Friday 19th of July 2019 04:33:34 PM

রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধিঃ সিলেটের জৈন্তাপুর হতে অভিনব কায়দায় ২বৎসরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার করেছে থানা পলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়- গতকাল ১১ জুন মঙ্গলবার দুপুর ২টায় জৈন্তাপুর উপজেলা দরবস্ত ইউনিয়নের ভাইটগ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে বিলাল উদ্দিন(৩০) দীর্ঘ দিন হতে আইনের চোঁখ ফাঁকি দিয়ে কৌশলে পালিয়ে বেড়ায়। একাধিক বার পুলিশ বিলালকে আটক করতে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করলে চতুর বিলাল পালিয়ে যায়। পুলিশ গোপন সংবাদে জানতে পারে সাজাপাপ্ত পলাতক আসামী বিলাল স্থানীয় ভাইটগ্রাম হাওরে মাছ ধরছে। জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মাইনুল জাকিরের নির্দেশে এসআই প্রদীপরায়, এএসআই রায়হান কবীর, এএসআই মনিরুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিনব কায়দা অবলম্বন করে ভাইটগ্রাম হাওরে মৎস্যজীবি সেজে মাছ ধরার নামে অভিযান পরিচালনা করে বিলাল উদ্দিন(৩০) কে আটক করতে সক্ষম হয়। তার বিরুদ্ধে সিআর ১০০/১৬ মামলায় সে ১বৎসরের সাজা এবং ৫লক্ষ টাকা জরিমানা অপর সিআর ৫৭/১৮ মামলায় ১বৎসরের সাজা এবং ৪লক্ষ টাকা জরিমানা করে আদালত।

এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মইনুল জাকির বলেন- ২বৎসরের সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে আটক করতে একাধিক অভিযান পরিচালনা করলে চতুর বিলাল পালিয়ে যায়। তাই তাকে ধরতে পুলিশ মৎস্যজীবি সেজে ভাইটগ্রাম হাওরে অভিযান পরিচালনা করে আটক করতে সক্ষম হয়। আগামী কাল ২টি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরন করা হবে।

এস এম সুলতান খানঃ হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার চুনারুঘাট টু (বাহুবল উপজেলার) নতুনবাজার পর্যন্ত সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতাধীন সড়কের প্রায় ৩১ কোটি টাকা ব্যয়ে সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়ম। অপরিকল্পিত ড্রাইভিষন নির্মান করায় প্রতিনিয়ত ভাড়ী যানবাহন আটকা পরে যাত্রীবাহি গাড়ী চলাচলে চরম ভূগান্তির শিকার হচ্ছেন দুইটি ইউনিয়নের হাজারো জনসাধারন। উপজেলা শহরে চলাচল করতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসির।
গতকাল সোমবার দুপুরে গাজীগঞ্জ বাজারের দক্ষিণের ড্রাইভিষন এ বালু বুঝাই ট্রাক আটকা পড়ে। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মঈন উদ্দিন ইকবাল এর গাড়িসহ শতাধিক সিএনজি এবং বিভিন্ন প্রকারের যাবাহন আটকা পড়ায় জনগনের চরম ভুগান্তির শিকার হতে হয়। পরে নির্বাহী কর্মকর্তা বালু বুঝাই ট্রাকটি আটক করেন। রাস্তার কাজের শুরু থেকেই এলাকাবাসী স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ উপজেলা চেয়ারম্যান এর নিকট মৌখিক অভিযোগ করে আসছিলেন।  এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত শুক্রবার উপজেলা চেয়ারম্যান  আলহাজ্ব আব্দুল কাদির লস্কর এ রাস্তার সংস্কার কাজ পরিদর্শন করেন । এ  সময় কাজের পাশে কাউকে না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।
বাংলাদেশ সরকারের সড়ক ও জনপথ বিভাগ গত ২৭ ডিসেম্বর  ১৮ ইং তারিখে  স্পেক্টার-ওয়াহিদ কোম্পানীকে  ৩১ কোটি টাকায়  ৬ টি কালভার্টসহ কাজ বুঝিয়ে দেয়। এ সময় উপস্থিত এলাকাবাসী আরও অভিযোগ করে বলেন,কালভার্ট নির্মানের জন্য বিকল্প একটি রাস্তা করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। সেটা মেইন রাস্তা থেকে অনেক নিম্নে হওয়ায় অল্প বৃষ্টিতেই তলিয়ে যায় বিকল্প রাস্তাটি এবং চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়ে।
ফলে চুনারুঘাট টু রানীগাঁও এর যানবাহন বিকল্প রাস্তা মিরাশী হয়ে চুনারুঘাটে চলাচল করতে হয়। এতে দুই ইউনিয়নের প্রায় ২০ হাজার যাত্রীদের প্রতিনিয়ত চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
উপজেলা চেয়ারম্যান সংস্কার রাস্তার পরিদর্শনে এসে সংস্কার কাজের বিভিন্ন অনিয়মের সত্যতা খুজে পেয়েছেন বলে জানান। এ সময় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কেউ উপস্থিত না থাকায় উপজেলা চেয়ারম্যান এলাকাবাসীকে বলেন পরবর্তী নির্দেশ প্রদান না করা পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপ যেন কালভার্ট নির্মাণ ও রাস্তার কাজ বন্ধ রাখে।

জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধিঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে সিলেট জেলায় “শুদ্ধাচার পুরস্কার ১৮-১৯” এর জন্য মনোনীত হয়েছেন জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌরীন করিম।সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয় ও রাষ্টীয়  প্রতিষ্ঠান ও সমাজে সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশলের আলোকে সম্মানজনক পুরস্কারের জন্য তাঁকে মনোনয়ন করা হয়। মৌরীন করিম জৈন্তাপুর উপজেলায় যোগদানের পর আইসিটিতে জৈন্তাপুর উপজেলা সিলেট বিভাগে শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাচিত হয়।
মৌরীন করিম তার জানান- অামাকে পুরস্কারের জন্য মনোনিত করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি সিলেট জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম স্যারকে। তিনি আরো ও ধন্যবাদ জানান  সহকর্মীবৃন্দের প্রতি, যাদের দিকনির্দেশনা ও সার্বিক সহযোগিতায় এ সম্মান অর্জন সম্ভব হয়েছে। তিনি জৈন্তাপুর উপজেলাবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

এম ওসমান, বেনাপোল: ভালো কাজের প্রলোভনে বিভিন্ন সময়ে  ভারতে পাচার হওয়া ৬ বাংলাদেশি তরুনীকে বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে ফেরত দিয়েছে ভারতীয় পুলিশ। সোমবার (১০ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদেরকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে তুলে দেয়।
ফেরত আসা বাংলাদেশিরা হলেন, গাইবান্ধার মুরসিদা বেগম (২১), সাতক্ষীরার রাবিয়া খাতুন (২৩), বাগেরহাটের নিসাত আক্তার বৃষ্টি (২০), যশোরের কল্পনা গাজী (২৫), সাথী সরদার (২২)  ও রহিমা খাতুন (১৮)।
জাস্টিস এন্ড কেয়ারের যশোর শাখার তথ্য ও অনুসন্ধ্যান কর্মকর্তা এবিএম মুহিত হোসেন জানান, সংসারে অভাব-অনটনের কারণে তিন বছর আগে এসব বাংলাদেশি তরুনীরা দালালের খপ্পরে পড়ে সীমান্ত পথে ভারতে যায়। এ সময় অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে ভারতীয় পুলিশ তাদের আটক করে। সেখান থেকে বোম্বায়ের নবজীবন নামে একটি শেল্টার হোম তাদেরকে ছাড়িয়ে নিজেদের আশ্রয়ে রাখে।  পরে  দু’দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগে বিশেষ ট্রাভেল পারমিট আইনে তাদের দেশে ফেরার ব্যবস্থা করা হয়।
বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার জানান, কাগজ পত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদেরকে পোর্টথানা পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইল জেলার তরুনদের বেকারত্ব নিরসনে লক্ষ্যে “ নড়াইলের উদ্যোক্তার খোজে” বিষয়েরওপর সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে দলের অধিনয়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার হাতে গড়া সংগঠন নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের আয়োজনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সাধারন সম্পাদক তরিকুল ইসলাম অনিক। এ সময় ফাউন্ডেশনের সহসভাপতি শামীমুল ইসলাম টুলু, যুগ্ম-সম্পাদক মোঃ কামরুল হাসান,নড়াইল প্রেসকাবের সাধারন সম্পাদক মীর্জা নজরুল ইসলামসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।
লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়,নড়াইলের অন্যতম সমস্যা বেকারত্ব নিরসনের লক্ষ্যে তরুন উদ্যোক্তা খোঁজ করে উপযুক্ত প্রশিক্ষন প্রদান ও সার্বিক সহযোগীতা কওে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এ লক্ষ্যে অনলাইনে/অফলাইনে তরুন উদ্যোগতাদের রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে। রেজিষ্ট্রেশনের পর প্রাথমিক পর্যায়ে ৩০টি দল/ উদ্যোক্তাদের ২দিন ব্যাপী “গ্রপিং সেশন ” এর আয়োজন করা হবে ।এর থেকে ১৫টি উদ্যোগ/উদ্যোগতাদের চুড়ান্ত ভাবে বাছাই করা হবে। এদের বিশ্বকাপ ক্রিকেট শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে সংগঠনের সভাপতি ও সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা এ্যাওয়ার্ড প্রদান করবেন এবং এদের টেকসই করতে বিভিন্ন ধাপে কাজ করে যাবে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন।

নারী নির্যাতনের অভিযোগে দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার হওয়া পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানের কাছে তদন্তের তথ্য পাচার এবং শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক খন্দকার এনামুল বাসিরকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সোমবার বিকেলে দুদক কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। তিনি বলেন, তদন্তের স্বার্থেই খন্দকার এনামুল বাসিরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

ইকবাল মাহমুদ বলেন, ডিআইজি মিজানুরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্ত থেকে এনামুলকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ খতিয়ে দেখতে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির কাছে এনামুল বলেছেন, তিনি ঘুষ নেননি।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, এনামুল বাসিরের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ সেটি অসদাচরণ। এতে দুদক বিব্রত নয়। ব্যক্তির দায় প্রতিষ্ঠানের নয়। দুদকের ৮৭৪ জন কর্মীর সততার নিশ্চয়তা কমিশন দিতে পারে না।

এর প্রশ্নের জবাবে ইকবাল মাহমুদ বলেন, এনামুল বাসিরের সঙ্গে ডিআইজি মিজানুর রহমানের কথোপকথন নিশ্চিত হতে নিশ্চিত হতে অডিও রেকর্ড ফরেনসিক পরীক্ষা করতে হবে। তাছাড়া মিজানুর ঘুষ দিয়েছেন প্রমাণিত হলে দুদক মামলা করবে বলে জানান তিনি।

দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ

এদিকে, দুদকের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, “গতকাল বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন নিউজে প্রচারিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘কমিশনের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাসির পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে পরিচালিত একটি অনুসন্ধান হতে তাকে দায়মুক্তি দিতে তার নিকট ৪০ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণে সমঝোতা করেন। তিনি ৪০ লাখ টাকার মধ্যে ২৫ লাখ টাকা ঢাকার রমনা পার্কে বাজারের ব্যাগে করে ডিআইজি মিজানুর রহমানের নিকট হতে গ্রহণ করেন এবং অবশিষ্ট ১৫ লাখ টাকা পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে পাওয়ার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন। ছেলেকে স্কুলে আনা-নেওয়ার জন্য তিনি গ্যাসচালিত একটি গাড়ি দাবি করেন। এছাড়া তিনি কমিশনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য অবৈধভাবে পাচার করেন।”

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, এটিএন নিউজে প্রচারিত এই প্রতিবেদনটি কমিশন আমলে নিয়ে গতকাল দুদক সচিব মো. দিলওয়ার বখত এর নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করে। কমিশন এই কমিটিকে আজ বেলা ৩টার মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ প্রদান করে। কমিশনের নির্দেশনা মোতাবেক এই কমিটি আজ কমিশনে প্রতিবেদন দাখিল করে।

প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করে কমিশন, দুদকের তথ্য অবৈধভাবে পাচার, চাকরির শৃঙ্খলাভঙ্গ সর্বোপরি অসদাচরণের অভিযোগে পরিচালক খন্দকার এনামুল বাসিরকে দুর্নীতি দমন কমিশনের চাকরি হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে।

ডিআইজি মিজানুর রহমান ঢাকা মহানগর পুলিশে (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জানুয়ারির শুরুর দিকে তাঁকে প্রত্যাহার করে পুলিশ সদর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়। বিয়ে গোপন করতে নিজের ক্ষমতার অপব্যবহার করে দ্বিতীয় স্ত্রী মরিয়ম আক্তারকে গ্রেপ্তার করানোর অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। তখন তাঁর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের অভিযোগ ওঠে। মিজানুরের বিরুদ্ধে এক সংবাদ পাঠিকাকে প্রাণনাশের হুমকি ও উত্ত্যক্ত করার অভিযোগে বিমানবন্দর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) রয়েছে। গত বছরের ৩ মে অবৈধ সম্পদসহ বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে মিজানুরকে দুদক কার্যালয়ে প্রায় সাত ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধান প্রতিবেদনে মিজানুর রহমান ও তাঁর প্রথম স্ত্রী সোহেলিয়া আনারের আয়ের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ কোটি টাকারও বেশি সম্পদের খোঁজ পায় দুদক। মিজানুরের নামে ৪৬ লাখ ৩২ হাজার ১৯১ টাকা এবং স্ত্রীর নামে ৭২ লাখ ৯০ হাজার ৯৫২ টাকার অসঙ্গতিপূর্ণ স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদের খোঁজ পাওয়ার কথা দুদকের বরাত দিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ পায়। তদন্ত শুরু হওয়ার এক বছরের মাথায় দুদক পরিচালকের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার এই অভিযোগ পাওয়া যায়।পার্সটুডে

হঠাৎ করেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। রবিবার রাতে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তার আকস্মিকভাবে পেট ব্যাথা শুরু হয়। কয়েক বার বমি করার পর চিকিৎসক ডেকে স্যালাইন দেওয়া হচ্ছে। তাৎক্ষণিকভাবে কিছু ওষুধ সেবন করেন রিজভী।

দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ সিনিয়র নেতারা তার খোঁজ খবর নিচ্ছেন। দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মো. রফিকুল ইসলাম জানান, রুহুল কবির রিজভী হঠাৎ করেই পেটের পীাড়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। বমিও করেছেন। তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

উল্লে­খ্য, গত বছরের ২৮ জানুয়ারি থেকে প্রায় দেড় বছরের বেশি সময় ধরে নয়া পল্টনে বিএনপির কার্যালয়ে অবস্থান করছেন রিজভী।ইত্তেফাক

Education is the most powerful weapon which you can use to change the world –  অর্থাৎ শিক্ষা এমন একটি অস্ত্র যা দ্বারা তুমি এই বিশ্বকে বদলে দিতে পারো। এ শ্লোগানের আলোকে চা বাগানের শিক্ষার্থীদের এইচএসসি শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার ইচ্ছা থাকলেও পর্যাপ্ত গাইডলাইন ও বই কেনার ভয়ে তারা সে ইচ্ছাকে বিসর্জন দিয়ে দেয় কিন্তু এখন দিন এসেছে বদলে যাবার কেননা অশেস্কা এবার তাদের পাশে দাড়িয়েছে।  হ্যাঁ ” এডুকেশন ফর চেন্জ” নামে  অশেস্কার এবার প্রোগামটি ছিলো তাদের নিয়ে।

উক্ত অনুষ্টানটিতে প্রথমে সকল ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া ছাত্রদের দ্বারা সঠিক দিক-নির্দেশনা দেয়া হয় এবং ১০ জন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মাঝে ইউনিভার্সিটি  এডমিশন টেস্টের বই বিতরণ করা হয়।

উক্ত অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মাইক্রোসফ্টের ব্র্যান্ড এম্বাসেডর ও ঢাকা ইউনিভার্সিটির সাবেক ছাত্র মোহন রবিদাস,  জাহাঙ্গীরনগরের ছাত্র রাজু নুনিয়া, অশেস্কার সভাপতি আয়ান রহিম, সম্পাদক মুহিবুর রহমান সাহান ও অশেস্কার অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।প্রেস বার্তা

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc