Thursday 15th of November 2018 02:02:58 AM

সংলাপে নতুন নজীর সৃষ্টি করেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক নিউজঃ দীর্ঘ সাড়ে তিন ঘণ্টার অধিক আলোচনার প্রারম্ভে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার সরকার টানা ৯ বছর ১০ মাস ধরে ক্ষমতায়। এই সময়ের মধ্যে দেশের কতটুকু উন্নয়ন করতে পেরেছি, সেটা নিশ্চয় আপনারা বিবেচনা করে দেখবেন। তবে এটুকু বলতে পারি, বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ ভালো আছে, তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটেছে।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় গণভবনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সংলাপে বসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সূচনা বক্তব্যে এ সব কথা বলেন তিনি। তার নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন ১৪ দলীয় জোটের ২৩ নেতা এই সংলাপে অংশ নেন।
এর আগে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা সংলাপে যোগ দিতে বিকালে রাজধানীর বেইলি রোডে ড. কামাল হোসেনের বাসা থেকে যাত্রা শুরু করে। রওনা হওয়ার আগে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার পর তারা গণভবনে পৌঁছান। অপরদিকে জাতীয় যুব দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সন্ধ্যা ৬টায় গণভবনে ফেরেন প্রধানমন্ত্রী। সন্ধ্যা ৭টায় ব্যাংকোয়েট হলে প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত হয়ে সবাইকে সালাম দিয়ে আসন গ্রহণ করেন।
ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকে আপনারা এসেছেন গণভবন ও জনগণের ভবনে, গণভবনে আপনাদের স্বাগত জানাই।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের জন্য আর্থসামাজিক উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছি এবং দীর্ঘ সংগ্রামের পথ পাড়ি দিয়ে গণতন্ত্র অব্যাহত রেখেছি। বাংলাদেশের এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে আজকের এই আলোচনা বিরাট অবদান রাখবে বলে মনে করি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন করা, লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমাদের এই স্বাধীনতা। আজকে সে স্বাধীনতার সুফল যেনো প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছাতে পারি সেটাই একমাত্র লক্ষ্য, আর সে লক্ষ্য নিয়েই আমরা কাজ করছি।
আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ করার অংশ হিসেবে গত রবিবার সংলাপের আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনাকে চিঠি পাঠায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। পরদিনই সংলাপে রাজি হওয়ার কথা জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।
উল্লেখ্য,সংলাপ শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়তে সরকার অনেক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে আর এসব উদ্যোগ বাস্তাবায়নে যুবকদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। যুবসমাজ জাতির প্রাণশক্তি,উন্নয়ন ও অগ্রগতির প্রধান নিয়ামক।

তারা সাহসী,বেগবান,প্রতিশ্রুতিশীল,সম্ভাবনাময় এবং সৃজনশীল। তিনি আরো বলেন,যুবদের উদ্ভাবনী ক্ষমতা,অমিততেজ ও সাহস,দেশ ও জাতির উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তাই যুব সমাজ যে কোন দেশের অতিমূল্যবান সম্পদ। যুব সমাজের বিপুল সম্ভাবনাকে জাতীয় উন্নয়নে কাজে লাগাতে হবে।

‘জেগেছে যুব গড়বে দেশ বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ’ শ্লোগানে জাতীয় যুব দিবস উপলক্ষে সুনামগঞ্জে র‌্যালী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আগে যুবকদের উদ্যোশে তিনি এসব কথা বলেন।

বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সমানে থেকে একটি র‌্যালী বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে। এসময় র‌্যালীতে উপস্থিত ছিলেন,অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি,সুনামগঞ্জ ও বিশ্বম্ভরপুর ৪আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ,জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ,পুলিশ সুপার বরকুতুল্লাহ খান,পৌরসভার মেয়র নাদের বখতসহ আরো অন্যান্যরা।

বিক্রমজিত বর্ধন,নিজস্ব প্রতিনিধি: মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে শ্রীমঙ্গল উপজেলা মিলনায়তনে,শ্রীমঙ্গল উপজেলাসহ ১০৬টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন এর শুভ উদ্বোধন করেন।

বৃহস্পতিবার (০১নভেম্বর) সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শ্রীমঙ্গল উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক চীফ হুইপ, সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান রণধীর কুমার দেব, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নজরুল ইসলাম, শ্রীমঙ্গল সার্কেল এর সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান, মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির নির্বাহী পরিচালক অরুন কুমার চৌধুরী প্রমুখ।

এছাড়াও এসময় বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, সরকারি প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন কর্মকর্তা, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকসহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে এক সাথে ১০৬ টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের শুভ উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শ্রীমঙ্গল উপজেলায় ২২৩ কোটি টাকা ব্যায়ে ৭৫৯৫৭ গ্রাহকদের বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে গৃহবধুকে ধর্ষণের ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে একটি প্রভাবশালী মহল। ওই প্রভাবশালী মহলটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ধর্ষিতা গৃহবধুর চরিত্রে কালিমা লেপন করে বিভিন্নভাবে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। এ নিয়ে চুনারুঘাটের সর্বত্র আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে।

উল্লেখ্য যে, ইন্টারনেটে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে গৃহবধুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে এক যুবক। মঙ্গলবার সকালে ধর্ষিতার মা চুনারুঘাট থানায় মামলা দায়ের করলে চুনারুঘাট থানার তদন্ত ওসি আশরাফুল আলম ও এস আই ওমর ফারুকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের বাগিয়ারগাঁও গ্রামে অভিযান চালিয়ে গৃহবধুকে ধর্ষণকারী লম্পট আরিফুল ইসলাম আরিফ (২২) কে গ্রেফতার করে চুনারুঘাট থানায় নিয়ে আসে। সে ওই গ্রামের মদরিছ মিয়ার ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলার আলীনগর গ্রামের প্রবাসী মোঃ সুমন মিয়ার স্ত্রী তাছলিমা আক্তার (২০) কে বিগত ২০১৭ সালের ১৭ ডিসেম্বর রাত অনুমান সাড়ে ১০টার দিকে তাছলিমার বসত ঘরে ধর্ষণকারী আরিফুল ইসলাম আরিফ প্রবেশ করে জুসের সাথে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে তাছলিমাকে পান করায়। তখন তাছলিমা অচেতন হয়ে পড়ে। তাছলিমাকে অচেতন অবস্থায় আরিফুল ইসলাম আরিফ ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের ছবি মোবাইলে ধারণ করে। পরে ধর্ষণের ঘটনার ১০দিন পর পুনরায় ধর্ষণকারী আরিফ তাছলিমার বাড়িতে আসে এবং তার মোবাইলে ধারণকৃত অশ্লীল ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে তাছলিমাকে আবারো ধর্ষণ করে।

সর্বশেষ গত ১০ অক্টোবর রাত অনুমান ১১টার দিকে ওই ধর্ষণকারী তাছলিমার ঘরে প্রবেশ করে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে মঙ্গলবার সকালে তাছলিমার মা উপজেলার আলীনগর গ্রামের ইয়াকুত মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ লুৎফুন্নেছা বাদী হয়ে চুনারুঘাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০(সংশোধনী-৩) এর ৯(১) ধারা তৎসহ পর্নোগ্রাফী নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১২ এর ৮(১)/৮(২)/৮(৩) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।

ধর্ষিতা তাছলিমার মেডিকেল পরীক্ষা মঙ্গলবার দুপুর ২টায় হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে। ধর্ষণকারী আরিফুল ইসলাম আরিফকে দুপুর ১২টায় হবিগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বর্তমানে ধর্ষণকারীর পক্ষ নিয়ে একটি প্রভাবশালী মহল ধর্ষণের ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং ওই প্রভাবশালীরা মামলার বাদীকে মামলা উঠিয়ে নেয়ার জন্য হুমকি-ধামকি প্রদান করছে।

প্রিতম পাল,শ্রীমঙ্গল থেকেঃ ‘জেগেছে যুব গড়বে দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে জাতীয় যুব দিবস পালিত হয়েছে ।

আজ বৃহস্পতিবার (০১নভেম্বর) সকালে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার আয়োজনে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে সময় প্রধান অতিথি ছিলেন সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রণধীর কুমার দেব, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো.আশরাফুজ্জামান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রেমসাগর হাজরা প্রমুখ।

এসময় স্থানীয় সাংবাদিকগণসহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক,শিক্ষার্থীরা, সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ নাশকতার অভিযোগে যশোরের শার্শা উপজেলায় জামায়াতের আমির মাওলানা হাবিবুর রহমানসহ বিএনপি ও জামায়াতের ১৯ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে ১০ টি হাতবোমা ও বিপুল সংখ্যক জিহাদী বই জব্দ করা হয়েছে। থানার এসআই মামুন বাদি হয়ে বুধবার দুপুরে শার্শা থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) শেখ তাসমিম আলম জানান, উপজেলার কায়বা ইউনিয়নের বাগুড়ী গ্রামে উপজেলা জামায়াতের আমির মাওলানা হাবিবুর রহমানের বাড়িতে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টা দিকে নাশকতার উদ্দেশ্যে জড়ো হওয়া জামায়াত ও বিএনপির লোকজন গোপন বৈঠক করছে এমন সংবাদ পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে ১৯ জন জামায়াত-বিএনপির নেতা কর্মীকে গ্রেফতার করে। পুলিশ এ সময় সেখান থেকে ১০ টি হাতবোমা ও বিপুল সংখ্যক জিহাদী বইসহ বেশ কিছু লাঠি-সোটা জব্দ করে। বিকেল ৪টায় আটক নেতা-কর্মীদের জেলে হাজতে পাঠানো হয়েছে।

বোনের দাবী নিহত রাহুল সাঁতার জানতো

সোলেমান আহমেদ মানিক,শ্রীমঙ্গল থেকেঃ মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলে পানিতে ডুবে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে শ্রীমঙ্গল সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বুধবার (৩১ অঅক্টোবর) দুপুরে রাহুল দেব রায় (২২) নামের এক ছাত্র শ্রীমঙ্গল শহরের হাউজিং স্ট্রেট পুকুরে গোসল করতে গিয়ে ডুবে গেলে পরিবারের লোকজন তাকে দ্রুত শ্রীমঙ্গল সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। এ সময় হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সাজ্জাদ ওই ছাত্রকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে পরিবারের লোকজন রাহুলকে হঠাৎ নড়ে উঠতে টের পেয়ে ‘ছেলেটি মারা যায়নি’ বলে কর্তব্যরত ডাক্তারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। একপর্যায়ে তারা হাসপাতালের গ্লাস ভাঙচুর করেন। পরবর্তীতে ডা. সাজ্জাদ শ্রীমঙ্গল থানায় খবর দিলে উপ-পরিদর্শক এসআই রফিকসহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য হাসপাতালে আসেন।

শ্রীমঙ্গল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ সাজ্জাদ জানান, তারা রাহুলকে মৃত অবস্থাতেই হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তারপরও তাদের পরিবারকে সান্ত্বনা দেওয়ার জন্য আমি মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেছিলাম।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএইটও) ডা. জয়নাল আবেদিন টিটু জানান, ছেলেটি পানিতে ডুবেই মারা যায়। আমাদের হাসপাতালের দু’জন চিকিৎসক ডা. সাজ্জাদ এবং ডা. মহসীন ছেলেটিকে মৃত অবস্থায় পেয়েছেন। তার এই মৃত্যুকে কেন্দ্র করে পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে ভাঙচুর করলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহতের ছোট ভাই রিমেন দেব জানায় ‘খেলার কথা বলে হাউজিং স্টেট যায় দাদা। তার পরনে ছিলো প্যান্ট ও টি-শার্ট। দাদার সঙ্গে অপর তিন জনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে দাদা সাঁতার জানতো।’

শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজের অফিস সহকারী গৌরাঙ্গ দেব রায়ের ছেলে রাহুল দেব রায়। রাহুল এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়ে সিলেট এমসি কলেজের স্নাতক বিভাগে ভর্তি হয়। গত মঙ্গলবার রাহুল তার অসুস্থ বড়মা (বাবার দাদি)-কে দেখতে শ্রীমঙ্গল আসে। রাহুল দেব রায়ের এমন অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুতে পুরো এলাকাজুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc