Thursday 18th of July 2019 03:13:17 PM

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ  বরগুনায় স্ত্রীর সামনে প্রকাশ্য দিবালোকে স্বামী রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা মামলার আসামিরা যাতে বেনাপোল ইমিগ্রেশন ও সীমান্ত পার হয়ে দেশ ত্যাগ করতে না পারে সেজন্য বাড়তি সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

শনিবার (২৯ জুন) দুপুর ২টায় সতর্কতা জারির বিষয়টি বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ ও বিজিবি কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করে।

শনিবার বেনাপোল ইমিগ্রেশনে গিয়ে দেখা যায়, সর্তকর্তার কারণে বহিরাগতদের ইমিগ্রেশন ভবনে প্রবশ নিষেধ রয়েছে। পাসপোর্টের ছবির সাথে যাত্রীর চেহারা ও ফিঙ্গার প্রিন্ট মিলিয়ে তবেই ভারতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে সীমান্ত এলাকা ঘুরেও বিজিবির বাড়তি সতর্কতা চোখে পড়ে। সন্দেহ হলেই বিজিবি সদস্যরা সীমান্তে বিভিন্ন প্রয়োজনে চলাচলকারী মানুষজনদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার বলেন, ‘পুলিশের এসবি (স্পেশাল ব্রাঞ্চ) থেকে একটি নির্দেশনায় রিফাত হত্যা মামলার আসামিরা যাতে বেনাপোল ইমিগ্রেশন হয়ে দেশ ত্যাগ না করতে পারে, সেজন্য সতর্ক থাকতে নির্দেশ দিয়েছে। বৈধ পথে পালানোর সুযোগ নেই।’

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র যশোর-৪৯ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক সেলিম রেজা জানান, সীমান্ত পথে যাতে রিফাত হত্যাকারীরা কোনো ভাবে ভারতে পালাতে না পারে, এজন্য ঊধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ তাদেরকে আসামিদের তথ্য পাঠিয়েছেন। বিজিবি সদস্যরা সতর্ক অবস্থায় আছে। সীমান্ত পথে দেশত্যাগ করতে গেলেই তারা ধরা পড়বে।’

এর আগে, গত বুধবার (২৬ জুন) সকাল ১০টায় বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা দিনে দুপুরে কুপিয়ে আহত করে রিফাত শরীফকে। আহত রিফাতকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ঐদিন বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় রিফাত শরীফের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
এ পর্যন্ত আসামিদের মধ্যে ৪নং আসামি চন্দন ও ৯নং আসামি মেহেদী হাসান ও সন্দেহভাজন আসামি নাজমুল এবং শনিবার পটুয়াখালী থেকে আরেক সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধিঃ উন্নত রাষ্ট্র ও জাতি গঠন বিষয়ে জনগনকে অবহিত ও সম্পৃক্তকরন বিষয়ক প্রচারাভিযান এর অংশ হিসাবে ৩০ জুন রবিবার সকাল ১১ টায় সিলেট জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে ইমরান আহমদ সরকারি মহিলা কলেজ হল রুমে আলোচনা সভা ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।
ইমরান আহমদ সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ড. এনামুল হক সরদারের সভাপতিত্বে ও সহকারী অধ্যাপক মুক্তি বড়–য়ার পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জৈন্তাপুর উপজেলা আ.লীগের সভাপতি কামাল আহমদ।

প্রধান আলোচক হিসাবে বক্তব্য রাখেন জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমরান আহমদ সরকারি মহিলা কলেজের উপাধ্যক্ষ শাহেদ আহমদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিলেট বিভাগীয় তথ্য অফিসের উপ-পরিচালক জুলিয়া জেসমিন মিলি। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ইমরান আহমদ সরকারি মহিলা কলেজের সহকারি অধ্যাপক নাহিদ সুলতানা রুমি, প্রভাষক শিখা রায়, এম নুরুন্নবী, মোহাম্মদ রেজাউল হাসান, মোঃ ইদ্রিছ আলী, আব্দুল কুদ্দুছ, প্রদর্শক পপি রানী রায়, জৈন্তাপুর অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি ময়নুল মুরসালিন রুহেল, সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন মোঃ হানিফ, সাবেক অর্থ সম্পাদক গোলাম সরওয়ার বেলাল, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শাহজাহান করিব খান প্রমুখ।

 

রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধি: আগামী ২৫ জুলাই সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলা সদর নিজপাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিন ৩০ জুন রবিবার ৫প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করে।
বাংলাদেশ আ.লীগ মনোনিত প্রার্থী জৈন্তাপুর ষ্টেশন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক জৈন্তাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, জৈন্তাপুর উপজেলা যুবদলের আহব্বায়ক মোঃ ইন্তাজ আলী, নিজপাট ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক আব্দুস শুকুর মেম্বার, জৈন্তাপুর উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুল হাসিম, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মোঃ জসিম উদ্দিন।
প্রসঙ্গঃ বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন কর্তৃক জৈন্তাপুর উপজেলা সদর নিজপাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদটি শূণ্য ঘোষনা করার ফলে উপ-নির্বাচন ঘোষনা করে নির্বাচন কমিশন।

এদিকে স্ব-পদ ফিরে পেতে মহামন্য সুপ্রিম কোর্ট (হাই কোর্ট বিভাগ) রিট পিটিশন দাখিল করেছেন সাবেক চেয়ারম্যান মঞ্জুর এলাহি স¤্রাট।

রিটপিটিশন দাখিলের পর নির্বাচন নিয়ে ভোটারদের মধ্যে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। সাধারণ ভোটাররা মনে করছে আদৌ নিজপাট ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হবে-কি-না, এনিয়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতৃবৃন্দরা বলেন- যেহেতু সাবেক চেয়ারম্যান আদালতের দারস্থ হয়েছেন এবং আদালত ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট সকলকে কারন দর্শানোর জন্য নির্দেশজারী করেছেন সেহেতু উপ-নির্বাচন অনুষ্টান নিয়ে আশংঙ্কা রয়েছে।

তারা আরও জানান আদালত বিষয়টি বিবেচনায় নেওয়ার ফলে জন মনে এই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। আমরা আশাবাদি আদালত সুষ্ট সমাধান দিবে।

 গোলাম দস্তগীর লিসানীর ফেইস বুক থেকেঃ  চীনে গত ২ বছরে অগণিত মসজিদ মাটির সাথে মিশিয়ে দেয়া হয়েছে। শত শত বছর পুরনো মসজিদ। বিরাট বিরাট মসজিদ। একের পর একের পর এক। গুগল স্যাটেলাইট ইমেজ বলছে, মানুষ বলছে না। মানুষের মুখে ভাষা বা দাঁড়ি – কোনটাই নাই।

ভারতে বাবরী ভাঙ্গার ২৬ বছর হল।এবার আরো ৩ টি বড় মসজিদ গুঁড়িয়ে দেয়ার তফসিল করেছে; ক্ষান্ত দেবে?

ঊহু, ৩ হাজার মসজিদের তালিকা করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীমশায় হিসাব দেন।

পৃথিবীর বৃহত্তম মসজিদের তকমা নিয়ে শত বছর ছিল দিল্লি জামে মসজিদ। সেটার তলায়ও নাকি মুরতি পাবে, আশা করা যায়, ভাংলে।

ভারতে মসজিদে গেলে তীরন্দাজী হয়, আর চীনে ভয়ে কেউ মসজিদে যায়ই না। কে যাচ্ছে, হিসাব হয়। সিসিটিভি আর চীন তো সমারথক।

এখনো যেগুলো ভান্গা হয়নি এমন এক বড় মসজিদ ঠিক ৪ বছর আগে ভরা থাকতো, এখন ৮/১০ জন যায়। কেন লোকজন আসে না, ব্যাখ্যা করলেন এক মুসল্লি:
আগে কাজ ছিল না, আসতে পারতো। এখন কাজ আছে, পারে না।

( চার বছর আগেও দাঁড়িি ছিলো, কাজ ছিলো না, আজ কাজ আছে বলে সবার মুখে দাঁড়ি নাই। তা আর তিনি অবশ্য বলেন নাই।)

প্রতিটি বিষয়ে চীন ও ভারত দ্বিমত হলেও প্রথমবার রোহিঙ্গাদের বিষয় নিয়ে তারা হুবহু একমত ছিলেন, এরপর বহুদিন গেলো, মসজিদের ব্যাপারে তারা একমত হতে পেরেছেন।

একটা ব্যাপার কি খেয়াল করছেন? আগে উগ্রবাদীদের
ঠেকানো হত আর এখন সব্বাইকে বিলুপ্ত করে দেয়ার কাজ চলছে! ভাল, মন্দ, সাদা, কালো, চীনা-বরমী-ভারতীয়… এদের ভাষা ভিন্ন, ‘দেশ’ ভিন্ন, সবই ভিন্ন – শুধু একটা ব্যাপার এক।

ভাইরে,
তুমি ও আমি একই ছিলাম, একই আছি, রবো-যাঁর ছিলাম, তাঁরই আছি, তাঁরই জেনো হবো।

এ কী সময় দেখতে হলো! ইয়া রব! আমরা পাপাচারী, কিন্তু আমরা দুরবল। যে ভার বহনের শক্তি নাই সে ভার তুমি দিয়ো না। সহ্য করার শক্তি অন্তত দাও, তুমি ধৈর্য্যশীলের সাথেই যখন আছো-ধৈর্য্যটুকুই শুধু নাহয় দাও। সুত্রঃ  Golam Dastagir Lisani

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে বেওয়ারিশ কুকুরের উৎপাত সীমাহীন ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। দলবদ্ধ কুকুরের কারণে রাস্তায় হাঁটাচলা দুষ্কর হয়ে পড়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগামী ছোট ছোট শিক্ষার্থীরা ক্লাসে যেতে ভয় পাচ্ছে। এসব কুকুরের কারণে অভিভাবকরা সব সময় শংকিত থাকে। জানাযায়, চুনারুঘাট পৌরসভা সহ উপজেলার বিভিন্নস্হানে বেওয়ারিশ কুকুরের উৎপাত বেড়েছে। ফলে এলাকাবাসী নিত্য সময় শংকার মধ্যে থাকতে হচ্ছে। সংঘবদ্ধভাবে এসব কুকুর রাস্তাঘাটে, হাটবাজারে হাঁটাচলার পথে বসে থাকে। মানুষ দেখলে ঘেউ ঘেউ
করে তেড়ে আসে। এতে করে কচি কাঁচা শিক্ষার্থীরা ক্লাসে যেতে ভয় পায়। অভিভাবকরা থাকে শংকার মধ্যে। এক এলাকার কুকুর অন্য এলাকার কুকুর দেখলে তাড়া করে দৌড়ায়।এসময় পথচারীদের পথ চলতে বেকায়দায় পড়তে হয়। সারাক্ষণ ঘেউ ঘেউ ও কুকুরের ঝগড়ার বিকট শব্দে লোকজন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। রাতভর কুকুরের উৎপাতে গ্রামের ঘুমানো এক প্রকার দায় হয়ে পড়েছে। কুকুরের শব্দে অসুস্থ রোগীদের শান্তিতে ঘুমানো কষ্টকর হয়ে পড়েছে। অবশ্য রাতে এলাকায় অবাঞ্ছিত লোক দেখলে এসব বেওয়ারিশ কুকুর ঘেউ ঘেউ করে ডেকে উঠে। এসময় এলাকার লোকজন ঘুম ভেঙ্গে সজাগ হয়ে উঠে।

এতে করে হাঁটাচলা ও কষ্টকর।তাছাড়া এসব বেওয়ারিশ কুকুর অপরের সঙ্গে ঝগড়া করতে গিয়ে ফসলি জমির ফসলেরও ক্ষতি সাধন করছে। বাড়ি ঘরের চারাদিকে এসব কুকুর আরামে ঘুমানোর জন্য বড় বড় গর্ত করে ফেলে। নিত্য সময় গর্ত ভরাট করতে গৃহস্হবাড়ির বউঝিদের মাটির জন্য দুর্গতি পোহাতে হচ্ছে। এসব বেওয়ারিশ কুকুর নিধন করার জন্য উপজেলার প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছেন ভোক্তভোগী মানুষেরা।

পরে বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বাঘটিকে 

জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধিঃ ২৯ জুন শনিবার রাত সাড়ে ৯টায় সিলেট তামাবিল মহাসড়কের সারীঘাট প্রেট্রোল পাম্প সংলগ্ন উত্তর পাশ্বের ব্রিজের সন্নিকটে গুরুত্বর অাহতবস্থায় একটি মেছোবাঘ পড়ে থাকতে দেখে পথচারি উপজেলার ঘিলাতৈল গ্রামের ইসমাইল মিয়া (২৫), কেন্দ্রী হাওর গ্রামের ছালেক অাহমদ (১৭) লামনী গ্রামের নাসির উদ্দিন (১৯) এবং মজুমদারপাড়ার রাশেল অাহমদ (১৬)৷
তারা তাৎক্ষনিক ভাবে মেছোবাঘটি অাটক করে জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশেকে খবর দেয়৷ খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ ময়নুল জাকির এর নির্দেশে এ.এস.অাই তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মেছোবাঘটি উদ্ধার করে জৈন্তাপুর মডেল থানায় নিয়ে অাসে৷ অপর দিকে অফিসার ইনচার্জ বন বিভাগকে খবর দিলে সারী রেঞ্জের অফিসার থানায় পৌছালে মেছো বাঘটি পুলিশ বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করে৷
অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মইনুল জাকির বলেন- সংবাদ পেয়ে দ্রুত মেছো বাঘটি মারাত্বক অাহতবস্থায় উদ্ধার করে বন বিভাগকে সংবাদ দেই৷ বন বিভাগের লোকজন থানায় অাসলে অামি মেছোবাঘটি তাদের নিকট হস্থান্তর করি৷ তবে বাঘটি মারাত্বক অাহত কোনগাড়ী হয়ত বাঘটিকে চাপা দিয়ে ফেলে গেছে৷

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ ৩০ জুন ২০১৯ তারিখ সকাল সাড়ে ৯টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ এর সভাপতিত্বে মাসের মাসিক স্টাফ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জেলা প্রশাসক ই-নথি বিষয়ক কার্যক্রম এবং শাখা ভিত্তিক পত্রগ্রহণ ও নিষ্পত্তি বিষয়ে আলোচনাপূর্বক প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

সভা শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও তার অধীনস্থ কার্যালয় সমূহে কমর্রত কর্মকর্তা কর্মচারীদের দাপ্তরিক পরিচয়পত্র প্রদান করা হয়।

এ সময় সুনামগঞ্জ স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক মোহাম্মদ এমরান হোসেন,অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হারুন অর রশীদ, সুনামগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম,জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে কমর্রত সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় অংশ গ্রহনকারীদের একাংশ

মানববন্ধনে অপরাধীর দ্রুত শাস্তির দাবী করেন বক্তাগণ 

সাদিক আহমেদ,স্টাফ রিপোর্টার:  শ্রীমঙ্গলের এক সাংবাদিক ও অনলাইন প্রেসক্লাবের সদস্য সুধীপ কৈরীকে হত্যার হুমকী দেয়ার প্রতিবাদে “শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব”র আয়োজনে আজ রোববার শহরের চৌমুহনা চত্বরে বেলা সাড়ে দশ ঘটিকায় এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।এসময় সাংবাদিককে হুমকীদাতা অজ্ঞাত ব্যক্তির পরিচয় বের করে আইনের আওতায় এনে অবিলম্বে শাস্তি কার্যকর করার দাবী জানান তারা।
শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ আনিছুল ইসলাম আশরাফী বলেন,”যেকোনো সাংবাদিককে হুমকী দেয়া অন্যায়।যদি কোনো সাংবাদিক আক্রোশ মূলক কোনো সংবাদ কারো বিরুদ্ধে প্রচার করে তবে তার জন্য আইনী ব্যাবস্থা রয়েছে।এছাড়া অনলাইন প্রেসক্লাবের সাথে জড়িত হলে সেটার জন্য আমরা রয়েছি আমাদেরকে বলুন কিন্তু তা না করে হুমকি দামকি দিয়ে কলম বন্ধ করা যায় না যাবে ও না,আমরা প্রশাসনের প্রতি উপযুক্ত  ব্যবস্থার দাবী করছি।
অনলাইন প্রেসক্লাব সহ-সভাপতি রোমান আহমেদ চৌধুরী বলেন,”আমাদের সাংবাদিককে হত্যার হুমকী কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায়না।আমি শ্রীমঙ্গলবাসীকে বলতে চাই আমরা যেকোনো পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে প্রস্তুত।আমি প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি”।

উল্লেখ্য,সুদীপ কৈরী শ্রীমঙ্গল উপজেলার সাতগাও চা বাগানের বাসিন্দা।তিনি অনলাইন গণমাধ্যম “চা-শ্রমীক ডটকম”এর  রিপোর্টার হিসেবে দায়িত্বরত আছেন।
সুধীপ কৈরী জানান,”গত ২১ জুন সন্ধ্যা ৭:৫৮ মিনিটে অপরিচিত একটি নাম্বার থেকে আমাকে হত্যার হুমকী দেয়া হয়।এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল থানায় আমি একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি নং- ১৩৭৫) করেছি।আমি এই ঘটনার সুষ্টু বিচার দাবী করছি”।

অপরদিকে শ্রীমঙ্গল থানার ওসি আব্দুস ছালেক দুলাল  আমার সিলেট কে জানান, “যে বা যারা হত্যার হুমকি দিয়েছে বা দিবে তাদের বিরুদ্ধে আমরা যথাযত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।”

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের কয়েক দিনে অতি বৃষ্টি  ও পাহাড়ী ঢলে ক্ষতিগ্রস্থ ১শত পরিবারে মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে।
শনিবার দুপুরে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের মঙ্গলকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ে ক্ষতিগ্রস্থ ১০০ পরিবারের হাতে ১০কেজি চাল, কেজি মুড়ি, কেজি চিড়া, কেজি চিনি, কেজি তুস্ট বেস্কিট, ১ডজন মোমবাতি, ১ডজন মেস, তুলে দেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ।
এসময় উপস্থিত ছিলেন,সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়াসমিন নাহার রুমা, জেলা ত্রাণ কর্মকর্তা ফরিদুল হক, সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুসরাত ফাতেমা, নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট আসিফ আল জিনাত, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মো.মানিক মিয়া, জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মকসেদ আলী, মঙ্গলকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.নরুল ইসলাম প্রমুখ।

এম এস জিলানী আখনজী, চুনারুঘাট:  হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় একটি পোল্ট্রি ফার্মে অগ্নিকান্ডের ঘটনায়
পুড়ে গেছে ১ হাজার মুরগি। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৪ লক্ষ টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে ধারণা করছে ওই ফার্মের মালিক মোঃ মুহিত মিয়া।

২৯ জুন শনিবার দুপুর ২টায় উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের কোনাগাওঁ গ্রামের রাইছমিল বাড়ীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুর রউফের ছেলে মুহিত মিয়ার পোল্ট্রি ফার্মে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

এলাকার পাড়া-প্রতিবেশী সুমন মিয়া জানান, আজ (২৯ জুন) শনিবার বেলা ২টার দিকে ঘর থেকে বের হয়ে দেখি ফার্মে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলছে। আর স্থানীয়রা আসার পূর্বেই অগ্নিকান্ডে সব কিছু পুড়ে তছনছ হয়ে যায়।

ফার্ম মালিক মুহিত মিয়া জানান, ১০ থেকে ১২ বছর যাবত এ ব্যবসা আমি করে আসছি কিন্তু কোনদিন এ ধরনের অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেনি। তিনি আরও জানান, মুরগির পাশাপশি ফার্মের ভিতরে থাকা ফ্যান, আসবাবপত্র ও মুরগির খাদ্যের বস্তাসহ কোন কিছুই রক্ষা পায়নি আগুন থেকে।

ক্ষয়ক্ষতির বিষয় ও কিভাবে আগুন লেগেছে জানতে চাইলে তিনি জানান, ১ হাজার মুরগিসহ ফার্মের অবকাঠামো পুড়ে গেছে। আগুন কিভাবে লেগেছে সে বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। তবে এলাকাবাসী বলছে, হতে পারে বিদ্যুতের তার থেকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এখন তার পথে বসা ছাড়া আর কোন উপায় নেই।

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে ‘এনা পরিবহন’র বাসের চাপায় পারভেজ মিয়া (১৫) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছেন। আজ শনিবার (২৯ জুন) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মহাসড়কের কদমতলী এলাকায় এ দূর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত পারভেজ ওই এলাকার ব্যবসায়ী কবির মিয়ার ছেলে।
শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান- বিকালে পাভেজ তার বাবার দোকানে যাচ্ছিল। এ সময় মহাসড়কের পাশ দিয়ে হাটার সময় দ্রুতগতির একটি ‘এনা পরিবহন’র বাস তাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে হাইওয়ে থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করে। তবে এ ঘটনায় ঘাতক বাসটিকে আটক করা সম্ভব হয়নি বলেও জানান তিনি।

এম ওসমানঃ বেনাপোল চেকপোস্টে এক পাসপোর্ট যাত্রীর কাছে থেকে টাকা ছিনতাই করার অভিযোগে রবিউল ইসলাম (২৫) ও রকি (২৮) নামে ২ ছিনতাইকারীকে আটক করেছে বিজিবি। এসময় ছিনতাইকারীদের কাজ থেকে ২১ হাজার টাকা উদ্ধার করে পাসপোর্ট যাত্রীকে টাকা বুঝিয়ে দিলেন বিজিবি।

নামপ্রকাশ না করার শর্তে চেকপোস্ট এলাকার অনেকেই জানিয়েছেন বিজিবির হাতে আটক রবিউল ও রকি শুধু ছিনতাই করে না এখানে বড় একটি দল আছে তারা সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ভারত-বাংলাদেশ যাতায়াতকারী পাসপোর্ট যাত্রীদের টার্গেট করে কখনো বাস টার্মিনালের ভিতর কখনো প্যাচেঞ্জার টার্মিনালের সামনে আবার জোর করে ইজিবাইকে তুলে ছিনতাই করে পালিয়ে যায়।

এদের কয়েকজনের চেকপোস্টে বিভিন্ন নামে এন্টার প্রাইজ আছে। পাসপোর্ট যাত্রীরা বাস থেকে নামার সাথে সাথে ঐ ছিনতাইকারীরা তাদের জোর করে ধরে বর্ডারের কাজ করে দেওয়ার কথা বলে ওই সমস্ত এন্টার প্রাইজে নিয়ে বলে কাছে কত টাকা আছে দেন ভারত যেতে হলে এন্ট্রি করতে হবে। এরপর টাকা নিয়ে অভিনব কায়দায় টাকা গুনতে গুনতে বসে থাকা চেয়ারের কাছে ফেলে দেয়।
যদি কারো ২০ হাজার টাকা থাকে সেখান থেকে ৫/৬ হাজার টাকা ফেলে দিয়ে তাকে বলে আপনার টাকা গোনেন ভুল আছে। এরা সংখ্যায় বেসি হওয়ায় পাসপোর্ট যাত্রী নিরবে চোখ মুছতে মুছতে চলে যায়।
আজ ২১ হাজার টাকা ছিনতাই হওয়ার কাহিনী তুলে ধরা হলো রংপুর জেলার তারাগঞ্জ উপজেলার পলাশবাড়ি গ্রামের মুহিন চন্দ্রের ছেলে কনক চন্দ্র ভারতে চিকিৎসার জন্য বেনাপোল চেকপোস্টে বাস থেকে নামার পর রকি নামে এক ছিনতাইকারী তাকে ধরে বেনাপোল চেকপোস্টে চৌধুরী মার্কেটে অবস্থিত রিয়াদ এন্টার প্রাইজ যার
প্রোপ্রাইটার রবিউল ইসলাম সেখানে নিয়ে যান।
পরে পাসপোর্ট নিয়ে কত টাকা আছে এন্ট্রি করতে হবে বলে তার কাছে থাকা একলক্ষ টাকা বের করে নেয়। এরপর গুনতে গুনতে ২১ হাজার টাকা সরিয়ে ফেলে পরে তাকে বলে আপনি বাড়ি থেকে টাকা কম এনেছেন। এর পর একটি কুলির মাধ্যমে ভারতে পাঠিয়ে দেয়। এই কুলি বাংলাদেশ পুলিশ ও কাস্টমসের কাছে কিছু বলার সুযোগ দেইনি। পরে সে ভারতীয় বর্ডারে গিয়ে ইমিগ্রেশন পুলিশের নিকট সব খুলে বললে তারা তাকে বিজিবির কাছে পাঠান। বিজিবি ঐ এন্টার প্রাইজে অভিযান চালিয়ে ছিনতাইকারী রকি ও রবিউল ইসলামকে আটক করেন ।এসময় তাদের কাছ থেকে ২১ হাজার টাকা উদ্ধার করেন বিজিবি।
এ ব্যাপারে বিজিবি’র বেনাপোল আইসিপি কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার বাকী বিল্লাল জানান, ছিনতায় হওয়া টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোরের শার্শার জামতলায় বাসের ধাক্কায় গরু বহনকারী নসিমন চালকের মৃত্যু হয়েছে। এসময় একজন গরু ব্যবসায়ী মারাতœক আহত হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় নাভারন-সাতক্ষীরা মহাসড়কের শার্শার জামতলা বাজারে এই দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত টুটুল হোসেন (৩৮) ঝিকরগাছা উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে। এসময় স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় গরু ব্যবসায়ী ঝিকরগাছার শফিকুল ইসলামকে (৩০) উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে ।
নাভারন হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক রফিক উদ্দিন বলেন, টুটুল নসিমনে গরু নিয়ে ঝিকরগাছা থেকে সাতমাইল পশুহাটে যাচ্ছিলেন। জামতলা বাজারে পৌঁছালে যশোর থেকে ছেড়ে আসা সাতক্ষীরাগামী একটি বাস (যশোর-জ ১১-০১২৫) নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পিছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই নসিমন চালক টুটুল নিহত হয়। বাসের চালক ও তার সহকারি পালিয়েছে তবে বাসটি আটক করা হয়েছে ।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ শনিবার (২৯ জুন) সকাল সাড়ে ১১ ঘটিকায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের মণিপুরী ললিতকলা একাডেমী অডিটোরিয়ামে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী মণিপুরী শিশুদের মাতৃভাষায় প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা বিষয়ক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।
মণিপুরী ললিতকলা একাডেমীর উপ-পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ও কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশেকুল হকের সভাপতিত্বে ও গবেষণা কর্মকর্তা প্রভাস চন্দ্র সিংহর স ালনায় সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. ফারজানা সিদ্দিকা। বিশেষ অতিথি ছিলেন লেখক-গবেষক ড. রণজিৎ সিংহ, লোক গবেষক আহমদ সিরাজ, মাধবপুর ইউপি চেয়ারম্যান পুষ্প কুমার কানু, মণিপুরী সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনন্দ মোহন সিংহ, কমলগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি বিশ্বজিৎ রায়, মণিপুরী ভাষা উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি রসমোহন সিংহ।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মণিপুরী ললিতকলা একাডেমীর গবেষণা কর্মকর্তা প্রভাস চন্দ্র সিংহ। আলোচনায় অংশ নেন প্রভাষক রাবেয়া খাতুন, মণিপুরী সমাজ কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক কমলা বাবু সিংহ, সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, মোনায়েম খান, নির্মল এস পলাশ, মণিপুরী পত্রিকা পৌরীর সম্পাদক শিক্ষক সুশীল কুমার সিংহ, শিক্ষক রানা রঞ্জন সিংহ , মল্লিকা দেবী প্রমুখ।

সেমিনারে বক্তারা মাতৃভাষার পাশাপাশি দেশে বসবাসরত ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সকল জাতিসত্তার নিজস্ব ভাষা রক্ষা, বাংলাদেশে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার ক্ষেত্রে মণিপুরী বিষ্ণুপ্রিয়া এবং মণিপুরী মীতৈ ভাষাকে অন্তর্ভূক্ত করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবী করে বলেন, প্রাথমিক স্তরে প্রতিটি শিশুর মাতৃভাষায় শিক্ষা গ্রহণ করা একটি ন্যায্য অধিকার।

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় ও মণিপুরী ললিতকলা একাডেমীর আয়োজনে এ সেমিনারে মণিপুরী জনগোষ্ঠীর সামাজিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এস এম সুলতান খান চুনারুঘাট থেকেঃ  চুনারুঘাটে স্কুল ছাত্রী অপহরণের অভিযোগে পিতা-পুত্রের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা দায়ের করার ২৯ দিন পর উদ্ধার করেছে চুনারুঘাট থানা পুলিশ।
পুলিশ সূত্র জানায় উপজেলার ২নং আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের কালিশিরী গ্রামের ইয়াছিন মিয়ার মেয়ে অগ্রণী উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী (১৩) কে গত ২৯ মে রাত সাড়ে ৮টায় তার নিজ বাড়ী থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। অপহরণের পর অপহৃতার পিতা ইয়াছিন মিয়া বাদী হয়ে গত ২৬ জুন একই উপজেলার ৩নং দেওরগাছ ইউনিয়নের ইনাতাবাদ গ্রামের সোহাগ মিয়া (১৬) ও তার বাবা কামাল মিয়ার বিরুদ্ধে চুনারুঘাট থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন।
এ মামলার প্রেেিত থানার এসআই আলামিন অভিযান চালিয়ে গতকাল ২৯/০৬/২০১৯ইং তারিখ দুপুরে অপহরণকারীর বাড়ী হইতে অপহৃতা স্কুল ছাত্রী কে উদ্ধার করেন। বর্তমানে অপহৃতা স্কুল ছাত্রী চুনারুঘাট থানা হাজতে রয়েছে। রবিবার ডাক্তারী পরীার জন্য মেডিকেল ও আদালতে প্রেরণ করা হবে বলে পুলিশ জানায়।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc