আহত কামাল হক ও সিজিল মিয়া তাহিরপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। বাকীদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়েছে।
ঘটনাটি রবিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৪ টা দিকে উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের দুধের আউটা গ্রামে।
স্থানীয়রা জানান- উপজেলার উত্তর শ্রীপুর  ইউনিয়নের দুধের আউটা গ্রামের পশ্চিম দিকে সরকারি রাস্তার দক্ষিণ পাশে ধন মিয়ার জমি রয়েছে আর রাস্তার উত্তর পাশে সঞ্জব আলী,মহব্বত আলী,নূরুল ইসলাম,বদিউজ্জামান,শামছু মিয়া,সতীশ পালের জমি রয়েছে। রাস্তার উত্তর পাশে ধন মিয়ার জমি রয়েছে দাবী করে আজ অন্যদের জমিতে পাকা পিলার স্থাপন করে।
পরে জমির মালিকরা জানতে চাইলেন কার অনুমতি নিয়ে পিলার স্থাপন করেছো। তখন ধন মিয়া বলে আমি ইউএনও’র অনুমতি পেয়েই আমরা পিলার স্থাপন করেছি। পরে জমির মালিকরা পিলার স্থাপন করতে নিষেধ করলে দুধের আউটা গ্রামের মৃত লেবু মিয়ার ছেলে লাখ মিয়া ( ৪৪),মুল্লিক মিয়া (৩৮),ধন মিয়া (৩৫),ছনু মিয়া (৩০),মৃত গফুর মিয়ার ছেলে তাজুদ আলী (৪৭),শামছু ওরফে ট্যাবলেট (৩৬) ,মৃত সত্তার আলীর ছেলে কাইয়ুম মিয়া (৩৯),কাজিম মিয়া (৩৩),লাখ মিয়ার ছেলে রতন মিয়া (২৩),তাজুদ আলীর ছেলে আলমঙ্গীর (২৬),শাহাঙ্গীর (২২) গং তার সহযোগীরা ক্ষিপ্ত হয়ে জমির মালিকদের উপর হামলা করে। এতে হামলায় ১৫জন আহত হন। পরে ট্যাকেরঘাট ফাঁড়ি থানার ইনচার্জ মোঃ আবু মুছা সঙ্গীয় ফোর্সে নিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
এবিষয়ে ইউএনও বিজেন ব্যানার্জি জানান-আমি এবিষয়ে কিছু জানিনা,এধরণের কোন অনুমতি আমি কাউকে দেয়নি।
তাহিরপুর থানার ওসি মোঃ আতিকুর রহমান জানান-হামলার খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে।তবে সংবাদ লেখা পর্যন্ত এবিষয়ে  কোন মামলা হয়নি।

সংস্কৃতির নগরী ওয়ারশোতে  অনুষ্ঠিত হলো ইউরো বাংলা টেলিভিশন বিজনেস এওয়ার্ড ২০২০।  ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের এওয়ার্ড প্রদান করা হয় জমকালো এ অনুষ্ঠানে ।

গত রবিবার ওয়ারশোর হোটেল গ্রমান এ  হলে বর্ণাঢ্য এ আয়োজনে পোল্যান্ডের  বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক , সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পোলেন্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশ রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান।

অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, পোল্যান্ড এর বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী ডাঃ খলিলুল কাইয়ুম।
ইউরো বাংলা টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবু তাহির এর পরিচালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন ব্রিটিশ বাংলাদেশ চেম্বার অফ কমার্স এর ডিরেক্টর সাগিদ বখত ফারুক , ইপিবিএ কেন্দ্রীয় সভাপতি শাহনুর খান , আয়েবা কার্যকরী কমিটির সদস্য কাউন্সিলর মাহবুব সিদ্দিকী।
অনুষ্ঠানে  সমাপনী বক্তব্য রাখেন টেলিভিশনের সহকারী ব্যবস্থপনা পরিচালক মোহাম্মদ ওবায়েদ।
দেশের অর্থনীতিতে অসামান্য অবদান রাখায় ও পোল্যান্ডে সহ  বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশিদের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করায় ইউরো বাংলা টেলিভিশনের পক্ষ থেকে আয়োজিত এ  অনুষ্ঠানে সফল উদ্যোক্তা হিসাবে ব্রিটেন প্রবাসী সাগিদ বখত ফারুক , শাহনুর খান , তেরাউল ইসলাম ,মোহাম্মদ সহিদুর রহমান , এম এ শাকুর সিদ্দিকী , সুইজারল্যান্ড প্রবাসী আনিস খান , পর্তুগাল প্রবাসী আমির সোহেল , পোল্যান্ড প্রবাসী ব্যবসায়ী ডাঃ মুসা মিয়া , ডাঃ মোঃ সাজেদুল হক , ডাঃ মোহাম্মদ খলিলুল কাইয়ুম , সাইফ উদ্দিন কাজী , হাসান আব্দুল কাইয়ুম , মোহাম্মদ হোসাইন শরীফ , জহিরুল ইসলাম , আফজল হোসেইন , মোঃ সিদ্দিকুর রহমান কে এওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

তরুণ উদ্যোক্তা  হিসাবে  পোল্যান্ড প্রবাসী তীসু মজুমদার , আমিনুল ইসলাম চাকদার , শেখ এরশাদুর রহমান , মাসুদুর রহমান তুহিন , লুৎফুর রহমান , শরীফ আহমদ , মোঃ এহতেশামুল হক , মোয়াজ্জেম হোসেইন শামীম , শেখ মোহাম্মদ সুলতান , মোঃ ইমরানুল সুমন , ফিরোজ আলম , মোঃ মাসুদুর রহমান সম্মাননা প্রদান করা হয়।
টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবু তাহির বলেন,  এ ধরনের আয়োজন প্রবাসে  বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের সফলতার চূড়ায়  পৌঁছোতে প্রনোদনা যোগাবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা বলেন এ আয়োজন পোল্যান্ডে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের অন্যদিগন্তে প্রবেশ করিয়েছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc