Thursday 2nd of April 2020 08:57:35 PM

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আলী হোসেন রাজন,মৌলভীবাজারঃ  মৌলভীবাজার সদর উপজেলার কাগাবালা ইউনিয়নে বোরতলায় পুলিশ ডাকাত গোলাগুলিতে ডাকাত সর্দার বুলু মিয়া নিহত হয়েছে। মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি সহ ৫ পুলিশ আহত হয়েছেন। এ সময় দুই ডাকাতকে গ্রেপ্তার, অস্ত্র, ডাকাতিকৃত মালামাল উদ্ধার ও ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত সিএনজি অটোরিক্সা উদ্ধার করেছে পুলিশ। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি আলমগীর হোসেন, এসআই কোরবান আলী, কনষ্টেবল নিলয়, সুরঞ্জিত দাস, নিরুপম পাল।

মৌলভীবাজার মডেল থানার তদন্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান আজ  শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে ১০/১২ জনের ডাকাত দল পার্শবর্তী নাজিরাবাদ ইউনিয়নের কমলাকলস গ্রামের আব্দুল খালিকের বাড়িতে ডাকাতি করে,

স্থানীয় পুলিশের সূত্রে জানা যায়, পুলিশের সাথে গুলাগুলিতে নিহত ডাকাত দলের সরদারের নিথর দেহ।

বাড়ির মালামাল লুট করে পালিয়ে যাওয়ার সময় কাগাবালা ইউনিয়নের বোরতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সম্মুখে থাকা পুলিশের একটি পেট্রল টিম সিএনজি অটোরিক্সার গতিরোধ করলে গাড়ীতে বসা ডাকাতরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

এক পর্যায়ে পুলিশ গুলি করলে ডাকাত সর্দার বুলু ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এ সময় আটক করা হয় দুই ডাকাতকে। অন্যান্য ডাকাত সদস্যরা পালিয়ে যায়।

নিহত ডাকাত সর্দার বুলুর বাড়ি সিলেটের ওসমানী নগরে। আটককৃত ডাকাতরা হলো সিলেটের বিয়ানিবাজার আঙ্গুরা গ্রামের আব্দুল বারীর ছেলে লাল মিয়া, মৌলভীবাজার সদর উপজেলার আতানগিরি গ্রামের হায়দর মিয়ার ছেলে আফজাল মিয়া। বুলুর মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইলে আর বি এফ এম ভবানীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শরিফুল ইসলামের অনৈতিক কাজের জন্য অপসারনের দাবিতে ছাত্রদের বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সদরের ভদ্রবিলা ইউনিয়নের আর বি এফ এম ভবানীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনন করে। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্র নীরব শেখ,মহিদুল,বাদল,সাব্বিরসহ অনেকে।
শিক্ষার্থীরা জানায়,প্রধান শিক্ষক আমাদের বিদ্যালয়ের একাধিক ছাত্রীর সাথে অনৈতিক কাজ করার পরে তার বিরুদ্ধে কোন শাস্তিমুলক ব্যাবস্থা নেওয়া হয়নি। আরো জানায় প্রধান শিক্ষক আমাদের নৈতিক শিক্ষা দিবেন কিন্তু তিনি নিজেই খারাপ কাজ করেছেন। আমাদের বোনদের বিভিন্ন অজুহাতে তার রুমে ডেকে নিয়ে অনৈতিক কাজে বাধ্য করে এবং শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। এই প্রধান শিক্ষকের কাছে আমাদের বোনেরা নিরাপদ না। তাই আমরা এই প্রধান শিক্ষকের অধীনে কোন ক্লাস করবো না এবং এই শিক্ষক অপরারন করে দ্রুত শাস্তির ব্যাবস্থা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানাচ্ছি।
এলাকার সুধী সমাজের লোকেরা জানায়, নড়াইল সদর উপজেলার আরবিএফএম ভবানীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে যোগদান করার পর থেকে একের পর এক যৌন কেলেংকারীর ঘটনা ঘটিয়ে চলেছেন। তার কাছে যৌন হয়রানির শিকার অধিকাংশ ছাত্রীরা লজ্জা সম্মান ও ভয়ে গোপন রাখে। তারপরও প্রধান শিক্ষক শরিফুলের নিকট যৌন হয়রানীর শিকার হওয়া ৪ জন ছাত্রীর করুন কাহিনী জানাজানি হয়ে যায়। ইতোপূর্বের ৩টি ঘটনা নানা মহলে দেন দরবারের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলাম ধামাচাপা দেন।
সম্প্রতি ১০ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানী করার ঘটনা সর্বমহলে জানাজানি হয়। ওই ছাত্রীর বাবা বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি’র সভাপতির নিকট লিখিত আবেদন করেন বিচার চেয়ে। এসএমসি সভাপতি দুশ্চরিত্রের এ প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছেন। স্থানীয়রাও ক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠেন দুশ্চরিত্রের এই প্রধান শিক্ষকের উপর।
বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও এলাকার লোকজন পৃথক টিম গঠন করে গোপনীয় ভাবে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনিত স্পর্শকাতর এ অভিযোগটি খতিয়ে দেখেন। তাদের তদন্তে ঘটনার সত্যতা বেরিয়ে আসে। সেই সাথে অতীতের আরো ছাত্রীদের যৌন হয়রানী করার প্রমান মেলে। এতে এলাকার আপামর জনগন ফুঁসে উঠেছেন। তারা সংশ্লিষ্ট প্রশাসন সহ বিভিন্ন মহলে প্রধান শিক্ষক শরিফুলের বিচারের দাবী জানিয়েছেন। যদিও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির পক্ষ থেকে সঠিক বিচারের আশ্বাস দেয়া হয়েছে।
তথাপিও এলাকার জনগন বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছেন। কারন বার বার যৌন কেলেংকারী করে অবৈধ অর্থের প্রভাবে পার পেয়ে যাচ্ছেন চরিত্রহীন এই শিক্ষক। তার অপসারনের দাবীতে উত্তাল হয়ে উঠেছে গোটা এলাকা।
১১ জানুয়ারী শনিবার অত্র বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির ব্যবস্থাপনায় প্রধান শিক্ষকের যৌন কেলেংকারী ঘটনায় এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, বিদ্যালয়ের পঠন পাঠন কার্যক্রম গতিশীল রাখার স্বার্থে চরিত্রহীন প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলামকে বরখাস্ত করা ছাড়া আর কোন উপায় নেই।

মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

জেসমিন মনসুর: মৌলভীবাজার জেলা সদরের ৬নং একাটুনা ইউনিয়ন ডেভেলপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহাণ শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।অনুষ্ঠানের শুরুতেই ভাষা শহীদদের স্মরণে একাটুনা ইউনিয়ন  ফাউন্ডেশনের নব- নির্মিত শহীদ মিনারে একাটুনা ইউনিয়ন পরিষদ.একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশন,হোমচাইল্ড কেজি এন্ড ক্যাডেট স্কুল,একাটুনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কিশোর কিশোরী ক্লাব, প্রতিভা যুব সংঘসহ বিভিন্ন সংগঠন ও  প্রতিষ্ঠান এর পক্ষ থেকে পুষ্প স্তবক অর্পন করা হয়েছে।

একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের সভাপতি সমাজসেবক সিরাজুল ইসলাম সিরাজ এর সভাপতিত্তে এবং প্রতিভা যুব সংঘের সহ সাধারন সভাপতি ছাত্রনেতা মোহাম্মদ ফয়ছল মনসুর এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে একাটুনা ইউনিয়ন ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ ও সামাজসেবক মোহাম্মদ আনকার আহমদ।বিশেষ অতিথি হিসাবে একাটুনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জননেতা আলহাজ্ব আবু সুফিয়ান.বৃটেন  প্রবাসী কমিউনিটি লিডার জয়নাল আবেদিন লেখন. আমেরিকা প্রবাসী লিডার শেখ সামসুল তালুকদার  ও আমেরিকা প্রবাসী শামীম আহমদ বক্তব্য রাখেন।

এদিকে অনুষ্ঠান চলাকালে বৃটেন থেকে একাটুনা ইউনিয়ন ডেভেলপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান সমন্নয়কারী বিশিষ্ট সাংবাদিক মোহাম্মদ মকিস মনসুর টেলি কনফারেন্সে অনুষ্ঠান সফল করতে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ফাউন্ডেশনের সাধারন সম্পাদক সেলিম রেজা তরফদার. ট্রেজারার মোহাম্মদ মুজিব মনসুর. ডাঃ মোহাম্মদ ইসমাইল,মুজিবুর রহমান মুজিব, মোহাম্মদ শামিম আহমদ, আব্দুল  আলিম,পারভেজ মিয়া. মোহাম্মদ কামাল মনসুর,ও তাজুল চৌধুরীসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারী আমি কি ভূলিতে পারি. একুশ  আমাদের অহংকার একুশ আমাদের আত্তপরিচয় একুশের পথ ধরে আমরা পেয়েছি বাংলাদেশের লাল  বৃত্ত সবুজ পতাকা; গৌরব ও গর্বের সাথে উচ্চারণ করছি বাংলা আমার দেশ,বাংলা আমার ভাষা ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো কতৃক স্বীকৃতি লাভের পর ২০০০ সাল থেকেই বিশ্ববাসীর ১৮৮টি দেশ আমাদের  ২১ শে ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে পালন করে আসছে এই গৌরব  বাঙালী জাতির।

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: ভারতের দিল্লীতে মুসলমানদের উপর বর্বরোচিত হামলা ও সহিংসতার প্রতিবাদে নবীগঞ্জ উপজেলার পানিউমদা এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। শুক্রবার ২৮ (ফেব্রুয়ারি) বাদ জুম্মা উপজেলার পানিউমদা ইউনিয়নের পানিউমদা বাজারস্থ সর্বস্তরের মুসলিম জনতার ব্যানারে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

ইউপি সদস্য আরজদ আলীর সভাপতিত্বে ও ডিএসবি মোহাইমিন চৌধুরীর স ালনায় বক্তব্য রাখেন, মুফতি শাহরিয়াজ, মনসুর আলম, ইউপি সদস্য মুহিত মিয়া, মজনু আহমেদ, মনজুর আলী, মাওলানা হাফিজ উদ্দিন, মাওলানা কাউসার আহমেদ, মাওলানা শামিম আহমেদ, মাওলানা রাহাত আহমেদ, অনু আহমেদ, প্রভাষক শাহেদুজ্জামান ফরহাদ, শামসুদ্দিন জনি, আনিছ মিয়া, ফয়জুর রহমান, মুকুল মিয়া, আবুল ফজল, ফয়ছল আহমদ, আব্দুল মালেক, জাহিদ আহমেদ চৌধুরী, সোনা মিয়া, কালাম আহমেদ, জয় মিয়া, মজনু মিয়া, মুজিবুর রহমান, তোফাজ্জুল ইসলাম, আব্দুল হাই, খালেদ আহমেদ, সামছুল রহমান রাহাদ, আহমেদ, হাবিবুর রহমান, মুজিবুর রহমান, লিংকন আহমেদ প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদি গোষ্ঠি সে দেশের মুসলমানদের উপর যেভাবে জুলুম নির্যাতনের শুরু করেছে, তার বিরুদ্ধে শান্তিকামী জনতা প্রতিরোধ গড়ে না তুললে বিশ্ব শান্তির জন্য বিপর্যয় বয়ে আনবে। বক্তারা আরও বলেন, ‘অবিলম্বে ভারতে মুসলিম নির্যাতন বন্ধ করতে হবে।

একই সঙ্গে ভারতের মুসলিম নির্যাতন হত্যার বিরুদ্ধে সারা বিশ্বের মুসলমানকে ঐক্যবদ্ধভাবে সোচ্চার হতে হবে।’ বক্তারা মুসলমানদের উপর বর্বরোচিত হামলা ও সহিংসতার জন্য জড়িতদের শাস্তির দাবী জানান।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। নতুন ছয়টি দেশে প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হওয়ার পর হু এই ঘোষণা দিল।

শুক্রবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে হু’র প্রধান তেদ্রোস গেব্রিয়েসাস বলেছেন, “আমরা এ বিপদকে খাটো করে দেখতে রাজি নই। এ কারণেই আমরা বলছি, এ ভাইরাসের বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি খুবই বেশি। আমরা সতর্কতার মাত্রা ‘উচ্চ’ থেকে ‘সর্বোচ্চ’ ধাপে নিয়ে গেছি।”

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় চীনে ৩২৯ জন নতুন রোগী পাওয়া গেছে, যা এক মাসের মধ্যে সবচেয়ে কম। চীনে আক্রান্তের মোট সংখ্যা ৭৮ হাজার ৯৫৯, মৃত্যু হয়েছে প্রায় ২৮০০ মানুষের। বিশ্বের ৫৪টি দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৮৩ হাজার ৬৯৪ জন। ইতোমধ্যে মারা গেছে ২ হাজার ৮৬১ জন।

শুক্রবার লাতিন আমেরিকার দেশ মেক্সিকো, আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়া, ইউরোপের ডেনমার্ক, এস্তোনিয়া, নেদারল্যান্ডস ও লিথুয়ানিয়ায় প্রথমবারের মত করোনাভাইরাস আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গেছে। এর সবগুলো ঘটনার সঙ্গেই পাওয়া গেছে ইতালির যোগাযোগ।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালির অবস্থাই সবচেয়ে খারাপ। সেখানে ৬৫০ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে, মৃত্যু হয়েছে ১৭ জনের। চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। সেখানে ২ হাজার ৩৩৭ জনের মধ্যে সংক্রমণ ঘটেছে, মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের। তবে চীনের বাইরে মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি ইরানে। সেখানে আক্রান্ত হয়েছে ৩৮৮ জন, মারা গেছে ৩৪ জন। এর বাইরে জাপানে ১১ জন, হংকং ও ফ্রান্সে দুজন করে এবং ফিলিপিন্স ও তাইওয়ানে একজন করে মানুষের মৃত্যু হয়েছে।পার্সটুডে

“হলুদ ফুল আর সবুজ গাছে এক অপরূপ দৃশ্য যা দেখে পথিকের ছবি তোলার কৌতূহল” 

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সূর্যমুখী ফুলের চাষ করে লাভবান হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন কৃষক সৈয়দ জামাল হোসেন। ১ বিঘা জমিতে সূর্যমুখী ফুলের চাষ করেছেন তিনি। ইতোমধ্যেই গাছে ফুল ধরতে শুরু করেছে। এক একটি ফুল যেন হাসিমুখে সূর্যের আলো ছড়াচ্ছে।

চারিদিকে হলুদ ফুল আর সবুজ গাছে সে এক অপরূপ দৃশ্য। প্রতিদিন আশপাশের এলাকা থেকে সৌন্দর্য পিয়াসু মানুষ সূর্যমুখী ফুলের ক্ষেত দেখতে আসছে। অনেকেই ফুলের সঙ্গে দাঁড়িয়ে ছবি তুলছেন সেলফি নিচ্ছেন।নিজ নিজ ফেইসবুক ওয়ালে লাগিয়ে দিচ্ছেন এই হলুদ ফুল আর সবুজ গাছের  এক অপরূপ দৃশ্য। ফুলের এই সৌন্দর্যে পিছিয়ে নেই পরিবেশ বান্ধব মৌমাছিরা। ফুল জুড়ে উড়ে বেড়াচ্ছে মৌমাছির দল, এ যেন ফুল প্রেমিকার আঙ্গিনায় ফুল প্রেমিকের উল্লাস।

কমলগঞ্জ পৌর এলাকার কামারগাও গ্রামের মৃত সৈয়দ আবুল হোসেনের ছেলে সৈয়দ জামাল হোসেন (৩৮)। তিনি টানা ২ বারের পৌর কাউন্সিলর। জনপ্রতিনিধিত্বের পাশাপাশি তিনি কৃষিকাজও করেন। উপজেলা কৃষি অফিস থেকে বিনামূল্যে বীজ ও সার পেয়ে এ বছর পানিশালা গ্রামে ১ বিঘা জমি লিজ নিয়ে সূর্যমুখী ফুলের চাষ করেছেন তিনি।
কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, অল্প সময়ে কম পরিশ্রমে ফসল উৎপাদন ও ভালো দাম পাওয়া যায় বলে কৃষকরা এখন সূর্যমুখী চাষ করছেন। প্রতি বিঘা জমিতে ১ কেজি বীজ দিতে হয়। দেড় ফুট অন্তর অন্তর একটি করে বীজ বপন করতে হয়। একটি সারি থেকে আরেকটি সারির দূরত্ব রাখতে হয় দেড় ফুট। মাত্র ৮৫ থেকে ৯০ দিনের মধ্যে বীজ বপন থেকে শুরু করে বীজ উৎপাদন করা সম্ভব। প্রতি একর জমিতে সব খরচ বাদ দিয়ে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা লাভ হয়। যা অন্য কোনো ফসলের চেয়ে কম পরিশ্রমে ভালো আয়।

কৃষক জামাল হোসেন (পৌর কাউন্সিলর) বলেন, ‘উপজেলা কৃষি অফিসারের পরামর্শে ১ বিঘা জমি লিজ নিয়ে সূর্যমুখীর চাষ শুরু করেছেন তিনি। প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে আশা করছেন ভালো আয় হবে। তিনি আশা করছেন ১ বিঘায় ৬ থেকে ৭ মণ ফলন পাওয়া যাবে। উপজেলা কৃষি অফিস থেকে তাকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হয়েছে।’

এ বিষয়ে কমলগঞ্জ পৌরসভার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কনক লাল সিংহ বলেন, ‘সূর্যমুখী চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করতে বিনামূল্যে বীজ ও সার দেওয়া হয়েছে। প্রতি বিঘা জমিতে ছয় থেকে সাড়ে ছয় মণ সূর্যমুখী ফুলের বীজ পাওয়া যাবে। কৃষকদের স্বাবলম্বী করতেই সূর্যমুখী ফুল চাষে উৎসাহিত করা হয়েছে। যদি সফল হওয়া যায় আগামীতে সূর্যমুখীর চাষ অনেক বাড়বে।’

উল্লেখ্য,সূর্যমুখীর বীজে লিনোলিক এসিড বিদ্যমান থাকার ফলে এতে উন্নতমানের তৈল থাকে। সূর্যমুখীর তেলের ভেষজগুণ সম্পর্কে জানা যায় এটি হৃদরোগীদের জন্য খুবই উপকারী।

তাছাড়া সূর্যমুখীর খৈল গরু ও মহিষের উৎকৃষ্টমানের খাদ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এর বীজ ছাড়ানোর পর মাথাগুলো গরুর খাদ্য হিসেবে ব্যবহার করা যায়। গাছ ও পুষ্পস্তবক জ্বালানী হিসেবে ব্যবহৃত হয়। সূর্যমুখী সাধারণত সব মাটিতেই জন্মে। তবে দো-আঁশ মাটি সবচেয়ে বেশী উপযোগী।

তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় চ৪ফ প্রকল্পের আওতায় “সুশাসনের জন্য কৌশলগত যোগাযোগ” শীর্ষক কর্মশালা ২৮-২৯ফেব্রুয়ারি প্রথম দিনের কর্মশালা সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত অনুষ্টিত হয়েছে।

শুক্রবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন,জাতীয় গনমাধ্যম ইনস্টিটিউট পরিচালক (প্রশাসন ও উন্নয়ন) এর মোঃ মুনজুরুল আলম,উপপরিচালক (প্রশাসন) সৈয়দ জাহিদুল ইসলাম,উপপরিচালক,মোঃ আবুজার গাফফারী,সহকারি পরিচালক,মোঃ আব্দুল মান্নান,বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সমীর বিশ্বাস,জেলা তথ্য অফিসার আনোয়ার হোসাইনসহ বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার কর্মরত ২৫জন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলে নানা আয়োজনে শ্রী শ্রী রামকৃষ্ণ দেবের ১৮৫ তম জন্মতিথি ও বার্ষিক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার বিকেলে নড়াইল রামকৃষ্ণ আশ্রম ও রামকৃষ্ণ মিশন চত্বরে শ্রী রামকৃষ্ণের ‘জীবন ও আদর্শের’ ওপর আলোচনা সভা ও সংগীতানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাই কোর্ট বিভাগের বিচারপতি সৌমেন্দ্র সরকার।

নড়াইল রামকৃষ্ণ আশ্রমের সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডঃ সুবাস চন্দ্র বোসের সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার), কোলকাতার বাগবাজার রামকৃষ্ণ মঠের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ স্বামী নিত্যমুক্তানন্দজী মহারাজ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইমরান হোসেন, শিক্ষাবিদ প্রদ্যুৎ ভট্টাচার্য, মনোরঞ্জন কাপুড়িয়া কলেজের অধ্যক্ষ তাপসী কাপুড়িয়া সহ অনেকে বক্তব্য রাখেন ।

অনুষ্ঠানে রামকৃষ্ণের বিপুল সংখ্যক ভক্ত, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন শ্রেনীী পেশার মানুষ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন নড়াইল রামকৃষ্ণ আশ্রম ও রামকৃষ্ণ মিশনের অধ্যক্ষ স্বামী জ্ঞানপ্রকাশানন্দজী মহারাজ।
আলোচনা সভার আঘে ও পরে কোলকাতার শিল্পী ও স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় সংগীতানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীন দ্বন্দের জের ধরে আদমপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহসভাপতি তুহিন পারভেজ তুষার এর উপর সন্ত্রাসী হামলা করা হয়েছে। আহত তুষারকে সিলেট রাগিব রারেয়া মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলায় তার দুই পা ও হাতের হাড়ে প্রচন্ড আঘাত লেগেছে।

এ হামলার পিছনে আদমপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি/সম্পাদক জড়িত বলে তুষারের পরিবার অভিযোগ করেছেন। ঘটনাটি বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় আদমপুর বাজারে ঘটেছে।

জানা যায়, মাস তিনেক আগে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কমলগঞ্জ উপজেলা আদমপুর শাখা কমিটি ঘোষনা করা হয়। সেই কমিটির অন্যতম সহ সভাপতি তুহিন পারভেজ তুষার। তার পর হতে তুষারের সাথে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জাকারিয়া আহমেদ ও সম্পাদক মামুনের সাথে দ্বন্দ দেখা দেয়।

দ্বন্দের কারনে তাদের সাথে অশোভন আচরণ ও শৃংঙ্গলা ভঙ্গের অভিযোগে গত ২৬ তারিখ তাকে দল থেকে বহিস্কার করলে উপজেলা নেতৃবৃন্দ বিষয়টি মীমাংসা করার একদিন পর বৃহস্পতিবার ২৭ রাত ৯টায় আদমপুর বাজারে একা পেয়ে ছাত্রলীগ নেতা তুহিন পারভেজ তুষারের উপর সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।

হামলায় তুষারের দুই পা ও হাতে মারাত্মক আাঘাতপ্রাপ্ত হয়ে আহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে প্রথমে কমলগঞ্জ ৫০ শষ্যা হাসপাতালে নিলে সেখান হতে সিলেট রাগিব রাবেয়া মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই হামলার পেছনে আদমপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি জাকারিয়া ও সম্পাদক মামুন জড়িত বলে তুষারের পরিবার ও স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতারা অভিযোগ করেছেন।

আদমপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি জাকারিয়া আহমদ তুষারের হামলার সাথে জড়িত নন বলে অস্বীকার করেন। তিনি হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেন সে বিএনপির লোকের সাথে চলাফেরা করে। কারা মেরেছে তা তিনি বলতে পারেন না।
কমলগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাহাত ইমতিয়াজ রিপুল বলেন, ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। ছাত্রলীগের কেউ হামলার সাথে জড়িত থাকলে সাংগঠনিক ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আরিফুর রহমান বলেন, আমি কোন অভিযোগ পাইনি। তবে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ১২০ একরসহ প্রায় ১৯০ একর জমি রয়েছে। এসব পাহাড়ি টিলা, লীজ গ্রহণ করে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা হীড বাংলাদেশ। কিন্তু পাশ্ববর্তী প্রভাবশালীরা জমি বেদখল করে ঘর বাড়ি নির্মাণের পায়তারা করেছে। সম্প্রতি স্থানীয় আক্তার মামুন নামে এক ব্যক্তি ঘর নির্মাণ করা হলে প্রশাসন ঘরটি ভেঙ্গে ফেলে।

এদিকে গত দুইদিন ধরে হীড বাংলাদেশকে না জানিয়ে স্থানীয় এক প্রভাবশালীর ছত্রছায়ায় বাড়ি নির্মাণের পায়তারা করা হচ্ছে।

হীড বাংলাদেশ, কমলগঞ্জ এর লিয়াজো অফিসার ও ব্যবস্থাপক নুরে আলম সিদ্দিকী জানান, এটি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জায়গা, হীড বাংলাদেশ লীজ নিয়ে আছে। এলাকার এক প্রভাবশালীর ছত্রছায়ায় একটি ঘর নির্মাণ করার পায়তারা করলে সাথে সাথে কমলগঞ্জ থানা পুলিশকে খবর দেয়া হয়।

গত বুধবার কমলগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই রাব্বী ঘটনাস্থলে এসে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখেন এবং সঠিক কাগজপত্র দেখার জন্য বলা হয়। বৃহস্পতিবার কাগজ পত্র সঠিকভাবে দেখাতে না পারায় আপাতত ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে।

সরেজমিন হীড বাংলাদেশ এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, একটি ঘর আশিংকভাবে নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়া পাহাড়ি টিলার উপর ছায়বৃক্ষ কেটে নিয়ে মোথা আর মোথা পড়ে আছে। অন্যদিকে ইট সলিং রাস্তা চোরেরা ইট তুলে নিয়ে যাচ্ছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিশাল এরিয়া প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় এভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় সচেতন মহল।

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: নবীগঞ্জের ইমামবাড়ী এলাকায় মাদকসেবী সজলুর দৌরাত্ম্য নিয়ে তোলপাড় চলছে। ক্ষমতার বলয়ে থেকে অবাধেই চালিয়ে যাচ্ছে মাদকের রমরমা ব্যবসা। এছাড়া অস্ত্র মামলায় সে দীর্ঘ সাজা ভোগের পর নতুন করে গড়ে তুলেছে অপরাধ সাম্রাজ্য। তার ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খোলার সাহস পাচ্ছে না। ম্যানেজ প্রক্রিয়ায়ই চলছে তার কার্যক্রম। এনিয়ে এলাকায় বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। বিপথগামী হচ্ছে এলাকার যুবসমাজ।
স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নের দক্ষিণ চরগাঁও গ্রামের হীরা মিয়ার পুত্র সজলু মিয়া এলাকায় অবাধেই মাদক সেবন এবং বিক্রির অবাধ বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে। তার দুই সহযোগী কাবিল মিয়া ও মোহিত মিয়াকে নিয়ে গড়ে তুলেছে মাদকসহ বিভিন্ন অসামাজিক কাজের সিন্ডিকেট। ওই সিন্ডিকেট কর্তৃক পরিচালিত অপকর্ম নিয়ে কেউ মুখ খোলার সাহস নেই। গাঁজা ও ইয়াবা ব্যবসার পাশাপাশি সজলু ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে অসামাজিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে। এলাকার ইমামবাড়ী বাজার এলাকায় মাদকের হাট বসালেও রহস্যজনক ভূমিকা পালন করছে প্রশাসন। ওই চক্রের দৌরাত্ম্যে অতিষ্ঠ জনপদের লোকজন। উপজেলা শহরের মাদকসেবী চক্রের শেল্টার নিয়ে এলাকায় মাদকের অবাধ বিস্তার ঘটাচ্ছে।
দায়িত্বশীল একাধিক সূত্রে প্রকাশ, সন্ধ্যার
পরপর সজলুর আস্তানায় বিভিন্ন এলাকা থেকে অপরিচিত লোকজনের জলসা বসে। অনেকটা প্রকাশ্যেই চলে মাদক সেবন ও কেনাকাটার ব্যবসা। এতে ক্রমাগতভাবে বিপথগামী হচ্ছে এলাকার যুবসমাজ। মাদকের মরণ ছোবল যুবসমাজকে গ্রাস করছে। ফলে সামাজিক স্থিতিশীলতা বিনষ্ট হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলার অবনতি নিয়ে উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে। আলোচিত ওই সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনের নিকট দাবি জানিয়েছেন এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই অঙ্গরাজ্যের বিমান পরিবহন সংস্থা- এমিরেটস হঠাৎ করে ইরানে যাতায়াতকারী সব ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছে। এর ফলে দুবাইসহ আরব আমিরাতের বিভিন্ন স্থান থেকে দেশে ফিরতে ইচ্ছুক ইরানি নাগরিকরা বিপাকে পড়েছেন।

এ অবস্থায় আটকে পড়া ইরানিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি। পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই এমিরেটসের এ পদক্ষেপের ফলে দেশের বাইরে থাকা ইরানিরা যে বিপাকে পড়েছেন সে সংক্রান্ত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে গতকাল (বৃহস্পতিবার)মুসাভি একথা জানান।

তিনি বলেন, আটকে পড়া ইরানি নাগরিকদের ফিরিয়ে আনতে যাতে ইরানের বিমানগুলো সংযুক্ত আরব আমিরাতে যেতে পারে সে ব্যবস্থা নেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। মুসাভি বলেন, ইরানের রাষ্ট্রীয় বিমান পরিবহন সংস্থার কর্মকর্তারা তেহরানস্থ আরব আমিরাতের দূতাবাসের সঙ্গে এ ব্যাপারে নিবিড় আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

ইরানের বিভিন্ন শহরে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর এমিরেটস তেহরানসহ ইরানের আরো কয়েকটি শহরে যাতায়াতকারী নিজের সবগুলো ফ্লাইট পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বন্ধ করে দিয়েছে।বিমান পরিবহন সংস্থাটি বলেছে, পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত ফ্লাইট চলাচলের ওপর এই স্থগিতাদেশ বহাল থাকবে।পার্সটুডে

এম ওসমান, বেনাপোল প্রতিনিধি:  যশোরের শার্শায় বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষাপেল স্কুল ছাত্রী ঐশী আক্তার (১৪)। বৃহষ্পতিবার বিকালে শার্শা উপজেলার সদর ইউনিয়নের গাতীপাড়া গ্রামে বিবাহ বাড়ীতে হঠাৎ নির্বাহী ম্য্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী উপস্থিত হয়ে এই বাল্য বিবাহ বন্ধ করেন।
জানা যায়, শার্শার সদর ইউনিয়নের গাতীপাড়া গ্রামের মোঃ শাহিন মোড়ল’র স্কুল পড়–য়া মেয়ে (কনে) মোছাঃ ঐশি আক্তার (১৪) সাথে পাশের বাড়ির মোঃ নুর ইসলাম’র ছেলে (বর) মোঃ সুজন হোসেন (২৫), এর বিবাহ সম্পাদনের উদ্দেশ্য খাওয়া-দাওয়া ও বিবাহ সংক্রান্ত আয়োজন চলছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বিবাহ বাড়ীতে হঠাৎ নির্বাহী ম্য্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী উপস্থিত হয়ে এই বাল্য বিবাহ বন্ধ করেন। এসময় ২০১৭ অনুযায়ী কন্যার বয়স ১৮ বছরের কম হওয়ায় সে একজন অপ্রাপ্ত বয়স্ক। উপর্যুক্ত অপরাধের কারণে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ অনুযায়ী বাল্যবিবাহকারী বর সুজন হোসেনকে ১১হাজার এবং পিতা কনের পিতা শাহিন মোড়লকে ১০হাজার টাকা অর্থদ প্রদান করা হয়।
সহকারী সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্য্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী জানান, ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে আমি কন্যা ও বরের বাবাকে বাল্যবিবাহ বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তারা বলেন কোর্ট থেকে এভিডেভিডের মাধ্যমে ছেলে-মেয়ের বিবাহ সম্পন্ন করেছেন কিন্তু তারা জানেননা যে, এভিডেভিড কোন বিয়ে নয়, শুধু হলফনা এবং কেউ যদি এভিডেভিডকে বিয়ে মনে করে এক সঙ্গে বসবাস করে তা হবে ব্যভিচার। আমি মেয়ের জন্ম সনদ এবং স্কুল সার্টিফিকেট যাচাই করে দেখতে পাই যে কনে মোছাঃ ঐশি আক্তার ১৪ বছর। যে কারণে বর ও কনের বাবাকে অর্থদন্ড করা হয়েছে। এবং কনের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হওয়ার আগে বিয়ে দিতে কনের বাবাকে নিষেধ করা হয় এবং সবাই একমত পোষণ করেন। তিনি আরো বলেন, বাল্যবিবাহ নিরোধ বিষয়ে উপজেলা প্রশাসন সবসময় জিরো টলারেন্স।

মাদকের ভয়াবহতা দুর করতে না পারলে,সরকারের সকল উন্নয়ন মুখ তুবড়ে পড়বে।

চুনারুঘাট প্রতিনিধি: বাংলাদেশ সরকারের বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী, এমপি বলেছেন- চুনারুঘাট থেকে মাদক চিরতরে নির্মুল করতে হবে। মাদকের ভয়াবহতা দুর করতে না পারলে সরকারের সকল উন্নয়ন মুখ তুবড়ে পড়বে। যুব সমাজকে রক্ষা করতে হলে মাদকের বিরুদ্ধে কঠিন ভাবে আইন প্রয়োগ করতে হবে।

গতকাল (২৭ ফেব্রুয়ারী) বৃহস্পতিবার দুপুরে মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলা প্রশাসন ও আহম্মদাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত ইউনিয়ন উন্নয়ন উৎসব ২০২০ইং পালন অনুষ্ঠানে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথাগুলো বলেন তিনি।

উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ পিপিএম, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল কাদির লস্কর, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সত্যজিত রায় দাশ, থানা অফিসার ইনচার্জ শেখ নাজমুল হক প্রমুখ।

অনুষ্টান পরিচালনা করেন উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগ সাধারণ সম্পাদক ও আহম্মদাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবেদ হাসনাত চৌধুরী সনজু।

অনুষ্ঠানে এছাড়াও বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান রিপন, উপজেলা কৃষক লীগের আহবায়ক মুজিবুর রহমান, উপজেলা তাঁতীলীগ সভাপতি কবির মিয়া খন্দকার, চুনারুঘাট রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাংবাদিক নুরুল আমিন, যুবলীগের সাধারন সম্পাাদক কেএম আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

ওই উৎসবে উপজেলার সবক’টি সরকারী দপ্তর উন্নয়ন ষ্টল সাজিয়ে ছিলো। ষ্টল গুলোর মধ্য থেকে চুনারুঘাট থানা পুলিশের ষ্টল প্রথম, উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ ২য় ও প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ৩য় স্থান অধিকার করে।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় দিন ব্যাপী  বিভিন্ন হাওরের বাঁধের কাজ পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জি।
বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলার হাওড় এর ফসল রক্ষা বাঁধের ১৩,১৪,১৯,৩১,৩৬,৩৭,৩৮,৩৯ ৪৬নং পিআইসির হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ সরেজমিন পরিদর্শন করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন শ্রীপুর দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিশ্বজিৎ সরকার,পানি উন্নয়ন বোর্ডের সেকশন অফিসার ইমরান হোসেন সহ পিআইসির সদস্যরা।
এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জি বলেন,বাঁধে কোন গাফিলতি সহ্য করা হবে না। সঠিক ভাবে কাজ করতে হবে না হলে এর দায় ভার আপনাদের (পিআইসি)।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc