Friday 26th of April 2019 08:44:13 PM

বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রসংসদ নির্বাচন স্থগিত থাকায় ছাত্ররাজনীতি কলুষিত হচ্ছে এবং উপযুক্ত নেতৃত্ব সৃষ্টি হচ্ছে না। ছাত্রসংসদ নির্বাচন নিয়মিত হলে দেশে ছাত্ররাজনীতির সুষ্ঠু পরিবেশ যেমন নিশ্চিত হতো তেমনি দেশের নেতৃত্ব দেয়ার জন্য যোগ্য ও নিবেদিত নেতা পাওয়া যেত। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্রদের প্রতিনিধিত্বশীল নির্বাচিত সংসদ থাকলে যৌন নিপীড়নের ঘটনাও ঘটতো না। তিনি অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও মাদরাসায় ছাত্রসংসদ নির্বাচন দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা সরকারী হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ শাখার কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর আওতাধীন সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ শাখার প্রতিনিধি সম্মেলন ও কাউন্সিল আজ ১৫ এপ্রিল সোমবার সকাল ১০টায় চেরাগীপাহাড়স্থ সুপ্রভাত স্টুডিও হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ছাত্রনেতা মুহাম্মদ তৌহিদুল হকের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ শফিউল আলম। উদ্বোধক ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তরের নির্বাহী সদস্য মুহাম্মদ আনোয়ার পারভেজ শিকদার।

প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সহ সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মদ ফোরকান রেজা। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তরের সদস্য সৈয়দ মুহাম্মদ লিয়াকত আলী, বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তরের শিক্ষা প্রশিক্ষণ সম্পাদক হাফিজ মুহাম্মদ আবদুল হামিদ রজভী , ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তরের সাবেক সভাপতি মুহাম্মদ মাছুমুর রশিদ কাদেরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, মুহাম্মদ সাইফুল আলম, মুহাম্মদ শিহাব উদ্দীন। নির্বাচন কমিশনার ছিলেন মহানগর উত্তর ছাত্রসেনার সাংগঠনিক সম্পাদক ছাত্রনেতা মুহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন। বিশেষ বক্তা ছিলেন ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তরের সদস্য ছাত্রনেতা মুহাম্মদ আহমদুল হক।

হাফেজ মুহাম্মদ আতিকুল্লাহ ও মুহাম্মদ আজাদ হোসেনের যৌথ স ালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন মুহাম্মদ জুবাইদুর রায়হান, মোরশেদুল আলম, মহসিন রেযা, কাজী শাহেদ, জাহাঙ্গীর, আইনান, ওমর ফারুক, নঈমুদ্দীন প্রমুখ। পরে সর্বসম্মতিক্রমে হাফেজ মুহাম্মদ আতিকুল্লাকে সভাপতি, মুহাম্মদ আজাদ হোসাইনকে সাধারণ সম্পাদক ও শাহেদকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৩১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। কাউন্সিলে বক্তারা বলেন, বর্তমানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যৌন নিপীড়নের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। যৌন নিপীড়ন রোধে ও নিপীড়কদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি নিশ্চিতের লক্ষ্যে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভূমিকা রাখতে হবে। প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতিনিধি নিয়ে যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেল গঠনের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জে পাচাঁরের সময় ১০লক্ষ টাকা মূল্যের ভারতীয় ২০টি গরু আটক করেছে বিজিবি। প্রতিদিনের মতো আজ সোমবার সকাল ৬টায় জেলার তাহিরপুর উপজেলার লাউড়গড় ও চাঁনপুর সীমান্তের রাজাই,কড়ইগড়া,বারেকটিলা ও যাদুকাটা নদীর তীর দিয়ে বিজিবির সোর্স পরিচয়ধারী মাদক ও চাঁদাবাজি মামলার জেলখাটা চিহ্নিত আসামীসহ শক্তিশালী সিন্ডিকেডের মাধ্যমে ১টি গরু থেকে চাঁনপুর বিজিবি ক্যাম্পের নামে ২ হাজার টাকা,লাউড়গড় ক্যাম্পের নামে ২ হাজার টাকা,থানার নামে ১৫শ টাকা,উত্তর বড়দল ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের নামে ১হাজার টাকা,সম্্রাট মেম্বারের নামে ৫শ টাকাসহ মোট ১০হাজার টাকা করে ৩০টি গরু থেকে সর্বমোট ৩ লক্ষ টাকা,৫ হাজার পিচ ইয়াবা থেকে ৫০হাজার টাকা ও ১২ কার্টন মদ পাচাঁরের জন্য ৬ হাজার টাকা চাঁদা নিয়ে ভারত থেকে এসব অবৈধ মালামাল পাচাঁর করার সময় খরব পেয়ে লাউড়গড় বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার হাবিব অভিযান চালিয়ে ২০টি গরু আটক করেন।

কিন্তু বাকি মালামালসহ উপরের উল্লেখিত চোরাচালানীদেরকে গ্রেফতার করতে পারেননি। অথচ উপরের উল্লেখিত চোরাচালানীদের বিরুদ্ধে একাধিক চাঁদাবাজি,কয়লা ও মাদক চোরাচালান মামলা রয়েছে।

চোরাচালানীরা সীমান্ত এলাকা দিয়ে এসব অবৈধ মালামাল পাচাঁর করার পর বাদাঘাট বাজার,কামড়াবন্দ,শিমুলতলা, লাউড়গড়,বিন্নাকুলি,চাঁনপুর,রজনীলাইন,দুধেরআউটা,লাকমা,লালঘাট ও তাহিরপুর সদরে নিয়ে ওপেন বিক্রি করেছে বলে জানাগেছে। এব্যাপারে চাঁনপুর ক্যাম্পের সোর্স পরিচয়ধারী চোরাচালানী আবু বক্কর বলেন,আমার বিরুদ্ধে মাদকের মামলা দিয়েই কিছু করতে পারেনি,পত্রিকায় লেখালেখি করলে আর কি হবে। লাউড়গড় ক্যাম্পের সোর্স পরিচয়ধারী নুরু মিয়া বলেন,দীর্ঘদিন জেলখেটে হাইকোর্ট থেকে ২বছরের স্থায়ী জামিন নিয়ে এসেছি,লেখালেখি করে আমাদের কি করতে পারেন দেখি।

এই ক্যাম্পের সোর্স নবীকুল মিয়া বলেন,যত পারেন লেখালেখি করেন,আমাদের কিছুই হবেনা। সুনামগঞ্জ ২৮ব্যাটালিয়নের বিজিবি অধিনায়ক মাকসুদুল আলম বলেন,চোরাচালান ও চাঁদাবাজি সাথে জড়িত ব্যক্তিদের হাতেনাতে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।আদমপুর এলাকার আধকানী গ্রামের মৃত কয়ছর মিয়ার পুত্র চার সন্তানের জনক শাহীন মিয়াকে (৩৫) তার স্ত্রী রোজিনা বেগমসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন বাড়িতে ডেকে নিয়ে নির্মমভাবে নির্যাতন করে প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে মৌলভী বাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে যায় বলে জানান নিহত শাহীনের ভাই কদরিছ মিয়া ।

এদিন রাত সাড়ে ন’টায় কর্তব্যরত চিকিৎসক শাহীনকে মৃত ঘোষণা করেন । এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তিনি ।বিস্তারিত আসছে।

“ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইম মামলা করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন”

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ জীবন দিয়েছে তবু অন্যায়ের সাথে আপোষ করেনি অগ্নিসন্ত্রাসের শিকার হয়ে নিহত মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি।অথচ তার বক্তব্য ভিডিও করে প্রচার করে স্থানীয় থানার ওসি মোয়াজ্জেম। বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশের ফলে সোনাগাজীর সাবেক ভারপ্রাপ্ত  ওই কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে মামলা করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী বৃহত্তর সিলেট বিভাগের হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার কৃতি সন্তান ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

ওসি মোয়াজ্জেমের করা ভিডিও থেকে নেওয়া স্কিনশর্টে দেখা যায় লজ্জায় বারবার মুখ ঢাকছে।  

সোমবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকার সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে বাদী হয়ে মামলাটি করেন তিনি। মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ২৭ মার্চ সকাল ১০টার দিকে অধ্যক্ষ তার অফিসের পিয়ন নূরুল আমিনের মাধ্যমে ছাত্রীকে ডেকে নেন। পরীক্ষার আধঘণ্টা আগে প্রশ্নপত্র দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে লাঞ্ছিত করার চেষ্টা করেন অধ্যক্ষ। পরে পরিবারের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার হন তিনি।

যৌন হয়রানির অভিযোগ করতে যাওয়ার পর সোনাগাজী থানার তৎকালীন ওসির কক্ষে আরেক দফা হয়রানির শিকার হতে হয়েছিলো নির্জাতিত নুসরাতকে। ওসি নিয়ম না মেনে জেরা করতে করতেই নুসরাতের বক্তব্য ভিডিও করেন। মৌখিক অভিযোগ নেওয়ার সময় দুজন পুরুষের কণ্ঠ শোনা গেলেও সেখানে নুসরাত ছাড়া অন্য কোনো নারী বা তার আইনজীবী ছিলেন না।বার বার লজ্জায়  দু’হাতে মুখ ঢাকার চেষ্টা করলেও নির্লজ্জের মত ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন তার দুর্বলতার সুযোগে অসৎ উদ্যেশে ভিডিও করে প্রচার করে।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হবিগঞ্জ জেলার কৃতি সন্তান ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

যৌন হয়রানির অভিযোগ করার সময় ভিডিও ধারণের ঘটনায় ওসির বিরুদ্ধে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে এই মামলা করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। ইতিমধ্যে তিনি সমাজের বিভিন্ন অসংগতি নিয়ে ফেসবুকে লাইভ করে আলোচিত হয়েছেন।

লইয়ার্স ক্লাব সুত্রে জানা যায়, মামলার বিষয়ে ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন সাংবাদিদের বলেন, কেরোসিন ঢেলে গায়ে আগুন দিয়ে নুসরাত জাহান রাফিকে হত্যার পূর্বে সে যখন থানায় ওসি সাহেবের রুমে অভিযোগ করতে যান তখন সহযোগিতার বদলে ওসি তাঁকে আপত্তিকর প্রশ্ন করেন। পাশাপাশি সেই কথোপকথনের ভিডিও করে অসৎ উদ্দেশে তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছেন। এই অভিযোগে মামলা দায়ের করেছি।

ব্যারিস্টার  আরও জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৬, ২৯ ও ৩১ ধারায় সেই ওসির বিরুদ্ধে মামলা করেছি।

ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন আরও  বলেন, এসব অভিযোগ তুলে ধরে আমরা আদালতকে বলার চেষ্টা করেছি ওসি সাহেবের রুম যদি নিরাপদ না হয় তাহলে দেশের মানুষ ওসি সাহেবের রুমে যাবে না। আর ওসি সাহেবের রুম যদি নিরাপদ না হয় তাহলে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করা যাবে না। এভাবে চলতে থাকলে ভিকটিমরা থানায় যাওয়াই বন্ধ করে দেবেন।

এর আগে, সকালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ওসির বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করেন আইনজীবী সুমন। বেলা ২টায় এ আবেদনের বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। আদালত তার জবানবন্দি গ্রহণ করে এ বিষয়ে আদেশ পরে দেবেন বলে জানান।

ফেনীর সোনাগাজীর ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত আক্তার রাফিকে যৌন হয়রানির অভিযোগে গ্রেফতার হন অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা। এরপর থেকেই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য নুসরাতের পরিবারের ওপর নানা ধরনের চাপ আসছিল।

গত ৬ এপ্রিল পরীক্ষার আগ মুহূর্তে মিথ্যা কথা বলে নুসরাতকে মাদ্রাসার ছাদে ডেকে নিয়ে গিয়ে তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেওয়া হয়। শরীরের প্রায় ৮০ শতাংশ পুড়ে যায় তার।অবশেষে গত ১০ এপ্রিল ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন নুসরাত।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দলের কারাবন্দি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি নিয়ে রাজনীতিতে যে আলোচনা চলছে সেটা একান্তই খালেদা জিয়া এবং তার পরিবারের বিষয়।

আজ (সোমবার) দুপুরে রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের নবগঠিত কেন্দ্রীয় কমিটির নেতাদের নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জিয়ার সমাধিতে আসেন। জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারতের পর বিএনপি মহাসচিব সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

এ সময় খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্যারোল আমাদের দলের বিষয় না, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ- এটা তার একটা বিষয়। আরেকটা তার পরিবারের বিষয়। সুতরাং এটা নিয়ে আমরা কোনো আলোচনা করিনি।’

হুইল চেয়ারে খালেদা জিয়া

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আন্দোলন কর্মসূচি দেয়া হচ্ছে না, তৃণমূল নেতাকর্মীরা এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন- সাংবাদিকদের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে ফখরুল বলেন, ‘ব্যাপারটা হচ্ছে আন্দোলনের বিভিন্ন ধাপ থাকে, কৌশল থাকে, আন্দোলন বলতে শুধু হরতাল জ্বালাও-পোড়াও বোঝায় না। আমরা আন্দোলন বলতে বুঝি জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সোচ্চার হতে হবে। সেটাকে আমরা আন্দোলন বলছি। তার জন্য আমরা কাজ করছি। তার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। ইনশাল্লাহ দেশনেত্রীকে এবং গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে আমরা সক্ষম হব।’

তিনি বলেন, আমাদের গণতান্ত্রিক আন্দোলন চলমান রয়েছে। গণতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার এবং দেশনেত্রীকে মুক্ত করতে আমরা আজকে শপথ নিয়েছি আমাদের আন্দোলন বেগবান করব।

এ সময় ফখরুল জানান, বাংলা নববর্ষে তিনিসহ দলের তিনজন নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।

তিনি বলেন, অনেকদিন পর গতকাল বাংলা নববর্ষে প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী সীমিত পরিসরে আমরা তিনজন দেখা করার অনুমতি পেয়েছি। এ সময় মূলত তার স্বাস্থ্য, চিকিৎসা ও তার মামলার আইনগত দিকগুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, দেশনেত্রী দলের খোঁজখবর নিয়েছেন, দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে ও জাতীয় ঐক্য অটুট রাখতে বলেছেন এবং দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।সুত্রঃ পার্সটুডে

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাইয়ে ইয়াবাসহ সাখয়াৎ (৩২) নামে এক মাদক সেবনকারীকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত সাখয়াৎ উপজেলার মনিয়ারী ইউনিয়নের বরসাওতা গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের মোবারক ছেলে।

সোমবার সকালে তাকে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে আত্রাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোবারক হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এস আই প্রদীপ ও এএসআই ছাইফুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ রবিবার সন্ধ্যায় উপজেলার বরসাতা এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় ৬ পিচ ইয়াবাসহ সাখয়াৎকে আটক করা হয়।

তিনি আরও জানান, তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং সোমবার তাকে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ভারতের আগরতলা থেকে প্রকাশিত দৈনিক সংবাদ এর বাংলাদেশ প্রতিনিধি ও ‘ইন্ডিয়ান মিডিয়া করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ইমক্যাব) এর সদস্য সাহিদ সিরাজীর (৫৯) মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে ইমক্যাব।সংগঠনের সভাপতি বাসুদেব ধর ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সবুজ এক বিবৃতিতে মরহুমের আত্মার শান্তি কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি
সমবেদনা জানিয়েছেন।
গত শনিবার বিকেল ৫ টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের কৃতি সন্তান সাংবাদিক সাহিদ সিরাজী। তিনি এপিপি বাংলা নিউজ পোর্টালের সম্পাদক ছিলেন। সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি মানবাধিকার কর্মি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। রোববার বেলা ১১ টায় হরষপুর খেলার মাঠে মরহুমের নামাযে জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক কবর স্থানে সমাহিত করা হয়। সাংবাদিক সাহিদ সিরাজী মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। তিনি স্ত্রী, ৫ মেয়ে ও ৩ ছেলে সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc