Tuesday 23rd of July 2019 07:42:49 PM

বিক্রমজিত বর্ধনঃ মৌলভীবাজারে জেলা শিল্পকলা একাডেমি কর্তৃক গুণীজন সম্মাননা-২০১৮ প্রদান করা হয়েছে। গত ৬ এপ্রিল শনিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় সাইফুর রহমান অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে লোকসংস্কৃতিতে জেলার কমলগঞ্জ গণমহাবিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রসময় মোহান্ত, সৃজনশীল সংস্কৃতি গবেষণায় শ্রীমঙ্গল উপজেলার কবি, সাহিত্যিক ও গবেষক প্রফেসর নৃপেন্দ্রলাল দাশ, কণ্ঠসংগীতে কুলাউড়া উপজেলার মীর মোহাম্মদ রানু সরকার, যাত্রাশিল্পে শ্রীমঙ্গলের বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ফুরকান উদ্দিন (বীর প্রতীক) এবং চলচ্চিত্রে মৌলভীবাজারের সৌমিত্র দেবকে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ সম্মাননা সহ প্রত্যেক গুণীজনকে নগদ দশ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ টেলিভিশনের নিয়মিত নৃত্যশিল্পী ও নৃত্যগুরু দ্বীপ দত্ত আকাশের পরিচালনায় নৃত্যনাট্য ‘ইছামতির বাঁকে’ পরিবেশিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সম্মাননাপ্রাপ্ত গুণীজনদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ। জেলা শিল্পকলা একাডেমির সভাপতি ও মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আজিজুর রহমান, পুলিশ সুপার বিপিএম, পিপিএম মোহাম্মদ শাহজালাল, মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. ফজলুল আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক (উপ সচিব) আসরাফুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান, দি চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মো. কামাল হোসেন ও আলোকধারার সভাপতি ডা. এম এ আহাদ।

জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক জ্যোতি সিন্হার স ালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন একাডেমির সাধারণ সম্পাদক এম এমদাদুল হক মিন্টু। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আব্দুল মোহিত টুটু, সৈয়দ নওশের আলী খোকন, আব্দুল মতিন, খালেদ চৌধুরী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, মৌলভীবাজার জেলা শিল্পকলা একাডেমি ২০১৩ সাল হতে প্রতিবছর নিয়মিতভাবে জেলার বিভিন্ন উপজেলা হতে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বাছাইকৃত গুণীজন নির্বাচনপূর্বক সম্মাননা প্রদান করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবছর ২০১৮ সালের নির্বাচিত পাঁচজন গুণীজনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধি: সিলেটের সীমান্তবর্তী উপজেলা জৈন্তাপুরে বিভিন্ন সিমান্ত দিয়ে প্রতিরাতে বিজিবি’র দৃষ্টি আড়াল করে শত শত গরু চোরাই পথে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। থেমে নেই বিজিবি তারও অভিযান পরিচালনা করে যাচ্ছে।
৭এপ্রিল ভোর সাড়ে ৪টায় জৈন্তাপুর সীমান্তের ১২৯৪ এলাকার ২এস পিলার দিয়ে চেরাকারবারীরা ভারতীয় গরু প্রবেশের সংবাদের ১৯ বিজিবির স্পেশাল টিমের সদস্য ইকবাল এর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে ২০টি গরু আটক করে জৈন্তাপুর রাজবাড়ী ক্যাম্পে নিয়ে আসে। তবে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা চোরাকারবারী দলের সদস্যরা স্পেশাল টিমের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। আটককৃত ২০টি গরু ৭এপ্রিল দুপুর ২টায় নিলামে দেওয়া হবে।
১৯ বিজিবি’র স্পোশাল টিমের সদস্য ইকবাল হোসেন জানান- গরু আটকের বিষয় নিশ্চিত করে বলেন সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ার সুবাধে জৈন্তাপুরের বিভিন্ন পথ দিয়ে গরু বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। আমরাও বসে নেই, অভিযান পরিচালনা করছি। তিনি আরও বলেন চোরাকারবার বন্দ করতে ও দেশ রক্ষার সাথে তাদের পাশাপাশি সচেতন এলাকাবাসী বিজিবিকে তথ্য যদি সহযোগিতা আশা ব্যক্ত করেন।

এম ওসমান বেনাপোল: শার্শায় দুগ্ধ শীতলীকরন কেন্দ্রর উদ্বোধন করা হয়েছে। রোববার সকাল ১১টায় উপজেলার নাভারণে এ কেন্দ্রের উদ্বোধন করা হয়।
বাংলাদেশ দুগ্ধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান মিল্ক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাদির হোসেন লিপু’র সভাপতিত্বে উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন।
অনষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মিল্ক ভিটা ইউনিয়নের পরিচারক গোলাম মোস্তফা নান্টু, শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এস এম আসিফ-উদ-দৌলা সরদার অলক, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, আলেয়া ফেরদৌস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক মন্ডল, শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এম মশিউর রহমান, বেনাপোল বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু সালেহ মাসুদ করিম, ইউপি চেয়ারম্যান সোহারাব হোসেন, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা জয়দেব কুমার সিংহ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরকার, শার্শা দুগ্ধ শীতলী করণ কেন্দ্রের উপ-পরিচাশক ডাক্তার আশীষ কুমার রায় ও দুগ্ধ খামারী সুজা উদ্দৌলা টিপু প্রমুখ।
অনুষ্ঠানটি আয়োজন করেন বাংলাদেশ দুগ্ধ উৎপাদনকারী সমবায় ইউনিয়ন লিমিটেড।

চুনারুঘাট ( হবিগঞ্জ)  উপজেলা সংবাদদাতা ঃ জাতীয় পাটি চুনারুঘাট উপজেলা সভাপতি মোঃ তাজুল ইসলাম( ৫৫) ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নাল্লিলাহী,,,  ,,,,,,    রাজিউন ) , শনিবার বিকাল ৩ টায় তিনি ইন্তেকাল করেন।
গতকাল দুপুর ২ টায় সদর ঈদ গাহ্ ময়দানে নামাজে যানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাপন করা হয়। মৃতু কালে তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান সহ অসংখ্য আত্তিয় স্বজন রেখে গেছেন। জানাযায়  উপস্তিত ছিলেন জাপা কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক এমপি মুমিন চৌধুরী বাবু, ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব লুৎফুর রহমান, চুনারুঘাট পৌর মেয়র মোঃ নাজিম উদ্দিন সামছু,  আব্দুল আহাদ চৌধুরী শহিন,মোঃ কাউছারুল গণী,চুনারুঘাট প্রেসক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ কামরুল ইসলাম,আলহাজ্ব আব্দুস ছালাম তালুকদার,  এডভোকেট নাজমুল ইসলাম বকুল ও আলহাজ্ব জিল্লুল কাদির লস্কর রিমন প্রমূখ।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: মণিপুরী সংস্কৃতির নানা বৈচিত্র্যের অন্যতম হলো মণিপুরীদের নববর্ষ উৎসব ‘চৈরাউবা কুম্মৈ’। অপেক্ষাকৃত সংখ্যালঘু মৈতৈ মণিপুরীদের ঐতিহ্যবাহী মণিপুরী নববর্ষ (চেরাউবা কুম্মৈ ৩৪১৭) উৎসব মৗলভীবাজারের সীমান্তবর্তী কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের মণিপুরী কালাচারাল কমপ্লেক্সে গত শনিবার দিনব্যাপী নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে রাতে অনুষ্টানের সমাপ্তি ঘটে। এ উৎসবকে ঘিরে তেতইগাঁওসহ আশপাশের মণিপুরী পল্লীগুলোতে সাজ সাজ রব দেখা গিয়েছিল।

ঐতিহাসিক তথ্য অনুযায়ী, মণিপুরীদের নিজস্ব একটি বর্ষগণনারীতি রয়েছে। ‘মালিয়াকুম’ নামের এই চান্দ্রবর্ষের হিসেবে ৩৪১৭ তম বর্ষ ৬ এপ্রিল শুরু হল। অন্যান্য বছরের মতো এবারও এই দিন মণিপুরী নববর্ষ উৎসব ‘চৈরাউব কুম্মৈ ৩৪১৭’ উদযাপনের উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পালিত হয়।

উৎসবকে কেন্দ্র করে নানা আয়োজনের মধ্যে ছিল শনিবার সকালে আদমপুর মণিপুরী কালাচারাল কমপ্লেক্সে প্রাঙ্গণ থেকে ঐতিহ্যবাহী পোশাক ও উপকরণ নিয়ে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন, পতাকা উত্তোলন, সারোইখাংবা, দুপুরে প্রসাদ বিতরণ, বিকাল ৪টায় মণিপুরি নারী-পুরুষের যৌথ অংশগ্রহণে ঐতিহ্যবাহী লিকোন শান্নবা (কড়ি খেলা), সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সন্ধ্যায় মণিপুরীদের নববর্ষ উৎসব ‘চৈরাউবা কুম্মৈ’ উপলক্ষে চৈরাউবা উদযাপন পর্ষদ এর আয়োজনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কবি ও গবেষক এ কে শেরামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিস বেগম। বিশেষ অতিথি ছিলেন কথাসাহিত্যিক ও সাংবাদিক আকমল হোসেন নিপু, মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সালেহ এলাহী কুটি, কবি ও গবেষক চৌধুরী বাবুল বড়ুয়া, এনআরবি ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান প্রশান্ত সিংহ, তেতইগাঁও রশিদ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আব্দুল মতিন, আদমপুর ইউপি সদস্য কে. মনিন্দ্র সিংহ, কবি সনাতন হামোম, ইবুংহাল শ্যামল প্রমুখ। রাতে মণিপুরী কালচারাল কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে মণিপুরী যুবক-যুবতীদের অংশগ্রহণে থাবল চোংবা নৃত্য (উন্মুক্ত স্থানে অনেক যুবক-যুবতীর অংশগ্রহণে মণিপুরিদের বর্ণাঢ্য লোকনৃত্যের পরিবেশনা) অনুষ্ঠিত হয়।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইলে পতেং,কোয়ারে,চিল,জের,মানুষসহ রং-বেরংয়ের নানা ধরণের ঘুড়ি উড়ানো প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে । শনিবার বিকেলে সীমাখালি যুব সংঘের আয়োজনে সদর উপজেলার আউড়িয়া ইউনিয়নের সীমাখালি মধ্য পাড়ার বিলে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
প্রতিযোগীতায় যৌথভাবে নড়াইলের জায়াদ ও অহি -১ম স্থান, সীমাখালির জিহাদ- ২য় এবং সীমাখালির সাইফুল ৩য় স্থান লাভ করে।
প্রতিযোগীতা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক উপ-পরিচালক মো.মনিরুজ্জামান ।
৫০টির অধিক বিভিন্ন ধরণের ঘুড়ি প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে ।
আউড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পলাশ মোল্ল্যার সভাপতিত্বে কমিটির কর্মকর্তাগন,এলাকার গণ্যমান্যব্যাক্তিবর্গসহ কয়েক’শ দর্শক-এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
পরে সন্ধ্যায় নড়াইল-কালনা সড়কের মালিবাগ মোড়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc