Tuesday 21st of May 2019 09:09:56 AM

শংকর শীল,হবিগঞ্জ থেকেঃ ১৫ বছর কারাভোগের পর ৩ ভারতীয় নাগরিককে তাদের দেশে ফেরৎ দেয়া হয়েছে। ৩০ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুরে চুনারুঘাটের বাল্লা সীমান্ত দিয়ে ওই ৩ যুবককে বিএসফ’ এর  কাছে হস্তান্তর করে বিজিবি। ওই ৩ যুবকের একজন ধলাই জেলার মনুঘাট থানার রক্তচাপড়া গ্রামের সচি মোহনের ত্রিপুরার পুত্র অন্ত মোহন  ত্রিপুরা (৩৫) একই উপজেলার কুবরার পাড়া গ্রামের সুবোধ দেববর্মার পুত্র মৃণাল কান্তি দেববর্মা (৩১), গঙ্গানগর থানার হাসকপাড়া গ্রামের রিয়াসা দেববর্মার পুত্র বয়নজয় ত্রিপুরা (৩৫)।

২০০৪ সালের ১লা জানুয়ারী সীমান্তের কারিশা বস্তি থেকে অস্ত্র পাচারের অপরাধে আটক করেছিলো তৎক্ষালিন বিডিআর। গতকাল জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর তাদেরকে প্রথমে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়। বিজিবি এ বিষয়টি বিএসএফকে পত্র দ্বারা অবহিত করলে ওই ৩ ভারতীয় যুবককে ফেরতের পক্রিয়া শুরু হয়।

আজ মঙ্গলবার বিজিবি ৫৫ ব্যাটারিয়ানের বাল্লা কোম্পানী কোমান্ডার সুবেদার দেলোয়ার হোসেন ও চুনারুঘাট থানার এস আই হেলাল বিএসএফ’ ও ভারতীয় পুলিশের যৌথ বাহিনীর কাছে ওই ৩ যুবককে বাল্লা চেকপোস্ট দিয়ে হস্তান্তর করেন। অপরদিকে ভারতের কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়া মানসিক রোগী রমজান আলী (২৮) কে একই সাথে ফেরত দেয় বিএসএফ। রমজানের বাড়ি উপজেলার সুন্দরপুর গ্রামে। সে ওই গ্রামের মালেক মিয়ার পুত্র।

এস এম সুলতান খান চুনারুঘাট থেকে:  চুনারুঘাট উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আতের সভাপতি ও চুনারুঘাট বাজার ব্যাবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি বিশিষ্ট মুরুব্বী শহিদ আলহাজ্ব আবুল হোসেন আকল মিয়া ( রহঃ)  এর খুনিদের ফাঁসির দাবিতে চুনারুঘাট বাজারে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ অনুষ্টিত হয়। গতকাল মঙ্গলবার  বিকালে  বাল্লারোড সামাজিক সংগঠন এর উদ্দোগে পৌর শহরে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়।
মিছিলটি শহর পদক্ষিন  শেষে স্থানীয় মধ্য বাজারে প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন সায়েম তালুকদার, আমিনুল ইসলাম সুজন, মামুনুর  রশিদ, হাফিজ তালুকদার, শাহিন মিয়া, মনির, রিংকেল, জাকারিয়া , মাইদুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর, জাকির, শাকি, রায়হান, লিটু, লিমু, ফারুক, স্বপন প্রমূখ।
বক্তাগন বলেন হত্যা কারীদের কে বিচারের আওতায় এনে ফাঁসি কার্যকর করার জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানান। অন্যতায় কঠোর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে বলে হুশিয়ারী দেন।

শংকর শীল, চুনারুঘাট(হবিগঞ্জ)থেকেঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট সদর ইউনিয়নের নরপতি সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ের মাঠে মাদক জঙ্গি ও নারী নিযাতন প্রতিরোধ মুলক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩০ এপ্রিল মঙ্গলবার বিকাল ৪ টায় মেম্বার কেরামত আলীর পরিচালনায় এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন – মাধবপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দিন।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন – চুনারুঘাট থানা ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কে এম আজমিরুজ্জামান, সদর ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দুলাল মিয়া তালুকদার, সদর ইউনিয়নের বিট অফিসার এসআই জাহাঙ্গীর কবির। উপরোক্ত বক্তারা মাদক জঙ্গি ও নারী নিযাতন প্রতিরোধ মুলক ও বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

শ্রীমঙ্গল ফুলকুঁড়ি সোসাইটির উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার দুপুরে দেওয়ান শামসুল ইসলাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্কুল ব্যাগ বিতরণ করা হয়।অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান আশিক শ্রীমঙ্গল কমলগঞ্জ সার্কেল, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ সাইফুল ইসলাম তরফদার,বিশেষ অতিথি ডাঃ বিনেন্দু ভৌমিক স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মৌলভীবাজার।১২ জন ছাত্রছাত্রির মাঝে ব্যাগ গুলো বিতরণ করা হয়। 
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাঃ হরিপদ রায় ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি দেওয়ান শামসুল ইসলাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,সভাপতিত্ব করেন মোঃ এনাম হোসেন চৌধুরী সভাপতি শ্রীমঙ্গল ফুলকুঁড়ি সোসাইটি, অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন মোঃ সাইফুল ইসলাম রুমান সাধারণ সম্পাদক শ্রীমঙ্গল ফুলকুঁড়ি সোসাইটি।

“বাংলাদেশে সুন্নীয়ত প্রতিষ্ঠায় ইমাম শেরে বাংলা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন” 

ইমাম শেরে বাংলা (রহ.) রিসার্চ একাডেমীর উদ্যোগে ইমাম শেরে বাংলা (রহ.)’র ৫১তম ওফাত বার্ষিকী উপলক্ষে ইমাম শেরে বাংলা কনফারেন্স ২৮ এপ্রিল রবিবার বিকাল ৩টা হতে জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া সংলগ্ন ষোলশহর আলমগীর খানকাহ শরীফে অনুষ্ঠিত হয়। আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহসিন এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন আন্জুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের সেক্রেটারী জেনারেল আলহাজ্ব মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র আলহাজ্ব মন্জুর আলম।

বিশেষ অতিথি ছিলেন পিএইচপি ফ্যামিলির চেয়ারম্যান আলহাজ¦ সুফি মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ সিরাজুল হক। কন্ফারেন্সে বক্তারা বলেন, আক্বীদার বিশুদ্ধতা ব্যতিত কোন ব্যক্তি প্রকৃত মুসলমান হতে পারে না। বিশ্বে সাধারণ মুসলমানের ইমাম আক্বীদা ধ্বংস করার জন্য যখন বিভিন্ন বাতিল সম্প্রদায় মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে তখনি ইমাম শেরে বাংলা (রহ.) তার ক্ষুরধার লেখনী, জ্ঞানগর্ভ বক্তব্য ও তর্ক যুক্তির মাধ্যমে মানুষকে সুন্নিয়তের প্রতি আহ্বান জানান এবং বাতিল পন্থীদের কবর রচনা করেন।

বিশ্বে সুন্নীয়তের বীজ বপনের ক্ষেত্রে ইমাম শেরে বাংলা (রহ.)’র অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের চেয়ারম্যান মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ ইউনুস আযিযী রজভী। সংগঠনের মহাসচিব আলহাজ মাওলানা আবদুল আউয়াল আলকাদেরী ও মাওলানা ইকবাল হোসাইন আলকাদেরীর যৌথ স ালনায় প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী।

আলোচনায় অংশ নেন জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ অছিয়র রহমান আলকাদেরী, আনজুমান রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক আল্লামা এম.এ মান্নান, শায়খুল হাদিস আল্লামা হাফেজ সোলাইমান আনসারী, শায়খুল হাদিস আল্লামা কাজী মুহাম্মদ মুঈনুদ্দীন আশরাফী, আল্লামা মুফতি কাজী মুহাম্মদ আব্দুল ওয়াজেদ, মুহাদ্দিস হাফেজ আশরাফুজ্জামান আলকাদেরী, ড. আ ত ম লিয়াকত আলী, ইমাম শেরে বাংলা (রাহ.)’র শাহাজাদা আলহাজ্ব সৈয়দ বদরুল হক আলকাদেরী, আলহাজ্ব মাওলানা আবুল হাশেম শাহ্, আলহাজ্ব মাওলানা হাফেজ আনিসুজ্জামান, আলহাজ্ব মাওলানা আবুল আসাদ জোবাইর রজভী, মাওলানা গোলাম মোস্তফা মুহাম্মদ নুরুন্নবী, মাওলানা জিয়াউল হক রেজভী, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মুহাম্মদ কমিশনার, মহাসচিব শাহজাদ ইবনে দিদার, আলহাজ্ব মুনির আহমদ, মাওলানা জসিম উদ্দীন, সৈয়দ মুহাম্মদ আবু আজম, মাওলানা ইলিয়াছ আলকাদেরী, মাওলানা সৈয়দ আবু নওশাদ নঈমী, কাজী তৌহিদুল আলম আল কাদেরী, মাওলানা সেকান্দর হোসেন আলকাদেরী, মাওলানা তারেকুল ইসলাম, মাওলানা ক্বারী ইব্রাহিম, মাওলানা কাশেম তাহেরী, মাওলানা রাশেদুল ইসলাম, শায়ের মাছুমুর রশিদ কাদেরী, মাওলানা মুহাম্মদ ইদ্রিস, হাফেজ মুহাম্মদ আতিকুর রহমান, মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান, মুহাম্মদ ওসমান গণী প্রমুখ।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ দায়িত্ব ও কর্তব্যে অবহেলার কারণে নড়াইল সদর হাসপাতালের চার চিকিৎসককে সাময়িক বরখাস্ত করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়। তারা হলেন, সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. আকরাম হোসেন, কার্ডিওলজি বিশেষজ্ঞ শওকত আলী ও রবিউল আলম এবং মেডিকেল অফিসার এ.এস.এম সায়েম। তাদের প্রথমে ওএসডি এবং পরে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সোমবার(২৯এপ্রিল) বিকেলে পৌনে ৪টার সময় নড়াইল সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক এ তথ্য জানান।
সদর হাসপাতালের নবনিযুক্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. মোঃ আব্দুস শাকুর এ প্রতিনিধিকে জানান, স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় থেকে চার চিকিৎসকের ও এসডি সংক্রান্ত আদেশ রবিবার (২৮ এপ্রিল) দুপুরে হাসপাতালে এসে পৌঁছায়। পরে সোমবার অভিযুক্ত ওই চার চিকিৎসককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন সোমবার বিকেল পৌনে চার টার দিকে সদর হাসপাতালে পৌছেছে। তত্ত্ববধায়ক আরও বলেন, চিকিৎসকদের কাউকে আর কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। সোমবার সকল চিকিৎসক তাদের সদর হাসপাতালে উপস্থিত ছিলেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা গত ২৫ এপ্রিল সদর হাসপাতালে আকস্মিক পরিদর্শনের সময় কর্তব্যরত চিকিৎসকদের হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর না দেখে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আব্দুস শাকুর এবং সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডাক্তার আকরাম হোসেনের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলেন এমপি মাশরাফি। এ সময় বিভিন্ন ওয়ার্ডে রোগিদের সাথে কথা বলে তাদের সমস্যার শোনেন এবং হাসপাতালের বিভিন্ন অব্যবস্থাপনার চিত্র দেখতে পান। পরে রাতে হাসপাতালের কর্মকর্তা এবং জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপি। এ সময় বেশ কিছু বিষয়ে দিক নির্দেশনা দেন।

সেগুলো হলো: হাসপাতালে অনুপস্থিত চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া, হাসপাতালে প্যাথলজিক্যাল সেবা নিশ্চিত করা, সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২.৩০ মিনিট পর্যন্ত চিকিৎসকদের হাসপাতালে অবস্থান করা, হাসপাতাল ক্যাম্পাসে বহিরাগত অ্যাম্বুলেন্স অবস্থান না করা, দালাল চক্র হাসপাতালে প্রবেশ করতে না পারা, সরকারের সাপ্লাইকৃত ওষুধের যথাযথ ব্যবহার এবং বড় ওয়ার্ডে দুজন করে নার্স দেওয়া।
উল্লেখ্য, নড়াইল সদর হাসপাতালে ৩৯জন চিকিৎসকের পদ থাকলেও আছেন ১৭ জন। এর মধ্যে পাঁচজন চিকিৎসক সংযুক্তিতে। ভূক্তভোগী রোগি ও স্বজনদের অভিযোগ, অধিকাংশ চিকিৎসকই সপ্তাহে এক থেকে তিনদিনের বেশি নড়াইল সদর হাসপাতালে দায়িত্ব পালন করেন না।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা আ,লীগের সহ-সভাপতি,কয়লা আমদানিকারক গ্রুপের সভাপতি হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকার বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িতকতার অভিযোগ তুলে নিজেদের গোপন স্বার্থ হাসিল করার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে অসাধু চক্র। তারা কোন ভাবেই কোন সুযোগ না পেয়ে সাম্প্রদায়িকার বিষয়টিকে হাতিয়া করে অভিযোগ তুলে সমাজে হেয়প্রতিপন্ন,দলীয় ও সামাজিক সম্মান নষ্ট করার পায়তারা করেছে স্বাধীনতা বিরোধী জামায়ত,শিবির চক্র। ফলে একজন স্বাধীনতার পক্ষে সমর্থক,আ,লীগ পরিবারে সদস্য,একজন ব্যবসায়ী বিরোদ্ধে অপপ্রাচারের কারনে এলাকাবাসীর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

জানা যায়,সম্প্রতি হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকারের বিরোদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের জায়গা দখল করেছেন। এমন অভিযোগ তুলে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রচার চালাচ্ছে একটি সুবিধাবাদী চক্র।

অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে স্ট্যাটাস লিখে এর প্রতিবাদ জানিয়ে অনেকেই মন্তব্য করেছেন,আলকাছ উদ্দিন খন্দকার এর জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে যারা বিভিন্ন কুৎসা রটাচ্ছেন আমরা এর তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানাচ্ছি। হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকার একজন সৎ এবং ভালো মানুষ। একজন দানবীর মানুষ। যারা এসব মিথ্যা অভিযোগ রটাচ্ছেন আমরা তাদেরকে আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানাচ্ছি।

সম্পূর্ণ মিথ্যা,বানোয়াট,উদ্যোশ্য প্রনিত দাবি করেছেন সুনামগঞ্জে আলকাছ উদ্দিন। তিনি জানান,আমার বিরোদ্ধে যারা এসব মিথ্যা গুজব রটাচ্ছে। তাদের বিরোদ্ধে মানহানি মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে কতিপয় লোক আমার সুনাম ক্ষুন্ন এবং মানহানির জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। সবাই জানে আমি কেমন। ঐসব লোকজন নিজের চরিত্র ঢাকার জন্য আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করার চেষ্ঠায় লিপ্ত হয়েছে।

আ,লীগের সহসভাপতি ও তাহিরপুর কয়লা আমদানিকারক গ্রুপের সভাপতি হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকারের বিরোদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করায় এলাকার সর্বসাধারণের মধ্যে চরম ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করে অনেকেই বলেন,যারা চরিত্রহীন তারা সৎ চরিত্রের মূল্যায়ন করবে কি করে। একজন ভাল মানুষে এভাবে মিথ্যা অভিযোগ তুলে সবার কাছে ছোট করায় চেষ্টা করছে তার নিন্দা জানাই।
জানা যায়,হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকার একজন সফল ব্যবসায়ী ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক। তিনি তাহিরপুর উপজেলা আ,লীগের সহ-সভাপতি ও তাহিরপুর কয়লা আমদানিকারক গ্রুপের সভাপতি,টেকেরঘাট স্কুল অ্যান্ড কলেজের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। পাশাপাশি তিনি সমাজসেবাসহ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত রয়েছেন। তার বড় ছেলে খন্দকার মনজুর আহমেদ সুনামগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক ও সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক। তিনি কয়েকবার সেরা করদাতা মনোনীত হয়েছেন। আর ছোট ভাই তাহিরপুর উপজেলার বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান।

বিক্ষোভ মিছিল ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ

নড়াইল প্রতিনিধি:  বেসরকারী শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাষ্টের জন্য ১০% কর্তনের আদেশের প্রতিবাদে নড়াইলে শিক্ষক-কর্মচারীদের মানববন্ধন বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন শিক্ষক নেতৃবৃন্দ।
মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) বেলা ১১টায় বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি নড়াইল জেলা শাখার আয়োজনে এ উপলক্ষে নড়াইল চৌরাস্তায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

আধাঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন চলাকালে অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাষ্টের জন্য ১০% কর্তনের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়ে বক্তব্য দেন জেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি ফকির ওয়াহিদুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক ধ্রুব কুমার ভদ্র, শিক্ষক নেতা আব্দুর রশীদ, রবীন্দ্রনাথ মন্ডল সহ অনেকে। এর আগে শহরে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়া দাবি বাস্তবায়নে নড়াইলের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর ( এনডিসি) মোঃ আবু রিয়াদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন।
কর্মসূচিতে বিভিন্ন বেসরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন।

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলে পুলিশের বিশেষ অভিযানে বিভিন্ন মামলা ও অভিযোগে ৭৭ জনকে আটক করা হয়েছে। সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্তু জেলার চার থানায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।
জেলা পুলিশের নিয়ন্ত্রন কক্ষসূত্রে জানাগেছে, জেলায় সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্তু জেলার চার থানায় অভিযান চালিয়ে ৭৭ জনকে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে সদর থানা পুলিশ একজন, লোহাগড়া থানা পুলিশ ৩৪ জন, কালিয়া থানা পুলিশ ২০ জন ও নড়াগাতি থানা পুলিশ ২২জনকে আটক করেছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলা ও অভিযোগ রয়েছে।
পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বিভিন্ন মামলা ও অভিযোগে ৭৭ জনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইল জেলাকে “ ক্লিন নড়াইল ও গ্রীন নড়াইল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে,নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা ও জেলা প্রশাসক আনজুমান আরাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে নড়াইলে জনসচেনতা মূূলক র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার “ চলো পাল্টাই ”নামে একটি সংগঠনের আয়োজনে এ র‌্যালী অনুুষ্ঠিত হয়।

র‌্যালীটি নড়াইল প্রেসক্লাব চত্বর থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালীতে সংগঠনের কর্মকর্তা ও কর্মিরা উপস্থিত ছিলেন।

এম ওসমান, বেনাপোল: যশোরের শার্শা আফিল জুট মিলের সামনে খুলনা-বেনাপোল কমিউটার ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে অজ্ঞাত এক মহিলা নিহত হয়েছে।
মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪ ঘটিকার সময় খুলনা থেকে বেনাপোল গামী কমিউটার ট্রেনে কাটা পড়ে এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। তার নাম ও পরিচয় পাওয়া যায়নি।
যশোরের বেনাপোল স্টেশন মাষ্টার সাইদুর রহমান জানান, ট্রেনটি খুলনা থেকে ছেড়ে এসে শার্শা আফিল জুট মিলের সামনে পৌঁছালে অজ্ঞাত এক মহিলা ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে। নিহত ব্যক্তির নাম ও পরিচয় পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে মামলা হয়েছে।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইল-কালনা সড়কের রামপুরা এলাকায় মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় সমীর বিশ^াস নামে একজন স্কুল শিক্ষক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) বেলা ১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
জানাগেছে, নড়াইল সদর উপজেলার বামনহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সমীর বিশ^াস সহ ৩জন মোটর সাইকেল নড়াইল হতে লোহাগড়া উপজেলা শহরের দিকে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে স্বপ্নবীথি পিকনিক স্পট এলাকায় পৌছালে একটি ট্রাকের ঢাক্কায় রাস্তার ওপর ছিটকে পড়েন চালকসহ অপর দুই আরোহী।

স্থানীয় লোকজন আহতদের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে শিক্ষক সমীর বিশ^াসকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর দুজনের চিকিৎসা চলছে। লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রবীর কুমার বিশ^াস জানান, ট্রাকটিকে আটক করা যায়নি। নিহত সমীর বিশ^াসের বাড়ি সদর উপজেলার মাইজপাড়া ইউনিয়নের তালেশ^র গ্রামে।

রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধি: সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলা সীমান্ত দিয়ে কয়েক হাজার ভারতীয় গরুসহ পন্য সামগ্রী বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। করিডোর বন্দ থাকায় রাজস্ব বি ত সরকার, কৃষকের ফসলী জমি ও রাস্তাঘাট নষ্ট। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন নিবর।
সিলেটের জৈন্তাপুর এলাকার বিভিন্ন সীমান্ত পথ দিয়ে প্রতিদিন শত শত গরু, মহিষ এবং ভারতীয় মদ ও মাদক সামগ্রী, আমদানী নিষিদ্ধ নাছির বিড়ি ও নিম্ন মানের সিগারেট, গাড়ীর টায়ার পার্স, মটরসাইকেল নিরাপদে বাংলাদেশে প্রবেশ। সীমান্ত প্রশাসন ও আইন প্রয়োগকারী বাহিনী নিরব থাকায় চোরাচালানের স্বর্গরাজ্যে পরিনত হচ্ছে জৈন্তাপুর।

সীমান্তের চোরাকারবারীদের আলাপকালে নাম প্রকাশ না করার শর্তে তারা জানান- গত বৎসরের নভেম্বর মাস হতে গরু আমদানীর বৈধ মাধ্যম করিডোর বন্ধ হয়। তাই এখন বৈধ মাধ্যমে গরু আমদানী হচ্ছে না। সীমান্ত পথে গরু আমদানী করতে সীমান্ত প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে সমঝোতার মাধ্যমে এবং জৈন্তাপুর উপজেলার বিভিন্ন সীমান্ত পথে ভারত হতে বাংলাদেশে গরু আমদানী কর হয়। এছাড়া গরু আমদানীতে বিভিন্ন ব্যক্তি বিশেষকে সম্মানী দিতে হয়।

আগামী রমজান মাস, ইদ-উল-ফিতর ও ঈদ-উল-আযহা কে সামনে রেখে জৈন্তাপুর সীমান্ত পথ দিয়ে প্রায় ১কেটি কিংবা তারও বেশি ভারতীয় গরু আমদানীর র্টাগেট রয়েছে। করিডোর থাকলে সরকার এখাত হতে রাজস্ব হারাতে না, ব্যবসায়ীরা সু-নিদিৃষ্ট পথ দিয়েই গরু আমদানী করতে পারত, প্রশাসন সহ বিভিন্ন মহলকে চাদা দিতে হত না। আরও জানান যেহেতু করিডোর বন্ধ, বিভিন্ন ব্যক্তি বিশেষ সালামি দিয়ে এবং আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মনোনিত লাইনম্যানদের মাধ্যমে লিয়াজো করে সীমান্তের বিভিন্ন পথ দিয়ে ভারতীয় গরু আনা হচ্ছে।

তবে গরু আমদানীর সুবাধে একটি চক্র ভারত হতে সীমান্ত পথ দিয়ে চা-পাতা, বিড়ি, সুপারী সহ অন্যান্য পন্য সামগ্রী বাংলাদেশে নিয়ে আসছে। এগুলোর সাথে গরু ব্যবসায়ীরা জড়িত নহে। সরকার করিডোর চালু করলে রাজস্ব হারাতে হত না, আমাদের চাঁদা দিতে হত না, জনসাধারনের ফসলের কিংবা রাস্তা ঘাটের ক্ষতি সাধিত হত না।

সীমান্ত এলাকারবাসীন্ধা আব্দুর রকিব, চাঁন মিয়া, মুবসিরআলী, আনোয়ার আলী, মকবুল হোসেন সুরুজ আলী, দোলোয়ার হোসেন সহ শতাধিক ব্যক্তি সাথে আলাপকালে তারা জানান- সীমান্ত পথে অবৈধ পন্থায় ভারত হতে গরু আনায় কৃষকদের সোনালী ফসল ব্যাপক হারে নষ্ট করা হচ্ছে। যার কারনে অনেক সময় তারা রাতে দিতে বাড়ী ঘরে নিরাপদ ভাবে বসাবাস করতে পারছে না। স্থানীয় ভাবে অনেকেই ইউপি চেয়ারম্যান সহ সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবিকে জানালেও তারা বিষয়টি কর্ণপাত করছে না।

সীমান্তের বসবাসকারীরা নিরুপায় হয়ে চোরাকাবারীদের হাত হতে পরিত্রান পেতে বসতবাড়ীর আঙ্গীনায় এবং ফসল রক্ষার জন্য বাঁশের বেড়া দিচ্ছে এবং রাতে পাহারা দিতে বাধ্য হচ্ছেন। তারা আরও জানায় জৈন্তাপুর উপজেলার শ্রীপুর, মোকামপুঞ্জি, আসামপাড়া, মিনাটিলা, কেন্দ্রি, কেন্দ্রি হাওর, ডিবিরহাওর, ফুলবাড়ী, খলারবন্দ, ঘিলাতৈল, টিপরাখলা, কমলাবাড়ী, গোয়াবাড়ী, বাইরাখেল, মাঝের বিল, হর্নি, জালিয়াখলা, কালিঞ্জি, লালখাল বাগান, নিশ্চিন্তপুর, আফিফানগর চা-বাগান, উত্তর বাঘছড়া, দক্ষিণ বাঘছড়া, গঙ্গারজুম, তুমইরপুঞ্জি, ইয়াংরাজা দিয়ে ভারতীয় এসব গরু, মহিষ এবং চোরাকাবারী পন্য বাংলাদেশে আনা হচ্ছে। কিন্তু সীমান্ত প্রশাসন নিবর ভূমিকা পালন করছে।

এবিষয়ে জানতে জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান কামাল আহমদ বলেন- আমাকে বিষয়টি অনেকেই অবগত করেছেন, যেহেতু আমি নির্বাচিত হওয়ার পর এখন আইন শৃঙ্খলার বৈঠক হয়নি তাই আগামী আইন শৃঙ্খলা ও চেরাচালান বিরুদী বৈঠকে বিষয়টি আলোচনা করা হবে এবং উর্দ্বতন মহলকে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য লিখিত ভাবে বিষয়টি অবহিত করা হবে।

এবিষয়ে জানতে ৪৮বিজিবির শ্রীপুর, মিলাটিলা, ডিবির হাওর ক্যাম্পে এবং ১৯বিজিবির জৈন্তাপুর ও লালাখাল ক্যাম্পে সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তার গরু আমদানীর বিষয় অস্বীকার করে বলেন সীমান্তে আমাদের টহল জোরদার রয়েছে। আমরা সংবাদ পেলে অভিযান পরিচালন করছি।

এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মইনুল জাকির বলেন- সীমান্তের ১হাজার গজের মধ্যে আমাদের অভিযান পরিচালনার সুযোগ নেই।

এছাড়া মাদক দমনে আমি যোগদানের পর থেকে অভিযান অব্যহত রেখেছি এবং মাদকসহ আসামী নিয়মিত আটক করছি। সীমান্ত সংক্রান্ত বিষয় গুলো বিজিবির। তারপর উর্দ্বতন মহলকে বিষয়টি অবহিত করব।

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো. ওয়াসিম আব্বাসকে বাস থেকে ফেলে দিয়ে হত্যার সাথে জড়িত বাস চালক জুয়েল আহমদ ও সহকারী মাসুক আলীর বিরুদ্ধের দায়ের করা মামলার ধারা পরিবর্তনসহ ৭ দফা দাবিতে সিলেট বিভাগে সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকা দিনব্যাপী পরিবহন ধর্মঘটে অচল হয়ে পড়ে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ।

সোমবার সকাল থেকে ধর্মঘটের কারণে ট্রেন ছাড়া কোনো রুটে যানবাহন চলাচল করেনি। এতে চরম ভোগান্তিতে শিক্ষার্থী, চাকুরীজীবিসহ সাধারণ যাত্রীরা। ধর্মঘটের কারণে সকাল থেকে কমলগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে চলাচলের ক্ষেত্রে একমাত্র বাহন হিসেবে রিকশার আধিক্য দেখা গেছে। তাছাড়া মোটরসাইকেল ও কিছু প্রাইভেটগাড়িও চলাচল করতে দেখা যায়। তবে কোনো অটোরিকশা চলাচল করতে দেখা যায়নি। কোথাও কোথাও দু’একটি ছোট ছোট গাড়ী চললেও ভাড়া নেয়া হয় ২ থেকে ৩ গুণ বেশী । এতে জনদূর্ভোগে পড়েছে শ্রমজীবী, শিক্ষার্থীসহ সাধারণ যাত্রীরা।

পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন এর ধর্মঘটের কারণে ভোগান্তিতে পড়েছে স্কুল পড়ুয়া ছাত্রছাত্রী ও কর্মজীবি সাধারণ মানুষ। যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়ে সাধারণ মানুষকে জিম্মি করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভোগান্তিতে পড়া সাধারণ মানুষ। ধর্মঘটের কারণে সময়মত কর্মস্থলে যেতে পারেননি অনেকেই। কলেজ ছাত্র শিপন মিয়া, লাভলী আক্তার, চাকুরীজীবি সানজিদা বেগম, ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ন্যায় বা  অন্যায় যে কোন প্রকার দাবি আদায় করার জন্য মানুষকে এভাবে জিম্মি করা এক প্রকার অভ্যাসে পরিনত হয়েছে পরিবহন শ্রমিকদের। পরিবহন ধর্মঘটের কারণে সকল শিক্ষার্থী না আসায় শমশেরনগর বিএএফ শাহীন কলেজের সোমবারের সিটি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ৭ দফা দাবিতে সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন এই কর্মবিরতি ঘোষণা করেছে। তাদের দাবির মধ্যে সিকৃবির শিক্ষার্থী ঘোরি মো. ওয়াসিম নিহতের ঘটনায় দায়েরকৃত হত্যা মামলাটি দন্ডবিধির ৩০২ এর স্থলে ৩০৪ ধারায় অন্তর্ভূক্ত করার বিষয়টি রয়েছে। এছাড়া সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর কয়েকটি ধারায় জরিমানার অঙ্ক কমানো, সড়ক-মহাসড়কে তল্লাশির নামে পুলিশের হয়রানি বন্ধের দাবিও রয়েছে।

চুনারুঘাট(হবিগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জেরঃ চুনারুঘাটে ভুয়া ডাক্তার আয়েশার সনদ ও ব্যবস্থাপত্র জব্দ করেছেন চুনারুঘাট উপজেলা প্রশাসন। আগামী ৪৮ ঘন্টা এবং প্রশাসনের নজর বন্দির কথা জানান উপজেলা  সহকারী কমিশনার ( ভূমি) এস এম আজহারুল ইসলাম। বিগত কয়েক বছর যাবত চুনারুঘাট উপজেলা  বিভিন্ন এলাকায় গাইনী বিশেষজ্ঞ হিসেবে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে আসছেন  আয়েশা বেগমের।
তার  অপচিকিৎসায় চুনারুঘাটের বিভিন্ন এলাকায় এ পর্যন্ত  ১২  জন গর্ভবতী মহিলা মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। এবং অনেক শিশুকেই মৃত্যুবরণ করতে হচ্ছে
এ বিষয়টি চুনারুঘাট উপজেলা সাংবাদিকদের নজরে আসলে। গত শনিবার রাত ৮ ঘটিকার সময় রানীগাও ইউনিয়নের চৌধুরী গাও গ্রামের  শহিদুলের একমাত্র মেয়ে জায়েদা খাতুন তার অপচিকিৎসায় মৃত্যু বরণ করে এবং আজ বিকাল সাংবাদিকদের লাইভে আসলে প্রশাসনের নজরে আসে।
এতে করে চুনারুঘাট থানা অফিসার ইনচার্জ কে এম আজ্জমিরুজ্জানের পরিকল্পনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্দেশে চুনারুঘাট প্রশাসনের বিশেষ অভিযানে ভুয়া  ডাক্তার আয়েশা বেগমের সনদপত্র ও প্যাড সহ কাগজপত্র জব্দ করা হয়। এবং ৪৮ ঘন্টা প্রশাসনের নজরদারি রাখার নির্দেশ প্রদান করেন চুনারুঘাট উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি কর্মকর্তা আজারুল ইসলাম। এতে উপস্থিত ছিলেন থানার ওসি তদন্ত আলী আশরাফ এবং এস আই অলক বড়ুয়া সহ দুইজন মহিলা পুলিশ।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc