Friday 28th of February 2020 02:58:40 PM

নিজস্ব প্রতিনিধি: শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভানুগাছ রোডস্থ গ্রান্ড সুলতান টি রিসোর্ট সংলগ্ন সড়কে রোববার দুপুর দুইটার দিকে একটি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। এতে কোন নিহতের ঘটনা ঘটেনি তবে আহত হয়েছে কয়েক জন এর মধ্যে একজন পাঁচ বছরের শিশু রয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শ্রীমঙ্গল থেকে কমলগঞ্জমুখী এবং কমলগঞ্জ থেকে শ্রীমঙ্গল গামী দুটি মাইক্রো গ্র্যান্ড সুলতান সংলগ্ন সড়কে একটি অপরকে ধাক্কা দেয় (গাড়ি দুটির নাম্বার ঢাকা মেট্রো- চ ৫৩-৪৬৫৭ ও ঢাকা মেট্রো- চ ৫১-৯৪৭৩ ) আহত হয়, এতে দুটি গাড়ির সম্মুখভাগে কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।
তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেন এবং আহত শিশু ফলক বাবু (৫) পিতা চন্দন বাবু ঠিকানা হবিগঞ্জ মহিলা কলেজ রোড জেলা হবিগঞ্জ কে মৌলভীবাজার রোডস্থ একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা করিয়ে হবিগঞ্জের নিজ বাড়িতে চলে যান।
রাস্তায় দুর্ঘটনার সংবাদ শুনে স্থানীয় পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে রাস্তা ক্লিয়ার করে দেন। স্থানীয়দের অভিযোগ এই সড়কে দুর্ঘটনা লেগেই থাকে একদিকে অতিরিক্ত যানচলাচল অপরদিকে নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা নেই।

নিজস্ব প্রতিনিধি: শ্রীমঙ্গলের মির্জাপুর ইউনিয়নে চা বাগান এলাকার সাধুপাড়া গ্রামে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এক প্রেস ব্রিফিং এর মাধ্যমে শ্রীমঙ্গল কমলগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান আশিক ধৃত একমাত্র আসামী প্রেমিক লিটন সাঁওতালের স্বীকারোক্তি প্রকাশ করেছেন।

সিনিয়র এএসপি সার্কেল আশরাফুজ্জামান জানান,  আসামি লিটন সাঁওতাল জিজ্ঞাসাবাদে তার জবানবন্দি দিয়েছে। তিনি বলেন, গত ১ ফেব্রোয়ারী সকালে শ্রীমঙ্গল উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের মির্জাপুর চা বাগের উত্তর লাইন মাঝির পাড়া চা শ্রমিক নমিতা নায়েকের মেয়ে ললিতা নায়েক শিপার (১৫) অর্ধগলিত লাশ তাঁদের বসতঘরের পশ্চিম পার্শ্বের গর্তে পাওয়া যায়।

তিনি আরো বলেন, তাৎক্ষণিকভাবে সংবাদ পেয়ে আমি সিনিয়র পুলিশ সুপার শ্রীমঙ্গল কমলগঞ্জ সার্কেল আশরাফুজ্জামান ও অফিসার ইনচার্জ শ্রীমঙ্গল থানা আব্দুস ছালেক সহ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।ভিকটিমের মা নমিতা নায়েক এবং প্রতিবেশীদের সাথে কথা বলার পর একটি টিম গোপনীয়ভাবে ঘটনার রহস্য উদঘাটনে কাজ করতে থাকেন। জানা যায় তারা দুজন দুজনকে বিগত চার বছর যাবৎ ভালোবাসত,বিগত কিছুদিন আগে তাদের মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লিটন সাঁওতাল এর মনে সন্দেহের দানা বাধে।তাঁহার ধারণা ছিল শিপা নায়েক অন্য কাহার ও সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছে। লিটন সাঁওতাল এর জবানবন্দি থেকেই জানা যায় বিগত ২৩ জানুয়ারী রোজ বৃহস্পতিবার লিটন শিপার সাথে দেখা করতে তাদের বাড়িতে যায়।

এসময় বাড়িতে কেহ ছিলনা,তাহাদের মধ্যে প্রেমঘটিত বিষয়ে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে লিটন সাঁওতাল শিপা নায়েক কে আঘাত করলে সে খাটের নিচে পড়ে যায় এবং তাঁহার নাখ মুখ দিয়ে রক্ত বের হয়ে শরির নিস্তেজ হয়ে যায়।লিটন সাঁওতাল নিহত শিপা নায়েক এর মরদেহটি ঘরের পিছনে মাটির গর্তে পুতে রেখে খড়কুটো দিয়ে ঢেকে রাখে বলে আদালতে সে জানায়।

উক্ত বিষয়ে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। লিটন সাঁওতাল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।প্রেস ব্রিফিং এর সময় উপস্থিত ছিলেন অফিসার ইনচার্জ আব্দুস সালেকসহ অন্যান্য পুলিশের এসআই ও সদস্য বৃন্দ।

হায়েনা পুরুষদের ছোবলে শ্রীমঙ্গলে নিরীহ কিশোরীর মৃতদেহ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচঙ্গে মামুন মিয়া (৩০) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় আব্দুল কাইয়ুম নামের অপর একজন আহত হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা  হয়েছে।

রোববার রাত ৮টার দিকে উপজেলার খাগাউড়া ইউনিয়নের করচা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মামুন ওই গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে।

বানিয়াচং থানার (ওসি) রঞ্জন কুমার সামন্ত জানান, রোববার রাতে মামুন মিয়াসহ কয়েকজন স্থানীয় ইমামবাড়ি বাজার থেকে বাড়িতে ফিরছিল। পথে একদল দুর্বৃত্ত আচমকা তাদের কুপিয়ে আহত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় মামুনকে হবিগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আরেক আহত আব্দুল কাইয়ুমকে গুরুতর অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ওসি আরও জানান, খবর পেয়ে বানিয়াচং সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ মো. সেলিম হাসপাতালে ছুটে যান এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের আশ্বাস দেন।

মামুনের স্বজনরা জানায়, মামুন মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের কদর আলীর ছেলে ইকবাল মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে তাদের মধ্যে মামলাও চলছে। এর জের ধরে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে তাদের দাবি।

মহামারি রূপ নেয়া করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৩০০ ছাড়িয়ে গেছে। তবে এই প্রথমবারের মতো চীনের বাইরে এ ভাইরাসে আক্রান্ত কারো মৃত্যু হয়েছে। এই ভাইরাসের সংক্রমণে চীনের বাইরে ফিলিপাইনে মারা গেছেন ৪৪ বছর বয়সী এক চীনা নাগরিক।

মৃত ব্যক্তি চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ফিলিপাইনে গিয়েছিলেন। ফিলিপাইনের স্বাস্থ্য বিভাগ বলেছে, উহান থেকে রাজধানী ম্যানিলাতে যাওয়ার পর ওই চীনা নাগরিকের মারাত্মক নিউমোনিয়া দেখা দেয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ফিলিপাইনে যাওয়ার আগে ওই ব্যক্তি সংক্রমিত হয়েছিলেন। এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে এই ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন কমপক্ষে ১৪০০০ মানুষ।

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে সতর্কতা হিসেবে শিশুকেও পরানো হচ্ছে মাস্ক

তাকে ভর্তি করানো হয় সেখানকার একটি হাসপাতালে। তার সঙ্গে ফিলিপাইনে গিয়েছেন এক চীনা নারী। তার দেহেও এই ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। ফিলিপাইনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক প্রতিনিধি বলেন, চীনের বাইরে এই ভাইরাসে এটাই প্রথম মৃত্যুর ঘটনা। এ ঘটনা এমন সময়ে ঘটলো যখন বিশ্বের বিভিন্ন দেশ চীনের সঙ্গে তাদের সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে। ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া নিয়ন্ত্রণে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

যারা সম্প্রতি চীন সফরে গিয়েছেন এমন বিদেশী সব পর্যটকের জন্য আপাতত দরজা বন্ধ করে দিয়েছে আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়া। একই রকম ব্যবস্থা নিয়েছে নিউজিল্যান্ড, রাশিয়া, জাপান, পাকিস্তান ও ইতালি। পাকিস্তানের কয়েকশ শিক্ষার্থী চীনে অবস্থান করলেও কাউকেই ফিরিয়ে নেয়ার পদক্ষেপ নেয় নি ইসলামাবাদ সরকার।পার্সটুডে

তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) সংবাদদাতাঃ যাদুকাটা নদী শুষ্ক ও বর্ষা মৌসুমে যাই থাকুক না কেন প্রতিদিন ৩০হাজারের বেশী নারী,পুরুষ দিন মুজুর শ্রমিকগন বালু ও পাথর উত্তোলন করে জীবন জীবিকা নির্বাহ করছে বংশ পরমপরায়। আর এই শ্রমিকদের দিয়ে অধিক মোনাফা লোভী একটি ব্যবসায়ী চক্র বর্ষায় বিভিন্ন স্থানে ১৫টাকা ফুট ধরে ক্রয় করে লাখ লাখ টাকার বালু ষ্টক করে রাখে। শুষ্ক মৌসুমে এই নদী বন্ধ করে ১৫টাকার বালু ৪০টাকায় বিক্রি করার তাদের উদ্যেশ্যেই।

আর শুষ্ক মৌসুমে চাহিদাও বেড়ে যাওয়ায় অধিক মোনাফা লোভী ব্যবসায়ী চক্রটি সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী নদী যাদুকাটা নদীর পুরোনো পাড় কাটার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রচার,প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে দিয়ে এবং মিথ্যা বনোয়াট সংবাদ প্রকাশ করে একটি বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে নদী বন্ধের পায়তারা করছে।
জানাযায়,তাহিরপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী যাদুকাটা নদীর বালু ও পাথর সারা বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানের ব্যবসায়ীদের অধিক চাহিদার কারনে মোনাফা লোভী একটি চক্রটি প্রতি বছর বর্ষার মৌসুমে জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার লালপুর,গজারিয়া,দুলভপুর ও ছাতক উপজেলাসহ বিভিন্ন স্থানে লাখ লাখ সেফটি বালু স্টক করে রেখেছে। যাদুকাটা নদী বন্ধ করতে পারলেই এই ষ্টক করা বালু ও পাথর কোটি কোটি টাকার বাণিজ্যে করার উদ্দেশ্য। এজন্য ঐচক্রটি এখন যাদুকাটা নদীর পুরনো পাড় কাটার ছবি প্রচার করে নিজের স্বার্থ হাসিল করতে হাজার হাজার শ্রমিকদের পেঠে লাথি মারার অপচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। অথচ সরকারের কনিজ সম্পদ মন্ত্রনালয় এই যাদুকাটা নদীর ১২০হেক্টর জায়গা লিজে দেয়া হয়েছে এবং মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশ রয়েছে এই নদীতে সাধারন শ্রমিকরা সেলু মেশিন দিয়ে হাতে কাজ-কাম করে বালু ও পাথর উত্তোলন করে জীবন জীবিকা নির্বাহ করতে পারবে।
শ্রমিকরা জানান,নদীতে কাজ করে যা উপার্জন হয় তা দিয়ে কোন রখমে সংসার চলে নদী বন্ধ হলে না খয়ে থাকতে হবে। আমাদের কথা কেউ ভাবে না। প্রশাসন যেন ঐসব অপ্রপ্রচারকারীদের কঠোর হস্থে দমন করে তার দাবী জানাই।
এব্যাপারে ইজারাদারগণ বলেন,এই ইজারার অধিকাংশ জায়গার অবস্থান হচ্ছে নদীর পাড়ে। পরিবেশ ও মানবিক দিক বিবেচনা করে আমরা নদীর পাড়ে না গিয়ে নদীর মধ্যেই বালু উত্তোলনের চেষ্টা করে যাচ্ছি প্রতিনিয়ত। গুটি কয়েক মুনাফালোভীরা তাদের হীন স্বার্থ হাসিলের জন্য অপতৎপরতা অব্যাহত থাকায় নদী বন্ধ হলে ৩০হাজার শ্রমিক পরিবারের লক্ষাধিক জনসংখ্যার অনাহারে অর্ধাহারে দিনাতিপাত করতে হবে এই অশংকায় তাদের জীবনে নেমে এসেছে চরম হতাশা। এছাড়াও যাদুকাটা নদী নিয়ে ঐ কুচক্রিমহল নদী বন্ধ করে রাজনৈতিক পতিপক্ষকে ফাঁসাতে গভীর স্বযন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।
তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত্য কর্মকর্তা(ওসি)আতিকুর রহমান জানান,যাদুকাটা নদীতে নিয়মের বাহিরে কোন অনিয়ম হলে পুলিশ কাউকে ছাড় দেবে না। সে যত বড় ক্ষমতাশালী হউক তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যনার্জি বলেন,পরিবেশ সরকারী নিয়ম মেনে যাদুকাটা নদীতে বালু ও পাথর উত্তোলন করাসহ যে কোন কাজ করা যাবে এর ব্যাতয় ঘটলে তাদের আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্থির ব্যবস্থা করা হবে। কোন ছাড় পাবে না কেউ।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ ২০১১ সাল থেকে ২০১৬ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত ৪০টি প্রকল্পের কাজ না করেই অর্থ আত্মসাৎ করায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের শমশেরনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ জুয়েল আহমদ সহ প্রকল্পে সংশ্লিষ্ট ৯ জনকে উচ্চ আদালতে কারণ দর্শাণোর নোটিশ করা হয়েছে। গত ১২ জানুয়ারি সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে শুনানি শেষে তলব আদেশ দিলে মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে ২৯ জাুনয়ারি নোটিশ অভিযুক্তদের কাছে পৌছেছে।

শমশেরনগরের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল গফুরের অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুদক হবিগঞ্জ-মৌলভীবাজার অ ল থেকে অভিযোগের আংশিক তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পেলে ইউপি চেয়ারম্যানকে আসামী হিসেবে অভিযুক্ত করা হয়। সাথে সাথে ১১ লক্ষাধিক টাকা সরকারি তপশিলি ব্যাংকে ফেরৎ প্রদানের পর পুরো অভিযোগ(মামলা ৯/১৬) থেকে চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমদকে এ অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে দুদক সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্র্তৃপক্ষ বরাবরে প্রতিবেদন জমা করেছিলেন। আবেদনকারী উচ্চ আদালতে দুদকের প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে আপিল করেছিলেন।দীর্ঘদিন মামলাটি বিচারাধীণ থাকার পর গত বছর ২৪ জুলাই এনেক্স ২৭ নং কোর্টে ১১১ নম্বর আইটেম হাইকোর্ট তালিকায় বিচারাধীণ তালিকায় আসে। পরবর্তীতে ১৪ সপ্তাহ মামলাটি বিভিন্ন পর্যায়ে শুনানির মাধ্যমে বিচারপতি মো. নাজমুল ইসলাম তালুকদার ও কে এম হাফিজুল আলমের বেে গত ১২ জানুয়ারি ২০২০ শুনানি শেষে শমশেরনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমদসহ ৯জনকে কারণ দর্শাণোর নোটিশ প্রদান করে তলব করেন।
উচ্চ আদালত ফৌজদারী রিভিশন নং-৩০১৯/২০১৮ (উদ্ভূত স্পেশাল পিটিশন নং ০৯/২০১৬ (কমল) সিনিয়র জজ মৌলভীবাজার মূলে শমশেরনগরের চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমদসহ ৯জনকে কারণ দর্শাণোর নোটিশ প্রদান করা হয়। নোটিশে শমশেরনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমদ ছাড়াও রয়েছেন সাবেক ইউপি সদস্য আজব আলী, ঠিকাদার জোসেফ রাল্ফ, তার স্ত্রী সাবেক ইউপি সদস্য মেরী রাল্ফ, ঠিকাদার খালিছ মিয়া, সাবেক ইউপি সদস্য মো. জিতু মিয়া, ঠিকাদার জুনেদ মিয়া, সাবেক ইউপি সদস্য শেলী রানী পাল ও বর্তমান ইউপি সদস্য মো. মাসুক মিয়া।
উচ্চ আদালতের আদেশক্রমে গত ১৮ জানুয়ারি একজন সহকারী রেজিষ্টার (ফৌজ-১)-এর স্বাক্ষরিত নোটিশ গত ১৯ জানুয়ারি মৌলভীবাজারের সিনিয়র স্পেশাল জজের কাছে এসে পৌছলে ১০ দিন পর ২৯ জানুয়ারি নোটিশগুলো অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৯ জনের কাছে পৌছে। উচ্চ আদালতে আপিল আবেদনকারী বাদি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর বলেন, তিনি ৪০টি প্রকল্প উল্লেখ করে ২০১৬ সালের ২৩ মার্চ দুদক চেয়ারম্যান বরাবরে আবেদন করেছিলেন। এ আবেদনের প্রেক্ষিতে দুদক হবিগঞ্জ-মৌলভীবাজার অ ল থেকে ৪০টি অভিযোগের মাঝে আংশিক সরেজমিন তদন্তক্রমে অভিযোগের সত্যতাও পেয়েছিলেন। এর পর মাঠ পর্যায়ের দুদকের তদন্তকারী কর্মকর্তারা পুরো প্রতিবেদনে শমশেরনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমেদকে আসামী করেও পরবর্তীতে অব্যাহিত প্রদানের সুপারিশসহ প্রতিবেদন জমা করেছিলেন। তাই তিনি এ প্রতিবেদনের উপর উচ্চ আদালতে আপিল করায় কয়েকদফা শুনানি শেসে উচ্চ আদালত এ কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করেন। তিনি আরও বলেন, উচ্চ আদালত থেকে সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালত মৌলভীবাজারে ১৯ জানুয়ারি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করে আসামীদের নোটিশ প্রদাণের জন্য নির্দেশনাপত্র পাঠালেও রহস্যজনক কারণে ১০ দিন পর ২৯ জানুয়ারি আসামীদের কাছে নোটিশ পৌছে দেওয়া হয়।
উচ্চ আদালতের নোটিশ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে শমশেরনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমদ বলেন, আসলে মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক ও দুদক হবিগঞ্জ-মৌলভীবাজার অঞ্চলের উপ পরিচালককে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। তাদেরকে যা বলা হয়েছে তা তারা আইনজীবিদের মাধ্যমে জবাব দিবেন।

এম ওসমান : যশোরের শার্শা উপজেলার লক্ষনপুর ইউনিয়নের শিকারপুর গ্রামের আল-মামুনের ৭ মাসের গর্ভবতী স্ত্রী জুলেখা খাতুন (২৪) নিজের ৪ বছরের শিশু কন্যা আমেনাকে হত্যার পর নিজে আত্নহত্যা করেছে বলে জানা গেছে ৷ এ ঘটনায় পুলিশ ২জনকে প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য আটক করেছে।
রবিবার (২রা ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১১টার সময় এই হত্যা ও আত্নহত্যার ঘটনাটি ঘটে।
নিহত জুলেখা খাতুনের চাচা তরিকুল ইসলাম জানান, গত ৬-৭ মাস পূর্বে শার্শার লক্ষনপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামের আলাউদ্দিন গ্যাদন এর মেয়ে জুলি বেগম (২২) এর ১টি স্বর্ণের চেইন হারিয়ে বা চুরি হয়ে যায়। এক পর্যায়ে শনিবার ১লা ফেব্রুয়ারী সকাল ১০ টার সময় মৃত গর্ভবতী মা জুলেখা খাতুনের কন্যা মৃত আমেনা চকলেট কিনতে আলাউদ্দিন গ্যাদনের দোকানে গেলে তার মেয়ে জুলি বেগম আমেনার গলা থেকে তারই চুরি হওয়া স্বর্ণের চেইন মনে করে জোড়পূর্বক খুলে নেয়। এই ঘটনার জের ধরে হারানো স্বর্ণের চেইনের মালিক জুলি বেগম শিকারপুর গ্রামের আল মামুনের বাসায় প্রমানের জন্য এলে মামুনের স্ত্রী জুলেখা খাতুন এর সাথে কথা কাটাকাটি হয়। মৃত গর্ভবতী জুলেখা খাতুন জুলি বেগমকে বলেন, এটি আমার মায়ের গিফট করা চেইন, আমার মা এই স্বর্ণের চেইনটি আমাকে বানিয়ে দিয়েছে৷ কিন্তু আমার মা ঢাকায় চাকুরী করে বিধায় শুক্রবার ছাড়া এলাকায় আসতে পারবেনা বলে মোবাইল ফোনে তৎক্ষণাত জানায়। প্রমান যথাযথ মনে না হওয়ায় স্বর্ণের চেইন খোয়া যাওয়া অভিযুক্ত জুলি বেগম তার বাসায় ফিরে যান।
মৃত গর্ভবতী জুলি খাতুনের মামাতো ননদ একই গ্রামের শরিফুল ইসলামের মেয়ে সীমা খাতুন (১৫) জানায় আজ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে তার ভাবীকে অনেক ডাকাডাকির পর কোন সাড়া শব্দ না দেওয়ায় সন্দেহ হয়৷ তখন জানালা দিয়ে উকি মারলে দেখতে পায় ভাবী বাশেঁর আড়ার সাথে ঝুলে রয়েছে । তখন আমার চিৎকারে আশপাশের পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে দরজা ভেঙ্গে ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে লাশটি নামানোর পর খাটের উপরে আমার ভাইয়ের মেয়ে আমেনার নিথর দেহটি পড়ে থাকতে দেখি। পরে এলাকাবাসী শার্শা থানায় ও স্থানীয় ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট চেয়ারম্যানের খবর দেয়। গর্ভবতী মা সহ দুটি সন্তানের মৃতের ঘটনা এলাকায় চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাবাসীর ধারণা অপমানের বোঝা সইতে না পেরে জুলেখা তার নিজ কন্যা সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার পর নিজে গলায় দড়ি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে ৷ গ্রামবাসী সুষ্ঠু তদন্তের পর দোষীদের শাস্তি দাবি করেছেন৷
আত্নহত্যাকারী জুলেখার স্বামী আল মামুন বলেন, আমার শাশুড়ি রোজার মাসে আমার স্ত্রীকে একটি স্বর্ণের চেইন দিয়েছে, সে ব্যাপারে আমি অবগত আছি । আমার শাশুড়ি প্রমাণের জন্য শুক্রবারে আসার কথা। আমি আজ সকালে রাজমিস্ত্রির কাজে যাওয়ার পর আমার ভাইয়ের মোবাইল কলের মাধ্যমে জানতে পারি আমার স্ত্রী আত্মহত্যা করেছে৷
যশোরের নাভারন সার্কেলের এএসপি জুয়েল ইমরান সাংবাদিকদের বলেন, লাশ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এবং প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জুলি বেগম ও তার মাকে পুলিশের হেফাজতে নেয়া হয়েছেI

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ শহরের ঐতিহ্যবাহী বুলচান্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে পূনরায় বেসরকারী স্যাটেলাইট টেলিভিশন আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার ও দৈনিক আজকের সুনামগঞ্জের সম্পাদক প্রকাশক আবেদ মাহমুদ চৌধুরী আবেদ মাহমুদ চৌধুরী নির্বাচিত হয়েছেন। রোবরার বিকেল ৩টায় বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও বিদ্যালয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নিযুক্ত প্রিজাইডিং কর্মকর্তা বাবু অশোক রঞ্জন পুরকায়স্থের সভাপত্বিতে ও প্রধান শিক্ষক নুরুল আবেদীনের পরিচালনায় এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ২জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করেন।
প্রার্থীরা হচ্ছেন সাবেক নির্বাচিত সভাপতি আবেদ মাহমুদ চৌধুরী ও এহসান আহমেদ উজ্জল। নির্বাচনে ৯জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এর মধ্যে আবেদ মাহমুদ চৌধুরী ৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার প্রতিদ্বন্ধি এহসান আহমদ উজ্জল ৪ ভোট পেয়েছেন।
উল্লেখ্য যে গত ২৮ জানুয়ারি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির অভিভাবক সদস্য ও শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ৭টি পদের মধ্যে ৪ জন নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচিত শিক্ষকদের মধ্যে মৌফিদা হাসান ১৪ ভোট পেয়ে প্রথম স্থান অধিকার করেন এবং ১১টি ভোট পেয়ে দ্বিতীয়স্থান অধিকার করেন বুলচান্দ স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ রুহুল আমীন মাষ্টার ও মহিলা শিক্ষক সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন সহকারী শিক্ষিকা সাবিত্রি ভট্রাচার্য্য। এছাড়া অভিভাবকদের মধ্যে ৭জন প্রতিদ্বন্ধীর মধ্যে ৪ জন নির্বাচিত হন। এদের মধ্যে মোঃ কামরুল হাসান ৪৪টি ভোট পেয়ে প্রথম স্থান অধিকার করেন, মোঃ জমির আলী ৩৯ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়,মোঃ কফিল উদ্দিন ৩৬ ভোট পেয়ে তৃতীয় স্থান ও মোঃ আব্দুল মজিদ ২৪ ভোট পেয়ে চতুর্থস্থান অধিকার করেন। বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবক সদস্য পদে রীনা আক্তার নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার অশোক রঞ্জন পুরকায়স্থ।

 ও ৭ম বর্ষে পদার্পন উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

গীতি গমন চন্দ্র রায় গীতি,স্টাফ রিপোর্টারঃ   ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে রবিবার ২ফেব্রুয়ারী-২০২০ বিকালে পীরগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের আয়োজনে, পীরগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের গৌরবের ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ৮ম বর্ষে পদার্পন উপলক্ষে পীরগঞ্জ পৌরশহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে র‍্যালী শেষ হয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।উক্ত সভায় পীরগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতির বক্তব্যের নেতৃত্বে বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি হিসেবে পীরগঞ্জের প্রবীণ সাংবাদিক মোঃ আব্দুর রহমান, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পীরগঞ্জ পৌরসভার সাবেক কমিশনার মোঃ সলেমান আলী ও ঠাকুরগাঁও জেলা জাসদ সহ সভাপতি মোঃ আব্দুল বারেক,৭নং হাজীপুর ইউনিয়ন জাসদের সভাপতি মোঃ জয়নাল আবেদীন, গেষ্ট অফ অনার হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় যুব জোটের সাধারণ সম্পাদক ডাঃমোঃ মর্তুজা আলম,পীরগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি মোঃ আব্দুর রশিদ, পীরগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামরুজ্জামান,সহ সাধারণ সম্পাদক ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোঃমাহফুজুর রহমান,মানবাধিকার কর্মী রিপা আক্তার,জাসদের ৬ নং পীরগঞ্জ ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ ফরজন আলী,এছাড়া পীরগঞ্জ উপজেলা জাসদের আহবায়ক মোঃ জহিরুল ইসলাম সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc