Friday 26th of April 2019 03:53:12 PM

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: কথায় বলে পৌষপার্বণের পিঠা উৎসব। এ উৎসব একান্তভাবেই বাঙালির উৎসব। শীত-গ্রীষ্মের সকালগুলো মুখর ও আনন্দময় হয়ে ওঠে নানা রকম পিঠার অনন্য স্বাদে। কিন্তু বর্তমানে নানা ধরণের ফাস্ট ফুডের জোয়ারে আমরা গ্রাম বাংলার পিঠার কথা ভুলতেই বসেছি। সে বিস্মৃতপ্রায় ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে দেশে এখন নানা ধরনের পিঠা উৎসব হয়। এরই অংশ হিসেবে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠা আমুরোড হাই স্কুল এন্ড কলেজে হয়ে গেল শীতের পিঠা উৎসব ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। (৩১ জানুয়ারী) বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত পিঠা উৎসবে ছিল দর্শকদের উপচে পড়া ভীড়।

শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের যৌথ উদ্যোগে এই জমকালো অনুষ্ঠানে বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অনুষ্ঠানের সভাপতি, স্কুল এন্ড কলেজ গভার্ণিং বডির সভাপতি ও আহম্মদাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবেদ হাসনাত চৌধুরী সনজু। স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আলাউদ্দিন এর পরিচালনায় অনুষ্টিত পিঠা উৎসবের পিতা কেটে শুভ উদ্বোধনী ঘোষনা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মঈন উদ্দিন ইকবাল। পরে স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গনে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ মাসুদ রানা, উপজেলা আওয়ামীলীগ তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক মোঃ হাছন আলী, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মুজিবুর রহমান ও পিঠা উৎসব উপ কমিটির সভাপতি, সহকারী প্রধান শিক্ষক আবু মোঃ জাকারিয়া প্রমূখ।

পিঠা উৎসবে প্রাক্তন ও নবাগত ছাত্র-ছাত্রীদের মিলনমেলার এক অপূর্ব দৃশ্য দেখা যায়। ছোট বেলার পিঠাপুলির কথা স্মরণ করেন শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীসহ অনেকে। মূল অনুষ্ঠান শুরু হয় দুপুর ২টায়। পুরো বিদ্যালয় জুড়ে আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছিল। স্টলগুলো সাজানো হয়েছিল গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী অরেক রকমের পুষ্প দিয়ে। স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গণে দর্শকদের ছিল উপচে পড়া ভীড়। স্টলে স্টলে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথিগন, বিচারক ও অভিভাবকবৃন্দরা ঘুরে ঘুরে দেখেন নানা রকম পিঠার কারু কাজ। বিদ্যালয়ে ১৮টি স্টল বসেছিল এ পিঠা উৎসব মেলায়। পরে প্রধান অতিথি সহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দরা প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকারীদের নাম ঘোষণা করেন ও বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

প্রথম স্থান অধিকারী বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর (গ-শাখার) ১১নং স্টল “বঙ্গবন্ধু পিঠা ঘর”, দ্বিতীয় স্থান অধিকারী ৯ম শ্রেণীর (ক শাখার) ১০নং স্টল “জাতির পিতা স্পেশাল পিঠা ঘর” ও তৃতীয় স্থান অধিকারী একাদশ শ্রেণীর ২নং স্টল “শেখ হাসিনা স্টল)। অতিথি ও বিচারকরা এই পিঠা উৎসবের নানা দিক নিয়ে প্রশ্ন করেন। জানতে চান পিঠার নাম, তৈরির রেসিপি।

উল্লেখযোগ্য পিঠার মধ্যে ছিল দুধপুলি পিঠা, পুলি পিঠা, পাঠি সাপটা, জামাই পিঠা, বেনি পিঠা, পাকান পিঠা, ভাপা পিঠা, কমলা সুন্দরী, তালের বড়া, নকঁশী পিঠা, সেমাই পুলি পিঠা, রস পিঠা, সবজি পাকান, শামুক পিঠা, ডিম পিঠা, ক্ষীর পুলি পিঠা, দুধ চিতই পিঠা, সুজি পিঠা, ডিমসুন্দরী পিঠা, ঝাল পিঠা ডাল পিঠা, নারিকেল পুলি পিঠাসহ নাম না জানা ২৫ থেকে ৩০ রকমের পিঠার আয়োজন করে শিক্ষার্থীরা।

এম ওসমান,বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোরের শার্শায় মিষ্টি কুমড়ার নায্য মূল্য না পাওয়ায় কৃষকরা হতাশ হয়ে পড়েছেন। পোকায় নষ্ট করায় ফলন ভাল হয়নি। তারপরও বাজার মূল্য কম হওয়ায় কৃষকের খরচ উঠছে না। বাজার মূল্য কম থাকায় এ চাষে কৃষক নিরুৎসাহিত হচ্ছে। এ উপজেলায় আগামী বছর মিষ্টি কুমড়ার চাষ কমে যাওয়ার আশংকা বিরাজ করছে উপজেলা কৃষি বিভাগ।
মিষ্টি কুমড়া একটি লাভ জনক ফসল। অল্প খরচে অধিক মুনাফা হওয়ায় শার্শার কৃষকরা মিষ্টি কুমড়া চাষে ঝুঁকে পড়েছিল। গত কয়েক বছর ধরে এ উপজেলায় মিষ্টি কুমড়ার ব্যাপক চাষ হয়ে আসছিল। উপজেলার সদর, বাগআঁচড়া ও কায়বা ইউনিয়নে এ চাষ বেশি হয়েছে। পাইকারী ব্যবসায়ীরা কৃষকের জমিতে গিয়ে স্বল্প মূল্যে ক্রয় করতে চাওয়ায় কৃষকরা হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়ছে।
কুমড়া চাষীরা বলছেন, চলতি বছরে এক বিঘা জমিতে মিষ্টি কুমড়া চাষ করতে খরচ হয়েছে ৪/৫ হাজার টাকা আর বিক্রি হচ্ছে ২ হাজার টাকা। এ লোকশান কাটিয়ে উঠতে কৃষককে হিমশিম খেতে হচ্ছে। সরকার যদি কুমড়া চাষীদের দিকে একটু নজর না দেয় তাহলে এ চাষ আগামীতে কম হবে। তবে সরকারী পৃষ্টপোষকতা পেলে শার্শায় দেশের সব চেয়ে বেশি মিষ্টি কুমড়ার চাষ হবে এমন টাই আশা করা যায়।
শার্শা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সৌতম কুমার শীল জানান, শার্শা উপজেলায় চলতি মৌসুমে ১৯০ হেক্টর জমিতে এ মিষ্টি কুমড়ার চাষ হয়েছে। অধিকাংশ জমিতে উচ্চ ফলনশীল ও হাইব্রিড জাতের চাষ করেছে এবং ফলন খুব ভাল হয়েছে যার জন্য উৎপাদনটাও ভাল হচ্ছে। আড়াই থেকে তিন মাসের মাথায় ২৫/৩০ হাজার টাকা লাভ করতে পারছে। যার জন্য কৃষকের মধ্যে আগ্রহ বৃদ্ধি হচ্ছে। বাজারে যেহেতু অন্যান্য শীত কালীন সবজি উঠে গেছে, তাই এই মুহুর্ত্যে বাজারে কুমড়ার দাম কিছুটা কম। ফল ছিদ্রকারী মাছি পোকার আক্রমণ দেখা দিয়েছে। কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছি সেক্সফ্রোমন ফাঁদসহ অন্যান্য ফাঁদের মাধ্যমে এ পোকা দমন করার জন্য। কৃষকও আগ্রহ প্রকাশ করছে ব্যবহারের জন্য। তবে আগামী বছর মিষ্টি কুমড়ার চাষ কমে যাওয়ার আশংকা রয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ জৈন্তাপুর বিভিন্ন সময় প্রভাবশালী পাথরখেকু, ভূমি দখল, অবৈধ ভাবে পাহাড় কর্তন করে পাথর উত্তোলন, নদীর ভূমি দখল এবং মাদক ও চোরাকারবারী চক্রের বিরুদ্ধে স্থানীয় জাতীয় অনলাইন ও প্রিন্টিং পত্রিকায় সংবাদ প্রচারের পর এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে লিংক পোষ্ট করায় অপরাধীদের বিরুদ্ধে  প্রশাসন সক্রিয় ভূমিকা পালন করায় চক্রটি বেকায়দায় পড়ে৷
যার ফলে জৈন্তাপুরে কর্মরত আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম এর নিজস্ব প্রতিনিধি ও  সিলেটের দৈনিক মিরর পত্রিকার জৈন্তাপুর প্রতিনিধি মোঃ রেজওয়ান করিম সাব্বিরকে গত ৩১ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১০.৪৫ মিনিটে অজ্ঞাত ব্যক্তি ০১৮৫২৭৬৯০৪১ নাম্বার হতে প্রাণ নাশের হুমকী দেওয়া হয়৷ এসময় অজ্ঞাত ব্যক্তি আরও অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে৷
ইতোপূর্বে প্রভাবশালী ভূমি খেকুর বিরুদ্ধে আধিবাসি সম্প্রদায়ের জমি দখলের স্বচিত্র সংবাদ প্রকাশ করায় ৮ জানুয়ারী ২০১৫ সনে সন্ধ্যায় জৈন্তাপুর বাজারের নিজ অফিস থেকে ধরে নিয়ে শারিরিক নির্যাতন করে চক্রটির সদস্যরা৷ সাংবাদিক নির্যাতন নিয়ে সিলেট বিভাগের বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠন প্রতিবাদ মুখর হলে প্রশাসনের সক্রিয় ভূমিকায় রক্ষা পায়৷
সম্প্রতি চক্রটি পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে ফের সংবাদ প্রচারের জের ধরে হুমকী প্রদান করে৷ হুমকী ঘটনায় সাংবাদিক মোঃ রেজওয়ান করিম সাব্বির নিজের নিরাপত্তা চেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানায় সাধারন ডায়েরী করেন৷ যাহার নং-২৪, তারিখ- ০১-০২-২০১৯৷

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির প্রায় তিন বছর পর ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংক কর্পোরেশনের (আরসিবিসি) বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে মামলা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গত কাল বৃহস্পতিবার রাতে মামলাটি দায়ের করা হয়।

এর আগে গত ২৭ জানুয়ারি চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল মামলার করার জন্য নিউইয়র্ক যান। এই প্রতিনিধি দলে রয়েছেন, ব্যারিস্টার আজমালুল হোসেন কিউসি, বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্স ইউনিটের মহাব্যবস্থাপক দেবপ্রসাদ দেবনাথ, একই ইউনিটের যুগ্ম পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুর রব এবং একাউন্ট এন্ড বাজেটিং ডিপার্টমেন্টের মহাব্যবস্থাপক জাকির হোসেন।

২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে ভুয়া পেমেন্ট অর্ডারের বিপরীতে ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়।
২০১৬ সালে ওই ঘটনায় সুইফটের নিরাপত্তা ব্যবস্থা হ্যাকড করে পাঁচটি বার্তার মাধ্যমে চুরি হওয়া এ অর্থের মধ্যে শ্রীলংকায় যাওয়া দুই কোটি ডলার ফেরত আসে। তবে ফিলিপাইনে যাওয়া আট কোটি ১০ লাখ ডলারের মধ্যে এখনও ফেরত আসেনি ছয় কোটি ৬৪ লাখ ডলার। ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকের মাধ্যমে এই অর্থ হ্যাকাররা তুলে নেয়। রিজার্ভ চুরির আলোচিত এই ঘটনা তদন্তে সে সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিনের নেতৃত্বে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ওই কমিটির প্রতিবেদন পরবর্তীতে আর প্রকাশ করা হয়নি।

অপরদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় আরসিবিসির সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক মায়া সান্তোস দেগুইতোকে সম্প্রতি সর্বোচ্চ ৫৬ বছরের কারাদণ্ড ও ১০ কোটি ৯০ লাখ ডলার জরিমানার আদেশ দিয়েছে ফিলিপাইনের আদালত।

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলের কালিয়ায় পাভেল শেখ(৩৩) নামে এক মাদক সেবীকে ৬ মাসের কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক কালিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুল হুদা এই কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন।
ভ্রাম্যমান আদালত ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার দিকে কালিয়া উপজেলার পহরডাঙ্গা গ্রামের মৃত মুজিবর রহমান শেখের ছেলে পাভেল শেখ তার সংগীদের সঙ্গে উপজেলার নড়াগাতি থানার পহরডাঙ্গা বাজারের পাশে ইয়াবা সেবনকালে নড়াগাতি থানা পুলিশের একটিদল আটক করে। তবে অন্য সংগীরা পালিয়ে য়ায়।
আটকের পর দুপুর ১২টার দিকে কালিয়ার ইউএনও মোঃ নাজমুল হুদার কার্যালয়ে স্থাপিত ভ্রাম্যমান আদালতে পাভেল শেখকে হাজির কওে বিজ্ঞ আদালত তাকে ৬মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন। পরে পুলিশ তাকে নড়াইল জেলা কারাগারে প্রেরণ করে।

প্রিতম পাল: এবছর বোরো মৌসুমে (পৌষ থেকে ফাল্গুন) মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার ইছবপুর এলাকার হাইল হাওর সংলগ্ন প্রায় দশ হেক্টর ফসলী জমিতে পানির অভাবে আবাদ বন্ধ ছিলো। অবশেষে বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলামের হস্তক্ষেপে ফসলের মাঠে পানি এসেছে।
এদিকে কৃষকদের সদস্য চাঁদা বকেয়ার অভিযোগ এনে উপজেলার জাগছড়া পানি ব্যবস্থাপনা সমিতির পরিচালনাধীন সরকারীভাবে নির্মিত স্লুইচ গেইট দিয়ে পানি সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছিলো বলে জানা যায়। এ ব্যাপার নিয়ে গত কিছুদিন যাবত বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পরই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন।
জানা যায়, ৫০ জন কৃষকের লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ও গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর তড়িৎ পদক্ষেপ নেন ইউএনও নজরুল ইসলাম। এ ব্যাপারে উপকারভোগী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কৃষক বলেন, ফসলী জমিতে পানি ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সাংবাদিকদের ও ইউএনও স্যারকে ধন্যবাদ আমাদেরকে সাহায্য করার জন্য।
জাগছড়া পানি ব্যবস্থাপনা সমিতির সভাপতি আসাদ মিয়া বলেন, ইউএনও স্যার ও সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের আশ্বাসে আমরা পানি ছেড়ে দিয়েছি।
ইউএনও নজরুল ইসলাম বলেন, যতরকম জটিলতাই থাকুক না কেন, যেকোন অজুহাতে কৃত্রিম জটিলতা সৃষ্টি করে কৃষিকাজ কেউ বন্ধ রাখতে পারবে না। সমস্যা থাকলে সমাধান হবে। আমি সহ শ্রীমঙ্গল সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ভানু লাল রায় ও উপজেলা প্রকৌশলী সঞ্জয় মোহন সরকারকে নিয়ে উপস্থিত থেকে পানি ফসলী জমিতে ছাড়ার ব্যবস্থা করে দিয়েছি এবং শ্রীমঙ্গল ইউনিয়ন পরিষদে ফেব্রুয়ারি মাসে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নিয়ে সভা করে সবার সমস্যা শুনে স্থায়ীভাবে প্রতিকারের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইল আইনজীবী সমিতির বার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি অ্যাডঃ সৈয়দ মোহাম্মদ আলী ( বিনাপ্রতিদ্বন্ধীতায় ) ( আওয়ামীলীগ )এবং সাধারণ সম্পাদক পদে অ্যাডঃ উত্তম কুমার ঘোষ ( ভোট -৪৬ ) ( আওয়ামীলীগ ) নির্বাচিত হয়েছেন ।

এছাড়া অন্যান্য পদে যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন- সহ-সভাপতি অ্যাডঃ সঞ্জিব কুমার বসুুু ( বিনাপ্রতিদ্বন্ধীতায় ) ( আওয়ামীলীগ ), সহ-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ মোঃ মাহামুদুল হাসান কায়েস ( আওয়ামীলীগ ), গ্রন্থাগার সম্পাদক অ্যাডঃ খন্দকার আলীউল মাসুদ কোটন, আইন ও সমাজকল্যান বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ মোঃ ই¯্রাফিল খবির রাজু। সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন, অ্যাডঃ মোঃ রাজু আহম্মেদ রাজীব, অ্যাডঃ লাভলী আক্তার, অ্যাডঃ মিশকাতুর রহমান সজিব ও অ্যাডঃ সুনীল কুমার বিশ্বাস।
জেলা আইনজীবী সমিতি ভবনে বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারী) সকাল ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত এ ভোট গ্রহন সম্পন্ন হয়। মোট ১শ ১০জন ভোটারের মধ্যে ১শ ৭জন ভোট প্রদান করেন। জেলা আইনজীবী সমিতির বিগত কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ গোলাম নবী এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ পরিতোষ কুমার বাগচী নির্বাচন পরিচালনা করেন।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc