Tuesday 15th of October 2019 08:04:38 AM

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ যশোরের বেনাপোলে শ্বশুর বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম সুমন (২৫) এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
সোমবার সকাল ১০ টার দিকে বেনাপোল স্থলবন্দরের ৫ নম্বর গেটের সামনে গাজিপুর এলাকায় শ্বশুর বাড়ি থেকে সুমনের লাশ উদ্ধার করা হয়। সুমন
বেনাপোলর দূর্গাপুর গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সুমন সোমবার ভোরে বাড়ি থেকে বের হয়ে তার শ্বশুর বাড়িতে যান। সকাল ১০টার দিকে শ্বশুর বাড়ি থেকে পরিবারের কাছে খবর আসে সুমন গলাই দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পরে পরিবারের সদস্যরা সেখানে গিয়ে সুমনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। পরিবারের সদস্যদের দাবি সুমনকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। শ্বশুর বাড়ির সাথে সুমনের পারিবারিক কলহ চলে আসছিল বেশ কিছু দিন যাবত।
পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ সুমনের বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।
বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি (তদন্ত) আলমগীল হোসেন জানান, এটি হত্যা না আত্মহত্যা, ময়না তদন্তের পর তা জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে ।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা সীমান্ত থেকে ৩কেজি গাঁজাসহ লিটন মিয়া (২০) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীর লিটন মিয়া উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী লালাঘাট গ্রামের আব্দুল মন্নাফের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,শনিবার মধ্য রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে ট্যাকেরঘাট পুলিশ ফাঁড়ির একটি টিম অভিযান চালিয়ে লালঘাট গ্রামের নুরুল ইসলামের বাড়ীর সামনের পাকা রাস্তা থেকে ৩কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী লিটনকে আটক করে। এসময় তার সঙ্গে থাকা লালঘাট গ্রামের আহাম্মদ আলীর ছেলে মাসুদ মিয়া নামের একজন দৌড়ে পালিয়ে যায় বলে পুলিশ গণমাধ্যমকে জানায়।
তাহিরপুর থানার ওসি মোঃ আতিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী লিটন মিয়াসহ মাসুদ মিয়াকে পলাতক আসামী দেখিয়ে তাহিরপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রয়ন দমন আইনে একটি মাদক মামলা করেছেন ট্যাকেরঘাট পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এ এস আই আবু মোছা।

আবু তাহির,বেলজিয়ামঃ বেলজিয়ামের বন্দরনগরী খ্যাত এন্ট্রপেন শহরে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো ঐতিহ্যবাহী চাঁটগাইয়া মেজবান। বেলজিয়ামে বসবাসরত চট্টগ্রাম প্রবাসীদের একমাত্র সংগঠন চট্টলার আয়োজনে এ উৎসবে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী উপস্থিত ছিলেন।
মেজবানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের তথ্যমন্ত্রী ডঃ হাসান মাহমুদ এমপি। খোকন শরীফের সভাপতিত্বে ও দাউদ খান সোহেল এর পরিচালনায় এসময় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীর চৌধুরী রতন।
মেজবানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বেলজিয়ামে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ শাহদৎ হোসেইন এবং নেদারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত  শেখ মোহাম্মদ  বেলাল।
মেজবানে প্রধান অতিথি  তথ্যমন্ত্রী ডঃ হাসান মাহমুদ বলেন চট্টগ্রামের ঐতিহ্যব্যাহি মেজবান এখন  বাংলাদেশের একটি সার্বজনীন উৎসব। তিনি বলেন দেশের উন্নয়নে প্রবাসীদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দলমত নির্বিশেষে সকল প্রবাসীদের কে দেশের জন্যে কাজ করতে হবে। সরকার প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে অত্যন্ত আন্তরিক।মেজবানের মতো আনন্দঘন আয়োজনের মাধ্যমে প্রবাসীদের মধ্যে আন্তরিকতা সৃষ্টি করবে। তিনি আয়োজকদের ভূয়সী প্রশংসা করেন।
প্রায় পাঁচশতাধিক  মানুষের সরব ও হাস্যোজ্জল উপস্থিতি  অপরূপ বাংলার সুন্দরী চাঁটগাঁর ঐতিহ্যে এক আনন্দঘন পরিবেশের রুপায়ন করে।এন্ট্রপেন এর এক অভিজাত হলে সন্ধ্যায়  মেজবানের আপ্যায়ন ও সাথে স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় চাঁটগাইয়া গানের লহরি ছিল মনমাতানো।  সমবেত কন্ঠে চট্টগ্রামের আঞ্চলিক গান করেন  স্থানীয় শিল্পীরা।
মেজবানের আলোচনার শুরুতে অতিথিদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান চট্টলার ছোট্টমনি সুরাইয়া , সাফওয়ান ,রুপন্তি। নৃত্য পরিবেশন করে সাফওয়ান ও অফরা।
এসময় আরো বক্তব্য রাখেন জার্মান প্রবাসী বকুল ভূঁইয়া ,ডেনমার্ক প্রবাসী জাহাঙ্গীর আলম।মেজবান সফল করতে  সার্বিক সহযোগিতা  করেন মইন, সায়েম, রফিক ভান্ডারি, সাজ্জাদ, শাহিন মাসুদ,কাসেম, রাসেল ।
এসময় বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করা হয়।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় স্বামী পরিত্যক্তা রিপ্তা বেগম (২৫)নামে এক যুবতীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে তাহিরপুর থানা পুলিশ। নিহত যুবতী উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের তরং গ্রামের সালিম উদ্দিনের মেয়ে। রবিবার (৭জুলাই) সকাল ১১টার দিকে সালিম উদ্দিনের নিজ বাড়ীর বারান্ধা থেকে নিহত রিপ্তা বেগমের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায,শনিবার রাত ৯টার দিকে সবার সঙ্গে রাতের খাবার খেয়ে রিপ্তা বেগম তার নিজ ঘরে ঘুমিয়ে পরেন। রাত প্রায় ৩টার দিকে পরিবারের লোকজন দেখতে পান রিপ্তা বেগম নিজ ঘরের বারান্ধার বর্গার সঙ্গে পরনের কাপড় দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছেন।

খবর পেয়ে তাহিরপুর থানার এস আই হুমায়ূন কবির ঘটনা স্থলে এসে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে সুরতার রিপোর্ট তৈরী দুপুরে সুনামগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেন।
তাহিরপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আতিকুর রহমান এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,এ বিষয়ে থানায় অপমৃত্যু মামলার প্রস্ততি চলছে।

আজ ০৭ জুলাই, রবিবার-রাত ১০টার ইংরেজি সংবাদের পর প্রচারিত হবে পাবনা জেলার পাকশীতে অবস্থিত শতাব্দী প্রাচীন একমাত্র ইস্পাত নির্মিত সর্ববৃহৎ রেল সেতু ঐতিহ্যবাহী হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্টে ধারণকৃত ইত্যাদি। পেছনে রেল সেতু হার্ডিঞ্জ ব্রিজ, সামনে সড়ক সেতু লালন শাহ্ ব্রিজ আর মাঝখানে পাবনা জেলার বিভিন্ন উল্লেখযোগ্য স্থাপনা ও বৈশিষ্ট্যকে কেন্দ্র করে নির্মিত ইত্যাদির মঞ্চের সামনে হাজার হাজার দর্শক নিয়ে প্রশংসিত এই বিশেষ পর্বটি ধারণ করা হয়েছিল ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে। প্রাচীন আর বর্তমানের দুই পাশাপাশি নিদর্শন এবং পাশে বহমান নদীর ধারা সবকিছু মিলিয়ে চমৎকার দর্শনীয় স্থান এই হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্ট।
বিষয় বৈচিত্র্যে ভরপুর ‘ইত্যাদি’র এই পর্বে ছিল বেশ কয়েকটি হৃদয়ছোঁয়া প্রতিবেদন। পাবনার ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের উপর ছিল একটি তথ্যসমৃদ্ধ প্রতিবেদন। যার জন্ম, বেড়ে ওঠা, পড়াশোনা সবকিছুই এই পাবনাতেই। পাবনার বেড়া উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের নিবেদিত প্রাণ কৃষিকর্মী বাদশা মোল্লার উপর রয়েছে একটি অনুকরণীয় প্রতিবেদন। প্রচার সর্বস্বতার এই যুগেও প্রচার বিমুখ কৃষি অন্তপ্রাণ বাদশা তার সীমিত সামর্থ্য নিয়ে বিনামূল্যে গ্রামের প্রতিটি বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে নিজ হাতে বিতরণ করছেন বীজ আর সহায়তা করছেন বপনে। তার সেই বীজ থেকে বিভিন্ন শাকসবজিতে ভরে উঠছে গ্রামের বিভিন্ন বাড়ির আঙ্গিনা। রয়েছে ঐতিহ্যবাহী ‘পাবনা মানসিক হাসপাতাল’ এর উপর একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন।
এবারের ইত্যাদিতে গান গেয়েছেন পাবনারই কৃতী সন্তান বাপ্পা মজুমদার ও তার দলছুট দল। পাবনারই আরেক কৃতী শিল্পী স্বনামধন্য অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী-মা, বোন, বন্ধু ও ভালোবাসার মানুষদের আবেগময় সম্পর্কের অনুভূতি নিয়ে একটি গান গেয়েছেন।
সামাজিক অসঙ্গতি ও সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশ ক’টি নাট্যাংশসহ নিয়মিত পর্ব হিসেবে এবারও যথারীতি রয়েছে মামা-ভাগ্নে, নানী-নাতি, দর্শক পর্ব ও চিঠিপত্র পর্ব। ‘ইত্যাদি’ রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। একযোগে প্রচার হবে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে।

“সকল অভিবাবকদের সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন সমাজ সচেতন নাগরিকগন” 

 

গত রমযানের মাঝামাঝি এক নারীকে শহরের রাস্তায় বিমর্ষ অবস্থায় বসে থাকতে দেখে জিজ্ঞাসা করি তোমার কি হয়েছে রোজায় খুব বেশি কাহিল লাগছে নাকি এভাবে কেন বসে আছো ? জবাবে বলে উঠলেন “না গো ভাই ভিতরে  অনেক অশান্তি রোজা টোযা রাইক্ষ্যা কিতা অইত আমরার দেশের মিয়াছাবরা সেহেরি খাইয়া ফজর পইরা রোজা থাইক্ষা খারাপ কাম করে এরার কিচ্ছু অইনা আর আমার আবার একটা রোজা”!

রুক্ষ জবাব শুনে ইচ্চা হলো আরও জানার, মনে হলো কিছু একটা হয়েছে কারণ তার একটা ছেলে কওমি মাদ্রাসায় পড়ে সেটা আমি জানতাম, যাই হোক, বিস্তারিত জানার চেষ্টা করে যা জানলাম আর তিনি যা আকারে ইঙ্গিতে বললেন তা খুবই বিব্রতকর ও লজ্জাজনক তার পরেও পাঠকের জানার জন্যে বলছি।

সংক্ষেপে, “ওই নারীর ছেলে শ্রীমঙ্গল এলাকার একটি হাফেজি মাদ্রাসার ছাত্র তার মাদ্রাসায় সিলেট থাকে আসা এক কওমি হুজুর ছেলেটিকে খুব আদর করে নিজের ছেলে বলে দাবী করে। রমজান মাসে এক পর্যায়ে সেহরি খাওয়ার পর ফজরের নামাজ শেষে কিছু একটা করে … যা অন্য ছাত্ররা দেখে তার মায়ের কাছে ফোন করে জানান।পরে  তিনি (ওই নারী) সেখানে গেলে ওরা খুলে বিস্তারিত বলে এবং কারো কাছে বললে হুজুর ওদের মেরে ফেলবে তাই তারা ওদের নাম বলতে নিষেধ করে।কথা গুলো শুনে এর বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বললে মহিলা সাহস করতে পারেনি কারণ তার ছেলেকে নাকি ওরা ফ্রিতে লেখা পড়া করান যাক এ  ব্যাপারে পরবর্তি লেখায় বিস্তারিত জানাবো।আজ আপনাদেরকে একজন এডিশনাল এসপি (ক্রাইম) যিনি নেত্রকোনা জেলায় দায়িত্ব পালনরত রয়েছেন তার একটি স্ট্যাটাস জনস্বার্থে পাঠকের কল্যাণে নিম্নে হুবহু তুলে ধরিলাম।তিনি তার লেখায় একজন মানুষ গড়ার কারিগর সম্পর্কে কি লিখেছেন তা একটু পড়েই দেখেন।

“কি লিখব আর কিভাবে লিখব, ভাষা পাচ্ছি না। তিনি একজন দাওরায়ে হাদীস,(সিলেট বালুরচর কওমী মাদ্রাসা হতে) মাওলানা, একজন বক্তা, একজন ইমাম, শুক্রবারে জুমআর নামাজের খতিব। মাওলানা(!!!) আবুল খায়ের বেলালী। শুক্রবারে তার বয়ান শুনার জন্য আধা ঘন্টা আগে মুসল্লীগণ এসে অপেক্ষা করেন মসজিদে। কেন্দুয়ার বাদেআঠারবাড়ি এলাকায় মা হাওয়া (আ:) কওমী মহিলা মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক (মুহতামিম) যে মাদ্রাসায় রয়েছে প্রায় 35 জন অপ্রাপ্ত বয়স্ক ছাত্রী যাদের 15 জন আবাসিক। সেখানে তিনিও আবাসিক। সময় সুযোগ বুঝে তিনি কলিংবেল চাপেন আর ওনার পছন্দমত একজন কোমলমতি ছাত্রীর ডাক পরে তার গা-হাত-পা টিপে দেবার জন্য। আর এক পর্যায়ে তিনি সেই অবুঝ শিশুদের উপর ঝাপিয়ে পরেন,(. . . . . ) এবং শেষে আবার কোরআন শরীফ হাতে দিয়ে শপথ করান কাউকে কিছু না বলার জন্য, বললে কিন্তু আল্লাহ তোমাকে দোযখের আগুনে পোড়াবেন। ভয়ে কোমলমতি ছাত্রীরা কাউকে কিছু বলেন না। কিন্তু আজ এক সাহসী বীরাঙ্গনা সেই ভয়ের সঙ্গে যুদ্ধ করে জয়ী হয়, বলে দেয় তার বড় বোন সহ বাড়ির সবাইকে সেই যন্ত্রনার মুহুর্ত গুলোর কথা। স্থানীয় এলাকাবাসীর সহায়তায় আটক হন সেই হুজুররূপী ধর্ষক। থানায় আটক থাকা অবস্থাতেই আরো একজন শিশুশ্রেনীর ছাত্রীর অভিযোগ জমা পড়ে। দুইটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে তার নামে (কিছু অনলাইন পত্রিকায় ধর্ষণের চেষ্টার কথা বলা হয়েছে)। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তথ্য পাই, গত একবছরে আরো মোট 6 জন ছাত্রীর সাথে তিনি অনুরূপ কুকর্ম করেছেন যাদের সবারই বয়স 8 থেকে 11 এর মধ্যে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কিছু আলামত জব্দ করি সাথে সেই ”কলিংবেল” টি ও যা আদালতে উপস্থাপন করা হবে। হুজুরকে রিমান্ডে আনা হবে।”

এই রকম অপরাধের কারণে কিছু লোকের মন্তব্য নিম্নে প্রকাশ করিলাম।

মোহাম্মদ সবুজ আহমেদ  বলেন “কুওমীর হুজুররা আরো হাজার ছেলেদের সাথে সমকামীর খবর পাওয়া যাচ্ছে,তাদের কোন বিচার হয় না,তাই আজ এই অবস্তা,আপনার সন্তানকে কুওমী থেকে মুক্ত রাখুন,কুওমীরা ছেলে হলে বলৎকার আর মেয়ে পাইলে ধর্ষন।” 

Chowdhury Ripan বলেন “আমাদের মেয়েরা এভাবে এগিয়ে আসলে অনেকেরই মুখোশ খুলে যাবে।” 

Mohammad Abu Bakkar বলেন “এ বলাতকার বাহিনী মানুষ নয় এদের সরকারী স্বীকৃতি তুলে নেওয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসন থেকে একটা সুপারিশমালা প্রেরণ করা হোক।”

Jahangir Arun বলেন, “খোঁজ নিলে এদের প্রায় সবারই কাহিনী এক। কেউ ধরা পরে, কেউ ধরা না পরে ঘরে ঘরে মুরগীর রান খেয়ে বেড়ায়।”

Mohammad Mostafa বলেন, “বদমায়েশকে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হোক । এমন আরও অনেক হচ্চে । সব মহিলা মাদরাসা / School পুরুষ মুক্ত করা হোক” 

উপরোক্ত বিষয়ে সকল অভিবাবকদের সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন সমাজ সচেতন নাগরিকগন।

বেনাপোল প্রতিনিধি :  শনিবার সকাল ১১টায় শার্শার উপজেলার নাভারণে যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের শার্শা উপজেলা ইউনিট গঠনে উপলক্ষে এক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য মনিরুল ইসলাম মনির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহকারী মহাসচিব মহিদুল ইসলাম মন্টু।
সভায় প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন, যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রধান উপদেষ্টা আনোয়ারুল ইসলাম নান্টু, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শেখ দিনু আহমেদ, সহ-সভাপতি তহিদ মনি, সাধরন সম্পাদক দেওয়ান মোর্শেদ আলম, যুগ্ম-সাধরন সম্পাদক বিএম ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক মালেকুজ্জামান কাকা। আরো বক্তব্য রাখেন, আসাদুজ্জামান নয়ন, জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।
সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, মাঠ পর্যায়ে সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার বিকল্প নাই। কোন রাজনৈতিক লেজুর বৃত্ত নয়। সাংবাদিকদের রুটিরুজির অধিকার সংরক্ষনে যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়ন নিরলশ ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
সভা শেষে সকলের মতামতের ভিত্তিতে মোঃ ওসমান গনিকে শার্শা উপজেলা ইউনিট প্রধান ও আসাদুর রহমানকে ডেপুটি ইউনিট প্রধান করে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি উপজেলা ইউনিট কমিটি গঠন করা হয়েছে।
কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হচ্ছে, কার্য নির্বাহী সদস্য আব্দুর রহমান, নজরুল ইসলাম, আসাদুজ্জামান নয়ন, জসিম উদ্দিন, মিলন কবীর, সাধারন সদস্য মনিরুল ইসলাম মনি, আহম্মাদ আলী খোকন, শহিদুল ইসলাম, জয়নাল আবেদীন, সেলিম আহমেদ, এবিএস রনি, খোরশেদ আলম, মাহবুব আলম শাহিন, ইকরামুল ইসলাম, সাইফুজ্জামান মন্টু, রফিকুল ইসলাম, সেলিম হোসেন আশা, এএইচএম রায়হান, নাজিম উদ্দিন জনি, জুলফিকার আলী।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc