Friday 13th of December 2019 07:47:27 PM

আলী হোসেন রাজন,জেলা প্রতিনিধি মৌলভীবাজারঃ  জঙ্গিবাদ আরও গভীর সমস্যা, আজকে মাদক,সন্ত্রাস,জঙ্গীবাদ ছাত্রদের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী এম এ মান্নান (এমপি)।

তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন তোমরা কিছু মনে করবেনা জঙ্গিবাদ এখানেই উৎপওি হচ্ছে, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সরকার অবস্থান নিয়েছে, তিনি বলেন তোমাদের সামনে আদর্শ আছে, তোমরা অনেকে অবহেলা করে সেই আদর্শের দিকে তাকাওনা, এই মুহূর্তে তোমাদের জন্য আদর্শ হচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তোমাদের আদর্শ লক্ষ ঠিক করতে হবে। মন্ত্রী বলেন কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের সুযোগ-সুবিধার জন্য বড় দুটি বাস দেয়ার বিষয়ে তিনি মন্ত্রনালয়ে কথা বলবেন। মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ অডিটোরিয়ামে সন্ত্রাস,মাদক,জঙ্গিবাদ ও গুজব বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।
শনিবার (৩০) নভেম্বর দুপুরে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ অডিটোরিয়ামে সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ড.মো:ফজলুল আলীর সভাপতিত্বে সন্ত্রাস,মাদক,জঙ্গিবাদ ও গুজব বিরোধী এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার তিন আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মল্লিকা দে, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, পুলিশ সোপার ফারুক আহমদ, পৌর সভার মেয়র ফজলুর রহমান,সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: কামাল হোসেন।
এসময় ছাত্র-ছাত্রীরা সরকারি কলেজে ১০তলার দুটি একাডেমিক ভবন ,দুটি বাস ও একটি হোস্টেল বরাদ্ধ দেয়ার দাবি জানান মন্ত্রীর কাছে। এরআগে সকাল সাড়ে ১১টায় মৌলভীবাজার পৌরসভার সকল কর্মকর্তাদের সাথে নগর সমন্বয় কমিটির সভা করেন পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী এম এ মান্নান।

কিশোরগঞ্জ থেকে সংবাদদাতাঃ  কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদীতে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা হোসনে আরা (৫৫) নামে এক নারী চিকিৎসার ফাঁকে নামাজে  আদায় করতে গিয়ে সেজদারত অবস্থায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। শুক্রবার দুপুরে কটিয়াদীর শারমিন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এ ঘটনাটি ঘটে বলে বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়।

মরহুমা হোসনে আরা উপজেলা মুমুরদিয়া ইউনিয়নের ধনকীপাড়া গ্রামের মাহবুবুর রহমানের স্ত্রী।

হোসনে আরার ছোট ভাই রইছ মাহমুদ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নুরুল হক সংগ্রাম সংবাদ মাধ্যমকে জানান, আমার বড় বোন হোসনে আরা ২০১৪ সাল থেকে ডায়াবেটিক রোগে আক্রান্ত। তিনি প্রতিমাসে ডাক্তার দেখানোর জন্য কটিয়াদীতে শারমিন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আসতেন।

আজও তিনি ডাক্তার দেখানোর জন্য এসে সিরিয়ালে নাম লেখান। ডাক্তার জুমার নামাজ পড়তে মসজিদে চলে গেলে আমার বোন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের এক কক্ষে নামাজ পড়ার সময় সেজদারত অবস্থায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

ডায়াগনস্টিক সেন্টারের লোকজন কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অনেকটাই নির্জীব বাংলাদেশের বামপন্থী রাজনৈতিক দলগুলো। নিত্যপণ্যের উচ্চমূল্য, আইনশৃংখলা পরিস্থিতিসহ নানা ইস্যুতে আগের মতো সোচ্চার নয় তারা। নানা কারণে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়াতেই বামধারাকে আর আগের মতো রাজপথে সক্রিয় দেয়া যায় না বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

পরিবর্তিত বিশ্ব রাজনীতিতে ক্রমশ ক্ষয়ে যাচ্ছে সমাজতন্ত্র। তারই প্রভাব যেন পড়েছে বাংলাদেশের দলগুলোর ওপরও। অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক পরিবেশও শক্তিহীন করেছে তাদের। একটি অংশ সমাজতন্ত্রকে আকড়ে থাকলেও অপর একটি অংশ মিশছে প্রচলিত সুবিধাবাদী ধারায়। ক্ষমতার আশপাশে থাকতে গণমানুষের অধিকার নিয়ে রাজপথের আন্দোলন থেকে সরে গেছেন অনেকে।

এরপরও যারা এখনো রাজপথে আছেন, ক্ষমতার রাজনীতিতে সুবিধা করতে পারছেন না তারা। ফলে রাজপথে মিটিং, মিছিল, আন্দোলনের পরিবর্তে ঘরে ঢুকে পড়েছে বামধারা। অনেকটা ঘরোয়া সভা-সমাবেশ কিংবা মানববন্ধনের মতো নিরীহ কর্মসূচিতেই সীমাবদ্ধ তাদের কার্যক্রম।

দেশের বাম রাজনীতি প্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডক্টর গোলাম রাব্বানী বলেন, রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে বামদলগুলোর প্রয়োজনীয়তা মোটেও শেষ হয়ে যায়নি। তবে স্বার্থসিদ্ধির রাজনীতিতে তাদের কোন কর্মসূচি জনগণকে আকৃষ্ট করতে পারছে না।

নিজেদের দুর্বলতা স্বীকার করে সিপিবি সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়ন ঢুকে পড়েছে। বাম নেতাদের অনেকে জড়িয়ে পড়েছেন সুবিধাভোগী ধারায়। তাই চাইলেও এ পরিবেশে নিজেদের গুছিয়ে নেয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

গণমানুষের স্বার্থে নানা কর্মসূচি নিয়ে মাঠে থাকার চেষ্টা করছেন তারা। এসব কর্মসূচিতে অংশ না নিলেও বৈষম্য ও শোষনমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনকে সাধারণ মানুষ সমর্থন করে বলেই মনে করেন এ সিপিবি নেতা।পার্সটুডে

উদ্যোগে ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) মাহফিলে আল্লামা নূরী-“কুরআন ও সুন্নাহর অপব্যাখা করে শান্তি বিনষ্টকারীদের সম্মিলিত ভাবে সমুচিত জবাব দিতে হবে”

আন্জুমানে রজভীয়া নূরীয়া বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান পীরে তরিক্বত হযরতুলহাজ¦ আল্লামা মুহাম্মদ আবুল কাশেম নূরী বলেন, ইসলাম শান্তি ও মানবতার ধর্ম। কোরআন ও সুন্নাহ ইসলামের মূল নির্যাস। এ দুটি পবিত্র গ্রন্থে শান্তি ও সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে জোর তাগিদ দেয়া হয়েছে। কিন্তু বর্তমানে কিছু পথভ্রষ্ট কোরআন ও সুন্নাহর অপব্যাখ্যা করে মানুষে মানুষে ঝগড়া ফ্যাসাদ সৃষ্টিতে লিপ্ত রয়েছে। ভ্রাতৃত্ব, শান্তি ও সম্প্রীতি নষ্ট করে তারা তাদের বিকৃত দর্শন ও উগ্রবাদকে প্রতিষ্ঠায় চেষ্টা করে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, কুরআন ও সুন্নাহর অপব্যাখ্যা করে শান্তি বিনষ্টকারীদের সম্মিলিত ভাবে সমুচিত জবাব দিয়ে ইসলামের সঠিক রূপরেখা সমাজ ও রাষ্ট্রে প্রতিষ্ঠা করতে হবে। ২৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকালে রাউজান হলদিয়া দুল্লোভ কাজীর বাড়ী হযরত ছিদ্দিকে আকবর (র.) স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (দরুদ) উপলক্ষ্যে আজিমুশশান নুরানী মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সংগঠনের সহ সভাপতি শায়ের মুহাম্মদ মাছুমুর রশিদ কাদেরীর স ালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন হলদিয়া ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার ও দুল্লোভ কাজীর বাড়ীর সমাজ প্রতিনিধি মুহাম্মদ আলী।

উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন হলদিয়া দুল্লোভ কাজীর বাড়ী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল আলী রজভী। মাহফিলের সভাপতিত্ব করেন গর্জনীয়া রহমানিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ আহসান হাবিব। প্রধান অতিথি ছিলেন আন্জুমানে রজভীয়া নূরীয়া বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান পীরে তরিক্বত হযরতুলহাজ¦ আল্লামা মুহাম্মদ আবুল কাশেম নূরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআ’ত রাউজান উপজেলা উত্তরের সাধারণ সম্পাদক আল্লামা মুহাম্মদ ইদ্রিস আনসারী। প্রধান বক্তা ছিলেন উত্তর সর্তা গাউসিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার আরবী প্রভাষক আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ হাসান মুরাদ কাদেরী। বিশেষ বক্তা ছিলেন গর্জনীয়া রহমানিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার মুর্দারিস ও সংগঠনের উপদেষ্ঠা মাওলানা মুহাম্মদ জাফর আলম নুরী। উপস্থিত ছিলেন আহলে সুন্নাতের অসংখ্য উলামায়ে কেরাম ও সংগঠক।

সংগঠনের নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সভাপতি মুহাম্মদ মফিজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হায়দার, মুহাম্মদ আবুল ফজল, মুহাম্মদ ইদ্রিস, মুহাম্মদ আলম, মুহাম্মদ জসিম, অলি আহমদ, মুহাম্মদ আবুল হাশেম, মুহাম্মদ খাইরুল বশর, মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন, মুহাম্মদ রুবেল, এস.এম ইকবাল বাহার চৌধুরী, মুহাম্মদ তৌহিদ, মুহাম্মদ সুলাইমান, মুহাম্মদ আমান উল্লাহ, মুহাম্মদ মাসুদ-অর-রশিদ, মুহাম্মদ আমজাদ হোসেন পাপ্পু, মুহাম্মদ আইমন, মুহাম্মদ সাজিদ, মুহাম্মদ ইরফান, মুহাম্মদ বাবুল, মুহাম্মদ শাহজাহান, মুহাম্মদ সোহেল, মুহাম্মদ হাসান, মুহাম্মদ ইমন, মুহাম্মদ শ্রাবণ প্রমুখ।

চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ তাঁতীলীগ চুনারুঘাট উপজেলার ১নং গাজীপুর ইউনিয়ন শাখার আহবায়ক কমিটির সাংগঠনিক কার্যক্রম বেগবান করতে ও বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করাসহ পুর্ণাঙ্গ কমিটি করার লক্ষ্যে বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।উপজেলার আসামপাড়া বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও গাজীপু ইউনিয়ন তাঁতীলীগের আহবায়ক মোঃ জালাল উদ্দিন খানের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মোঃ শফিকুল আলম রনির সঞ্চালনায় বিশেষ বর্ধিত সভায় উপস্থিত থেকে তাঁতীলীগের ইউনিয়ন আহবায়ক কমিটির উদ্দেশ্যে দিক নির্দেশনাসহ তাঁতীলীগের বিরুদ্ধে ইউনিয়নের কিছু নেতৃবৃন্দরা কটুক্তিপূর্ণ কথা-বার্তা বলার প্রতিবাদে জুড়ালো বক্তব্য রাখেন উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি মোঃ কবির মিয়া খন্দকার।
এ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা তাঁতীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মিজানুর রহমান বাবুল, গাজীপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক হাজ্বী সোয়েব চৌধুরী, উপজেলা তাঁতীলীগের সহ-সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট মোঃ ফজল মিয়া, হাবিবুর রহমান হাবিব, আলহাজ্ব দিদার হোসেন, ছিদ্দিকুর রহমান ছিদ্দিক, সহ-সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন রতন, জয়নাল আবেদীন জয়নাল, স্বপন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান হোসেন স্বপন সাই, শাহীন আলম, সোহেল মিয়া, অর্থ সম্পাদক মোঃ সুমন মিয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কাজিম আলী মীর, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক নুরুন্নবী।
ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আকছির মিয়া, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ মজলিশ মিয়া, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মীর জুবাইর আলম, গাজীপুর ইউনিয়ন তাঁতীলীগের যুগ্ন আহবায়ক তাজুল হক খান, তাহির জমাদার, জাহাঙ্গীর আলম, দ্বীন মোহাম্মদ খান, মোঃ বাবলু, মাওঃ জামাল খান রেজভী, ক্বারী মৌলভী মিজান রেজভী, দেওয়ান রেজভী প্রমুক।
আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় আসামপাড়া দক্ষিণ বাজারের রেল সংলগ্নে ইউনিয়ন তাঁতীলীগ আয়োজিত বিশেষ বর্ধিত সভা শুরু হয়ে চলে রাত  ৯টা পর্যন্ত।
এই অনুষ্ঠানে বক্তারা বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শোষণহীন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়তে আহবান জানান।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা ও পাথর ব্যবসায়ীর নাম ব্যবহার করে ওসির বিরোদ্ধে দুদকে অভিযোগ করায় সেই ব্যবসায়ী তাহিরপুর থানার জিডি করেছে। তিনি উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা,পাথর ব্যবসায়ী ও কলাগাঁও গ্রামের মৃত হামিদ ভুঁইয়া ছেলে ইকবাল হোসেন সেলিম (ফেইসবুকে সেলিম ইকবাল)। তাহিরপুর থানায় জিডি নং ৯২৬,তারিখ-২৮,১১,১৯ইং।
তাহিরপুর উপজেলার স্থানীয় বাসীন্দা ও একাধিক আ’লীগের নেতারাগন আরো জানা যায়,সম্প্রতি সুনামগঞ্জের ১আসনের এমপি ও আ,লীগের একাধিক নেতাকর্মী বিরোদ্ধে দুদকে অভিযোগ দায়ের করার পর সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এর রেশ কাটতে না কাটতেই তাহিরপুর থানা পুলিশের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)নন্দন কান্তি ধরের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার (২৬,১১,১৯) দুপুরে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে দুর্নীতি ও চাঁদাবাজির অভিযোগ তুলে লিখিত ভাবে অভিযোগ দিয়েছেন সেলিম ইকবাল নামে এক ব্যক্তি।

এই লিখিত অভিযোগ দাখিল করার পর ব্যাপক বির্তকের সৃষ্টি হয়েছে। কারন ঐ ওসি তাহিরপুর থাকাকালিন সময়ে তার কাছে যারা আশ্রয়,প্রশ্রয় ও সহযোগীতা পায় নি এবং বিভিন্ন মামলার আসামী,ইয়াবা,চোরাচালানী ও মাদক ব্যবসায়ীদের আটক ও তাদের বিরোদ্ধে জোড়ালো ভূমিকা রাখায় এখন শুদ্ধি অভিযানের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে মনগড়া বিত্তিহীন তথ্য দিয়ে পুলিশ প্রশাসনের সুনামনষ্ট করেছে। আর ওসি নন্দনের বিরোদ্ধে অভিযোগে অভিযোগকারীর মোবাইল নাম্বার নেই যা সহজেই বুঝা যায় অভিযোগটি উদ্যোশ্য প্রনদিত তাহিরপুর উপজেলার সচেতন মহল মনে করেন।
জিডি সুত্রে জানাযায়,উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা,পাথর ব্যবসায়ীর ইকবাল হোসেন সেলিম (ফেইসবুকে সেলিম ইকবাল) নাম ব্যবহার করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কার্য্যালয় ও দুদকে বিভিন্ন গন্যমান্য ব্যক্তি,রাজনীতিবীদ,প্রতিষ্টান এবং সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরোদ্ধে মিথ্যা,বানোয়াট ও উদ্যোশ্য প্রনোদিত ভাবে এলাকায় আমার জনপ্রিয়তা নষ্ট ও ক্ষতিসাধন করার জন্য ও রাজনৈতিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য অজ্ঞাত ব্যক্তি এইসব অভিযোগ দায়ের করছে একটি কুচক্রি মহলের সহযোগীতা যা তিনি জানেন না।

গত ২৭নভেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এক পুলিশ কর্মকর্তার বিরোদ্ধে দুদকে অভিযোগ দায়ের করার সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। আর তাতে অভিযোগকারীর নাম সেলিম ইকবাল লেখা রয়েছে যা আমার চোখে পড়ায় তা দেখে আমি নিজ উদ্যোগে থানার এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে জিডি করেছেন বলে জানান উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা,পাথর ব্যবসায়ীর সেলিম ইকবাল।
এই বিষয়ে উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি,কয়লা,পাথর ব্যবসায়ীর ইকবাল হোসেন সেলিম (ফেইসবুকে সেলিম ইকবাল) জানান,আমার নাম ব্যবহার করে বার বার ভাল মানুষ গুলোর বিরোদ্ধে মিথ্যা সাজানো অভিযোগ দায়ের করে কিছু কুচক্রি মহল। আমি আমার সম্মান রক্ষায় অজ্ঞাত ঐ ব্যক্তির বিরোদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
তাহিরপুর থানার ওসি আতিকুর রহমান জিডি করার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান এই বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তর্দন্ত করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য,সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানা পুলিশের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নন্দন কান্তি ধরের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার দুপুরে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে দুর্নীতি ও চাঁদাবাজির অভিযোগ দিয়েছেন সেলিম ইকবাল। তিনি একই উপজেলার উত্তর বন্দর এলাকার বাসিন্দা।

রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধিঃ ২০১৫ সন হতে সিলেটের অন্যতম পর্যটন ষ্পট হিসাবে খ্যাতি অর্জন করে জৈন্তাপুর উপজেলার লাল শাপলার রাজ্যেটি। বর্তমানে বিলের সৌন্দর্য্য নষ্ট করে রাস্তার পাশ্বে বিলের জায়াগা দখল করতে গড়ে উঠেছে একর পর এক দোকান। যেন দেখার কেউ নেই।

সিলেটের অন্যতম পর্যটন ষ্পট হিসাবে খ্যাতি অর্জন করে জৈন্তাপুর উপজেলার লাল শাপলার রাজ্যেটি। বর্তমানে বিলের সৌন্দর্য্য নষ্ট করে রাস্তার পাশ্বে বিলের জায়াগা দখল করতে গড়ে উঠেছে দোকান। লালা শাপলার রাজ্যেটি পর্যটন স্পট হিসাবে ঘোষণা এবং লাল শাপলার রাজ্যের ৪টি বিল (ডিবি বিল, কেন্দ্রী বিল, ইয়ামবিল এবং হরফকাট বিল) গুলোর লীজ বাতিল এবং পর্যটন স্পট ঘোষনার দাবীতে জেলা প্রশাসক বরাবরে জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রধান করা হয়।

অপরদিকে ডিবির হাওর লাল শাপলার রাজ্যে রক্ষা এবং অর্থনৈতিক জোন বাতিলের জন্য ২০১৬ সনে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার মানববন্ধন পালন করে। আন্দোলনের ফল হিসাবে এবং সম্ভাবনাময় পর্যটন কেন্দ্র ও বাংলাদেশ সরকারের অন্যতম প্রকৃতিক সম্পদ ইউরেনিয়ান পরিপূর্ণ খনি রক্ষায় লীজ বাতিল ও পর্যটন কেন্দ্র ঘোষনা করা হয়। সেই সাথে বর্তমান উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌরীন করিম এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে বিল সুরক্ষার জন্য লাল শাপলা বিল সুরক্ষা কমিটি গঠন করা হয়।

অতচ বিলের সৌন্দর্য্য বিনষ্ট করে লাল শাপলা সুরক্ষা কমিটির সদস্য সাইফুল ইসলাম প্রভাব খাটিয়ে কোন প্রকার পূর্বানুমতি না নিয়ে দোকানগৃহ নির্মাণ করে ব্যবসা পরিচালনা করছেন। সচেতন মহল ও পর্যটকরা বলেন বিলের প্রকৃতিক সৌন্দর্য্য বিনষ্ট করতে এরকম দোকান স্থান করা হয়েছে। মুলত রাস্তার মধ্যে দাঁড়ীয়ে ৪টি বিলের যে অপরুপ সৌন্দর্য্য উপভোগ করা যাবে তা আর পাওয়া যাবে না। সুরক্ষা কমিটির সদস্য হয়ে যদি এভাবে দোকানগৃহ স্থাপন করে লাল শাপলার রাজ্যে প্রকৃতিক দৃশ্য বিনষ্ট হবে।

অপরদিকে বিল গুলো সীমান্তবর্তী হওয়ায় দোকান গৃহ স্থাপন করলে মাদকের ছাড়া ছড়ি বেড়ে যাবে। তারা দ্রুত সময়ের মধ্যে দোকান গৃহ সরানোর জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবী জানান পর্যটকরা।
এবিষয়ে জানতে লাল শাপলা বিলের সুরক্ষা কমিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম বলেন, পর্যটকদের ছায়ার জন্য এবং বসার জন্য একটি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে আমি শুনেছি। আমার জানা মতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে ঘর নির্মানের কোন অনুমতি দেওয়া হয়নি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রকৃতিপ্রেমী মৌরীন কমির বলেন, জরুরী কাজে ন্যাস্ত থাকায় গত ৩/৪দিন যাবত আমি শাপলা বিলের খোঁজ খবর নিতে পারিনি। দোকানগৃহ নির্মানের বিষয়টি কেউই আমাকে জানায়নি। বিষয়টি জানানোর জন্য আপনাকে ধন্যবাদ এবং শনিবার লোক পাটিয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধি: সিলেটের জৈন্তাপুর সীমান্ত দিয়ে চোরাচালানে নতুন পণ্য হিসাবে যুক্ত হল শিশুদের ব্যবহারের জন্য জায়পার (প্যামপাস)। ১৯ বিজিবি’র জৈন্তাপুর অভিযানে ২৭০ প্যাকেট জায়পার (প্যামপাস) সহ পিকআপ আটক।

২৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১০টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে ১৯ বিজিবি’র জৈন্তাপুর ক্যাম্প কর্তৃক অভিযান পরিচালনা করে সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের কাটাগাং এলাকা হতে পিকআপ সহ ২৭০ প্যাকেট অবৈধ ভাবে চেরাইপথে নিয়ে আসা ভারতীয় জায়পার আটক করে।

আটক জায়পার ও গাড়ী তামাবিল কাষ্টম অফিসে প্রেরণ করা হয়েছে এবং গাড়ীর জব্দ দেখানো হয়েছে। এলাকাবাসী জানায় দীর্ঘ দিন হতে চোরাকারবারি দলের অন্যতম সদস্য উপজেলার ফতেপুর (হরিপুর) ইউনিয়নের লামাশ্যামপুর দলইপাড়া গ্রামের স্বপন মোল্লা উরফে জিগা মোল্লা উরফে সোবহান মোল্লা অবৈধ পথে ভারত হতে হরলিক্স, কসমেট্রিক্স, শিশুদের কাপড়, বিভিন্ন ব্যান্ডের চকলেট, ভারতীয় জুতা, মোবাইল ফোন, জিরা, নাছির বিড়ি, নতুন পণ্য হিসাবে জায়পার (প্যামপাস) সামগ্রী বাংলাদেশে নিয়ে আসেছ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সূত্র জানান, স্বপন মোল্লা গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর ও কানাইঘাট উপজেলার বিভিন্ন সীমান্ত পথ দিয়ে অবৈধ ভাবে কোটি কোটি টাকার ভারতীয় পন্য নিয়ে আসে। এসকল পণ্য সিলেট শহর সহ ঢাকায় প্রেরণ করে থাকে। একাধিকবার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে মালামাল আটক হলেও দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যবহৃত গাড়ী নানা কৌশলে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। অবশেষে গতকাল ১৯ বিজিবি’র জৈন্তাপুর ক্যাম্পের অভিযানে গাড়ী সহ মালামাল আটক হলে কোন কৌশলে গাড়ী ছড়িয়ে নিতে পারেনি।

এবিষয়ে জৈন্তাপুর ক্যাম্পের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ক্যাম্প কমান্ডার আটকের বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে অভিযান পরিচালনা করে শিশুদের জরুরী কাজের জন্য ব্যবহৃত ২৭০ প্যাকেট জায়পার সহ ১টি পিকআপ আটক করি। উদ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মোতাবেক প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

এম ওসমান,বেনাপোল:  আমাদের বাংলাদেশ ডট কম ও দৈনিক প্রতিদিনের কন্ঠ পত্রিকার শার্শা উপজেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক আসাদুর রহমানের একমাত্র কন্যা  বুসরাত জাহান আরিশার  ৭তম শুভ জন্মদিন আজ। আজকের এই দিনে পৃথিবী আলো করে তার মা-বাবার কোলজুড়ে জন্ম নিয়েছিল বুসরাত জাহান আরিশা
শুক্রবার বিকাল  ৪টার সময় মোমবাতি জ্বালিয়ে ও কেক কেটে তার শুভ জন্মদিন পালন করা হয় নিজ বাড়িতে ।
এ সময় বুসরাত জাহান আরিশার সাথে ছিলেন তার মা  সুরাইয়া পারভীন স্বপ্না তার বাবা সাংবাদিক আসাদুর রহমানসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা।
বুসরাত জাহান আরিশার এই শুভ জন্মদিনে তার দীর্ঘায়ৃু কামনা ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেছেন শার্শা প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক দৈনিক জনতা পত্রিকার বেনাপোল প্রতিনিধি সাংবাদিক ওসমান গণি, দৈনিক গ্রামের কাগজের সাংবাদিক আব্দুর রহমান, এম টিভি বাংলার বেনাপোল প্রতিনিধি সাংবাদিক ইকরামুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান স্বপন প্রমুখ।

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ আজ শুক্রবার বিকালে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক চিপ হুইপ শ্রীমঙ্গল কমলগঞ্জ এলাকার সাংসদ,উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ কর্তৃক বৃহত্তর সিলেট বিভাগের প্রতিবন্ধী ক্রিকেট খেলোয়াড়দের মধ্যে ১৩টি হুইলচেয়ার প্রদান করা হয়েছে। এতে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে হুইল চেয়ার বিতরণ করেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুছ ছালেক দুলাল, শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অর্ধেন্দু কুমার দেব, সহ-সভাপতি জিল্লুল আনাম চৌধুরী চেমন, সাধারণ সম্পাদক শহিদ হোসেন ইকবাল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আকরাম খাঁন, এনাম হোসেন চৌধুরী মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক বেলায়েত হোসেন, পৌর যুবলীগের সভাপতি ছালিক আহমদ, আকবর হোসেন শাহিন, সাধারণ সম্পাদক ছালেহ আহমদ চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু তালেব বাদশা, প্রচার সম্পাদক মোঃ শেরজাহান সেজু, কৃষক লীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান আফজাল হক,ভুনবীর ইউপি চেয়ারম্যান চেরাগ আলী, শ্রীমঙ্গল সদর ইউপি চেয়ারম্যান ভানু লাল, শ্রীমঙ্গল উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মিলন দাশ গুপ্তসহ অন্যান্য নেতা কর্মীগণ ও ক্রিকেট প্রিয় ভক্তরা।

পরিশেষে প্রতিবন্ধী খেলোয়াড়দেরসহ উপস্থিত সকলকে নিয়ে একটি র‌্যালি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি করেন।

আ’লীগের সহযোগী সংগঠন মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি হিসেবে মো. সাইফুর রহমান, কার্যকরী সভাপতি হিসেবে সাইদুল আলম মানিক এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে শেখ আজগর লস্কর নির্বাচিত হয়েছেন।

আজ শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে মৎসজীবী লীগের সম্মেলনে নবনির্বাচিতদের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এর আগে বেলা ১১টার দিকে জাতীয় সংগীত এবং জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করেন তিনি।

মৎস্যজীবীদের অধিকার আদায় এবং মৎস্যসম্পদ বিকাশের লক্ষ্য নিয়ে ২০০৪ সালের ২২ মে মৎস্যজীবী লীগ প্রতিষ্ঠা হয়। ২০১৬ সালের ৯ মার্চ সংগঠনের সর্বশেষ ও চতুর্থ জাতীয় সম্মেলনে সাবেক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ সভাপতি, আবুল বাশার সাধারণ সম্পাদক ও শেখ আজগর নস্কর কার্যকরী সভাপতি হন।

নতুন আঙ্গিকে সংগঠন গড়ে তুলতে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ২০১৭ সালের ১৩ মে মৎস্যজীবী লীগের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়। এই কমিটিতে নারায়ণ চন্দ্র চন্দকে আহ্বায়ক ও শেখ আজগর নস্করকে সদস্য সচিব করা হয়।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের ‘বিদায় ঘণ্টা’ বেজে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন  বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে কৃষিবিদ জাবেদ  ইকবালের স্মরণে এক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকারের বিদায় ঘণ্টা বেজে গেছে। ঘণ্টার ধ্বনি শোনা যাচ্ছে চারদিকে। নানা ক্ষেত্রে ব্যর্থতাই সরকারের পতন ডেকে আনছে।

তিনি বলেন, খন্দকার মোশাররফ হোসেন সাহেব বলেছেন- ইডেনে উনি (শেখ হাসিনা) ঘন্টা বাজিয়ে ক্রিকেট খেলা উদ্বোধন করেছেন, তাদেরও ঘণ্টা বাজছে।

সরকারের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রটাকে এমন এক জায়গায় নিয়ে গেছে, সেটাকে এখন আমরা কোনো মতেই সুষ্ঠু গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র বলতে পারি না। এটাকে অগণতান্ত্রিক ও ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করবার সকল চক্রান্ত সম্পন্ন হয়েছে।

সৌদি আরবে নির্যাতন থেকে বাঁচার আকুতি জানিয়ে ভিডিও বার্তা পাঠানো হ‌বিগ‌ঞ্জের গৃহবধূ হোসনা আক্তার অবশেষে দেশে ফিরেছেন।

বুধবার রাত ১১টার দিকে সৌদি এয়ারলাইন্সের এসভি ৮০৪ বিমানে সৌদি আরবের রিয়াদ থেকে ঢাকায় এসে পৌঁছান তিনি। এরপর একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে এয়ারপোর্টের ভিআইপি গেট দিয়ে বের করে নিয়ে যাওয়া হয়। অ্যাম্বুলেন্সটি তাকে নিয়ে সরাসরি হবিগঞ্জে যাবে বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, সৌদি আরব থেকে বাঁচার আকুতি জানিয়ে সম্প্রতি ভিডিও বার্তা দেন হোসনা। স্ত্রী‌কে নিরাপদে দেশে ফেরত আন‌তে প‌রে সরকা‌রের কা‌ছে আকু‌তি জা‌নান তার স্বামী শফিউল্লাহ।

হোসনার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, দালাল শাহীন মিয়া ও প্রস্তাবিত রিক্রুটিং এজেন্সি আরব ওয়ার্ল্ড ডিস্ট্রিবিউশনের প্রলোভনে পড়ে এজেন্সি আল-সারা ওভারসীস (আরএল-৭৫২) এর মাধ্যমে সৌদি যান হোসনা। সৌদি যাওয়ার পর থেকে সেখানে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন ব‌লে তিনি অভি‌যোগ করে‌ন।

হোসনা ভিডিও বার্তায় তার ওপর চালানো নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে জীবন বাঁচানোর আকুতি জানান স্বামী শফিউল্লাহর কাছে। কোনো উপায়ন্তর না পেয়ে শফিউল্লাহ ছুটে যান দালাল ও আরব ওয়ার্ল্ড ডিস্ট্রিবিউশন অফিসে, তারা হোসনা‌কে দেশে আনতে দুই লাখ টাকা দাবি করেন পরিবারের কাছে।

এ বিষয়ে ব্র্যাকের অভিবাসন কর্মসূচির প্রধান শ‌রিফুল হাসান জানান, কোনো উপায় না পেয়ে ২৪ নভেম্বর ব্র্যাকের সহায়তা চেয়ে আবেদন করেন হোসনার স্বামী শফিউল্লাহ। এরপর নিরাপদে হোসনাকে দেশে ফেরত আনতে পরিবারটিকে সার্বিক সহায়তার সিদ্ধান্ত নেয় ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম।

এর আগে মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞ‌প্তি‌তে জানায়, নারী গৃহকর্মী হোসনা আক্তারকে উদ্ধারের পর পুলিশের নজরদারিতে সেইফহোমে রাখা হয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের উদ্যোগে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞ‌প্তি‌তে জানায়, নারী গৃহকর্মী হোসনা আক্তারকে উদ্ধারের পর পুলিশের নজরদারিতে সেইফহোমে রাখা হয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের উদ্যোগে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরার আকুতি জানিয়ে ভিডিও প্রকাশ করেছেন আরও ৩৫ নারী। এ বিষয়ে ব্র্যাকের অভিবাসন কর্মসূচির প্রধান শরিফুল হাসান জানান, পরপর দুজনের উদ্ধারের ঘটনা দেখে ভিডিও প্রকাশ করেছেন আরও ৩৫ জন নারীকর্মী। এই নারীদের আমার স্যালুট। রাষ্ট্র বা নিয়োগকর্তা কেউ তাদের শেখায়নি। তারা নিজেরাই এই কৌশল উদ্ধার করেছে।‘’

শরিফুল হাসান বলেন, ‘আমি গত দশ বছর ধরে বলছি আমাদের মেয়েদের শুধু একটা মোবাইল ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হোক তারা যাতে বিপদে পড়লে জানাতে পারে। দেখবেন তখন সব সত্য বেরিয়ে আসবে। কিন্তু আফসোস সৌদিরা আমাদের মেয়েদের মোবাইল ব্যবহার করতে দেয় না। সুমি, হোসনারা বহু কষ্ট করে লুকিয়ে যোগাযোগ করে। আমার ভয় হচ্ছে এতগুলো ভিডিও প্রকাশ করার পর সৌদিরা হয়ত আরও কঠোর হবে। আমি বলব আমাদের এখন রাষ্ট্রীয়ভাবে দাবি তোলা উচিত যাতে আমাদের মেয়েরা মোবাইল ব্যবহার করতে পারে।’

এর আগে, সৌদি আরব থেকে ভিডিও বার্তায় জীবন বাঁচানোর আকুতি জানানোর পর গত ১৫ নভেম্বর দেশে ফিরে আসেন আরেক প্রবাসী পঞ্চগড় জেলার সুমি আক্তার।পার্সটুডে

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইলে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০ টায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড,নড়াইল সদরের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের উপ-সচিব ডাঃ দুলাল কৃষ্ণ রায়।
জেলা প্রশাসক আনজুমান আরার আরার সভাপতিত্বে ,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ ইয়ারুল ইসলাম,সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালমা সেলিম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা শরীফ হুমাউন কবির, জেলা পরিষদের সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইফুর রহমান হিলু, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ তবিবুর রহমান,অ্যাডঃ আলমগীর সিদ্দিকী, মোঃ আজিবর রহমান,বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড,নড়াইল সদরের কর্মকর্তা মোঃ রবিউল ইসলাম,সরকারি কর্মকর্তা, বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড,নড়াইলের কর্মকর্তাগণ ও বীর মুক্তিযোদ্ধাগন এসময় উপস্থিত ছিলেন ।
সভায় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পোষ্যদের আত্মকর্মসংস্থান কর্মসূচির আওতায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের বিভিন্ন কার্যক্রম ও বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বিশেষ বরাদ্ধ বন্টনের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম: শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব ও “আমার সিলেট” পরিবারের (amarsylhet24.com) সদস্য এবং এনিমেটরস বাংলা মিডিয়া গ্রুপের পরিচালক মোহাম্মদ ধন মিয়ার মাতা মোছাম্মদ ছখিনা বেগম (৬৫) বৃহস্পতিবার (২৮নভেম্বর ২০১৯) সন্ধ্যা পৌনে সাতটায় ইন্তেকাল করেছেন ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে মরহুমা এক ছেলেও সাত মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন রেখে গেছেন।

পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, আজ শুক্রবার জুম্মা নামাজের পর দু’ই ঘটিকায় মৌলভিবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার ৫ নং কালাপুর ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত মেরী গোল্ড ফিলিং স্টেশন পেট্রলপাম সংলগ্ন ঈদগাহ মাঠে মরহুমার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে এবং স্থানীয় কবরস্থানে দাফন কাজ সম্পন্ন হবে।

মরহুমার মৃত্যুতে শোক বার্তায়-শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি ও আমার সিলেট টোয়েন্টি ফোর ডটকম সম্পাদক মোহাম্মদ আনিসুল ইসলাম আশরাফী, সাধারণ সম্পাদক মনসুর আহমেদসহ অনলাইন প্রেস ক্লাবের সকল সদস্যবৃন্দ মরহুমার পরকালীন মুক্তি কামনা করে রেখে যাওয়া পরিবারের সকল সদস্যের প্রতি সমবেদনা ও ধৈর্যধারণ করে শোককে শক্তিতে রূপান্তর করার ক্ষমতা প্রদানে মহান আল্লাহর কাছে ক্ষমা ও কল্যাণ কামনা করা হয়। 

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc