Wednesday 19th of December 2018 12:46:07 AM

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ রাজধানীর উত্তরা বিমানবন্দর এলাকায় ভারতীয় মরহুম মৌলভী ইলিয়াস এর প্রবর্তিত ছয় উসুলি ইলিয়াসী তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে শতাধিক লোক আহত হয়েছে।একপক্ষ অপর পক্ষকে ঠেকাতে বিমানবন্দর সড়কের উভয়পাশে অবস্থান নেয়ায় ওই রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়কের উত্তরা, হাউজ বিল্ডিং, বিমানবন্দর, খিলক্ষেত পর্যন্ত ছাড়িয়ে গেছে যানজট।একই সাথে নারায়ে তাকবির বলে  এক পক্ষ অপর পক্ষকে হামলা করছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শিরা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক উত্তরা বিভাগের উপ-কমিশনার প্রবীর কুমার দাশ জানান, শনিবার ভোর থেকেই আশকোনা এলাকায় মারমুখী অবস্থান নিয়েছেন তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপ। উত্তরার আব্দুল্লাহপুরে অবস্থান নিয়েছে আরেক পক্ষ। সংঘর্ষের পর ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় সড়ক স্থবির হয়ে পড়েছে। তারা সড়কে অবস্থান নেয়ায় যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, শুনেছি টঙ্গিতে তাদের জোর অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল। কিন্তু এখানে এক গ্রুপ আরেক গ্রুপকে ভোর বেলায় ঠেকাতে গিয়েই ঘটনার সূত্রপাত হয়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রেখে কীভাবে সড়কে যান চলাচল চালু রাখা যায় সে চেষ্টা চলছে। আমাদের অফিসাররা কাজ করছেন। ডাইভারসন করে রাস্তার একপাশে অন্ততঃ যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

আউশকোনা থেকে কিশোরগঞ্জ জেলার এক বিদেশ যাত্রী আমার সিলেট কে জানান দুপুরে আমাদের ফ্লাইট  কিভাবে বিমান বন্দরে ঢুকবো টেনশনে আছি।পরিক্ষার্থিরা ও যেতে পারছেনা পরিক্ষা হলে।

ডিএমপির উত্তরা জোনের ট্রাফিকের সহকারী কমিশনার (এসি) জুলফিকার জুয়েল বলেন, রাজধানীর অদূরে টঙ্গিতে জোর অনুষ্ঠিত হওয়াকে কেন্দ্র করে ফের বিবাদে জড়িয়েছে তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপ। এক গ্রুপ অপর গ্রুপকে ঠেকাতে শনিবার ভোর থেকে উত্তরার বিমানবন্দর সড়কের উভয় পাশে অবস্থান নিয়েছে। আমাদের ফোর্সরা কাজ করছেন। তাবলিগ জামাতের উভয় পক্ষের মুরুব্বিদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পরিস্থিতি স্বাভাবিকের চেষ্টা করা হচ্ছে।

অপরদিকে স্থানিয় একজন মাসুম আহমদ বলেন “তাদের আচরণ বলে দিচ্ছে যে তারা কিভাবে উগ্র মতবাদের লালন করে তা নিজের চোখে না দেখলে বুঝতে পারবেন না।

এম ওসমান,বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোরের বেনাপোলের শীর্ষ সন্ত্রাসী আমিরুল ইসলাম (৫০) দূর্বত্তদের বোমা হামলায় নিহত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় বেনাপোলের উত্তর কাগজপুকুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আমিরুল ইসলাম বেনাপোলে উত্তর কাগজপুকুর গ্রামের মৃত লুৎফর রহমানের ছেলে ও বেনাপোল এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী নামে পরিচিত।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় আমিরুল মোটরসাইকেলে করে বাজার থেকে বাড়ির দিকে যাচ্ছিল। এই সময় উত্তর কাগজপুকুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিছনে দুর্বৃত্তরা তাকে লক্ষ করে পর পর তিনটি বোমা নিক্ষেপ করে। বোমার বিস্ফোরণে আমিরুলের মাথাসহ শরীর ক্ষতবিক্ষত হয়ে সে ঘটনাস্থলে নিহত হয়।
বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, কে বা কাহারা এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে সে ব্যাপারে পুলিশ এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি। খুনিদের ধরতে ঘটনার পর থেকেই পুলিশি অভিযান শুরু হয়েছে। তার নামে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি ও হত্যা মামলাসহ কয়েকটি মামলা রয়েছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc