Friday 28th of February 2020 03:43:53 PM

সুনামগঞ্জ জেলার বাদাঘাট ছাত্রলীগের মিছিল

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দীপঙ্কর কান্তি দের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেইসবুকে অপপ্রচারের
প্রতিবাদে তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট সরকারি কলেজ শাখার ছাত্রলীগের প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্টিত হয়েছে।
শুক্রবার বিকালে উপজেলার বানিজ্যিক কেন্দ্র বাদাঘাট বাজারের আ,লীগ কার্য্যালয় থেকে বাদাঘাট সরকারি কলেজ শাখার ছাত্রলীগ নেতা তারেক আল মামুনের নেতৃত্ব একটি প্রতিবাদ মিছিল বের হয়।
মিছিলটি বাজারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আ,লীগ কার্য্যালয়ে এসে মিলিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন,বাদাঘাট সরকারি কলেজ শাখার ছাত্রলীগ নেতা তারেক আল মামুন,আসাদুজ্জামান অপু,জে পি জিলহজ,শাহারিয়ার হাসান, ইসলাম উদ্দীন,কবির হোসেন,,রবিন আহমেদ,তানবির আহমেদ, সজিব আহমেদ,রিয়াজ,সাগর আহমেদ, সুজন আহমেদ, জিহাদ,তুষার আহমেদ, রতন আহমেদ,আনিসুর রহমান রতন, হৃদয়,আলামিনসহ প্রমুখ।
 
এসময় বক্তারা বলেন,সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দীপঙ্কর কান্তিদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে লাভ নেই। সবাই যানে তিনি কতটা ভাল মানুষ।  যারা এই কুরুচিপূর্ণ কাজটি করছে তাদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তি দিতে আইন শৃংখলাবাহিনী প্রতি আহবান জানান।

তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) সংবাদদাতাঃ যার নিজেরেই নেই কোন ভাল মন্দ বুজার ক্ষমতা,নেই জ্ঞান। যে কি না সারাদিন এখানে ওখানে ঘুরে বেড়ায় বিচ্ছিন্ন ভাবে বাজারের এ প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে যে যা দেয় খেয়ে না খেয়ে চলছে মানব দেহের ভিতর জীবনটা। সেই ৩০ বছর এক পাগলির সাথে অনৈতিক সম্পর্ক তৈরী করে তার গর্ভে সন্তান ধারণ করিয়েছে কে সেই লোক প্রশ্নের উত্তর মিলছে না কোথাও। তাই এই প্রশ্নের উত্তর মেলাতে সেই বাবাকেই এখন হন্যে হয়ে খোঁজছে তাহিরপুর থানা পুলিশ।
বৃহস্পতিবার সকালে জেলা তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট বাজারের বাদামপট্রিতে ফুটফুটে একটি মেয়ে সন্তান ভূমিষ্ট হয়েছে এক পাগলীর। শুধু আজেই নয় এই পাগলী তিন বছর পূর্বে আরেকটি কন্যা সন্তান জন্ম দিয়েছে। পাগলিনী মা তিন বছরের ব্যবধানে পর পর দুটি কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে পৃথিবীর আলো দেখালেও সেই সন্তানের পিতৃ পরিচয়ের কোন হদিস মিলছে না। এনিয়ে যেন কারো মাথা ব্যাথা নেই। বাবা ছাড়া সন্তান হতে পারে না কেউ না কেউ তার সাথে অনৈতিক সর্ম্পকে জড়িয়েছে। যার ফলে এই সন্তান। আর কে করেছে এমন কাজ এনিয়ে উপজেলা জুড়ে তুলপার শুরু হয়েছে।
এই খবর পেয়ে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যনার্জি খোঁজখবর নেন। পরে তিনি পাগলিনীর শিশু কন্যার পিতৃ পরিচয় খুঁজে বের করতে থানা পুলিশকে নির্দেশনা দেন।
জানাযায়,উপজেলার বাণিজ্যিক কেন্দ্র বাদাঘাট বাজারে বাদাম পট্টিতে র্দীঘ দিন ধরে ভবগুরে ভাবে বাজারে অবস্থান করে আসছিল। এক প্রর্য়ায়ে প্রায় ৩০বছর বয়সী ঐ পাগলী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় উপজেলার বাদাঘাট বাজারের পরিচ্ছন্ন কর্মী হাফিজ উদ্দিনের তত্বাবধানে রেখে তার বাড়িতে থেকে পাগলিনী ফুটফুটে এক শিশু কন্যা প্রসব করেন। আর এই ডেলিভারির কাজটি করেন রাবেয়া বেগম।
পরে নানান জনের নানান কথায় রাবেয়া বেগম ও পরিচ্ছন্ন কর্মী হাফিজ বিকাল সাড়ে ৩টার উপজেলার বাদাঘাট বাজার বণিক সমিতির মাধ্যমে মা ও নবজাতক শিশু কন্যাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাসেবার জন্য নিয়ে যায়।
পাগলী ও বাচ্চাসহ তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। শিশুটি সুস্থ থাকলেও পাগলী মা কিছুটা অসুস্থ থাকলেও চিকিৎসাসেবার পর আপাতত মা ও নবজাতক শিশু কন্যা ভাল আছেন বলে জানান কতর্ব্যরত গাইনী বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিলুফার ইয়াসমিন।
রাবেয়া বেগম জানান,ঐপাগলীর এর পূর্বে লাবিবা(৩ বছর)নামে মেয়ে রয়েছে। এই মেয়েটি একই ভাবে ভূমিষ্ট হলে আমি নিঃসন্তান হওয়ায় আমার নিজের মেয়ের মত করে নিজ দায়িত্বে ভরনপোষণ করে বড় করছি। এই শিশুটিকে আমিই নিতে চাই। কারন আগের শিশুটি আমাকেই মা বলে জানে।
বাদাঘাট বাজার বণিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মাসুক মিয়া বলেন,যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তা আমাদের সবাইকে খুব লজ্জার মধ্যে ফেলে দিয়েছে। তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আতিকুর রহমান এঘটনায় সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,কিছু দিনের জন্য রাবেয়া বেগম কাছে সদ্য ভুমিষ্ট ঐ শিশু কন্যার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কারন এর আগে জন্ম নেওয়া শিশুটি তার কাছেই বড় হচ্ছে। এরপরও সবার সাথে কথা বলে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কি করা যায়।
এছাড়াও এ নবজাতক শিশু কন্যার পিতৃ পরিচয় শনাক্ত করতে পুলিশী তদন্ত অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান ওসি।

এম ওসমান, যশোর : যশোর সদরের আনসার সদস্য হোসেন আলী হত্যা মামলার প্রধান আসামি জুয়েল (২৯) পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার ভোরে আসামি জুয়েলকে নিয়ে অভিযানে গেলে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি ওয়ান শুটার গান ও গুলি উদ্ধার করেছে।
যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম জানান, ৩০ নভেম্বর প্রকাশ্য দিবালোকে হাশিমপুর বাজারে আনসার সদস্য হোসেন আলীকে গুলি করে হত্যা করে একদল সন্ত্রাসী। ওই ঘটনায় গত ১৪ ডিসেম্বর সাতজনকে আটক করা হয়।
তাদের দেয়া তথ্য মতে হত্যাকান্ডের প্রধান আসামি হাশিমপুর এলাকার জুয়েলকে মঙ্গলবার রাতে কক্সবাজার থেকে আটক করে ডিবি পুলিশ। তার দেয়া তথ্য মতে অপর আসামি মুন্নাকে ধরতে বুধবার দিবাগত রাত ৪টার দিকে আসামি জুয়েলকে নিয়ে হাশিমপুর এলাকায় অভিযান চালায় ডিবি পুলিশ।
এ সময় মুন্না ও তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এসময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে আসামি জুয়েল গুলিবিদ্ধ হন। তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ পালিয়ে যাওয়া সন্ত্রাসীদের একটি পিস্তল, একটি ওয়ান শুটার গান ও কয়েক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে।

প্রতারনার অভিযোগে হবিগঞ্জের আদালতে মামলা

চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ  চুনারুঘাটের এক ব্যাক্তিকে বিদেশ নেয়ার নামে, বানিয়াচং এর কাউছার নামে এক দালাল  ৩  লক্ষ টাকা প্রতারনা করে আৎসাতের চেষ্টা করছে বলে আদালতে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে ভূক্তভোগি বিলাল মিয়া বাদি হয়ে দালাল কাউছারের বিরুদ্বে হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত – ২ এ একটি মামলা দায়ের করেন (সি আর মামলা নং ৬৭/১৮ চুনারুঘাট) ।
মামলার বিবরনে জানা যায়, গত ২০১৬ ইং সনে  বানিয়াচং উপজেলার সুজাতপুর ইউনিয়নের ইকরাম গ্রামের আক্তার মিয়ার ছেলে মোঃ কাউছার মিয়া, চুনারুঘাট উপজেলার আলীনগর গ্রামের মোঃ আমির হোসেনের পুত্র মোঃ বিলাল মিয়াকে কাতার প্রবাসে নেয়ার কথা বলে ৩ লক্ষ টাকা নেয়। এর পর থেকে দালাল কাউছার কাল ক্ষেপণ শুরু করে। এক পর্যায়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বার ও মুরুব্বীদের নিয়ে একাধিক শালিস বৈঠক হয়।
শালিসে কোন প্রকার সমাধান  না হওয়ায় ভুক্তভোগী বিলাল গত ২০১৮ ইং সনে কাউছারের বিরুদ্বে আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রশাসন ও সচেতন নাগরিক কমিটির আয়োজনে এবং দুর্নীত দমন কমিশন, সমন্বিত জেলা কার্যালয় হবিগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি {দুপ্রক} সহযোগিতায় বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি, প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ বলেছেন,সংবিধান কি জানতে হবে,সংবিধান আমাদের পবিত্র গ্রন্থ। তিনি বলেন, তথ্যের জন্য এখন আর মানুষকে কর্মকর্তাদের পেছনে পেছনে ঘুরতে হবে না। তিনি আরও বলেন,তথ্য গোপন করা যাবে না, তথ্য খর্ব করা যাবে না, তথ্যকে সংকোচিত করা যাবে না বা বাড়ানো যাবে না। প্রত্যেক অফিসে ওয়েবসাইট আছে, সেখানে প্রতিনিয়ত আপডেট তথ্য রাখতে হবে। স্বেচ্ছায় ও স্বপ্রণোদিত হয়ে তথ্য দিতে বাধ্য। তথ্য আইনের মধ্যে এগুলো বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এর আগে প্রধান তথ্য কমিশনার তথ্য মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন এবং দুর্নীতিবিরোধী র‌্যালিতে অংশ নেন।

মৌলভীবাজার জেলার পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার) কর্তৃক লিখিত আইন সংক্রান্ত একটি বই তুলে দিচ্ছেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এর নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জাম এর হাতে।এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান অতিথি মরতুজা আহমদ প্রধান তথ্য কমিশনার তথ্য কমিশন ঢাকা সাথে রয়েছেন বিশেষ অতিথি নাজিয়া শিরিন, জেলা প্রশাসক, মৌলভীবাজার।ছবি এনিমেটর মিডিয়া।

প্রধান অতিথি,স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ অনুষ্ঠানে উপস্থিত দর্শকদের একাংশ,এতে উপস্থিত রয়েছেন আশরাফুজ্জামান আশিক শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ (সার্কেল) সিনিয়র এএসপিসহ শিল্পপতি আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম হারুন ও স্থানীয় বিভিন্ন সংবাদপত্রের প্রতিনিধি ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র- ছাত্রী প্রমুখ।ছবি এনিমেটর মিডিয়া।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও দর্শকদের একাংশ,এতে উপস্থিত রয়েছেন স্থানীয় বিভিন্ন সংবাদপত্রের প্রতিনিধি ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র- ছাত্রী,সমাজ সেবক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।ছবি এনিমেটর মিডিয়া।

বক্তব্য রাখছেন বিশেষ অতিথি নাজিয়া শিরিন- জেলা প্রশাসক,মৌলভীবাজার।ছবি এনিমেটর মিডিয়া।

বক্তব্য রাখছেন ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার) পুলিশ সুপার,মৌলভীবাজার। ছবি এনিমেটর মিডিয়া। 

বক্তব্য  দিচ্ছেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এর নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জাম। ছবি এনিমেটর মিডিয়া।

স্বাগতম বক্তব্য রাখছেন মোঃ নজরুল ইসলাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শ্রীমঙ্গল।ছবি এনিমেটর মিডিয়া

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন আরেক অতিথি হবিগঞ্জ দুদকের উপ-পরিচালক মো. কামরুজ্জামান। ছবি এনিমেটর মিডিয়া

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখছেন সাবেক প্রধান শিক্ষক।ছবি এনিমেটর মিডিয়া।

বক্তব্য রাখছেন তথ্য মেলা অনুষ্ঠানে শ্রীমঙ্গল সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি সৈয়দ নেছার আহমদ।ছবি এনিমেটর মিডিয়া ।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন শাহ আরিফ আলী নাসিম। ছবি এনিমেটর মিডিয়া।

তথ্য মেলায় আগত বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীসহ সাধারণ দর্শনার্থীদের একাংশ।ছবি এনিমেটর মিডিয়া

তথ্য মেলায় ‘শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাবে’র স্টলে ‘শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবে’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আনিসুল ইসলাম আশরাফী ও শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বিকুল চক্রবর্তী।ছবি এনিমেটর মিডিয়া

তথ্য মেলায় শ্রীমঙ্গল থানার স্টলে পুলিশ সদস্যদের এসআই হেলাল ডিএসবি মফিজুল ইসলাম ও শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেস ক্লাবের সহ সাধারন সম্পাদক আব্দুল মজিদ। ছবি এনিমেটর মিডিয়া

তথ্য মেলায় শ্রীমঙ্গল উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর স্টল। ছবি এনিমেটর মিডিয়া 

শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিসের স্টলে আমার সিলেট সম্পাদক আনিসুল ইসলাম আশরাফী ও অন্যরা।তথ্যমেলা অনুষ্ঠানে দুর্নীতিবিরোধী র‌্যালি,আলোচনা সভা,কার্টুন প্রদর্শনী,প্রাতিস্টানিক তথ্য ভাণ্ডার উপস্হাপন,তথ্য অধিকার ভিত্তিক কুইজ প্রতিযোগিতা ও দুর্নীতিবিরোধী স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান অনুষ্ঠিত হয়।আপডেট।

এম ওসমান : যশোরের শার্শা উপজেলার অগ্রভুলোট সীমান্তে হানেফ আলী ওরফে খোকা (৩৫) নামে এক ব‍্যক্তিকে ভারতীয় বিএসএফ কর্তৃক পিটিয়ে হত্যা করা হয়। তার লাশটি ৮ দিন পর পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করেছে বিএসএফ ।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টার সময় লাশটি হস্তান্তর করা হয়।
লাশ হস্তান্তর বিষয়টি অগ্রভূলোট বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার নায়েব সুবেদার মোজাম্মেল হোসেন নিশ্চিত করে বলেন, লাশটি স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে ।
উল্লেখ্য, গত ২২ জানুয়ারি ভারতের বন্যা বাড়ীয়া ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাকে পিটিয়ে হত্যা করেন। নিহত হানিফ আলী শার্শা থানার অগ্রভূলোট গ্রামের শাজাহান আলীর ছেলে।

আলী হোসেন রাজন,মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি: জ্ঞান ও বিদ্যা দেবী সরস্বতীর চরনে পুস্পার্ঘ অর্পনের মধ্যে দিয়ে মৌলভীবাজার জেলার সকল উপজেলায় চলছে হিন্দু ধর্মালম্বিদের সরস্বতী পূজা ।

মৌলভীবাজারে সকাল থেকে সরকারী কলেজসহ জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষার্থীদের বাসা ও পাড়া-মহল্লার পূজাম-পে সরস্বতী পূজার আযোজন করা হয়েছে।

জ্ঞান ও বিদ্যা লাভের আশায় সনাতন ধর্মাবলম্বীরা দেবী সরস্বতীর আরাধনা করছেন। সরস্বতী দেবীর চরনে পুস্পার্ঘ অর্পন করছেন ভক্তরা। পূজা উপলক্ষে প্রসাদ বিতরন, আরতি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্টানেরও আয়োজন রয়েছে।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মতে দেবী সরস্বতী সত্য, ন্যায় ও জ্ঞানের প্রতীক। বিদ্যা, বাণী ও সুরের অধিষ্ঠাত্রী। শাস্ত্রীয় বিধান অনুসারে মাঘ মাসের শুক্লা প মী তিথিতে সরস্বতী পূজা অনুষ্টিত হয়।

আমার সিলেট ডেস্কঃ  গন প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য কমিশন থেকে বুধবার  ২৯/০১/২০২০ ইং তারিখে প্রধান তথ্য কমিশনার মর্তুজা আহমেদ শ্রীমঙ্গলে এক সরকারী সফরে আগমন করেন।শ্রীমঙ্গলে এসে তিনি শৈশবের স্মৃতি বিজড়িত স্কুলসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের অনুষ্ঠানে যোগদান করেন এবং আগামী কাল বৃহস্পতিবারেও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করবেন বলে জানা গেছে।

জনগণের ক্ষমতায়ন এবং জনগণের ক্ষমতায়নের জন্য প্রতিটি সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত বা সংবিধিবদ্ধ সংস্থা, সরকারি বা বিদেশী অর্থ সাহায্যপুষ্ট বেসরকারি সংস্থাসহ সরকারী কর্মকান্ড পরিচালনার দায়িত্বপ্রাপ্ত সকল বেসরকারি সংস্থার স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দুর্নীতিহ্রাস এবং সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জন্যই হচ্ছে তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ এর মূল উদ্দেশ্য।

আর দেশের জনগণ যাতে তথ্যসমৃদ্ধ হয়ে এ সকল প্রতিষ্ঠানের ওপর নজর রাখতে পারে সেই জন্যই তথ্য কমিশন গঠন করে প্রধান তথ্য কর্মকর্তা নিয়োগের সুপারিশ করতে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করে সরকার।

 গঠিত কমিটির পরামর্শে মরতুজা আহমদ ১৮ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখ তথ্য কমিশনে প্রধান তথ্য কমিশনার হিসেবে যোগদান করেন। তিনি ১৯৮৩ সালে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে যোগ দেন। বর্তমান নিয়োগের পূর্বে, তিনি নিম্নলিখিত পদে দায়িত্ব পালন করেন:

১) সচিব, তথ্য মন্ত্রণালয়

২) অতিরিক্ত সচিব, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ
৩) যুগ্ম-সচিব, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়
৪) যুগ্ম-সচিব, ভূমি মন্ত্রণালয়

৫) পরিচালক, সামরিক ভূমি ও সেনানিবাস অধিদপ্তর

৬) প্রকল্প পরিচালক, পোস্ট লিটারেসী ক্যাম্পেইন,উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা অধিদপ্তর
৭) পরিচালক, বাংলাদেশ বেতার
৮) অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, গাজীপুর
৯) মহানগর হাকিম, ঢাকা
১০) থানা নির্বাহী কর্মকর্তা, গাজীপুর সদর
১১) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, নোয়াখালী সদর

জাতীয় / আন্তর্জাতিক সম্মেলন / সেমিনার / প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ:

৪৭ তম  ACAD কোর্স, ৪৫তম সিনিয়র স্টাফ কোর্স, ম্যাট প্রশিক্ষণ কোর্স।

বিদেশ সফর: ভারত, মালয়েশিয়া, চীন, সিঙ্গাপুর, ভিয়েতনাম, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র ও ইতালি। সুত্র তথ্য কমিশন।

আমার সিলেট ডেস্কঃ দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক। বিশেষ করে সিলেটের পর্যটন আর শিল্পায়ন বিকাশের জন্য দীর্ঘদিন ধরে এই সড়কটি চার লেনে উন্নীত করার দাবি ছিল এ অঞ্চলের মানুষের। সেই দাবি অবশেষে পূরণ হচ্ছে । আট লেনের সুবিধা রেখে গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি ছয় লেনে উন্নীত করা হচ্ছে। চলতি বছরের জুন-জুলাইয়ে এ কাজের টেন্ডার আহবান করা হবে।

আজ বুধবার দুপুরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সাংসদ ড. এ কে আব্দুল মোমেনের উদ্যোগে জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য ওঠে আসে। সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক ছয় লেনে উন্নীতকরণ নিয়ে এ মতবিনিময় সভা হয় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায়। বৈঠকে সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রকৌশলীরা জানান, সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক দুটি সার্ভিস লেনসহ ছয় লেন করা হবে।

তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভবিষ্যতে এ সড়কটি আট লেনে উন্নীত করতে চাইছেন। এজন্য দুই লেনের জায়গা রাখা হবে। সার্ভিস লেন এমনভাবে করা হবে, যাতে মহাসড়ক আট লেনে উন্নীত হলে এ লেনকে মূল সড়কে যুক্ত করা যায়। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, ‘১৯৯২ সালে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক চার লেন হওয়ার কথা ছিল। টাকাও পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু সড়কে যানবাহনের চাপ কম থাকার অজুহাত দেখিয়ে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমান দুই লেনের কাজ করান। আমি জাতিসংঘ থেকে দেশে ফেরার পরে সড়কটি চার লেন করার জন্য কাজ শুরু করি। শুরুতে চীনা একটি কোম্পানির কাজ করার কথা ছিল।

তবে শেষপর্যন্ত তাদের সাথে সমঝোতা হয়নি। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী সড়কটি ছয় লেনে করার আগ্রহ দেখান। বর্তমানে এ সড়কের কাজে এডিবি অর্থা বরাদ্দ দেবে। আজ বৃহস্পতিবার এডিবির একটি প্রতিনিধিদল সড়ক পরিদর্শনে আসছে।’ মন্ত্রী বলেন, ‘সড়কটি ছয় লেনে উন্নীত হলে সিলেটের পর্যটন সম্ভাবনা পুরো কাজে লাগবে, শিল্পায়নে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।’

সভায় প্রকৌশলীরা আরো জানান, সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের জন্য আগে যে চার লেনের নকশা করা হয়েছিল, তাতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এ সড়কের রূপসী, বড়পা, পাঁচদোনা, মাধবদীবাজার, ইটাখোলা, মাখন চত্বর, শায়েস্তাগঞ্জসহ ১০টি জায়গায় নকশায় পরিবর্তন এসেছে। আঁকাবাঁকা পথ এড়িয়ে সোজা পথ বেছে নেওয়া হয়েছে। এর ফলে বর্তমানে ২২৬ কিলোমিটার দূরত্ব আছে, কাজ শেষে তা কমে ২১০ কিলোমিটারে দাঁড়াবে। আগের নকশায় সড়কে ৫টি ওভারপাস ও ৪টি রেল ওভারপাস নির্মাণের কথা ছিল। নতুন নকশায় ১৫টি ওভারপাস ও ফ্লাইওভার এবং ৪টি রেল ওভারপাস থাকবে। আঁকাবাঁকা রাস্তা সোজা করায় যানবাহনের গতিও বাড়বে। বর্তমানে ৪০-৬০ কিলোমিটার গতিতে যান চলে এ সড়কে।

কাজ শেষে ৮০-১২০ কিলোমিটার গতিতে চলবে যানবাহন। এতে যাতায়াতে সময় প্রায় অর্ধেক বাঁচবে। সড়ক ও জনপথের প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল আলম জানান, আগামী মার্চের মধ্যে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের নকশা সংশোধন শেষে প্রকল্প প্রস্তাব তৈরি করা হবে। এরপর জুন-জুলাইয়ের মধ্যে কাজের টেন্ডার আহবান করা হবে। সড়কের কাজ শেষ হবে ২০২৩ সাল নাগাদ। বৈঠকে উপস্থিত জনপ্রতিনিধিরা দূরত্ব কমানোর দিকে গুরুত্ব দেন, যাতে যাতায়াতে সময় কম লাগে।

এছাড়া মহাসড়কের সাথে আশপাশের সড়ক সংযুক্ত করারও পরামর্শ দেন তারা। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনের সাংসদ বদরুদ্দোজা মো. ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম ছয় লেনের মহাসড়কটিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল দিয়ে নেওয়ার পরামর্শ দেন। এতে আরো ২৫ কিলোমিটার দূরত্ব কমবে বলে জানান তিনি। তাঁর এ প্রস্তাব খতিয়ে দেখতে সড়ক ও জনপথের প্রকৌশলীদের নির্দেশ দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সড়ক ও জনপথের প্রকৌশলীরা জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক চার লেনে উন্নীত করার অভিজ্ঞতা তাদের আছে। এ অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কটিকে নিরাপদ মহাসড়ক হিসেবে ছয় লেনে উন্নীত করা হবে। মহাসড়কে যাত্রী ওঠা-নামার জন্য বিশেষভাবে সড়ক তৈরি করা হবে। সড়কের পাশে লোকালয়, জেলা ও উপজেলা সদর থাকায় সার্ভিস লেন যুক্ত করা হচ্ছে।

এছাড়া নকশায় পরিবর্তন আসায় কিছুটা বেশি জায়গা অধিগ্রহণ করা প্রয়োজন। তবে অধিগ্রহণে কোনো সমস্যা হবে না বলে তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এছাড়া ৫০ বছরের পরিকল্পনা নিয়ে সড়কটি করা হবে বলেও জানান তারা। বৈঠকে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী বীর প্রতীক গোলাম দস্তগীর গাজী, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ, বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে সিলেটের সাংসদ নুরুল ইসলাম নাহিদ, মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, হাফিজ আহমদ মজুমদার, মোকাব্বির খান, সুনামগঞ্জের সাংসদ মুহিবুর রহমান মানিক, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, জয়া সেন গুপ্তা, পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, মৌলভীবাজারের সাংসদ সুলতান মনসুর ও উপাধ্যক্ষ ড আব্দুস শহীদ, নেছার আহমদ, হবিগঞ্জের সাংসদ শাহ নেওয়াজ মিলাদ গাজী, আব্দুল মজিদ খান, এডভোকেট আবু জাহির উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া সুনামগঞ্জের মহিলা সাংসদ শামীমা শাহরিয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মহিলা সাংসদ শিউলী আক্তার, সিলেটের আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দও ছিলেন এই বৈঠকে।

শিশুকন্যাকে সিলেট থেকে নিয়ে ৩ জনকে কৌশলে অপহরণ,অভিযোগ প্রাপ্তির ২ ঘন্টার মধ্যে উদ্ধার করেছে র‍্যাব-৪

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  সুনির্দিষ্ট অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ২৫ তারিখ ৪ টার সময় র‍্যাব-৪ এর একটি দল সহকারী পুলিশ সুপার সাগর দিপা বিশ্বাস এর নেতৃত্বে ঢাকা জেলার সাভার থানাধীন ব্যাংক কলোনী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ।

জানা গেছে অভিযোগ পাওয়ার ২ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষক মো: সাহেব আলী (৩৪), ঝিনাইদহ এবং ধর্ষণে সহযোগী তার স্ত্রী জেসমিন খাতুন (২৫) (ভিকটিমের নিজের বোন) কে গ্রেফতার করে এবং উক্ত আসামী দ্বয়ের মাধ্যমে অপহৃত হওয়া জেসমিন আক্তার এর আপন ভাই মো: রুবেল (২২) এর শিশুকন্যা ঝর্ণা আক্তার (০২) , আপন বোন সেলিনা খাতুন ( ২৮) এবং আপন চাচাতো ভাই মো: জয়নাল আবেদীন (১৮) কে আসামীদ্বয়ের ভাড়াবাসার কক্ষ হতে উদ্ধার করা হয়।
আটক ব্যাক্তিরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, আসামী মো: সাহেব আলী (৩৪) এবং তার স্ত্রী জেসমিন খাতুন (২৫), বিগত ২০১৮ সালে তাদের নিজেদের সন্তানকে দেখাশোনা করার জন্যে জেসমিন খাতুন এর নিজের নাবালিকা ছোটো বোন (ভিকটিম) কে সিলেট থেকে নিজেদের বাসায় নিয়ে আসে এবং জেসমিন খাতুন নিজে বোনকে ঘুমের ওষুধ খাওয়ানোর মাধ্যমে এবং পরবর্তীতে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে নিয়মিত স্বামীকে দিয়ে নিজের বোনকে ধর্ষণ করতে সহযোগিতা করতো।

পরবর্তী সময়ে শিশুটি সাহস করে তার বাবা মাকে সুযোগ বুঝে বিষয়টি জানায় এবং মা বাবা শিশুটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। কিন্তু ধর্ষক দুলাভাই ও বোন ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র করে ভিকটিমকে আবার জিম্মি করার উদ্দেশ্য ভিকটিমের বড় ভাই এর শিশুকন্যাকে সিলেট থেকে অপহরণ করে নিয়ে আসে। ভিকটিমকে তাদের হাতে পুনরায় তুলে দিলে, শিশুকন্যাকে ফেরত দেওয়া হবে,না হলে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকি দেয়।

এদিকে শিশুকন্যা টিকে উদ্ধার করতে আসা ভিকটিমের বড় ভাই মো: রুবেল মিয়া ( শিশুটির বাবা) , বড় বোন সেলিনা খাতুন এবং চাচাতো ভাই মো: জয়নাল আবেদীন কে নিজেদের ভাড়াবাসার কক্ষে আটক করে রাখে এবং মারধোর করে। সুযোগ বুঝে ভিকটিমের বড় ভাই মো: রুবেল পালিয়ে এসে র‌্যাব -৪ এ অভিযোগ জানায়। অভিযোগ প্রাপ্তির ২ ঘণ্টার মধ্যেই অপরাধীদের গ্রেফতারপূর্বক অপহৃতদের উদ্ধার করা হয়েছে র‍্যাবের একটি সুত্রে জানা গেছে।

উপরোক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।তবে সিলেট কোথায় ভিকটিমের ঠিকানা তা এখনো জানা যায় নি।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লংগুরপারের জিবতলী এলাকার লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ব্রীজটি প্রায় এক যুগ ধরে জনসাধারণের কোন কাজে লাগছে না। ব্র্রীজটি সংস্কার না করায় প্রায় ১৫/২০টি গ্রামের নাগরিকরা ৮ কিলোমিটার ঘুরে যাতায়ত করতে হচ্ছে।
জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার ৮ মাধবপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে লংগুরপার সংলগ্নে জিবতলী ‌ খালের উপর প্রায় ১৪ বৎসর আগে নির্মিত ব্র্রীজটি আজ হতে প্রায় এক যুগ আগে ব্রীজের উইং ওয়াল ও এর পাশের মাটি বন্যায় ভেঙে গেলে আজ পর্যন্ত সংস্কার করা হয়নি। ফলে এ রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে আছে। এলাকাবাসীকে প্রায় ৮ কিলোমিটার দক্ষিণ পূর্ব দিকের আরেকটি রাস্তা হয়ে ১৫ থেকে ২০ টি গ্রামের লোকজন আসা যাওয়া করতে হচ্ছে। এতে তাদের দূর্ভোগের শেষ নেই। এলাকাগুলো কৃষি পণ্য উৎপাদনমুখী এলাকা হওয়াতে এলাকার লোকজন তাদের পণ্য হাট বাজারে পৌঁছাতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা।
আলাপকালে স্থানীয় খোকন মিয়া, রাজিব মালাকারসহ একাধিক লোকজন অভিযোগ করে বলেন, যেখানে রাস্তার সামান্য জায়গা ভাঙ্গা এবং দৃশ্যমান ব্রীজে এর গোড়ায় মাটি ভরাট করা হলেই আমরা বহুদূর ঘুরে আমাদের এলাকায় পৌঁছানো লাগতো না। তারা আরো জানান বিষয়টি লিখিতভাবে কয়েকবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানালেও কোন সুফল পাচ্ছিনা। এলাকাবাসী আরও জানান, উক্ত জিবতলী খাল হতে লিজের মাধ্যমে বালু উত্তোলন করে এ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় বালু বিক্রয় করা হয় কিন্তু ব্রীজ এবং রাস্তাটি ভাঙ্গা থাকার কারণে এ পথে যোগাযোগ বন্ধ থাকার কারণে উক্ত খালটি লিজ নিতে আগ্রহ হারাচ্ছে উক্ত এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা। রাস্তাটি ও ব্রীজ মেরামতের দ্রুত উদ্যোগ নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।
মাধবপুর ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য মোতাহির আলী বলেন, কয়েকবার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি। কিন্তুু কাজ হয়নি।
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এর কমলগঞ্জ উপজেলার উপ-সহকারী প্রকৌশলী মামুন আহম্মদ বলেন, সরেজমিন তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

নড়াইল প্রতিনিধি:  নড়াইল জেলার নড়াগাতিতে ভ্রাম্যমান আদালতে দু’জুয়াড়ী ও এক মাদকসেবীকে জরিমানা ও বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন। বুধবার উপজেলার নড়াগাতী থানা পুলিশ তাদের আটক করে দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজিবুল আলম এ আদেশ দেন।
পুলিশ ও আদালত সুত্রে জানা যায়, জেলার লোহাগড়া উপজেলার মঙ্গলপুর গ্রামের রজ্জাক মোল্যার ছেলে রফিকুল মোল্যাকে বুধবার সকালে নড়াগাতী থানার চোরখালী নামক স্থান থেকে মাদক সেবনকালে পুলিশ আটক করে। তাকে ৭দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫০০টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৩দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ।

অপরদিকে একই থানার মাউলি ইউপির গুবরাডাঙ্গা নামকস্থান থেকে বুধবার সকাল ৯টায় জুয়া খেলা অবস্থায় উপজেলার গোবরাডাঙ্গা গ্রামের খোকন ফকিরের ছেলে সোহেল ফকির(১৯)ও তেলিডাঙ্গা গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে মোরাদ হোসেনকে (১৯)পুলিশ আটক করে। তাদের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট হাজির করলে তাদের দু’জনের ২০০টাকা জরিমানার আদেশ দেন।

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:  নওগাঁর আত্রাইয়ে অনিয়ম, দুর্নীতি ও জালিয়াতির মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে তারই পরিষদের ৯ ইউপি সদস্য সংবাদ সন্মেলন করেছে।

নওগাঁর আত্রাই উপজেলার হাটকালুপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস শুকুর সরদারের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি ও জালিয়াতির মাধ্যমে প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করেছেন তার পরিষদের সদস্যরা। একই সঙ্গে, তার বিরুদ্ধে আইনগতব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন তারা।

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় আত্রাই প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পরিষদের ৯ সদস্য এ অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. ইমান আলী। সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়, চেয়ারম্যান আব্দুস শুকুর সরদার দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে ইউপি সদস্যদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে আসছেন। গত দুই বছর ধরে তিনি অতিদরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচি প্রকল্প, বার্ষিক উন্নয়ন ও রাজস্ব উন্নয়ন তহবিলের আওতায় নেয়া প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন না করে ইউপি সদস্যদের স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থ উত্তোলন ও আত্মসাৎ করে আসছে। এমনকি, ট্যাক্স, হাট-বাজার ইজারার টাকা পয়সার কোনো হিসাব পরিষদের সদস্যদের জানান না তিনি। এছাড়া, ভুয়া রেজুলেশনের মাধ্যমে তিনি সকল টাকা আত্মসাৎ করে আসছেন।

ইউপি সদস্য জনাব আলী জানান, গত ৩০ মাসের সম্মানী ভাতা আমাদের প্রদান করেন নাই। এলজিএসপিএর বরাদ্ধকৃত অর্থ ও কাবিখা ও কাবিটা এডিপি কোথায় কিভাবে কাজ করে আমাদের জানা নাই। ইউনিয়নের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হওয়ায় প্রতিবাদ করলে তিনি গালিগালাজ করাসহ নানা হুমকি-ধামকি দেন।

আর এক সদস্য আব্দুর রশিদ জানান, অত্র এলাকায় ভিজিডি, বয়স্ক ভাতা প্রতিবন্ধি ভাতা বিধবা ভাতা মাতৃত্ব ভাতা বরাদ্দ করেন সম্পূর্ন নিজের ইচ্ছামত।
এ অবস্থায়, ইউনিয়নের উন্নয়নের স্বার্থে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে ইউপি সদস্য মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোছাঃ আসমা খাতুন,মনোয়ারা খাতুন, নাজু খাতুন,মোঃ জনাব আলী, আব্দুর রশিদ সরদার,গোলাম ছারোয়ার উপস্থিত ছিলেন।

চুনারুঘাট প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার মিরপুর আলিফ ছোবহান চৌধুরী সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার ৪০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বুধবার সকাল ১১টায় আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন কলেজ ছাত্রসেনার সভাপতি জুনায়েদ আহমেদ। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাহুবল উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ ওয়াদুদ মিয়া।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রসেনার সিনিয়র সহ-সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ আলী বশনী। বক্তব্য রাখেন কলেজ ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক শামছুল ইসলাম যাকী, সাংগঠনিক সম্পাদক জসীম উদ্দিন, ওয়াহিদ মিয়া প্রমুখ।

বক্তারা বলেন প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে শুরু করে অদ্যবধি পর্যন্ত এ সংগঠনের কোন কলঙ্কের দাগ নেই। এতেই প্রমাণ করে আমাদের সংগঠন আদর্শের প্রতীক।

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি: শ্রীমঙ্গল উপজেলার লাংলিয়াছড়া এলাকার মেয়ে শ্রীমঙ্গল উপজেলার খলিলপুর এলাকার বধু জুলেখা বেগম (২৪) গতকাল ২৭/১/২০২০ রোজ সোমবার বেলা আড়াইটায় বাবার বাড়ি থেকে শ্রীমঙ্গল শহরে শপিং করার উদ্দেশ্যে বের হয়ে আসলে আর ফিরে নি। তার একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

জিডি সূত্রে জানা গেছে, স্বামী প্রবাসে থাকায় কন্যা সন্তানকে নিয়ে বাবার বাড়িতে বসবাস করতেন তিনি। স্বামীর বাড়ি উপজেলার খলিলপুর গ্রামে। তার স্বামীর নাম হেলাল মিয়া তিনি প্রবাসে থাকেন।

নিখোঁজ নারীর শারিরীক বর্ণনা: রং ফর্সা, চেহারা গোলাকার, উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চি, পরনে সেলোয়ার কামিজ।

নিখোঁজ জুলেখা বেগমের ভাই মোঃ শামীম মিয়া তার বোনের নিখোঁজের ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন, যার নাম্বার ১৬৫৯/২০২০।
নিখোঁজ জুলেখার ভাই শামীম মিয়া সকলের প্রতি মেয়েটির সন্ধান পেলে নিম্নলিখিত নাম্বার (০১৭৩৮৪৬৩০৫৯) অথবা শ্রীমঙ্গল থানায় সরাসরি যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc