Friday 22nd of November 2019 10:28:45 AM

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার জেলাধীন চায়ের রাজধানী খ্যাত উপজেলা শহর প্রকৃতির রানী শ্রীমঙ্গলে এই প্রথম নারী উদ্যোক্তাদের ঘুড়ি ট্যুর এন্ড ট্রাভেলস নামে একটি প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু হল। আজ শুক্রবার (১ লা নভেম্বর ২০১৯) সন্ধ্যায় “শ্রীমঙ্গল টি হ্যাভেন রিসোর্টে”র কনফারেন্স রুমে এর শুভ প্রারম্ভায়ন অনুষ্ঠিত হয়।
এতে “ঘুড়ি ট্যুর এন্ড ট্রাভেলস” এর আনুষ্ঠানিক প্রারম্ভায়ন ঘোষণা করেন সিলেট বিভাগীয় প্রাক্তন স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হরিপদ রায়।
উপস্থিত ছিলেন টি হ্যাভেন রিসোর্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও শ্রীমঙ্গল পর্যটন সেবা সংস্থার আহবায়ক আবু সিদ্দিক মুসা, রোটারিয়ান শাহ আরিফ আলী নাসিম, পর্যটন শিল্পের অন্যতম পথিকৃৎ শামসুল হক, ট্যুরিস্ট পুলিশের সহকারি উপ পরিদর্শক মোঃ নোয়াব আলীসহ শ্রীমঙ্গলের বিভিন্ন হোটেল রিসোর্টের মালিক পক্ষের লোকজন, সুধীজন, ট্যুর গাইড, পর্যটন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের লোকজনসহ স্থানীয় ইলেকট্রনিকস ও প্রিন্ট মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা।
“… চলুন উড়ি ঘুড়ির মতো…” এই স্লোগানে উজ্জীবিত হয়ে ৩ নারী  ও ১ পুরুষ উদ্যোক্তার সমন্বয়ে এই  ট্যুর ও ট্রাভেলসটি আত্মপ্রকাশ করলো। নারী উদ্যোক্তারা হলেন- শারমিন আশা, মুসলিমা ইতি, সামিয়া জাফরিন, ফাহমিদা জান্নাত, আর পুরুষ উদ্যোক্তা এনামুল।
ঘুড়ি ট্যুর এন্ড ট্রাভেলস এর অন্যতম নারী উদ্যোক্তা শারমিন আশা জানান, শ্রীমঙ্গলকে বিশ্ব ট্যুরিজম ইন্ডাস্ট্রিতে একটি শক্ত অবস্থানে পৌঁছানোর জন্য সকল ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করবেন তারা। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তারা পর্যটক ও ভ্রমনজনিত সকলের জন্য হোটেল ও রিসোর্ট বুকিং, পাসপোর্ট ও ভিসা প্রসেসিং, আন্তর্জাতিক ও আভ্যন্তরীণ বিমান টিকেট সংগ্রহ, পর্যটকদের মেডিকেল সেবা ও ভ্রমণ সম্পর্কিত সকল কাজ সম্পাদন করবে। এতে তিনি সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।

মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখা জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (৩১.১০.২০১৯) বিকালে জাসদের ৪৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে শহরের কলেজ রোডস্থ অফিসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় সভাপতিত্ব করেন, হাজী এলেমান কবীর।

সভায় বক্তারা বলেন, দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করার জন্য এবং তার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার জন্য সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে এবং সভায় উপস্থিত সকল সদস্যবৃন্দকে এর প্রতি আহবান জানানো হয় এবং সবাই এর প্রতি একমত ব্যক্ত করেন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন দীপংকর ভট্টাচার্য,দেওয়ান মাছুম আহমেদ চৌধুরী,মোঃ কালা মিয়া,মোঃ মনির হোসেন খান,মোঃ জমসেদ খান,মোঃ রিপন,মোঃ আলমগীর,মোঃ সাগর আহমেদ,মোঃ মুজিবুর রহমান,তপন কুমার দেব,হাজী এলেমান কবীর,বেলাল মিয়া,সঞ্জব আলী,আছকির মিয়া প্রমুখ।প্রেস বার্তা

আবু তাহির ,ফ্রান্সঃ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখার উপজেলার ঐতিহ্যবাহী গ্রাম গল্লাসাংগন গ্রামের প্রবাসীদের নিয়ে প্যারিসে মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
প্যারিসের বিডি কমিউনিটি হলে ফ্রান্সে বসবাসরত গল্লাসাংগন গ্রামবাসীর উদ্যোগে আয়োজিত এ মতবিনিময় সভায় আমেরিকা , ব্রিটেন , স্পেন থেকে প্রবাসীরা জড়ো হন।
গ্রামের মধ্যে কলেজ স্থাপন , মাদ্রাসা পরিচালনায় সহযোগিতা ,খেলার মাঠ ,স্কুলের উন্নয়নে সহায়তা , গ্রামের রাস্তাঘাটের উন্নয়ন ও সর্বপোরি অসহায় দরিদ্র মানুষের কল্যানে কাজ করার প্রত্যয় নিয়ে মতবিনিময় সভায় সকল প্রবাসীরা স্বতস্ফুর্থ অংশগ্রহণ করেন।
এসময় দীর্ঘদিন পর একই গ্রামের প্রবাসীদের একে অন্যের সাথে দেখা হওয়াতে এক আনন্দঘন পরিবেশ বিরাজ করে।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রবীণ মুরব্বি মুজিবুর রহমান। সভা পরিচালনা করেন যৌথভাবে আজিম উদ্দিন বাবু ও মাসুম আহমদ।

এসময় বক্তব্য রাখেন খলিলুর রহমান ,চুনু মিয়া ,আব্দুস শাকুর , লাল মিয়া , করিম উদ্দিন ,আজিম বাবু , তাজুল ইসলাম ,ফজলুল করিম বুল্বুল , নাজিম উদ্দিন ,ইসলাম উদ্দিন খান , লোকমান হোসেইন , জামাল হোসেন , নজরুল ইসলাম , খলিলুর রহমান ,সামসুল ইসলাম , সাইফুর রহমান , মিজানুর রহমান দেলোয়ার , বাবর , বাবর হোসেইন বাবু , সালমান খান ,সুফিয়ান ,মাসুম , সপন আহমদ ,জসিম উদ্দিন, আসাদ খান , রুকন, খোকন , সিদ্দিক , রিমন ,হোসেন, সাঈদ , সিদ্দিক , এমরান প্রমুখ ।

এসময় আরো বক্তব্য রাখেন স্পেন প্রবাসী জুবের আহমদ ,আলম হোসেন , যুক্তরাজ্য প্রবাসী আলাউদ্দিন , বদরুল আলম , রহিম উদ্দিন , সেলিম , দেলোয়ার হোসেন , জাকির আহমদ , খলিল হোসেন , লিয়াকত আহমদ , আনোয়ার হোসেন , মুহিবুর রহমান , খালেদ আহমদ ,রফিক উদ্দিন বুলা, রুহুল আমিন , আল ফয়সল ও আমেরিকা প্রবাসী হাবিবুর রহমান, প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় দীর্ঘ আলোচনার পর সকলেই ঐক্যমতে পৌঁছান গ্রামে কলেজ স্থাপনের পাশাপাশি বাংলাদেশের মধ্যে ইউরোপের আদলে একটি মডেল গ্রাম স্থাপন করতে সবাই আন্তরিকতার সাথে ঐক্যবদ্ধভাবে সবধরণের সহযোগিতা করবেন।
পরে এক নৈশভোজ অনুষ্ঠিত হয়।

নড়াইল  প্রতিনিধিঃ নড়াইলে শুরু হয়েছে “ইয়ং টাইগার্স অনুর্ধ্ব -১৮ জাতীয় ক্রিকেট প্রতিযোগীতা-২০১৯” । বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় নড়াইল বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহম্মদ ষ্টেডিয়ামে  বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের আয়োজনে জেলা ক্রিড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় এ প্রতিযোগীতার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা।

জেলা ক্রিড়া সংস্থার ক্রিকেট কমিটির সভাপতি আয়ুব খান বুলুর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা মহিলা ক্রিড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক রাবেয়া ইউসুফ, জেলা ক্রিড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারন সম্পাদক কৃষ্ণপদ সাহা, কোষাধ্যক্ষ আব্দুর রশীদ মন্নু সহ জেলা ক্রিড়া সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারিসহ ক্রিকেট প্রেমী  বিভিন্ন শ্রেনী পেশারি মানুষ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী খেলায় সাতক্ষিরা জেলা দল , পটুয়াখালি জেলা দলের মোকাবেলা করছে।

সাতক্ষিরা জেলা দল প্রথমে ব্যাট করছে, শেষ খবর পাওয়া পযর্ন্ত ১৭ ওভারে  ১উইকেটে ৬৪ রান করেছে।

এ প্রতিযোগীতায় পটুয়াখালি ,বাগেরহাট, সাতক্ষীরা ও ঝালকাঠি জেলা দল অংশ গ্রহন করছে।।

এম ওসমান,বেনাপোল: যশোরের বেনাপোল সীমান্তে অভিযান চালিয়ে ৩.৮ কেজি ওজনের ৪৯ পিচ স্বর্ণেরবারসহ মোমিনুর রহমান (৫০) নামে এক যুবককে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা ।
বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে বেনাপোল সীমান্তের সাদিপুর সড়কের সিটি আবাসিক হোটেল থেকে এসব স্বর্ণসহ তাকে আটক করে বেনাপোল আইসিপি বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা। আটক মোমিন বেনাপোল সাদিপুর গ্রামের হাসমত উল্লাহর ছেলে। জব্দকৃত স্বর্ণের ওজন ৩ কেজি ৮শ’ ২০ গ্রাম। জব্দকৃত স্বর্ণের সিজার মূল্য প্রায় ২ কোটি টাকা।
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র যশোর-৪৯ ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সেলিম রেজা জানান, গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারি একজন পাচারকারী বিপুল পরিমানের স্বর্ণ নিয়ে বেনাপোল বর্ডারের সাদিপুর মোড়ে সিটি আবাসিক হোটেলে অবস্থান করছে। এসময়ে ফোর্স নিয়ে সেখানে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। পরে তার দেহে তল্লাশী চালিয়ে ৪৯পিচ স্বর্ণেরবার জব্দ করা হয়। জব্দকৃত স্বর্ণের ওজন ৩ কেজি ৮শ’ ২০ গ্রাম । যার বাজার মূল্য প্রায় ২ কোটি টাকা । আটককৃতের নামে স্বর্ণ পাচারের মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি জানান।

আগামী ৯ নভেম্বর শনিবার গাউসিয়া সমিতির উদ্যোগে জুলুছ

আজ ১ নভেম্বর শুক্রবার রাউজান উপজেলা বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনা রাউজান উপজেলা ও পৌরসভার যৌথ উদ্যোগে আগামী ১ নভেম্বর শুক্রবার বিকাল ২টায় রাউজান উত্তর সর্তা দরগাহ্ বাজার প্রাঙ্গণ হতে পবিত্র মাহে রবিউল আওয়ালকে স্বাগত জানিয়ে জশ্নে জুলুছে ঈদে মিলাদূন্নবী (দঃ) অনুষ্ঠিত হবে বিশাল মোটর র‌্যালীর মাধ্যমে।

মোটর র‌্যালির জুলুছটি রাউজান পৌরসভা ও উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করবে হামদ-না’ত, মিলাদ কিয়াম পরিবেশনার মধ্য দিয়ে। উক্ত জশ্নে জুলুছে সকলকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে যোগদান করার জন্য প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক জননেতা মাওলানা জামাল উদ্দীন এবং সদস্য সচিব যুবনেতা মুহাম্মদ আলমগীর হোসাইন বিশেষভাবে অনুরোধ জানিেেছন।

অপরদিকে আগামী ৯ নভেম্বর শনিবার গাউসিয়া সমিতির উদ্যোগে সৈয়দ বাড়ি দরবার শরিফে জশনে জুলুছ ।গাউছিয়া সমিতি ও গাউছিয়া যুব সমিতি বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে আগামী ৯ নভেম্বর শনিবার ১১ রবিউল আউয়াল সকাল ৮টা হতে ফটিকছড়ি সৈয়দ বাড়ী অধ্যক্ষ হযরত সৈয়দ মুহাম্মদ শামসুল হুদা (রহ.) এর মাযার প্রাঙ্গণ হতে পবিত্র জশনে জুলুছে ঈদে মীলাদুন্নবী (দ.) অনুষ্ঠিত হবে।

উক্ত জুলুছে ছদারত করবেন গাউসিয়া সমিতি বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান সৈয়দবাড়ি দরবার শরিফের সাজ্জাদানশীন পীরে তরিক্বত হযরতুলহাজ¦ আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ মছিহুদ্দৌলা (মু.জি.আ)। জুলুছটি হামদ-না’ত, মিলাদ-কিয়াম পরিবেশনার মাধ্যমে তকিরহাট-জাঁহানপুর-আজাদী বাজার হয়ে পুনরায় সৈয়দবাড়ি দরবার শরিফে এসে মুনাজাত ও তাবারুকের মাধ্যমে সমাপ্ত হবে। পীরে তরিক্বত হযরতুলহাজ¦ আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ মছিহুদ্দৌলা (মু.জি.আ) উক্ত পবিত্র জশনে জুলুছে সকলকে যথাসময়ে উপস্থিত হওয়ার জন্য বিশেষভাবে আহবান জানান।

আমার সিলেট ডেস্কঃ ব্যাপক সমালোচনার শেষে গত বৎসর নারীদের রেসলিং বাতিল হলেও পুরুষ রেসলিং এর পর এবার প্রথমবারের মতো নারীদের রেসলিং ম্যাচ আবার সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দেশটির কিং ফাহাদ স্টেডিয়ামে ম্যাচটি বৃহস্পতিবার রাত আটটায় অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছে ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেইনমেন্ট (ডব্লিউডব্লিউই)।

রাজধানী রিয়াদে দুই মাসব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। সেখানে শতাধিক ভিন্ন ভিন্ন রকমের বিনোদনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে এই রেসলিংয়ের আয়োজন করা হয়েছে।

ডব্লিউডব্লিউই আরও জানায়, নারী সুপারস্টার নাটালিয়া এবং লেসি ইভান্স একে অপরের মুখোমুখি হবেন। টিকিট কিনে ম্যাচটি উপভোগ করা যাবে। এছাড়া আরেকটি ম্যাচে সাবেক বক্সিং চ্যাম্পিয়ন টাইসন ফুরি এবং ব্রাউন স্ট্রম্যান একে অপরের বিরুদ্ধে লড়বেন।

আয়োজকরা জানান, এই দুই নারী রেসলার সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ম্যাচে লড়েছেন। এগুলোর একটিতে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর সাবেক সদস্য ইভান্স তার বুদ্ধি ও শক্তিকে কাজে লাগিয়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করেন। দর্শকরা এটি দারুণ উপভোগ করে।

সৌদিতে গত বছর রেসলিংয়ের আয়োজন করা হয়। সেটা সরাসরি টেলিভিশনে সম্প্রচারও করা হয়েছিল। সে সময় শুধুমাত্র পুরুষদের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল এবং নারীদের ম্যাচ বাতিল করা হয়েছিল।

সৌদি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সৌদি নাগরিকদের বিনোদনের পরিধি বাড়াতে এমন আয়োজন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মোহাম্মদ বিন সালমান ক্রাউন প্রিন্সের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে সৌদিকে বদলে দেয়ার পরিকল্পনা নিয়ে ভিশন-২০৩০ হাতে নিয়েছেন )। নাগরিকরা উপভোগ করতে পারে এমন বিনোদনের প্রসার বাড়াচ্ছে সৌদি আরব। ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান এই লক্ষ্যে কনসার্টের অনুমোদন দিয়েছেন, আবার সিনেমা হল চালু করেছেন এবং নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর থাকা নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছেন।

তিনি তেলের ওপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে সৌদি আরবকে আরব বিশ্বের সবচেয়ে বড় অর্থনীতির দেশে পরিণত করার ভিশন ২০৩০ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে ইতোমধ্যে পর্যটন খাতের প্রসার ঘটাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।

গত আগস্টে সৌদি আরব প্রথমবারের মতো পর্যটন ভিসা চালু করে। এছাড়াও পর্যটকদের জন্য বিভিন্ন নিয়মকানুন শিথিল করে। এর আগে দেশটিতে শুধু ব্যবসায়ী এবং হজ্জ ও উমরাহ পালনকারীরা যেতে পারত।

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীর ফুলতলা সীমান্তে বাংলাদেশি পশু চোরাকারবারীদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। এতে ৬ বাংলাদেশি চোরাকারবারী আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে ফুলতলা বিওপির সীমান্ত পিলার ১৮২৩/২৬-এস এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়ন ও সীমান্তবাসী সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) সকালে ৮-১০ জনের একটি বাংলাদেশি গরু চোরাকারবারী দল ভারতীয় গরু আনতে ফুলতলা সীমান্তের পিলার নং-১৮২৩/২৬ এস এলাকা দিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করে। বিএসএফ ১৬৬ ব্যাটালিয়নের ইয়াকুব নগর ক্যাম্পের টহল দল তাদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। এতে ৬ বাংলাদেশি আহত হয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ফিরে আসে।

বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়জুর রহমান সংবাদ মাধ্যমকে জানান, সীমান্তে বিএসএফের গুলিবর্ষণের ঘটনায় বিজিবি বৃহস্পতিবার বিকালে প্রতিবাদলিপি পাঠিয়েছে। বিএসএফের গুলিতে আহত এক ব্যক্তিকে বিজিবি আটক করে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দিচ্ছে। সে চিহ্নিত চোরাকারবারীদের একজন।

আলী হোসেন রাজন,মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ প্রবাসী অধ্যুষিত মৌলভীবাজারে অবৈধ হুন্ডি ব্যবসা জমে উঠেছে। সরকার অনুমোদিত মাত্র একটি বৈদেশীক মানি এক্সচেঞ্জ থাকলেও পুরো শহর জুড়ে অন্য ব্যবসার আঁড়ালে ব্যাংঙের ছাতার মত গড়ে উঠেছে অবৈধ হুন্ডি ব্যবসা। এই অবৈধ হুন্ডি ব্যবসার সঙ্গে জড়িতরা বলছেন পেটের দায়ে তারা এ ব্যবসা করছেন। আর পুলিশ বলছে, কারো বিরুদ্ধে হুন্ডির মাধ্যমে টাকা পাচারের অভিযোগ পেলে নেওয়া হবে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা।

মৌলভীবাজারে ডাক্তারের চেম্বার, মোবাইল,টাইলসের দোকান, কাপড় ও প্রসাধনী সামগ্রীর দোকানসহ বিভিন্ন ব্যবসার আঁড়ালে গড়ে উঠেছে অবৈধ হুন্ডি ব্যবসা এবং বিদেশে টাকা পাচারের শক্তিশালী সিন্ডেকেট। সম্প্রতি একটি গোয়েন্দা রিপোর্টে উঠে এসেছে বিদেশে টাকা পাচারকারী প্রায় অর্ধ শতাধিক ব্যক্তির নাম মানুষের মুখে মুখে আলোচিত হচ্ছে। এদের মধ্যে অনেকেই ইতিমধ্যে গাঁ ঢাকা দিয়ে আত্মগোপন করেছেন আর কয়েকজন ইতিমধ্যে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। প্রবাসী অধ্যুষিত মৌলভীবাজার জেলার বহু লোক লন্ডন, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা ও মধ্যপ্রাচ্যসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে টাকা পাঠান।

ব্যাংকিং চ্যানেলে টাকা আসতে দেড়ি হওয়াসহ নানা ঝামেলা এড়াতে ঘরে বসে প্রবাসীদের পাঠানো টাকা দ্রুত পেতে হুন্ডি ব্যবসায়ীদের শরনাপন্ন হয়ে থাকেন।
মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল রোড দর্জির মহল,বেরীর পশ্চিম পাড় অবস্থিত সোনালী ব্যাংক বৈদেশিক শাখা এলাকায় গড়ে উঠা এসব অবৈধ বৈদেশিক মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবসায়ীরা সাংবাদিকের উপস্থিতি টের পেয়ে দোকানের স্যাটার বন্ধ করে দেয়।
সরকারের তালিকাভূক্ত অবৈধ হুন্ডি ব্যবসায়ী ও বিদেশে টাকা পাচারকারি ইয়াওর আহমদ বলছেন পেটের দায়ে ডলার পাউন্ডের ব্যাবসা করছেন হুন্ডি ব্যবসার সাথে তিনি জড়িত নয়। কিন্তু বৈধ ডলার পাউন্ড ব্যাবসার আরালে কি ব্যবসা হয় সেটা খুজে দেখেন। অবৈধ ডলার পাউন্ড ব্যাবসায়ীরা বলছেন আমাদের ব্যবসার বৈধতা নাই তবে একমাত্র বৈধতা আছে সৈয়দ মানি এক্সচেঞ্জ এর, আমরা টুকটাক মোবাইল সামগ্রী, টাইলস এবং কাপড় বিক্রির আড়ালে ব্যবসা করছি।
সরকার অনুমোদিত একমাত্র বৈদেশিক মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবসায়ী সৈয়দ মানি এক্সচেঞ্জ এর বিরুদ্ধে রয়েছে বিদেশে অবৈধ টাকা পাচারের অভিযোগ।
তবে সৈয়দ মানি এক্সচেঞ্জ এর মালিক সৈয়দ ফয়ছল আহমদ বলেন আমার ব্যাবসা বৈধ আমি সরকারকে রাজ্বস্ব দিয়ে ব্যবসা করছি,আমার বিরুদ্ধে কে বা কারা অভিযোগ করছে তার কোন ভিত্তি নেই এসব মিথ্যা,তা চারা ব্যাংঙের ছাতার মত গড়ে উঠা অবৈধ ব্যাবসা না থাকলে সরকারকে আরো বেশি করে রাজ্বস্ব দিতে পারতাম।
সোনালী ব্যাংক বৈদেশিক মৌলভীবাজার শাখার ব্যবস্থাপক শাহেদ আহমদ চৌধুরী বলছেন মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার মধ্যে সরকার অনুমোদিত বৈদেশিক মানি এক্সচেঞ্জ হলো সৈয়দ মানি এক্সচেঞ্জ,তারাই বৈধ ভাবে ব্যাবসা করছে ।কিন্তু বিভিন্ন দোকানে সামগ্রীর আড়ালে অবৈধ ডলার পাউন্ডের ব্যাবসার কারণে সরকার তার থেকে রাজ্বস্ব পাচ্ছেনা।

মানি লন্ডারিং করে বিদেশে টাকা পাচারকারি ও অবৈধ হুন্ডি ব্যবসার অভিযোগ কারো বিরুদ্ধে পেলে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান মৌলভীবাজার মডেল থানার অফিসার ইনর্চজ মো: আলমগীর।
সরকারের তালিকাভূক্ত অবৈধ হুন্ডি ব্যবসায়ী ও বিদেশে টাকা পাচারকারিরা রাতারাতি হয়ে উঠেন আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ। সরকার খুব শীর্ঘই এদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নিবে এমনটাই আশা করছেন জেলা বাসী।

সংশ্লিষ্ট বাহিনী নিরব ! যাচ্ছে আমদানীকৃত রসুন ও মটরশুটি,আসছে মদ ও মাদক সামগ্রী

রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধিঃ সিলেটের জৈন্তাপুর ও গোয়াইনঘাট সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচাঁর হচ্ছে খাদ্যশষ্য মটরশুটি, মশুরী ডাইল, চানা ডাইল বাংলাদেশের আমদানীকৃত রসুন, স্বর্ণের বার ও বাংলাদেশী মুদ্রা। বিনিময়ে বাংলাদেশে আসছে ভারতীয় বিভিন্ন ব্যান্ডের মদ, ইয়াবা, ফেন্সীড্রিল, নি¤œ মানের চা-পাতা, কসমেট্রিক, সুপারী, হরলিক্স, বিভিন্ন ব্যান্ডের সিগারেট, নাছির বিড়ি ও ভারতীয় গরু। দিন-কিংবা রাতে সমান তালে এসব পণ্য সামগ্রী আদান-প্রদান হলেও সংশ্লিষ্ট প্রশাসন নিরব ভূমিকা পালন।
সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার জাফলং জিরো পয়েন্ট, সংগ্রাম সীমান্ত ফাঁড়ি, সেনাটিলা, উদ্ভিদ সংঘনিরোধ কেন্দ্রী, তামাবিল, নলজুরী এবং জৈন্তাপুর উপজেলার খাঁসিনদী, আলু বাগান, মোকামপুঞ্জি, শ্রীপুর, মিনাটিলা, ছাগল খাউরী নদী, কাঠাঁলবাড়ী, কেন্দ্রী হাওর, কেন্দ্রীবিল, ডিবিরহাওর, ডিবিরহাওর (আসামপাড়া), ঘিলাতৈল, ফুলবাড়ী, টিপরাখলা, কমলাবাড়ী, গুয়াবাড়ী, বাইরাখেল, হর্নি, কালিঞ্জী, ময়না, জালিয়াখলা, লালাখাল, লালাখাল গ্রান্ড, জঙ্গীবিল, বাঘছড়া, তুমইর, বালিদাঁড়া, ইয়াংরাজা, সিঙ্গারীরপাড় দিয়ে বানের পানির মত বংলাদেশ থেকে ভারতে পাঁচার হচ্ছে খাদ্যশষ্য মটরশুটি, মশুরী ডাইল, চানা ডাইল বাংলাদেশের আমদানীকৃত রসুন, স্বর্ণের বার ও বাংলাদেশী মুদ্রা। বিনিময়ে বাংলাদেশে আসছে ভারতীয় বিভিন্ন ব্যান্ডের মদ, ইয়াবা, ফেন্সীড্রিল, নি¤œ মানের চা-পাতা, কসমেট্রিক, সুপারী, হরলিক্স, বিভিন্ন ব্যান্ডের সিগারেট, নাছির বিড়ি ও ভারতীয় গরু। সন্ধ্যা হতে না হতেই জৈন্তাপুর বাজার হতে বড় বড় ট্রাক যোগে নিয়ে আসা খাদ্যদ্রব্য মটরশুটি, মশুরী ডাইল, চানা ডাইল, বাংলাদেশের আমদানী কৃত রসুন ছোট ছোট পিকআপ, ডিআই ট্রাক, ব্যাটারী চালিত টমটম যোগে সীমান্তের উল্লেখিত পয়েন্টে সমুহে নিয়ে যাওয়া হয়।

সম্প্রতি উপজেলার সচেতন মহল মনে করছে সীমান্ত প্রশানের নিরবতার কারনে চোরাকারবারীরা উৎফুল্ল আনন্দে প্রতিযোগিতা মূলক ভাবে বাংলাদেশী পণ্য সামগ্রী ভারতে পাচার করছে। জৈন্তাপুর উপজেলার বাসিন্ধা প্রবীন শিক্ষক বলেন, আগে শুনেছি গভীর রাত হলে কিছু সংখ্যাক ব্যক্তি সীমান্ত এলাকার বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে চেরাইপথে পন্য সামগ্রী আদান প্রদান করত। তারা খাদ্যদ্রব্যের বিনিময়ে খাদ্যদ্রব্য বংলাদেশে নিয়ে আসত। তারমধ্যে সীমান্তরক্ষী বাহিনী এসব মালামাল আটক করে বিভিন্ন চোরাকারবারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করত। কখনও নির্ধিদায় ভারত হতে মদ মাদক সামগ্রী বাংলাদেশে নিয়ে আসতে পারতনা। যদি কখন ও এসব মদকদ্রব্য বাংলাদেশে নিয়ে আসত তাহলে অন্যান্য চেরাকারবারিরা প্রতিহত করত। বর্তমানে বাংলাদেশি পণ্যের বিনিময়ে ভারত হতে মাদক দ্রব্য বাংলাদেশে প্রবেশ করাচ্ছে চোরাকারবারীরা যাহা যুব সমাজের মারাত্বক ক্ষতির সম্মুাখিন। তিনি বলেন, সন্ধ্যা হলে রাস্তায়বের হতে ভয় করে, চেরাকারবারীদের ত্রিশুলের কারন হয়ে পড়েন। সমাজে অপরাধ মুক্ত করতে হলে এখনি সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে তা না হলে অচিরেই মাদ্রকর প্রভাব উপজেলার সর্বত্র ছড়িয়ে পড়বে।
নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন টমটম চালক এবং ডি.আই ট্রাকচালক বলেন, পেটের দায়ে আমরা চোরাইপন্য সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্টে দিয়ে আসি, অনেক সময় কাটুন কাটুন ভারতীয় পণ্য সিগারেট, বিড়ি, চা-পাতা, সুপারী, কসমেট্রিকের চালান নিয়ে বাংলাদেশে নিয়ে আসি। এসব পণ্য সামগ্রী আদান-প্রদানে করার ক্ষেত্রে কোন সমস্যায় পড়তে হয়নি। কারন হিসাবে তারা বলেন, সীমান্ত প্রশাসনের লাইনম্যানের সাথে পণ্যের মালিকগণ চুক্তির (লাইন ম্যানেজ) মাধ্যমে এসব পণ্য আদান প্রদান করেন। মাঝে মধ্যে কেউ লাইন ম্যানোজ না করলে সেই মাল আটকা পড়ে বলে শুনেছি আমরা কখনও আটকা পড়িনি। মাদক সামগ্রীর বিষয় জানতে চাইলে তারা বলে কাটুনের মধ্যে কি থাকে আমরা কখন দেখি নাই, কারন সময় খুব কম থাকে, দ্রুত নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌছে দিতে হয়। তবে বেশির ভাগ সময়ে গরুর চালান প্রবেশ করে বলে তারা জানান।
এবিষেয়ে জৈন্তাপুর উপজেলা অধিনস্থ দুটি ব্যাটালিয়ন বিভিন্ন ক্যাম্প ও কোম্পনাী কামান্ডারদের সাথে আলাপকালে তারা জানান, আমাদের নিয়মিত অভিযান অব্যহৃত আছে। আমরাও বিভিন্ন ভাবে মালামাল আটক করছি। লাইনম্যান সর্ম্পকে জানতে চাইলে তারা বলেন বিজিবির কোন লাইনম্যান বা সোর্স নাই, আমাদের নামে কেউ আর্থিক লেনদেন করলে কখনও অভিযোগ আসেনি। চোরাচালানী বন্ধে বিজিবি নিরলশ কাজ করে যাচ্ছে। আপনারা আমাদেরকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করেন আমরা সীমান্ত নিরাপদ রাখবে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc