Saturday 21st of September 2019 11:09:29 AM

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোতে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন গ্রহণ ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে। যা আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে ভর্তির আবেদন গ্রহণ চলবে।

প্রার্থীদের অনলাইন আবেদন ফরম আগামী ১৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা দিতে হবে। আর ১ অক্টোবর থেকে অনার্স ১ম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে। এছাড়া আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ভর্তির আবেদন গ্রহণ শুরু করবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

গত মাসের রোববার (২৮ জুলাই) সকালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সাধারণ সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র সংবাদ মাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সুত্র আরও জানায়. আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ১ম বর্ষ ভর্তির অনলাইন আবেদন গ্রহণ শুরু হবে।

আগামী ৯ অক্টোবর পর্যন্ত প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন প্রার্থীরা। এসব কোর্সে ভর্তির অনলাইন আবেদন ফরম ১০ অক্টোবরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা দিতে হবে। প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ১ম বর্ষের ক্লাস আগামী ২৪ অক্টোবর শুরু হবে বলেও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, কোন প্রার্থী স্লাতক (সম্মান), স্নাতক (সম্মান) প্রফেশনাল ও স্নাতক (পাস) কোর্সে দ্বৈত ভর্তি হলে তার উভয় ভর্তি বাতিল হবে। দৈনিক পত্রিকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.nu.ac.bd/admissions) ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে।

গত সভায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান, ট্রেজারার অধ্যাপক মো. নোমান উর রশীদ, স্কুল অব আন্ডার গ্রাজুয়েট স্টাডিজের ডিন অধ্যাপক ড. মো. নাসির উদ্দিন, ডিনরা, রেজ্রিস্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, পরিচালক আইসিটিসহ সকল বিভাগীয় প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাইয়ে সংরক্ষিত ইউপি সদস্য বিউটি বেগম ও তার সহযোগী নাজমা বেগমের বিরুদ্ধে বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, পঙ্গু ভাতা, স্বামী পরিত্যাক্তা ভাতা, মাতৃত্ব ভাতার কার্ড করে দেওয়ার নামে লোক ঠকিয়ে অর্থ আদায়সহ সুবিধা ভোগীদের নিকট হতে পথের মাঝে গতিরোধ করে শারীরিক নির্যাতন ও টাকা কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে । প্রতিকার চেয়ে ভুক্ত ভোগীরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) বরাবর আবেদন করেছেন।

জানাযায়, উপজেলার বিশা ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মোছা. বিউটি বেগম ও তার সহযোগী নাজমা বেগম সুপরিকল্পিতভাবে কৌশলে প্রায় শতাধিক পুরুষ ও মহিলাকে ঠকিয়ে অফিসের নাম ভাঙ্গিয়ে প্রশাসন ও সচেতন মহলের চোখেকে ফাঁকি দিয়ে বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, পঙ্গু ভাতা, স্বামী পরিত্যাক্তা ভাতা, মাতৃকালীন ভাতার কার্ড করে দেওয়ার নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়াগেছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানাযায়, সংরক্ষিত ইউপি সদস্য বিউটি বেগম ও তার সহযোগী নাজমা বেগম অত্যন্ত সু-কৌশলে গ্রামের সহজ সরল ও নিরিহ লোকদের অজ্ঞতা ও সরলতার সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন ভাতার কার্ড করে দিতে চেয়ে অফিস খরচ চাইলে ভুক্তভোগীরা কেহ এনজিও হতে লোন নিয়ে, কেহ গহনা বিক্রি করে, কেহ শেষ সম্বল বাড়ীর ভিটে বন্দক রেখে পাঁচ থেকে আট হাজার টাকা পর্যন্ত তাদের হাতে তুলে দেন দুই থেকে আরায় বছর আগে। ভাতার কার্ড কবে হবে জানতে চাইলে হবে বলে কাল ক্ষেপন করে আরো অর্থ দাবি করায় নিরুপায় হয়ে প্রতিকার চেয়ে ইউএনও বরাবর আবেদন করেন তারা। তাদের আবেদনের ব্যাপারে জানতে পেরে বিভিন্ন সময় নানান রকম ভয়ভিতি দেখানোসহ প্রাণনাসের হুমকি দিচ্ছে বলে জানান তারা।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী জোসনা বেগম জানান, বাড়ীরভিটা বন্দক রেখে কার্ড করে নেওয়ার জন্য সাড়েচার হাজার টাকা বিউটিকে দিয়েছি এবং আরো সাত হাজার টাকা পরে দিতে চেয়েছি। প্রায় আরাই বছর হয়ে গেলো এখনো কার্ড হয়নি। কবে হবে জানতে চাইলে বলে বাঁকী সাত হাজার টাকা দেওয়ার পর খোজ নিয়েন।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী চাম্পা জানান, কার্ড করে নেওয়ার জন্য আমার শেষ সম্বল বলতে সাহায্য করা টাকা দিয়ে দুইকানে দুল বানিয়েছিলাম সেটা বিক্রি করে পাঁচ হাজার আর জামাইয়ের কাছে থেকে তিন হাজার ধার নিয়ে মোট আট হাজার টাকা বিউটির হাতে তুলে দিই দুই বছর আগে। কবে কার্ড পাব জানতে চাইলে আমাকে শিখায়েদেয় টাকা আপনার গ্রামের মেম্বারেক দিয়েছেন এই কথাটি বলতে হবে। আমিতো টাকা আপনাকে দিয়েছি বললে তিনি বলেন যান আপনার কার্ড হবেনা।

এ বিষয়ে জানার জন্য বিউটি বেগম ও নাজমা বেগমের বাড়ীতেগেলে সাংবাদিকদের উপস্থিতি টেরপেয়ে বাড়ীতে তালা ঝুলিয়ে গাঢাকা দেয়। মোবাইলে যোগাযোগ করাহলে বিউটি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন তার বিরুদ্ধে সড়যন্ত্র করা হচ্ছে। নাজমার মোবাইল বন্ধ পাওয়ায় তার সাথে কথাবলা সম্ভব হয়নি।

এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার মো. মোয়াজ্জেম হোসেন ও সমাজসেবা অফিসার মো. আরিফ হোসেন জানাজ, কার্ড করতে কোন প্রকার খরচ লাগেনা। আমাদের নাম ভাঙ্গিয়ে কেহ যদি অর্থনৈতিক ফায়দালুটে তার দায় শুধু তাদের।

জানতে চাইলে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মোল্লা বলেন, বিষয়টি আমার জানানাই। কেহ আমার কাছে অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ছানাউল ইসলাম বলেন, বিউটির বিরুদ্ধে নানা ধরনের অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগগুলো একত্রিত করে সরকারী কর্মকর্তা দিয়ে তদন্ত করে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

লিমন ইসলাম: বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও আনন্দঘন পরিবেশে বৃটেনের ওয়েলসের রাজধানী কার্ডিফ শহরে প্রথমবারের মত আয়োজিত বিগ হালাল ফুড ফেস্টিভ্যাল ২০১৯ সফল ভাবে সম্পন্ন হয়েছে।
গত শনি ও রবিবার দু’দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত এই ফেস্টিভ্যালে ওয়েলসের কাডিফ ছাড়াও বৃটেনের বিভিন্ন শহর থেকে ও প্রচুর লোকের সমাঘম ঘটেছে । রকমারি খাবারের স্টলের পাশাপাশি বাচ্ছাদের খেলাধুলার বিনোদন ও শাড়ী গয়নার দোকান সহ ছিলো নানা আয়োজন।
ওয়েলস বাংলাদেশ ইয়ুথ সোসাইটির অন্যতম কোডিনেটর ও ফেস্টিভ্যালের আয়োজক সাজ হারিছ এর পরিচালনায় দু’দিন ব্যাপী আয়োজিত বিগ হালাল ফুড ফেস্টিভ্যালের সমাপনী অনুষ্ঠানে মুসলিম কমিউনিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সাথে লন্ডন থেকে আগত কমিউনিটি লিডার শেখ মোহাম্মদ ইয়াওর. ওয়েলসের প্রথম বাঙালী সাংবাদিক ও কমিউনিটি সংগঠক মোহাম্মদ মকিস মনসুর. বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী শরিফুল ইসলাম. বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী নজরুল ইসলাম নাজ. বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী আলহাজ্ব সুহেল আহমদ রাজা. সৈয়দ জুয়েল রহমান.বদর উদ্দিন চৌধুরী বাবর. আব্দুল মোত্তালিব. মহিলা নেত্রী শামসুন্নেহার আলী ও বদরুল মনসুর সহ বাংলাদেশ কমিউনিটির অন্যান্য বিশিষ্ট জনেরা উপস্থিত ছিলেন।
ওয়েলস বাংলাদেশ কমিউনিটি লিডার মোহাম্মদ মকিস মনসুর সমাপনী দিনে তার প্রতিক্রিয়া বলেন ফেস্টিভ্যালের মূল আয়োজক সাজ হারিছ এর অক্লান্ত পরিস্রমের কারনে ওয়েলসের মাটিতে এই প্রথমবারের মত আয়োজিত এই ফেস্টিভ্যালে অংশগ্রহণকারী সবাই খউব ইনজয় করেছেন বলে উল্লেখ করে এই সুন্দর আয়োজনের জন্য উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জানানো সহ আগামী বছর এই আয়োজন আরও বৃহত্তর পরিসরে হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেছেন।
ফেস্টিভ্যালের মূল আয়োজক যুব সংগঠক সাজ হারিছ ফেস্টিভ্যাল সফল করতে স্পোনসার প্রদান করা সহ নানাভাবে যারা সহযোগিতা করেছেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে প্রতিবছর এই আয়োজন অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

বদরুল মনসুর: সবুজে ঘেরা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর বৃটেনের ওয়েোলসের রাজধানী কার্ডিফ শহরের নব নব-নির্মিত ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংগুয়েজ মনুমেন্ট তথা শহীদ মিনার পরিদর্শন করেছেন যুক্তরাজ্য ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের নেতৃবৃন্দ।
যুক্তরাজ্য ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরামের আহব্বায়ক ও চ্যানেল এস এর প্রতিনিধি বিশিষ্ট সাংবাদিক সৈয়দ ছাদেক আহমেদ এর নেতৃত্বে আগত প্রতিনিধি দলকে সাগত জানান কার্ডিফ ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংগুয়েজ মনুমেন্ট তথা শহীদ মিনার ফাউন্ডার ট্রাষ্ট কমিটির জেনারেল সেক্রেটারী ও ওয়েলস বাংলা নিউজের এডিটর মোহাম্মদ মকিস মনসুর. শহীদ মিনার ফাউন্ডার ট্রাষ্টি কমিউনিটি লিডার শেখ মোহাম্মদ তাহির উল্লাহ. শহীদ মিনার এর লাইফ মেম্বার যুবনেতা শাহ শাফি কাদির ও শহীদ মিনার এর লাইফ মেম্বার বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী মোহাম্মদ শাহজাহান। প্রতিনিধিদলের মধ্যে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম এর যুগ্ম আহব্বায়ক দুলাল মিয়া. ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম এর উপদেষ্টা শাহ্জানুর রাজা ও যুক্তরাজ্য ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম এর নর্থ ওয়েলসের আহব্বায়ক রোকসানা রাজা।
যুক্তরাজ্য ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম এর নেতৃবৃন্দ ওয়েলস তথা কার্ডিফবাসীকে এত সুন্দর শহীদ মিনার প্রতিষ্টা করায় ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংগুয়েজ মনুমেন্ট তথা শহীদ মিনার ফাউন্ডার ট্রাষ্ট কমিটির নেতৃবৃন্দ সহ অনুদান প্রদানকারী সবাইকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

সুনামগঞ্জ  প্রতিনিধিঃ রোববার দুপুরে সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান ও সিলেট বিভাগের ডিআইজি মোঃ কামরুল আহসানের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত শেষে সোমবার অনির্দিষ্ট কালের পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত করেছে পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।
এর পূর্বে পাঁচ দফা দাবিতে সিলেট বিভাগের চার জেলা (সিলেট, সুনামগঞ্জ,হবিগঞ্জ,মৌলভীবাজার) এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সোমবার (২সেপ্টেম্বর)থেকে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট ঘোষনা দেয় পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।
এবিষয়ে সিলেট বিআরটিসি ডিপো ম্যানেজার মোঃ জুলফিকার বলেন,বিভাগীয় কমিশনার মহোদয়ের নির্দেশ অনুযায়ী সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে এখন থেকে ৪টি বাস চলাচল করবে। পরবর্তীতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সাথে বিষয়টি নিয়ে কথা বলব।

এদিকে পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের অনৈতিক ভাবে একের পর এক দাবি তুলে ৮টি বিআরটিসি বাসের পরিবর্তে এখন ৪টি বিআরটিসি সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে চলাচল করার সিদ্ধান্তে চরম ক্ষোব প্রকাশ করেছে জেলার সর্ব স্থরের জনসাধারন। কারন বিআরটিসি বাসের সেবার মান ভাল ছিল। এখন বাসের পরিমান কমিয়ে ফেলায় চলাচলে দূভোর্গ পোহাতে হবে সবাইকে। কারন সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে পরিবহন মালিক শ্রমিকগনের যে বাস গুলো চলে তা একবারের চলাচলের অযোগ্য। নেই ফিটনেস নেই সেবার মান। তারপরও প্রশাসন পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের দাবী মেনে নিল।

কিন্তু জনসাধারণের কথা একবারও ভাবনা।প্রশাসন নমনীয় না হয়ে কঠোর হলে এমনটা হত না।  প্রশাসন কি তাদের কাছে জিম্মি প্রশ্ন রয়েই গেল।

জানা যায়,সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে বিআরটিসি বাস চলাচলের সংখ্যা কমিয়ে ৪টি বাস চলাচলের অনুমতি দিয়েছেন পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। এতে করে সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে মোট ৪টি বিআরটিসি বাস চলাচল করবে। যার মধ্যে দুইটি এসি ও অন্য দুইটি নন এসি।

এব্যাপারে সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুকিত মুকুল জানান,বিভাগীয় কমিশনার ও ডিআইজি মহোদয়ের সাথে সাক্ষাতের মাধ্যমে আমরা আমাদের দাবি সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে ৪টি বিআরটিসি বাস চলাচল করবে তা তুলে ধরি। আমাদের এই দাবি মেনে নেওয়ায় আমরা ধর্মঘট
স্থগিত করেছি।

ইহুদিবাদি ইসরাইলের উত্তর সীমান্তের একটি সামরিক ঘাঁটিতে লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহ যে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে তাতে ইসরাইলের নর্দান ডিভিশনের কমান্ডার নিহত হয়েছেন। লেবাননের আল-মানার টেলিভিশন চ্যানেলের খবরে ইসরাইলের পক্ষ থেকে এমন ইঙ্গিত তুলে ধরা হয়েছে।

হতাহত সেনাদেরকে হেলিকপ্টারে করে জিফ হাসপাতালে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। সীমান্তের হাসপাতালগুলোতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ইরানের প্রেস টিভির খবরে বলা হয়েছে- হিজবুল্লাহর হামলায় ইসরাইলের একটি ট্যাংক ধ্বংস হয়েছে। এর আগে হিজবুল্লাহর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ইসরাইলের একটি সামরিক যান ধ্বংস এবং কয়েকজন ইহুদিবাদী সেনা হতাহত হয়। ইসরাইলি সেনা হতাহত হওয়ার ব্যাপারে খবর প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে তেল আবিব।

ইসরাইল এরইমধ্যে দক্ষিণ লেবাননের অভ্যন্তরে ৪০টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এছাড়া, ইসরাইলি সেনারা ফসফরাস বোমা ব্যবহার করছে। সীমান্তের চার কিলোমিটারের মধ্যকার ইহুদি বসতি স্থাপনকারীদেরকে ঘর-বাড়ি ও আশ্রয়কেন্দ্রে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেখানকার জনগণের মধ্যে ব্যাপক ভীতি ছড়িয়ে পড়েছে।

লেবানন সীমান্তে ইসরাইলের হামলা

লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং ফরাসি প্রেসিডেন্টের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক উপদেষ্টা ইমানুয়েল বনের সঙ্গে পরিস্থিতি নিয়ে টেলিফোনে কথা বলেছেন। টেলিফোন আলাপে সাদ হারিরি চলমান পরিস্থিতিতে হস্তক্ষেপ করার আহ্বান জানিয়েছেন। ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুও হস্তক্ষেপ করার জন্য আমেরিকা ও ফ্রান্সের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

গত সপ্তাহে ইসরাইলি ড্রোন হামলার পর হিজবুল্লাহ নেতা সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় প্রতিশোধমূলক হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছিলেন। এরপর লেবাননের শেবা কৃষি খামার সংলগ্ন সীমান্তে ইসরাইল সেনা সমাবেশ জোরদার করে।

শনিবার রাতে এক টেলিভিশন ভাষণে হিজবুল্লাহ মহাসচিব হাসান নাসরুল্লাহ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, রাজধানী বৈরুতে সাম্প্রতিক ইসরাইলি ড্রোন হামলার জবাব দেয়ার যে সিদ্ধান্ত তার সংগঠন নিয়েছে তার কোনে নড়চড় হবে না। তিনি বলেন, গত সপ্তাহের ড্রোন হামলার জন্য ইসরাইলকে ‘মূল্য পরিশোধ করতে হবে’।পার্সটুডে

গত ৩১ আগস্ট রোজ শনিবার বিকেল ৪ ঘটিকার সময় দারুল ফজল মার্কেট এর ৩য় তলায় চট্টগ্রাম মহানগর শ্রমিক লীগের সভাপতি জনাব বখতেয়ার উদ্দীন খাঁন এর সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মুক্ত গার্মেন্টস ফেডারেশনের সভাপতি চন্দন কুমার দে, ওয়াসা শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন এর সভাপতি এনায়েত উল্লাহ ও সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন, কোতোয়ালী থানা শ্রমিক লীগ এর সভাপতি প্রবীন কুমার ঘোষ ও সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন জিকো, চট্টগ্রাম দোকান কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও নগর শ্রমিক লীগ নেতা মো: জয়নাল আবেদীন, সভা পরিচালনা করেন বিপনী বিতান দোকান কর্মচারী ইউনিয়ন এর সাদারণ সম্পাদক ও কোতোয়ালী থানা শ্রমিক লীগ নেতা মো: জাহাঙ্গীর আলম।

এতে আরো বক্তব্য রাখেন ফুটপাত হকার সমিতির সভাপতি নুরুল আলম লেদু, তামাকুমন্ডি লেইন দোকান কর্মচারী সমিতির সভাপতি মো: বখতেয়ার, বাকলিয়া থানা শ্রমিকলীগ সভাপতি শহীদুল ইসলাম সুমন, ডবল মুরিং থানা শ্রমিক লীগ সাধারণ সম্পাদক মো: ফাতাউর রহমান, বন্দর থানা শ্রমিক লীগ এর সভাতি মো: হারুন, খুলশী থানা শ্রমিক লীগ নেতা মামুনুর রশিদ সানি, আকবর শাহ থানা শ্রমিক লীগ সাধারণ সম্পাদক রবিউর হোসেন জাহাঙ্গীর, ১৭নং পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজান চৌধুরী, বস্তহারা বহুমুখী সমববায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, নগর শ্রমিক লীগ নেতা ফখরুল আলম, চকবাজার থানা শ্রমিক লীগ সভাপতি দেবাশীষ দেবু, মেট্রোপলিটন হকার্স সমিতির সহ সবাপতি শাহ আলম ভুইয়া। উপস্থিত ছিলেন মিমি সুপার মার্কেট দোকান কর্মচারী সমিতির সভাপতি ইয়াছিন চৌধুরী, সিরাজুল ইসলাম, মো: ছৈয়দ, শাহেদুল ইসলাম নাওশেদ, মো: শফি, মো: জামাল, মো: জসিম, আহম্মদ ফিরোজ, মো: ফখরুল, মো: আবু মুসা, মহিলা শ্রমিক লীগ নেত্রী রিনা বেগম সহ প্রমুখ।

সভাপতি বলেন যতদিন থাকবে বাংলাদেশ ততদিন থাকবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বাংলার জনগণের শ্রদ্ধা ও ভালবাসা। তিনি শ্রমিক সমাজ ঐক্যবদ্ধ হয়ে শ্রমিকদের অধিকার বাস্তবায়নে এগিয়ে যেতে হবে। প্রেস বার্তা

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ  যশোরের শার্শা উপজেলা বিএনপির আয়োজনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠা বাষির্কী উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । সকাল োসাড়ে ১০টার সময় শার্শা কামারবাড়ী মোড়স্থ অস্থায়ী কার্যালেয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হয়।
অনুষ্ঠানে উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব খায়রুজ্জামান মধু আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। এসময় বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান জহির, বেনাপোল পৌর বিএনপির সভাপতি নাজিম উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন, উপজেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক রবিউল ইসলাম, যুব বিষয়ক সম্পাদক মতিয়ার রহমান, বিএনপি নেতা খলিলুর রহমান, আব্দুল হামিদ, সাহেব আলী বিশ্বাস, আসাদুজ্জামান সাগর, আব্দুল মাজেদ, জাহাঙ্গীর হোসেন, আব্দুল কাদের, শাহরিয়া ইসলাম মুকুল, ইসমাইল হোসেন শান্তি, বখতিয়ার রহমান, ওয়াহেদ আলী, যুবদল নেতা সেলিম শাহি, জামাল উদ্দিন, আতিকুর রহমান, কৃষক দল নেতা শাখাওয়াত হোসেন, সাবেক ছাত্রদল নেতা মনিরুল ইসলাম ও শহিদুল ইসলাম, ছাত্রদল নেতা সালাহ উদ্দিন আহম্মেদ ও আবু জুবায়ের শাওন প্রমূখ।
আলোচনা সভা শেষে সাবেক প্রধান মন্ত্রী দেশনেত্রী খালেদা জিয়ারসহ সকল নেতা কর্মীর মুক্তির দাবী ও শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এবং সাবেক মন্ত্রী মরহুম তরিকুল ইসলামসহ নিহত সকল নেতা কর্মীর রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠান শেষে কেক কাটা হয়।

জুমান হোসেনঃ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে দলের ৪১ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভা গত ১লা সেপ্টেম্বর ২০১৯ রবিবার সিডনির রকডেলের নিউ ষ্টার কাবাবে  অনুষ্ঠিত হয়।

মোঃ মোসলেহ উদ্দিন হাওলাদার আরিফের সভাপতিত্বে এবং  হাবিব রহমান ও এএনএম মাসুম পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জনাব মনিরুল হক জজ,প্রধান বক্তা জনাব দেলোয়ার হোসেন, বিশেষ অতিথী জনাব এনামুল হক ভুইয়া,লিয়াকত আলী সপন,লুৎফুর কবির,ডাঃ আব্দুল ওয়াহব আরো বক্তব্য রাখেন ফজলুল হক শফিক ,নাইম উদ্দিন আহমদ, আবুল হাছান,ইয়াসির আরাফাত সবুজ,মুয়াইমিন খান মিশু,আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ।

বক্তব্যে তারা বলেন, চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্রতিটি দীর্ঘশ্বাসের হিসাব নেয়া হবে। শুধুমাত্র  রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারনে মিথ্যা মামলা দিয়ে অবৈধভাবে ক্ষমতা কুক্ষিত করার জন্য দেশমাতাকে জেল আটকিয়ে রাখা হয়েছে । তারা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদেরও সাবধান হয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।তারা বলেন আমরা  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছি  অথচ আমাদের চেয়ারপারসন আমাদের মাঝে উপস্থিত নেই, উনি জেলখানায়। বিষয়টি আমাদের জন্য একইসঙ্গে যন্ত্রণার, দুঃখ ও লজ্জার। ঐক্যবদ্ধ বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবী জানান।

অনুষ্ঠানে শুরুতে কোরআন তেলোয়াত করেন আবু সাঈদ খুদরী।

আথিতিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কুদরত উল্যাহ লিটন নাসিম উদ্দিন আহম্মেদ,অ্যাডভোকেট মোবারক হোসেন, আব্দুল মতিন উজ্জাল, সেলিম লিয়াকত, কামরুল ইসলাম, জাসিম, মামুন বেলা,ইন্জিনিয়ার  মোঃকামরুল ইসলাম শামীম,মোঃখাইরুল কবির পিন্টু,জাকির হুসেন রাজু,জেবল হক জাবেদ,মোহাম্মদ জুমান হোসেন প্রমুখ।

মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ডিনারের আয়োজনে শেষ হয় এই অনুষ্ঠান।অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন রাহাত সান্তনু এবং স্বপ্ন বেন্ডের মিঠু।

হাবিবুর রহমানন খান,জুড়ী প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীতে “উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র” নির্মাণের লক্ষ্যে প্রস্তাবিত ২ টি জায়গা আজ রবিবার দুপুরে পরিদর্শনে আসেন মৌলভীবাজার জেলার প্রথম নারী জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন।
এসময় জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বনিক, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক বদরুল হোসেন, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার, জুড়ী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাশ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রঞ্জিতা শর্মা সহ স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র” নির্মাণের লক্ষ্যে প্রস্তাবিত ২ টি জায়গা হলো উপজেলা পরির্ষদের বিতরে ও উপজেলা দিন  তৈমুছ আলী সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের নিকট ।

এস এম সুলতান খান চুনারুঘাট থেকেঃ চুনারুঘাট লস্করপুর চা-বাগানের ছাত্র যুবক ও বাগানের শ্রমিকরা মদ গাঁজার আস্তানা, জ্বালিয়ে দাও পুড়িয়ে দাও এই শ্লোগানকে সামনে রেখে মাদক বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। (১সেপ্টেম্বর (রবিবার) দপুর ১১টায় লস্করপুর চা বাগানে মিছিল বের হয়ে চা বাগানের বিভিন্ন সড়ক ও বাজার প্রদক্ষিণ করে মন্দির প্রাঙ্গণে মাদক নির্মূলের লক্ষ্যে দেশব্যাপী পরিচালিত প্রধানমন্ত্রীর মাদক বিরোধী অভিযানকে স্বাগত জানিয়ে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
লস্করপুর চা বাগানের ছাত্র ও যুব সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত সমাবেশে ছাত্র ও যুব সংগঠনের বিশাল নায়েকের পরিচালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন বিশাল কর্মকার, ছাত্র ও যুব সংগঠনের সভাপতি ভোজন ভৌমিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ৪ নং পাইকপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শামসুজ্জামান শামীম,
বিশেষ উপস্থিত ছিলেন আদিবাসী সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সেক্রেটারি স্বপন সাঁওতাল, ,চেতনা ছাত্র সংগঠনের সভাপতি অনুজ কালিন্দী. ছাত্র ও যুব সংগঠনের যুগ্ম সাধারন সসম্পাদক শ্রী প্রসাদ চৌহান। বাগানের পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি রজনীকান্ত কালিন্দী, বাসদ মার্কসবাদী হবিগঞ্জ জেলার সংগঠক সফিকুল ইসলাম সফিক।
মহিলা মেম্বার উজ্জলা পাইনকা, বিশ্বনাথ কালিন্দী, ছাত্র ও যুব সংগঠনের সাধারন সম্পাদক শ্রীপ্রসাদ চৌহান, সুমন পাইনকা, সমীর পাইনকা, সাংবাদিক নয়ন দেবনাথ ,বিশ্বনাথ কালিন্দী, শফিকুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় শ্রমিকরা পুরো বাগনের মদ গাজার আস্তানা বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল করে।
বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অংশ গ্রহন করে লস্করপুর চা বাগানের ছাত্র, যুবক শ্রমিকসহ বাগনের পঞ্চায়েত কমিটির সকল সদস্যসহ লোকজন। শ্রমিকরা আল্টিমেটাম দেয় দিয়ে বলে ১ মাসের মধ্যে যদি লস্করপুর চা বাগান থেকে মাদক ব্যবসা বন্ধ না হয় তাহলে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: “সুস্থ দেহ সুস্থ মন” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বাজারের চাতলাপুর সড়কে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও এলাকাবাসীর উপস্থিতিতে রোববার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে সকালে লাইফ কেয়ার ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারের শুভ উদ্বোধন করেন সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন কমলগঞ্জ উপজেলা কমিটির সভাপতি প্রবীন শিক্ষাবিদ নিহারেন্দু ভট্টাচার্য্য ও মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ সদস্য অধ্যক্ষ মো. হেলাল উদ্দিন।

এর আগে রোববার সকালে মিলাদ ও দোয়া আয়োজনের মাধ্যমে লাইফ কেয়ার ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারের যাত্রা শুরু হয়।

সুন্দর একটি মনোরম পরিবেশে, কম্পিউটারাইজড পদ্ধতিতে সকল চিকিৎসা ব্যবস্থা ও পরীক্ষা নিরীক্ষা করে রোগীদের উন্নত সেবা প্রদান করার অঙ্গিকার নিয়ে এ প্রতিষ্ঠানের পথচলা শুরু হবে বলে আশা করছেন এর সাথে সম্পৃক্ত সকলে। প্রতিষ্ঠানে পরিচালকরা জানান, শমশেরনগরে এই প্রথম আধুনিক ও উন্নত প্রযুক্তির মেডিক্যাল স্বাস্থ্যসেবা দিবে লাইফ কেয়ার ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টার।

নাজমুল হক নাহিদ,আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাই উপজেলার জনদূর্ভোগের অপর আরেক নাম আত্রাই-কালিগঞ্জ সড়ক। উপজেলার আহসানগঞ্জ রেলস্টেশন হতে সিংড়া উপজেলার কালিগঞ্জ বাজার পর্যন্ত প্রায় ২০ কিমি সড়কে বর্তমানে খানা-খন্দে পরিণত হওয়ায় জনদূর্ভোগ চরম মাত্রায় পৌঁছে গেছে।
সূত্রে জানা গেছে, সড়কটির উন্নয়ন তথা সংষ্কার, প্রশস্তকরনের লক্ষে নওগাঁ-৬ আসনের সংসদ সদস্য মো. ইরাফিল আলম এক প্রতিক্রিয়ায় আত্রাই-কালিগঞ্জ সড়কের জনদূর্ভোগ চরম মাত্রায় রূপ নিয়েছে। অনতিবিলম্বে সড়কের সমস্যা দূর করার জন্য তিনিও আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে জানান তিনি।
প্রায় ২০কিমি রাস্তাটির পার্শ্বে কাশিয়াবাড়ী প্রাথমিক ও মাধ্যমিক, বাঁকা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক, নৈদীঘি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক, পতিসর প্রাথমিক ও মাধ্যমিক, নওদুলী প্রাথমিক, মসকিপুর মাদ্রাসার ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষকসহ সর্বসাধারণের যাতায়াত করতে হয়। এছাড়া প্রান্তিক কৃষকের দুর্ভোগ লাঘবের লক্ষে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর প্রতিষ্ঠিত কৃষি ব্যাংকে যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা এটিই।
জানা গেছে, আস্তে আস্তে চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে এই সড়কটি। উপজেলার পূর্ব-উত্তরা ল ও পূর্ব-দক্ষিণা লের গ্রামের হাজার হাজার সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। এই প্রধান সড়কের বেহাল দশার কারণে প্রতিনিয়ত ছোট-বড় দুর্ঘটনা ঘটছে। দীর্ঘদিন কোন সংস্কার না করায় সড়কের অধিকাংশ স্থানে পাকা উঠে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় খানা-খন্দে যা দেখে মনে হবে মাছ চাষের জন্য ছোট ছোট পুকুর।
পালশা গ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো: স¤্রাট হোসেন বলেন, কৃষিপণ্যসহ অন্যান্য মালামাল পরিবহন করার ক্ষেত্রে যানবাহন চলাচলে সমস্যার শেষ নেই। এই প্রধান সড়কটি ব্যবহার করেই নানা প্রয়োজনে উপজেলার সমগ্র পূর্বা লের মানুষদের প্রতিনিয়তই উপজেলা সদরে আসতে হয় এবং উপজেলার উপর দিয়ে রাজশাহী ও নওগাঁয় প্রবেশ করতে হয়। অথচ রাস্তাটি দীর্ঘদিন কোন প্রকার সংস্কার হয়না।
তিনি আরো বলেন এই বর্ষাকালে পুরো কাদাপানিতে একাকার হয়ে সড়কটি যেন ধান চাষের উপযুক্ত জমিতে পরিনত হয়েছে এবং একটু অসাবধান হলেই দুর্ঘটনার কবলে পড়তে হচ্ছে অনেককেই। শুষ্ক মৌসুমে চলাচল করতে পারলেও বর্ষা মৌসুমে সড়কটি মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে বলে পথচারীদের অভিযোগ। দ্রুতগতিতে সড়কের সংস্কার করা না হলে এই অ লের অর্থনৈতিক চাকা থেমে যাবে বলে আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।
উপজেলার বাঁকাগ্রামের আকবর হোসেন, মারিয়া গ্রামের জাহাঙ্গির আলমসহ অনেকেই অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন পরিবহন চালকরা যানবাহনের ভাড়া ইতিমধ্যে বেড়ে দিয়েছে। সড়কের যে বেহাল দশা এই অবস্থায় তাদের গাড়ীর যন্ত্রাংশ টিকছে না। টায়ার-টিউব ঘনঘন ফুটো হয়ে যাচ্ছে। একটুতেই গাড়ীর যন্ত্রাংশ ভেঙ্গে যাচ্ছে এবং প্রায় দ্বিগুন সময় লাগায় আগের মতো অতিরিক্ত ভাড়া ধরা যায় না। বর্ষাকালে তো এই দুর্ভোগ আরো চরমে উঠে যায়। যে সড়ক দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার পথচারী ও ছোট-বড় যানবাহন চলাচল করে সে সড়কটি নিয়ে কাহারো কোন মাথাব্যাথা দেখছি না। তাহলে আমরা কোন দেশে বসবাস করছি।
সিএনজি চালক মোবারক হোসেন, ইজিবাইক চালক খোরশেদ আলম, ভ্যানচালক আব্দুল লতিফসহ অনেকেই বলেন, সড়কের বেহাল দশায় যাত্রীরা এখন আর সব ধরণের গাড়িতে উঠতে চায় না। প্রতিদিনের আয় ক্রমেই কমে যাচ্ছে। রাস্তা ভালো থাকতে আগে যেখানে প্রতিদিন ১হাজার থেকে ১৫শ টাকা আয় হতো এখন সেখানে অর্ধেক করাই অনেক কষ্টকর হয়ে গেছে। আমরা আর পারছি না। যারা এই সড়কের উপর নির্ভর করে জীবিকা নির্বাহ করে তাদের পরিবারেও অশান্তি দেখা দিয়েছে।
আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: ছানাউল ইসলাম বলেন, আমার জানামতে রাস্তাটি প্রথমে এলজিইডির আওতায় ছিলো। পরে সেটি জাইকার আওতাভুক্ত হওয়ায় জাইকার দেওয়া ক্রাইটেরিয়া পুরন না হওয়ায় সংস্কার কাজ হতে বিলম্ব হচ্ছে।
এই বিষয়ে অফিসে গিয়ে এবং একাধিকবার মুঠোফোনে নওগাঁ এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী নাঈম হোসেন মিঞার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি মুঠোফোন রিসিভ না কারায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc