Monday 9th of December 2019 01:08:23 AM

র‍্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেছেন সারা দেশের দুর্ঘটনাপ্রবণ স্থানে নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।তিনি আরও উল্লেখ করেন,এবার ঈদযাত্রার ব্যবস্থা আগের চেয়ে অনেক উন্নত হয়েছে। শুক্রবার সকালে রাজধানীর কাওরান বাজারে র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

বেনজীর আহমেদ বলেন, সড়কপথে এবার ধীরগতি রয়েছে। ধীরগতি হলে দুর্ঘটনা কমে যায়। কিন্তু আমরা দেখি ঈদ-পরবর্তী দিনে দুর্ঘটনা বেড়ে যায়। এতে চালকদের তো বড় ভূমিকা আছেই, যাত্রীদেরও রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, অনলাইনে কোরবানির পশু কেনার প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। এগুলোকে নিয়মের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। এছাড়া নির্ধারণ দামে চামড়া ব্যবসায়ীদের চামড়া কেনার অনুরোধ জানান বেনজীর আহমেদ।

র‍্যাবের মহাপরিচালক বলেন, আমরা জানি যে, ইকোনমিক বুমের কারণে প্রচুর ডেভেলপমেন্ট কাজ হচ্ছে। রাস্তা হচ্ছে, ব্রিজ হচ্ছে, বিল্ডিং হচ্ছে। এসব নির্মাণাধীন জায়গায় যাতে পানি জমে না থাকে সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

কাশ্মীর উপত্যকায় শান্তি বিনষ্ট করার জন্য ভারতের পক্ষ থেকে পাকিস্তানকে দায়ী করে যে বক্তব্য দেওয়া হয়েছে তা অসত্য বলে দাবি করেছে পাকিস্তান।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক শীর্ষ কর্মকর্তার ওই বক্তব্যকে শুক্রবার পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মিডিয়া উইং ‘স্বাভাবিক ভয়ঙ্কর মিথ্যা’ বলে অভিহিত করে।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর শীর্ষ কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ক্যানওয়াল জিত সিং ধিলন বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেন, পাকিস্তান সেনাবাহিনী এবং পাকিস্তান সবসময়ই কাশ্মীর উপত্যকার শান্তি বিনষ্ট করছে।

ডন বলছে, শুক্রবার পাকিস্তান আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আসিফ গফুর এক টুইট বার্তায় ধিলনের ওই বক্তব্যের প্রতিবাদ জানান।

আসিফ গফুর বলেন, ভারতীয় সেনাবাহিনীর ওই বক্তব্য স্বাভাবিক ভয়ঙ্কর মিথ্যা। তারা কোনও ঝামেলা বাধানোর চেষ্টা করলে তা প্রতিহত করা হবে। সেটা অবশ্যই ২৭ ফেব্রুয়ারির চেয়ে কঠোরভাবে। ওইদিন পাকিস্তান বাহিনী গুলি করে ভারতীয় বিমান বিধ্বস্ত করে পাইলটকে আটক করেছিল।

ভারতের রাজ্যসভায় সোমবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের ঘোষণা দেন। এর মধ্য দিয়ে ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের ৭০ বছরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে নরেন্দ্র মোদির সরকার। সংবিধানের এই ৩৭০ ধারা বাতিলের মাধ্যমে জম্মু-কাশ্মীরকে ভেঙে দুই ভাগ করা হয়।

৩৭০ ধারার ফলে অনেক ক্ষেত্রেই স্বায়ত্তশাসিত ছিল জম্মু-কাশ্মীর। নিজস্ব সংবিধান, আলাদা পতাকা ও স্বতন্ত্র আইন বানানোর অধিকার ছিল ওই অঞ্চলের বাসিন্দাদের। তবে ৩৭০ ধারা বাতিলের ফলে এখন থেকে জম্মু-কাশ্মীরের পরিচিতি হবে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে।

ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তের কঠোর সমালোচনা করেছেন ইমরান খান। পার্লামেন্টে তিনি বলেন, জম্মু-কাশ্মীরে এখন জাতিগত নিধন চালানো হবে।

৩৭০ ধারা বাতিল করায় জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখে এক নতুন যুগের সূচনা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে তীব্র উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে কূটনৈতিক ও বাণিজ্য সম্পর্ক ছিন্ন করার পর এবার নিজেদের আকাশপথ আংশিক বন্ধ করে দিয়েছে পাকিস্তান। আকাশপথে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যকার ১১টি রুটের মধ্যে তিনটি বন্ধ করে দিয়েছে ইসলামাবাদ। এই রুটগুলি দিয়েই এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান ইউরোপ, আমেরিকা এবং মধ্যপ্রাচ্যসহ বেশ কিছু দেশে যাতায়াত করে থাকে।

এদিকে, আজ (বৃহস্পতিবার) থেকে দু’দেশের মধ্যে চলাচলকারী সমঝোতা এক্সপ্রেসের সব শিডিউল বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের রেলমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমাদ। তিনি জানান, তিনি যতদিন পদে বহাল থাকবেন, ততদিন এই রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে। এক্সপ্রেস ট্রেনটি সপ্তাহে দু’বার দু’দেশের মধ্যে যাতায়াত করত।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, পাকিস্তানের লাহোর থেকে আসার সময় সমঝোতা এক্সপ্রেসের যাত্রীরা দুপুর ১টা থেকে ওয়াঘা সীমান্তে আটকা পড়েন, কারণ ওই ট্রেনের কর্মীরা ভারতীয় সীমান্ত পর্যন্ত সেটিকে নিয়ে যেতে অস্বীকার করে। এসময় সমঝোতা এক্সপ্রেসের ভারতীয় কর্মীরা বলেন, ট্রেনটিকে সীমান্ত পর্যন্ত নিয়ে এলে তাঁরাই ভারতীয় ভূখণ্ডে ট্রেনটিকে চালিয়ে নিয়ে যাবেন। এ প্রস্তাবে পাকিস্তানের রেল কর্তৃপক্ষ রাজি হলে প্রায় তিন ঘণ্টা পরে, ট্রেনটি আটারির উদ্দেশ্যে চালিয়ে নিয়ে আসেন ভারতের রেল কর্মীরা।

সমঝোতা এক্সপ্রেস ট্রেনে

পাকিস্তানে ভারতীয় সিনেমার প্রদর্শন নিষিদ্ধ

ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করার পর এবার পাকিস্তানে ভারতীয় সিনেমার প্রদর্শন নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। বৃহস্পতিবার দেশটির প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও সম্প্রচার বিষয়ক বিশেষ দূত ফিরদৌস আশিক আওয়ান এই তথ্য জানিয়েছেন বলে পাকিস্তানের গণমাধ্যম জিও নিউজের খবরে বলা হয়েছে।

ফিরদৌস আশিক আওয়ান বলেন, “ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের সাংস্কৃতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার অংশ হিসেবে ভারতীয় সিনেমা প্রদর্শন নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কেবল সিনেমা নয়, সব ধরনের ভারতীয় সাংস্কৃতিক কনটেন্ট পাকিস্তানে নিষিদ্ধ করার জন্য একটি নীতি প্রণয়ন করা হয়েছে।”

তিনি বলেন, “সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মাধ্যমে ভারত যা করেছে, তার জবাবে কাশ্মীরকে সমর্থন দিতে পাকিস্তান সম্ভাব্য সব ধরনের মাধ্যম ব্যবহার করবে।”

নয়াদিল্লির পক্ষ থেকে কূটনৈতিকস্তরের সমস্ত বিষয় যাতে আগের মতোই থাকে সেজন্য পাকিস্তানকে সিদ্ধান্ত পর্যালোচনা এবং পুনর্বিবেচনার আবেদন জানানোর কিছুক্ষণের মধ্যেই পাক সরকারের পক্ষ থেকে ওই পদক্ষেপ নেয়া  হয়।

জম্মু-কাশ্মির থেকে সেরাজ্যের বিশেষ মর্যাদা সম্বলিত ৩৭০ ধারা বাতিলের পরে, পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করায় ভারত আজ ওই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার আবেদন জানায়।

এর আগে ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করে পাকিস্তান। এরপর ভারতের সঙ্গে সব ধরনের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যও বন্ধ করার ঘোষণা দেয় দেশটির সরকার। এছাড়াও দিল্লির সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক কমিয়ে আনার কথা জানায় পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ।

সিলেট প্রতিনিধিঃ আবারো  সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের নির্বাচন দুই মা‌সের জন্য স্থগিত করেছেন উচ্চ আদালত।

কামিল আহমদ নামে চেম্বারের এক সদস্যের রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপ‌তি মোহাম্মদ আলীর সমন্ব‌য়ে গ‌ঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

মঙ্গলবার প্রদত্ত হাই‌কো‌র্টের আদেশের ক‌পি বৃহস্প‌তিবার রা‌তে সি‌লেট চেম্বা‌রে পৌ‌ঁছে। আগামী সে‌প্টেম্বর মাসের ২২ তারিখে নির্বাচ‌নের ল‌ক্ষ্যে সংবাদ স‌ম্মেল‌ন ক‌রে সি‌লেট চেম্বা‌রের ভোটার তা‌লিকা প্রকাশ করা হয়।

এ‌ই আদেশে সিলেট চেম্বারে প্রশাসক নিয়োগ কেন অবৈধ নয় এ ব্যাপারেও কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। উচ্চ আদালতের আদেশের ফলে নির্বাচন আয়োজন আর সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

সিলেট চেম্বার প্রশাসক আসাদ উদ্দিন আহমদ সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “বৃহস্পতিবার  রাতে স্থগিতাদেশ সম্পর্কিত একটি চিঠি চেম্বার কার্যালয়ে এসেছে ব‌লে শু‌নে‌ছি। ত‌বে তার আগেই অফিস থেকে চলে আসায় এটি এখনও দেখতে পারিনি। ঈদের পরে এ ব্যাপারে চেম্বারের পক্ষ থেকে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে ব‌লে জানান তি‌নি।”

গত ৭ জুলাই সিলেট চেম্বারের নির্বাচন আয়োজন করা হয়েছিলো। তখন একজন চেম্বার সদস্যের রিটের প্রেক্ষিতে চেম্বারের পরিচালনা পর্ষদের সকল কার্যক্রমে স্থগিতাদেশ দেন আদালত।

সৃষ্ট প‌রি‌স্থি‌তি‌তে ৩০ জুন প‌রিচালনা ক‌মি‌টির মেয়াদ শেষ হ‌লে বা‌ণিজ্য মন্ত্রণালয় সি‌লেট মহানগর আ’লী‌গের সাধারন সম্পাদক আসাদ উ‌দ্দিন আহম‌দ‌কে প্রশাসক নি‌য়োগ দেয়।

 সিলেট চেম্বারের সংবাদ সম্মেলনে উপ‌স্থিত ছি‌লেন প্রশাসক আসাদ উদ্দিন আহমদ, নির্বাচন পরিচালনা বোর্ডের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন খান এবং আপীল বোর্ডের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শমিউল আলম।

সিলেট চেম্বারের নির্বাচিত পরিচালনা ক‌মি‌টি ভূয়া ভোটার তালিকার কারণে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সর্ব‌শেষ চেম্বারের নির্বাচন স্থগিত করে।

কাশ্মির নিয়ে ভারতের বিতর্কিত সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর পাকিস্তান সরকার সেদেশ থেকে ভারতের হাইকমিশনারকে বহিষ্কার এবং নয়াদিল্লীর সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক স্থগিত করাসহ বেশি পদক্ষেপ নেয়ায় উত্তেজনা তীব্রতর হয়ে উঠেছে। এ অবস্থায় কাশ্মির সীমান্তে ভারত ও পাকিস্তান সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে।

সংবাদ সূত্রে জানা গেছে সীমান্তে খুব ভারি গোলাগুলি হয়েছে। কাশ্মির সীমান্তে নতুন করে উত্তেজনা এবং দক্ষিণ এশিয়ায় পরমাণু শক্তিধর এ দুই দেশের মুখোমুখি অবস্থান থেকে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের অভ্যন্তরীণ অবস্থার চিত্র ফুটে ওঠে। ভারতের সরকার ও পার্লামেন্ট সম্প্রতি অপ্রত্যাশিতভাবে কাশ্মিরি জনগণের বিরুদ্ধে এমন কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে যা সাম্প্রতিক দশকগুলোতে নজিরবিহীন ঘটনা। সংবিধান সংশোধন করে জম্মু কাশ্মিরের জন্য বরাদ্দকৃত বিশেষ সুবিধা বাতিল করে দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে ওই এলাকায় হিন্দুদের জমি কেনার সুযোগ ও আবাসনের সুযোগ করে দেয়া হয়েছে যার উদ্দেশ্য হচ্ছে স্থানীয় কাশ্মিরি জনগণকে পুরোপুরি কোণঠাসা করে রাখা এবং তাদের সমস্ত অধিকার কেড়ে নেয়া।

বিশেষ করে, বিজেপি সরকার সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করার একই সঙ্গে কাশ্মীরে হাজার হাজার অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করেছে, সেখানকার ইন্টারনেট ও টেলিফোন যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে এবং গত কয়েক দিনে বিভিন্ন দলের বহু নেতাকে গ্রেফতার করেছে। প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস কাশ্মিরিদের বিরুদ্ধে সরকারের এ পদক্ষেপকে অত্যন্ত বিপর্যয়কর ও বিপজ্জনক অভিহিত করে এর কঠিন পরিণতির ব্যাপারে হুঁশিয়ার করে দিয়েছে।

বর্তমানে কাশ্মীরে উত্তপ্ত অবস্থা বিরাজ করছে এবং উত্তেজনার পারদ সীমান্ত এলাকায়ও ছড়িয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় পাকিস্তানও ভারতের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়া শুরু করেছে।

পরিস্থিতি যা তাতে অনেকের মতে উত্তেজনা কেবল দু’দেশের সীমান্ত এলাকার মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে না। ইন্টারনেট ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ডেইলি বেস্টে ম্যাথিও ক্লেফাইল্ড তার এক নিবন্ধে লিখেছেন, “ভারত সরকারের এ সিদ্ধান্তে গোটা ওই অঞ্চল আবারো অস্থিতিশীল হয়ে উঠতে পারে। ভারত বাড়তি সেনা মোতায়েন করা ছাড়াও কাশ্মিরি নেতাদের গ্রেফতার করায়, ইন্টারনেট ও টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ করে দেয়ায় সেখানকার জনগণ কার্যত বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। অধিকাংশ মানুষ এখনো জানে না তাদের ব্যাপারে ভারত সরকার কি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ অবস্থায় ভারত কাশ্মির নিয়ে যে দীর্ঘমেয়াদি লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে তাতে ওই অঞ্চলে বিপর্যয়কর পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।”

অনেকের মতে গোলযোগ শুধু ওই এলাকার মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে না এবং তারা ভারতের সাম্প্রতিক এসব পদক্ষেপকে গোটা দক্ষিণ এশিয়ায় আগুন নিয়ে খেলার সঙ্গে তুলনা করেছেন। ভারতের প্রধান বিরোধী দল সরকারের এ পদক্ষেপের তীব্র সমালোচনা করায় বলা যায়, বিজেপি সরকার অত্যন্ত বিপজ্জনক খেলায় মেতে উঠেছে।

গতরাতে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে সংঘর্ষের ঘটনা থেকে বোঝা যায়, কাশ্মির ইস্যুটি কত স্পর্শকাতর হয়ে উঠেছে এবং যেকোনো অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত ওই অঞ্চলকে বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে দিতে পারে। অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিজেপি দল ক্ষমতায় এসেছিল। এ অবস্থায় কাশ্মিরে উত্তেজনা ছড়িয়ে ও যুদ্ধের দামামা বাজিয়ে বিজেপি সরকার তার ওই প্রতিশ্রুতি পালন করতে পারবেন কিনা সেটাই এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন।পার্সটুডে

রাজধানীসহ সারাদেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৩২৬ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে প্রাপ্ত ২৪ ঘণ্টার হিসাবে দেখা যাচ্ছে, প্রতি ঘণ্টায় ভর্তি হচ্ছেন প্রায় ৯৭ জন। আগের দিন এই সংখ্যা ছিল ১০১ জনের উপরে।

অধিদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুসারে, আগস্ট মাসের ৮ দিনে ভর্তি হয়েছেন ১৬ হাজার ২০৫ জন। তবে, গত দুই দিনের তুলনায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি একটু কমেছে। সরকারি হিসাবে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩৪ হাজার ৬৬৬ জন। বেসরকারি হিসাবে এ সংখ্যা আরও কয়েকগুণ বেশি বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন।

মৃতের সংখ্যা এ পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ২৯ জন বললেও বেসরকারি হিসাবে শতাধিক। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৫ হাজার ৮৭২ জন। বর্তমানে ভর্তি আছেন ৮ হাজার ৭৬৫ জন।

জাহিদ মালেক

ডেঙ্গু কোনো জাতীয় সংকট নয়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক আজকেও বলেছেন, ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব বড় আকারে দেখা দিয়েছে। তবে এটি কোনো জাতীয় সংকট না। শুধু বাংলাদেশ নয়, সারাবিশ্বেই এখন ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়েছে। ফিলিপাইনে ৬০০ জন মারা গেছেন ডেঙ্গুতে। অন্যান্য দেশেও লাখ লাখ লোক আক্রান্ত হচ্ছেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সর্বশক্তি দিয়ে ডেঙ্গু মোকাবেলায় কাজ করছে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীতে অনুষ্ঠিত ‘ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ ও সচেতনতায় করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় তিনি বলেন, ডেঙ্গু কোনো জাতীয় সংকট নয়। আগে কলেরায় মানুষ মরে গ্রামের পর গ্রাম সাফ হয়ে যেত। কিন্তু ডেঙ্গুতে মৃত্যু প্রতিরোধ করা সম্ভব। এখন আমাদের সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে ডেঙ্গু মোকাবেলায় কাজ করতে হবে।ইরনা

রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধিঃ সিলেটের জৈন্তাপুরে তথ্য আপার আয়োজনে উপজেলা বটমূলে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত।

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তির মাধ্যমে মহিলাদের ক্ষমতায়ন প্রকল্পের আওতায় জৈন্তাপুর তথ্য কেন্দ্রের আয়োজনে উপজেলা কমপ্লেক্স চত্তরের বটমূলে উঠান বৈঠক অনুষ্টিত হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল আহমদ, প্রধান আলোচক হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌরীন করিম, বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা দারিদ্র বিমোচন কর্মকর্তা মোঃ মতিউর রহমান। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব ও ডেঙ্গুজ্বর নিয়ে আলোচনা হয়। প্রধান অতিথির বক্তব্যে কামাল আহমদ বলেন- আজ আমাদের জন্য একটি আনন্দের দিন।

এদিনে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মীনি বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা রেণু জন্ম গ্রহন করেন মধুমতি নদীর তীরে টুঙ্গীপাড়া গ্রামে। টুঙ্গীপাড়া নামটি শুনলেই বাঙ্গালিদের মনে অন্য রকমের ঢেউ খেলা করে। উত্তাল পাথাল ঢেউ। সেই টুঙ্গীপাড়ায় ১৮৪৫ সালে কবুতর খচিত একটি দালানবাড়ি নিমর্তি হয়েছে, যেখানে বাস করতেন শেখ আবুল কাশেম। সবুজ গাছ পালার ছায়ায় মাথা তুলে দাঁড়ানো সেই দালানবাড়ীতে ১৯৩০ সালের আগষ্ট মাসের ৮ তারিখ দুপুরে এক ফুটফুটে শিশুর জন্ম হয়, শিশুটি কন্যাশিশু। এই কন্যাশিশুটি ফুলের মত শোভাময়ী, দেখলেই মনে হবে আনন্দের শ্রাবণ অঝর ধারায় ঝরে। কন্যা শিশুটির গায়ের রং ফুলের মত শোভিত, সুবাসিত, গুনিময় হওয়ার প্রত্যাশায় মা হোসনে আরা কন্যার নাম রাখলেন রেণু। সেই প্রিয় নাম আজ দিক দিক ছড়ানো, ভালোবাসায় মেড়ানো বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা রেণু। আমরা তার জন্মদিনে শিশু কিশোরদের নিয়ে আনন্দ করি।

ডেঙ্গুজ্বর নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌরীন করিম বলেন- ডেঙ্গুজ্বর প্রতিরোধ করতে সবচেয়ে বড় বিষয় হল সচেতনতা সৃষ্টি করা এবং বাড়ীর আঙ্গীনায় জমে থাকা পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা। আমরা সবাই এখন থেকে ডেঙ্গু প্রতিরোধে নিজ বাড়ীর আঙ্গীনা পরিস্কার রাখতে হবে তাহলেই ডেঙ্গু প্রতিরোধ সম্ভব হবে বলে তিনি জানান।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc