Tuesday 23rd of July 2019 08:10:20 PM

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঢাকার কাঁচপুর ব্রীজে সড়কের শৃঙ্খলা ফেরাতে গিয়ে ট্রাকচাপায় নিহত চুনারুঘাটের এসঅাই ফরিদকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় পারিবারিক কবরস্থানে দাপন করা হয়েছে।
শুক্রবার (১২ এপ্রিল) বিকাল ৫টায় আহম্মদাবাদের গেড়ারুক গ্রামে নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক করবস্থানে দাপন করা হয়েছে।
তিনি হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার ২নং আহমদাবাদ ইউনিয়নের গেড়ারুক গ্রামের বাসিন্দা। বাংলাদেশ পুলিশের এসআই পদে ঢাকার ডেমরা থানায় কর্তব্যরত ছিলেন।
উল্লেখ্য: শুক্রবার দিবাগত রাতে ঢাকার কাঁচপুর নামক স্থানে সড়কে শৃংখলা ফেরাতে গিয়ে ফরিদ মিয়া নিহত হন।

হাবিবুর রহমান খান,জুড়ী প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের জুড়ী থেকে প্রায় তিন ঘন্টার মধ্যে মোটরসাইকেলসহ তিন চোরকে আটক করেছে জনতা। পরে তাদেরকে  স্থানীয়  পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে কুলাউড়ার ভাটেরা স্টেশন বাজার থেকে তাদের আটক করা হয়েছে। আটককিতরা হলেন- হবিগঞ্জের মাধবপুরের করকী (সাব বাড়ী গেট) গ্রামের তাহের আলীর ছেলে বাচ্চু মিয়া, দিঘলবাক গ্রামের লাল মিয়া বাবুর্চির ছেলে আবজল মিয়া ও সিলেটের দক্ষিণ সুরমার বরইকান্দি গ্রামের কয়েছ মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া।

মোটরসাইকেলের মালিক আদনান আহমদ বলেন, শহরের বিজিবি ক্যাম্প চত্ত্বর থেকে সন্ধ্যা প্রায় ৮ ঘটিকার সময় ডিসকভার মোটরসাইকেল চুরি হয়। সঙ্গে সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে খবরটি ছড়িয়ে পড়ে। রাত ১১টায় সিলেট যাওযার পথে কুলাউড়ার ভাটেরায় মোটরসাইকেলসহ এক চোরকে আটক করে জনতা। পরে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে জড়িত দুইজনকে আটক করা হয়।

জুড়ী থানার ওসি মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা প্রায় ৮ টার সময় বিজিবি ক্যাম্প চত্ত্বর থেকে ডিসকভার মোটরসাইকেল চুরি হয়। সঙ্গে সঙ্গে আমাদের কাছে কল আসে। রাত ১১টায় সিলেট যাওযার পথে কুলাউড়ার ভাটেরায় মোটরসাইকেলসহ এক চোরকে আটক করা হয়। মোটরসাইকেল চুরিতে বড় একটি চক্র জড়িত রয়েছে । এদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করছি আমরা। আদনান হোসেনের মোটরসাইকেল চুরির ঘটনায় মামলা হয়েছে, মামলা নং ১০, তারিখ ১২/০৪/২০১৯।

ফেইসবুকের গুরুত্বপুর্ন একটি স্ট্যাটাস থেকে নেওয়া নীচের লেখাগুলো।অনলাইনের বিভিন্ন সেক্টরে প্রায়ই দেখা যায় সাংবাদিক অমুক সাংবাদিক তমুক বলে নানা ধরণের বাহারি পেইজ,আইডি ,খুঁজলে দেখা যায় ৫০টি স্ট্যাটাসের একটি ও ৭০% বানানের বালাই নেই।যাই হোক তাই বলে কেহ সাংবাদিক নয় এ কথা বলা যাবে না তবে আর্থনিউজ টুয়েন্টি ফোর ডটকম এর এডিটর ফরহাদ আমিন মোহাম্মদ ফয়সলের আতশকাঁচের মাধ্যমে দেখা বর্তমান সময়ের সাংবাদিকদের করনীয় ও বর্জনীয় কিছু তথ্যের অবতারনা।নিম্নে দেখুন-

“একজন সাংবাদিক হওয়া খুব একটা সহজ নয়। একজন সাংবাদিক মানে জাতীর বিবেক। জাতীকে সুন্দর ও সঠিক পথে অনুপ্রাণিত করাই একজন প্রকৃত সাংবাদিকের নিত্যদিনের কাজ। সমাজের অসংগতিগুলিকে বাস্তব সম্মত ও তথ্যভিত্তিক জনসম্মুখে নিয়ে আসা এবং সমধানের পথ বাতলে দেওয়াই একজন সাংবাদিকের কাজ। অন্যকে কিছু দিতে হলে নিজের কিছু থাকতে হবে।

আমি এখানে এটি বুঝাতে চেয়েছি- সঠিক পথের সন্ধান দিতে হলে , পথ টা আপনাকে চিনতে হবে। তবেই আপনি অন্যকে সঠিক পথ বলে দিতে পারবেন। তার জন্য প্রয়োজন প্রচুর স্টাডি। যা একজন প্রকৃত সাংবাদিক করে থাকে।

যেহেতু আমি ওয়েব ডিজাইনের ব্যবসায় জড়িত, বিভিন্ন পত্রিকা তথা গণমাধ্যমের অনলাইন ভার্সনের কাজ করার সুবাধে ঢাকা ও চট্টগ্রামের অনেক সিনিয়র সাংবাদিকের বাসায় বা অফিসে যাওয়ার সুযোগ হয়েছে। অধিকাংশ সিনিয়র সাংবাদিকের বাসা বা অফিসকে আমার কখনো বাসা বা অফিস মনে হয়নি, যেন একেকটা বড় বড় পাঠাগার।
আর টেবিল টা কখনো মনে হয়নি একটি অফিস টেবিল, বরাবরই মনে হয়েছে কোন মনযোগী ছাত্রের পড়ার টেবিল। যেখানে পড়ে থাকে সবসময় বই আর খাতা কলম।
তখন বুঝতে অসুবিধা হয়না ওনাদের লিখনি এত শক্তিশালী কেন, এত জ্ঞান কোথা থেকে কিভাবে আহরণ করে।

তাই বলছি “আমি সাংবাদিক” বলার আগে, একটু ভেবে বলা উচিত নয় কি। এটি আমার সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত অভিমত।”

লিমন ইসলাম. প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রটোকল অফিসার-২ এর দায়িত্ব পেয়েছেন মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার মো. আবু জাফর রাজু। বৃহস্পতিবার জনপ্রাসন মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে। রাজু কুলাউড়া উপজেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এবং বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর সাবেক এমপি মরহুম আব্দুল জব্বারের ছেলে। তিনি কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আসম কামরুল ইসলামের বড় ভাই।
উপসচিব দিলসাদ বেগম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, মো. আবু জাফর রাজুকে অন্যান্য প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের সাথে কর্ম সম্পর্ক পরিত্যাগ করে প্রধানমন্ত্রীর মেয়াদকাল বা তার সন্তুষ্ট সাপেক্ষে ৬ গ্রেড বেতন ভুক্তস্কেলের সর্বোচ্চ ধাপে প্রধানমন্ত্রীর প্রটোকল অফিসার-২ হিসেবে চুক্তিতে নিয়োগ দেওয়া হলো।
এদিকে বৃটেন থেকে মৌলভীবাজার জেলার সাবেক ছাত্রনেতা দৈনিক মৌলভীবাজার মৌমাছি কণ্ঠ ও ডেইলি সিলেট এর সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি এবং দৈনিক মৌলভীবাজার ডট কমের এডিটর সাংবাদিক মোহাম্মদ মকিস মনসুর এক বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর প্রটোকল অফিসার হওয়ায় আবু জাফর রাজুকে প্রবাস থেকে অভিনন্দন জানিয়ে উনার সুসাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেছেন.এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার প্রত্যয়ে মানণীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলার আলোর মিছিলকে এগিয়ে নিতে দেশে বিদেশে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন।।

এম ওসমান, বেনাপোল :  যশোরের শার্শার পাকশিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অজ্ঞাত রোগ (ম্যাস হিস্ট্রেরিয়ায়) আক্রান্ত হয়ে বহু শিক্ষার্থী অসুস্থ হওয়ার ঘটনায় প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে দায়িত্ব অবহেলার কারণে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলন ও বিক্ষোভ মিছিল বের হলে মুহুর্ত্বেই উত্তাল হয়ে যায় শিক্ষাঙ্গণসহ শার্শা।
মিছিলটি বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে শুরু করে মেইন সড়ক ধরে গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ শেষে অত্র বিদ্যালয়ে এসে শেষ হয়। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শ্লোগান ও প্লে­কার্ডের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমানের বহিস্কার করার জন্য জোর দাবি জানায়। মিছিল শেষে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এক ছাত্র জমায়েতের মাধ্যমে তাদের পাঁচ দফা দাবি তুলে ধরে।
(১) প্রধান শিক্ষকের বহিস্কার কর করতে হবে (২) ম্যানেজিং কমিটিকে রদবদল করতে হবে (৩) অসুস্থদের সু-চিকিৎসা ও  নায্য ক্ষতি পূরণ দিতে হবে (৪) অসুস্থ হওয়ার মূল কারণ তদন্ত সাপেক্ষে বের করে ব্যবস্থা নিতে হবে (৫) বিদ্যালয়ের অবৈধ নিয়ম-কানুন পরিবর্তন করতে হবে। এই পাঁচ দাবি মেনে নিলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন বন্ধ করে ক্লাসে মনযোগী হবে বলে শিক্ষার্থীরা জানান।
উত্তাল  শার্শাকে শান্ত করতে মুহুর্ত্বেও মধ্যে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন শার্শা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাসান হাফিজুর রহমান চৌধুরী ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যগন। বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী সকলের সাথে আলোচনা শেষে আগামী শনিবার সকাল ১০ টার সময় এ বিষয় নিয়ে আলোচনায় বসা হবে ও তাদের পাঁচটি দাবি মেনে নেয়ার আশ্বস্ত করলে শিক্ষার্থীরা সাময়ীক ভাবে আন্দোলন বন্ধ করে দেয়। পরিশেষে শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা মনে করি এই ঘটনা স্বাভাবিক নয়। তাই অতি দ্রুত বিষয়টি সমাধান না হলে আরো কঠোর আন্দলনে নেমে পড়বে শিক্ষার্থীরা।
উল্লেখ্য, গত বুধবার সকালে প্রতিদিনের ন্যায় ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাসে পাটদান চলাকালীন সময়ে  হঠাৎ করে অর্ধশতাধীক শিক্ষার্থীরা একের পর এক অসুস্থ্য হতে থাকে। এসময় সহকর্মীরা ও স্থানীয়রা তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে থাকে। কিন্তু পরিস্থিতি সামাল দিতে না পেরে অসুস্থ্য শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বাড়তে থাকলে তাদেরকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত চিকিৎসার জন্য শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে, চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ও যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠায়।
এদিকে স্থানীয়রা ও অসুস্থ্য শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা অভিযোগ করে বলেন, গত দু’দিন আগে স্কুলে সকল শিক্ষার্থীদের একটি করে ক্রিমীনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হয়। আর সে কারনেই শিক্ষার্থীরা অসুস্থ্য হয়ে পড়তে পারে। তবে ঘটনার সঠিক সত্যতা এখনও জনসাধারনের মাঝে অধরা।

চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ চুনারুঘাট উপজেলার মিরাশী ইউনিয়নে পূর্ব পীরেরগাঁও গ্রামের মৃত সিরাজ মিয়া জমাদারের পুত্র হাবিবুর রহমান খয়ার (২২), রাণীগাঁও ইউনিয়নের গাজীগঞ্জ গ্রামের মৃত আব্দুল কদ্দুছের পুত্র মোঃ মনির মিয়া (২৫) কে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নতুন ব্রীজ গোলচত্বর এলাকা থেকে ৪০ পিছ ইয়াবাসহ আটক করে চুনারুঘাট থানা পুলিশ।

চুনারুঘাট থানার পুলিশ এসআই আলী আজহার এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে দুই যুবককে আটক করে এ সময় তাদের শরীর তল্লাশী করে ৪০ পিছ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে চুনারুঘাট থানা পুলিশ বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে হবিগঞ্জ জেল কারাগারে প্রেরণ করে পুলিশ।

ওসি তদন্ত আলী আশরাফ ৪০ পিছ ইয়াবাসহ গ্রেফতারের বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করেন।

মৌলভীবাজারে সরকারি মেডিকেল কলেজ চাই ওয়াল্ড ওয়াইড ক্যাম্পেইন ওয়াটার্সআপ গ্রুপের উদ্দোগে গত ৯এপ্রিল সেন্ট্রাল লন্ডনের একটি কনফারেন্স হলে রাত ৭ ঘটিকায় ২৫ লক্ষ জনগণের প্রাণের দাবী  মৌলভীবাজারে সরকারী মেডিকেল কলেজ দ্রুত বাস্তবায়ন ও মৌলভীবাজার জেলাকে এ গ্রেডে পরিনত করা সহ দশ দফা দাবীতে এক সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

ক্যাম্পেইন গ্রুপের উপদেষ্টা কমিউনিটি লিডার ডক্টর ওয়ালি তসর উদ্দিন এমবিইর সভাপতিত্বে এবং ক্যাম্পেইন গ্রুপের এডমিনও গ্রুপ ক্রিয়েটার  সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ মকিস মনসুর ও মৌলভীবাজার জেলার সাবেক ছাত্রনেতা কামরুজ্জামান খাঁন কমরুর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত পোগ্রামে কমিউনিটি লিডার ও ব্যাবসায়ী আলহাজ্ব জালাল উদ্দিন, বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা হারুন উর রশিদ এডভোকেট, বৃটেনের বি সি এর সেক্রেটারি অলি খাঁন, মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আব্দুল  কাইয়ুম কায়সার. কাউন্সিলার মুজিবুর রহমান জসিম, বি সি এর সাবেক সেক্রেটারি  এম এ মুনিম, ট্রেজারার সাইদুর রহমান বিপুল, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মসুদ আহমদ, সাবেক কাউন্সিলার রহিমা রহমান, সৈয়দ সুরুক আলী  মাহমুদুর রহমান. নজরুল ইসলাম অকিব, মহিলা নেত্রী হেলেন ইসলাম, শেখ সালামত মিয়া, মোহাম্মদ আব্দুল মালিক, জয়নাল আবেদিন লিখন, শামীম চৌধুরী, মোহাম্মদ হিরু কোরেশী, মোশাহিদ রহমান, ফারুক আহমদ, মুন কুরেশি, মোস্তফা কামাল বাবলু  আব্দুর রুউফ তালুকদার, আলহাজ্ব শাহাদত মিয়া, সাংবাদিক রাকিব রুহেল, আলহাজ্ব আব্দুর রহিম, আবুল লেইস মনা, সৈয়দ সাহেদ আলী সপন, এম এ ওয়াকি সুহেল, দেওয়ান মসকুর চৌধুরী টুটুল, শাহ গোলাম কিবরিয়া, আন্দুল ওয়াহিদ বাবুল, আব্দুর রুউফ তালুকদার, নুরুল ইসলাম রেফুল মিয়া, সৈয়দ জুবেদ, আলী, রাধা ধর, নিয়াজ আহমদ লিটন, আমজদ হোসেন, আমিরুল চৌধুরী, আতিকুল ইসলাম, সাদিকুর রহমান, আব্দুর রব, সেলিম আহমদ, আব্দুস সালাম, গিয়াস আহমদ, শাহীন আহমদ, সৈয়দ জুয়েল আহমদ, নজরুল ইসলাম, সৈয়দ মোজাহিদ আলী মোহাম্মদ ফজলু মিয়া, শামসুল আলম খাঁন শাহীন, সৈয়দ এহসাম আলী, এম এ মুহিত, শেখ সুমন আহমদ  অনু দেব, হামিদা ইদ্রিস, সুফিয়া আলম, ইমরান শাফি, সদর উদ্দিন, সেলিম আহমদ, আব্দুল কাইয়ুম, হারুন রহমান, জিল্লুল চৌধুরী, সিপু আলম, কাহের চৌধুরী, সেলিম আহমদ, শাহজাহান আহমদ, সাংবাদিক জয়নাল ইসলাম, আব্দুল মুহিত, ইকবাল আহমদ, বাবলু আহমদ, মঈন উদ্দিন, বদরুল হক, সৈয়দ আখলাকুল আম্বিয়া রাবেল, রফু আহমদ, জাহেদ মিয়া, আমিরুল কায়েস, মোহাম্মদ ইউনুস আহমদ, শিবলু রহমান, তাজুল ইসলাম,  এস কে সালাম, শাহীন আহমদ, চৌধুরী, হাফিজ আহমদ, হারুন মিয়া, জমসেদ মিয়া, আব্দুল কাদির, এস রহমান বাবলু, ও শিবলু আহমদ সহ বৃটেনের বিভিন্ন শহর থেকে অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন চৌধুরী হাফিজ আহমদ, বাংলাদেশ থেকে টেলি কনফারেন্স বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান ও সম্মিলিত সামাজিক উন্নয়ন পরিষদ এর সভাপতি খালেদ চৌধুরী।
সভায় বক্তারা ঐতিহ্যবাহী মৌলভীবাজার জেলায় একটি সরকারী মেডিকেল কলেজের জন্য ১২ বছর ধরে ক্যাম্পেইন চালিয়ে আসছেন দাবি করে দ্রুত চুড়ান্ত অনুমোদনের জন্য মানণীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট জোর দাবী জানিয়েছেন।
মৌলভীবাজারে সরকারি মেডিকেল কলেজ চাই ওয়াল্ড ওয়াইড ক্যাম্পেইন ওয়াটার্সআপ গ্রুপ ক্রিয়েটার ও এডমিন বৃটেনের কমিউনিটি লিডার মৌলভীবাজার জেলার সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ মকিস মনসুর লিখিত বক্তব্যে মৌলভীবাজার জেলার ২৫ লক্ষ জনসাধারণের দশ দফা  দাবীগুলো তুলে ধরার পর উপস্থিত জনসাধারণ বিপুল করতালির মাধ্যমে তাহা অনুমোদন  করেছেন।
মৌলভীবাজার জেলাবাসীর দশ দফা দাবীগুলো হচ্ছেঃ-
১। মৌলভীবাজারে সরকারি মেডিকেল কলেজ দ্রুত চুড়ান্ত অনুমোদন।
২। শ্রীমঙ্গল-মৌলভীবাজার শহর-সিলেট নতুন রেল লাইন চালুর পরিকল্পনা গ্রহণ।
৩। মনু ও ধলাই নদীর বাধ পুন:নির্মাণ ও নদী খনন কাজ শুরু করা।
৪। মৌলভীবাজারের  ইকোপার্ক  উন্নয়নে  পরিকল্পনা গ্রহণ ও  মনু নদীর উপর নতুন আরেকটি সেতু নির্মাণ করা
৫। মৌলভীবাজার জেলার প্রধান সড়কগুলোকে চার লেনে উন্নীতকরণ।
৬। মৌলভীবাজার জেলায় একটি ল’ কলেজ /কারিগরী/পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন।
৭। শমশেরনগর বিমানবন্দরে অন্তত সাপ্তাহিক ফ্লাইট চালু।
৮। মৌলভীবাজার জেলার হাওরগুলোতে হাওর উন্নয়ন মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন।
৯। মৌলভীবাজার জেলা স্টেডিয়ামকে আধুনিকরণ ও সংস্কারকাজ সম্পাদন করা ও জেলা শহরে বিদ্যুতের  গ্রিড উপকেন্দ্র স্থাপন করা।
১০। মৌলভীবাজার জেলাকে এ গ্রেডে উন্নীত করতে আরেকটি উপজেলা গঠন ও জেলাকে পর্যটন জেলা ঘোষনা করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা।
মৌলভীবাজার জেলার উন্নয়নে এই দাবীগুলো বাস্তবায়নে মাননীয় পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন মহোদয় ও সম্মানিত জেলার সকল এমপিবৃন্দ, পৌরসভা মেয়রবৃন্দ ও  নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও  ভাইস চেয়ারম্যানবৃন্দ  এবং  রাজনৈতিক  সামাজিক সাংস্কৃতিক পেশাজীবি ও সাংবাদিক মহল সহ ও জেলার সকল ইউনিয়নের জন প্রতিনিধিরা অগ্রাধিকার, গুরুত্ব এবং সম্ভাবনার কথা বিবেচনায় এনে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণসহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করা হয়েছে এবং পূর্বের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বন পরিবেশও  জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী  জননেতা শাহাব উদ্দিন মহোদয়কে  জেলার  সকল সম্মানিত এমপি ও নেতৃবৃন্দের সমন্নয়ে ডেলিগেশন নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার সাথে দেখা করে মৌলভীবাজারে সরকারী মেডিকেল কলেজ দ্রুত বাস্তবায়নের চুড়ান্ত অনুমোদন সহ অন্যান্য দাবীগুলো বাস্তবায়নে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জোর দাবী জানানো হয়েছে।
পরিশেষে সভার সভাপতি গ্রুপের উপদেষ্টা কমিউনিটি লিডার  ড. ওয়ালি তসর  উদ্দিন সবাইকে সমাবেশ সফল করতে সহযোগীতা করেছেন সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেছেন। আগক্ষোর কনফার্ম করার বাহিরে ও অনুষ্ঠানে বৃটেনের বিভিন্ন শহর থেকে প্রচুর লোকের সমাঘম ঘটায় জায়গা সংকোলন না হওয়ায় অনেকেই হতাশ হয়ে ফীরত চলে গেছেন বলে জানা গেছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc