Wednesday 21st of November 2018 02:01:52 AM

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ দিন রাতের বিশেষ বিশেষ সময়ে বাড়ির লোকদের নাকে হঠাৎ ভেসে আসতো পোলাওয়ের চালের গন্ধ। মনে হতো কোথাও কালিজিরা, চিনিগুঁড়া ধান দিয়ে পোলাও রান্না হচ্ছে। কিন্তু আশেপাশের ঘর বাড়িতে খবর নিয়ে জানা যেত পোলাওয়ের চাল কিংবা পোলাও রান্না হচ্ছে না। বাড়ির লোকেদের অনেকে ভৌতিক চিন্তা-ভাবনা কল্পনায় আসতে থাকলো তার কয়েকদিন পরই তারা পোলাও চালের রহস্য খোঁজে পেল। ভৌতিক কোন ঘটনা নয় পোলাওয়ের চালের মতো গন্ধ ছড়াতো একটি প্রাণী। তার নাম হচ্ছে গন্ধগোকুল। এরকম গন্ধ ছড়ায় বলেই এদের এমন নামকরণ করা হয়েছে। প্রাণীটিকে দেখার পর বাড়ির লোকেদের ভৌতিক ভয় চলে গেলে প্রাণীগুলোর উপস্থিতি সকলকে অসস্তিতে ফেলে দিচ্ছে। মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের কলেজ রোডস্থ একটি বাড়িতে গিয়ে এমন গল্পই শুনা যায়।

পরিবারের লোকজন এর সাথে কথা বলে জানা গেছে, ঘরের ছাদের সিলিং এ বাসা বেধে একটি গন্ধগকূল পরিবার অনেক দিন থেকেই আছে। সেখানে রয়েছে বড় দুটি গন্ধগকুল ও চারটি বাচ্চা। সারা দিন-রাত বাড়ির সিলিং এর ভিতর ছুটাছুটি করে বেড়ায় এই গন্ধগকুল গুলো। তাদের কারনে বাড়িতে থাকাটা একটা অস্বস্থিতে পরিনত হয়েছে বাড়ির লোকদের। মাঝে মাঝে বাশ দিয়ে সিলিং এ শব্দ করলে তারা কিছুক্ষণ শান্ত থাকে কিন্তু পরক্ষনেই আবার ছুটাছুটি করে। তাছাড়া বাড়িতে থাকা ছোট শিশুরা এই গন্ধগোকুল গুলোর জন্য সারক্ষন ভয়ে থাকে।

মো. শরিফ নামে এই বাড়ির একজন সদস্য এ প্রতিনিধিকে জানান, গন্ধগোকূল গুলো বনে থাকার কথা থাকলেও তাদের বাড়িতে বাসা বেধেছে। এই গন্ধগোকূল গুলোর যন্ত্রনায় বাড়িতে থাকাটা কঠিন হয়ে পড়ছে। অনেক সময় এই গন্ধগকুূল গুলো টয়লেট করে পুরো ঘর বাড়ি নোংরা করে দিচ্ছে। এই অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার গন্ধগকুলের দুটি ছোট বাচ্চাকে আটক করে খাঁচায় রেখেছি। এখন বড়গুলোকে ধরতে পারলে বন বিভাগ কিংবা বন্যপ্রানী সেবা ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে বনে ছেড়ে দিয়ে আসার ব্যবস্থা করবো। বন্যপ্রাণীদের তো মারতে পারি না,তাই কষ্ট হলেও তাদের সাথেই বাস করছি।

শ্রীমঙ্গলস্থ বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের পরিচালক সজল দেব বলেন, আমরা ঐ বাড়িতে গিয়েছি। গন্ধগোকূল গুলো টিনের ছাদের নিচের সিলিং এর ভিতর। সেখান থেকে তাদের ধরাটা সহজ নয়। যেহেতু প্রাণীগুলো সুস্থ ও স্বাভাবিক তাদের ধরতে গেলেই পালিয়ে যায়। বাড়ির সদস্যরা গন্ধগোকূলের দুটি বাচ্চা ধরে খাঁচায় রেখেছেন। আমরা চেষ্ঠা করছি এই বাচ্চার মাধ্যমে বড় দুটি গন্ধগোকূলকে উদ্ধার করে বনে নিয়ে ছেড়ে দেবার।

বাংলাদেশ বন্যপ্রানী সেবা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সিতেশ রঞ্জন দেব প্রথম আলোকে বলেন, গন্ধগোকুল ঠরাবৎৎরফধব গোত্রের নিশাচর ও স্তন্যপায়ী প্রাণী। শরীরটা বিড়ালের ন্যায়, লেজ লম্বা ও মুখ দেখতে বেজি অথবা ভোঁদরের মতো। পশম ধুসর বা বাদামী বর্ণে হয়ে থাকে। শরীরে বিভিন্ন ধরনের রংয়ের সারি ও কালো ছোপ ছোপ দাগ থাকতে পারে। লম্বায় ১৬-৩৪ ইঞ্চি পর্যন্ত হয়ে থাকে। লেজের দৈর্ঘ্য ৫-২৬ ইঞ্চি হয়। সাধারণত ১.৫-১১ কিলোগ্রাম পর্যন্ত ওজনের হতে পারে এরা। বাংলাদেশে ৫টি প্রজাতি গন্ধগোকুল রয়েছে, যার মধ্যে ৩টি বিলুপ্তির পথে।

এরা একাকী নির্জন পরিবেশে থাকতে পছন্দ করে। সাধারণত গভীর রাতে শিকার এবং খাবার সংগ্রহের উদ্দেশ্যে বের হয়ে আসে। নিশাচর এ প্রাণীটি ভূমিতেই বেশি বিচরণ করতে স্বাচ্ছন্দবোধ করে। গন্ধগোকুল সর্বভুক, কিন্তু প্রাথমিকভাবে মাংসাশী প্রাণী। ইঁদুর, আম, কফি বীজ, আনারস, তরমুজ, কলা, ছোট পাখি, টিকটিকি, ছোট সাপ, ব্যাঙ, শামুক ইত্যাদি খাদ্যতালিকায় রয়েছে।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের পূর্নাঙ্গ কার্যকরী পরিষদ নবায়ন করা হয়েছে ৷গতকাল (৩১ আগস্ট) সন্ধ্যায় ক্লাবের বিরতী মার্কেটস্থ অস্থায়ী কার্যালয়ে এক সাধারন সভায় আগামী দুই বছরের জন্য পূর্নাঙ্গ কার্যকরি পরিষদের অনুমোদন দেয়া হয় সর্বসম্মতিভাবে৷ সভায় আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম এর সম্পাদক আনিছুল ইসলাম আশরাফীকে সভাপতি ও মনসুর আহমেদকে সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত করে একটি পুর্নাঙ্গ ও শক্তিশালী কমিটি গঠন করা হয়৷
তাছাড়া অন্যান্য কার্যনির্বাহী পদ গুলো ও উপস্থিত সদস্যদের কন্ঠ ভোটে নির্বাচিত হয। অপরদিকে,সম্প্রতি বিভিন্ন সুত্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অপসাংবাদিকতার নামে কিছু অসাধু লোকের কার্যকলাপের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে সভায় আলোচনা হয় এবং অনলাইন সংবাদ মাধ্যম বিশেষ করে শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবকে ব্যবহার করে সর্বসাধারণের সাথে যাতে কোন প্রকার প্রতারণায় কেহ মেতে উঠতে না পারে সে দিকে সবাইকে সূক্ষ্ম নজর রেখে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানানো হয়।

ডেস্ক নিউজঃ ক্রান্তিকাল পার করছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)। এ অবস্থার মধ্যেই ১ সেপ্টেম্বর ৪১ বছরে পা রাখলো দলটি। সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান প্রতিষ্ঠিত বিএনপির বর্তমান চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এখন কারাবন্দি। তার অনুপস্থিতিতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, তিনিও দীর্ঘদিন ধরে লন্ডনে অবস্থান করছেন।
দলের শীর্ষ দুই নেতার অনুপস্থিতিতে অনেকটাই ভারাক্রান্ত বিএনপির বর্তমান নেতৃত্ব। এই দুঃসময়েও দলের ঐক্য যেমন আছে, তেমনি চলছে নির্বাচন ও খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনের প্রস্তুতিও।
৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকায় সমাবেশের কর্মসূচি দিয়েছে বিএনপি। ১ সেপ্টেম্বর বিকালে রাজধানীর নয়া পল্টনে সমাবেশ করবে দলটি। এতে দলের স্থায়ী কমিটিসহ সিনিয়র নেতারা অংশ নেবেন। এর আগে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিন সকালে প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দেবেন দলের নেতারা। পরদিন ২ সেপ্টেম্বর ইনস্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স (রমনা) মিলনায়তনে বিএনপির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা হবে।
দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘এবারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অঙ্গীকার খালেদা জিয়ার মুক্তি, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের মাধ্যমে হারানো ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনা এবং বাক-ব্যক্তি ও মত প্রকাশের স্বাধীনতাসহ জনগণের মানবিক মর্যাদা সুরক্ষা করা।’
মির্জা ফখরুল বিএনপি’র ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মী, শুভানুধ্যায়ী এবং দেশবাসীকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।
তিনি বলেন, ‘বর্তমান দুঃসময়ে জনগণকে সংগঠিত করার কোনও বিকল্প নেই। দেশ আজ দুঃশাসন কবলিত। বারবার অবরুদ্ধ গণতন্ত্রকে যিনি মুক্ত করেছেন, সেই অবিসংবাদিত নেতা খালেদা জিয়াকে বানোয়াট মামলায় সাজা দিয়ে বন্দি করে রাখা হয়েছে। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে। এই সব প্রতিহিংসামূলক জুলুমের বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। মুক্ত করে আনতে হবে আমাদের প্রিয় নেত্রী বেগম জিয়াকে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সব ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে হবে।’
প্রসঙ্গত, ১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর বিকাল পাঁচটায় রাজধানীর রমনা রেস্তোরাঁয় তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিক ঘোষণাপত্র পাঠের মাধ্যমে বিএনপির যাত্রা শুরু হয়। সংবাদ সম্মেলনে নতুন দলের আহ্বায়ক কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে তিনি প্রথমে ১৮ জন সদস্যের নাম ঘোষণা করেন। পরে ১৯৭৮ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর ওই ১৮ জনসহ ৭৬ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। এর আগে ১৯৭৮ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি জিয়াউর রহমান প্রথমে ‘জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক দল’ (জাগদল) গঠন করেন। যদিও দলটির চেয়ারম্যানের দায়িত্বে ছিলেন তৎকালীন উপ-রাষ্ট্রপতি বিচারপতি আবদুস সাত্তার। ২৮ আগস্ট ১৯৭৮ সালে নতুন দল গঠন করার লক্ষ্যে জাগদলের বর্ধিত সভায় ওই দলটি বিলুপ্ত ঘোষণা হয়।
বিএনপির ওয়েবসাইট থেকে প্রাপ্ত তথ্য মতে, রাজনৈতিক দল প্রতিষ্ঠার আগে ১৯৭৭ সালের ৩০ এপ্রিল জিয়াউর রহমান তার ‘সামরিক শাসন’-কে ‘বেসামরিক’ করার উদ্দেশ্যে শুরু করেন ১৯ দফা কর্মসূচি।
অনেক ভাঙা-গড়া আর উত্থান-পতনের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের রাজনীতিতে সুদীর্ঘ ৪০ বছর পার করেছে বিএনপি। এসময় চারবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় ছিল দলটি। দু’বার জাতীয় সংসদে বিরোধী দল হিসেবে দায়িত্ব পালন করে বিএনপি।
১৯৭৯ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনের মধ্যে ২০৭টি আসন পেয়ে রাষ্ট্র ক্ষমতায় বসে বিএনপি। এরপর ১৯৮১ সালের ৩০ মে চট্টগ্রামে এক ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানে জিয়াউর রহমান নিহত হন। ১৯৮২ সালের ৩ জানুয়ারি বিএনপির প্রাথমিক সদস্যপদ গ্রহণ করে রাজনীতিতে আসেন তাঁর স্ত্রী খালেদা জিয়া। ১৯৮৪ সালের ১০ মে দলের চেয়ারপারসন নির্বাচিত হয় খালেদা জিয়া। এরপর থেকে তিনি দলটির চেয়ারপারসনের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ১৯৯১ সালে ২৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তার নেতৃত্বে বিএনপি সংখ্যাগরিষ্ঠ আসনে বিজয়ী হয়ে সরকার গঠন করে। ১৯৯৬ সালের বির্তকিত নির্বাচনের মধ্য দিয়ে স্বল্প দিনের জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন খালেদা জিয়া। ১৯৯৯ সালে চারদলীয় ঐক্যজোট গঠন করে বিএনপি। এরপর ২০০১ সালের ১ অক্টোবরের নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বে চারদলীয় জোট ভোটের লড়াইয়ে জিতে সরকার গঠন করে। ১৯৯৬ সালের ১২ জুন এবং ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিজয়ী হলে বিএনপি জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করে। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে অনুষ্ঠিত নির্বাচন বয়কট করে বিএনপি।

“সৈয়দ শাহাব উদ্দীন সভাপতি,হাজী কামাল হোসেন সাধারণ সম্পাদকসহ নব-নির্বাচিত সকলকে শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন”

হৃদয় দাশ শুভ,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মৌলভীবাজার জেলা জাতীয় পার্টির (জাপা) ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।গোপন ভোটের মাধ্যমে মৌলভীবাজারের সৈয়দ শাহাব উদ্দীনকে সভাপতি ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার হাজী মোঃ কামাল হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত করেন জাপার দলীয় ভোটাররা ৷
গত কাল বৃহস্পতিবার (৩০) আগস্ট দুপুর ২ ঘটিকা থেকে রাত ৮ ঘটিকা পর্যন্ত মৌলভীবাজার শহরের সার্কিট হাউজে গোপন ব্যালেটের  মাধ্যমে এ নির্বাচন অনুষ্টিত হয়।সৈয়দ শাহাব উদ্দীন সভাপতি পদে  ১৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন এবং নিকটতম প্রতিদন্ধী এ্যাডভোকেট মাহবুবুল আলম শামীম পেয়েছেন ১১ ভোট ও অপর সভাপতি প্রার্থী নূরুল হক পেয়েছেন ৩ ভোট।হাজী মোঃ কামাল হোসেন সাধারণ সম্পাদক পদে ২৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। নিকটতম প্রতিদন্ধী মাহমুদুর রহমান পেয়েছেন ৭ ভোট ও অপর সাধারণ সম্পাদক প্রাথী আহমদ রিয়াজ পেয়েছেন ২ ভোট।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, জাপার মহাসচিব রুহুল আমীন হাওলাদার, সাবেক প্রেসিডেন্ট এরশাদের প্রেস সেক্রেটারি সুনীল শুভ রায় জাতীয় পার্টির এমপি ইয়াহিয়া ও প্রেসিডিয়াম সদস্য এ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া প্রমুখ।

মৌলভীবাজার জেলা জাতীয় পার্টির নব-নির্বাচিত সকল নেতৃবৃন্দকে “শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থকে অভিনন্দন জানিয়েছেন “।শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি আনিছুল ইসলাম আশরাফী,সম্পাদক মনসুর আহমদ, যুগ্ন সম্পাদক আব্দুল মজিদ ও যুগ্ন সম্পাদক হৃদয় দাস শুভ এক যৌথ বার্তায় নব-নির্বাচিত জাতীয় পার্টির মৌলভীবাজার জেলা নেতৃবৃন্দদেরকে কল্যাণকর রাজনীতির মাধ্যমে সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠার আহবান জানান।

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলে ডিবি পুলিশ এক মোটর সাইকেল আরোহীর কাছ থেকে ৭০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে । শুক্রবার (৩১ আগষ্ট) সকাল ৮টার দিকে নড়াইল-যশোর সড়কের সীতারামপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে এসব ফেনসিডিল উদ্ধার করে।

নড়াইল ডিবি পুলিশের ওসি মোঃ আশিকুর রহমান জানান, নড়াইল-যশোর সড়কে নিয়মিত চেকপোষ্টের অংশ হিসেবে শুক্রবার সীতারামপুর ব্রীজ এলাকায় একটি মোটর সাইকেলের আরোহীকে তল্লাশি করা হয়। এসময় তার মোটর সাইকেলে রাখা একটি ব্যাগ তল্লাশি করে ৭০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। ওই মোটর সাইকেল আরোহীর কাছে একটি ফলের ব্যাগ ও একটি কাপড়ের ব্যাগ ছিল। এসময় তার ব্যবহৃত মোটর সাইকেলটিও জব্দ করা হয়েছে।

আটক ইয়াকুব মোল্যা ওরফে বাবুল (২৮) নড়াইল সদর উপজেলার চন্ডিবরপরপুর ইউনিয়নের ফেদী গ্রামের দাউদ মোল্যার ছেলে। বর্তমানে সে সদর উপজেলার তুলারামপুর ইউনিয়নের পেড়লী মিনা বাজার এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকে।

আটক বাবুল জানায়, বসুন্দিয়া মোড় থেকে ফেনসিডিল নিয়ে লোহাগড়ায় নিয়ে যাচ্ছিলো।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম জানান, মাদক নিয়ন্ত্রণে নড়াইল-যশোর সড়কে নিয়মিত তল্লাশির অংশ হিসেবে ডিবি পুলিশের তল্লাশি চলাকালীন এ ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

নাজমুল সুমন মৌলভীবাজার থেকে: মৌলভীবাজারবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি সরকারি মেডিকেল কলেজ। আর এই দাবী দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে গণস্বাক্ষর অভিযান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। সম্প্রতি নতুন চারটি মেডিকেল কলেজ ঘোষণায় মৌলভীবাজারকে অন্তর্ভুক্ত না করায় এই কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে।

গত বুধবার দুপুর ১২ টায় বিশ্বব্যাপী অবস্থানরত মৌলভীবাজারের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সমন্বয়ে গঠিত ‘মৌলভীবাজারে সরকারি মেডিকেল কলেজ চাই ওয়াল্ড ওয়াইড  ক্যাম্পেইন গ্রুপ ও সম্মিলিত সামাজিক উন্নয়ন পরিষদের যৌথ আয়োজনে শহরের অভিজাত হোটেলে এই গণস্বাক্ষর কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আজিজুর রহমান। এ সময় তিনি মেডিকেল কলেজের দাবির পক্ষে প্রথম স্বাক্ষর করে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

বিশিষ্ট সমাজসেবক ডা. ছাদিক আহমদ এর সভাপতিত্বে ও সাংস্কৃতিক ব্যাক্তি  খালেদ চৌধুরীর সমন্ধয়ে এতে অতিথি ছিলেন মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. ফলজলুল আলী, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক সৈয়দ নওশের আলী খোকন, শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক মিন্টু,সাবেক সমাজকল্যানমন্ত্রীর কন্যা ও জেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সৈয়দা সানজিদা শারমীন, সদর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান শাহিন রহমান, মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক, এমদাদু হক মিন্টু, সাংবাদিক বকসি ইকবাল আহমদ,  আব্দুর রব তালুকধার, প্রবাসী সাংবাদিক মোস্তাক আহমদ অপু, মোস্তফাপুর ইউপি চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম তাজ, কনকপুর ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউর রহমান রেজা,  জেলা পরিষদের সদস্য জেরিন আক্তার, শেখ বুরহান উদ্দিন সোসাইটির চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান মুহিব এম এ সামাদ, কামরুজ্জামান খান, সৈয়দা জেরিন আক্তার, মাহমুদুর রহমান, সুরাইয়া আক্তার, নূরজাহান সুয়ারা প্রমুখ।

২৫ লক্ষ মানুষের প্রানের দাবী দ্রুত বাস্তবায়নের দাবীতে গণ স্বাক্ষর অভিযানের উদ্বোধন ও প্রতিনিধি সভায় বৃটেন থেকে মৌলভীবাজার সরকারি মেডিকেল কলেজ চাই ওয়াল্ড ওয়াইড ক্যাম্পেইন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের এডমিন মোহাম্মদ মকিস মনসুর ও গ্রুপের প্রধান উপদেষ্টা  ড. ওয়ালি তসর উদ্দিন এমবিইর লিখিত বানী পড়েন শিক্ষিক সেলিনা আহমদ।

মৌলভীবাজারবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ‘সরকারি মেডিকেল কলেজ’ দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে গণস্বাক্ষর অভিযান কায্যক্রম উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে অতিথিরা।

এ ছাড়া গণস্বাক্ষর অভিযানে অংশ নিতে প্রবাসী  আব্দুর রউফ তালুকদার, আব্দুল মালিক, কামরুজ্জামান খান ও নজরুল ইসলাম আকিব এর নেতৃত্বে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত মৌলভীবাজারের ৫০ জন প্রবাসী প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ এসে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন।

আয়োজকরা জানান, মৌলভীবাজারের ২৫ লক্ষ মানুষ বছরের পর বছর একটি মেডিকেল কলেজের দাবি জানিয়ে আসছে। দেশ বিদেশে সভা সেমিনার করছে। সরকারে ঘোষণা রয়েছে প্রত্যেক জেলায় মেডিকেল হবে। কিন্তু তার কোন বাস্তবায়ন মৌলভীবাজারবাসী দেখছে না। তাই দাবির  আদায়ের পক্ষে জনসম্পৃক্ততা প্রমাণে মাসব্যাপী জেলাজুড়ে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc