Wednesday 24th of October 2018 12:02:49 AM

ডেস্ক নিউজঃ সম্প্রতি ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে তার দেশের দুর্নীতিবাজ পুলিশ কর্মকর্তাদের হত্যার হুমকি দিয়েছেন ।

মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে দুর্নীতির অভিযোগে তদন্তাধীন পুলিশ কর্মকর্তাদের হাজির করা হলে তিনি এ হুমকি দেন।

দেশটির ১০২ জন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, অপহরণ ও ডাকাতিসহ ফৌজাদারির অভিযোগে তদন্ত চলছে। দুতের্তের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য এসব কর্মকর্তাদের মঙ্গলবার তার প্রাসাদে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ সময় দুতের্তে বলেন, কুত্তার বাচ্চারা তোমরা যদি এভাবে চলতে থাক তাহলে আমি সত্যি তোমাদের হত্যা করব।

বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগগুলো সরকার পুনরায় তদন্ত করে দেখবে উল্লেখ করে দুতের্তে বলেন, আমার একটা বিশেষ ইউনিট আছে যারা আজীবন তোমাদের ওপর নজরদারি চালাবে। যদি তোমরা একটা ছোট ভুলও কর, তাহলে আমি তোমাদেরকে হত্যা করার জন্য তাদেরকে নির্দেশ দেব।

এসব পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারের সদস্যদের উদ্দেশে দুতের্তে বলেছেন, যদি এই কুত্তার বাচ্চারা মারা যায়, তাহলে আপনারা আমাদের কাছে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ নিয়ে আসবেন না। কারণ আমি ইতিমধ্যে আপনাদের সতর্ক করেছি।

ডেস্ক নিউজঃ সম্প্রতি শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীকে ইচ্ছাকৃতভাবে বাসচাপা দিয়েছিলেন জাবালে নূল পরিবহনের চালক মাসুম বিল্লাহ। এতে ঘটনাস্থলেই এ কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আব্দুল করিম রাজিব নিহত হয়।

ঢাকা মহানগর হাকিম গোলাম নবীর আদালতে বুধবার (৮ আগস্ট) স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন বাসচালক মাসুম বিল্লাহ। জবানবন্দিতে তিনি হত্যার দায় স্বীকার করেন। জবানবন্দি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

সাত দিনের রিমান্ড শেষে আজ মাসুম বিল্লাহকে আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক কাজী শরিফুল ইসলাম। মাসুম বিল্লাহ স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম গোলাম নবী তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, মাসুম বিল্লাহ তার জবানবন্দিতে জানিয়েছেন, ঘটনার সময় তিনি বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালাচ্ছিলেন। ঘটনাস্থলে এসে অধিক যাত্রী দেখেন। বেশি টাকা উপার্জনের জন্য সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা আরেকটি গাড়িকে ওভারটেক করে মাসুম বিল্লাহ শিক্ষার্থীদের ওপর গাড়ি উঠিয়ে দেন।

গত ১ আগস্ট মাসুম বিল্লাহর সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

মামলাটিতে বাসের মালিক মো. শাহাদত হোসেন, অপর বাসের চালক জোবায়ের ও সোহাগ আলী এবং চালকের সহকারী এনায়েত হোসেন ও রিপন হোসেন সাত দিনের রিমান্ডে রয়েছেন। গত ২ আগস্ট শাহাদত হোসেনের এবং ৬ আগস্ট ওই চার আসামির রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ জুলাই দুপুরে ১৫-২০ জন শিক্ষার্থী কালশী ফ্লাইওভার থেকে নামার মুখে এমইএস বাস স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে ছিলেন। জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস ফ্লাইওভার থেকে নামার সময় মুখেই দাঁড়িয়ে যায়। এ সময় পেছন থেকে আরেকটি দ্রুত গতির বাস ওভারটেক করে সামনে আসতেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। নিমিষেই ওঠে পড়ে দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ওপর। এতে চাকার নীচে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আব্দুল করিম রাজীব মারা যায়। আহত হয় আরো কয়েকজন শিক্ষার্থী।

ওই ঘটনায় ২৯ জুলাই দিবাগত রাতে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মিমের বাবা জাহাঙ্গীর আলম এ মামলা দায়ের করেন।

এম এ মমিনঃ নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হকের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করে বিদায় সংবর্ধনা জানালেন নারায়ণগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাব। ৮ আগস্ট বুধবার বেলা ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেসক্লাবের সভাপতি এ্যাড শাহ আলী মোহাম্মদ পিন্টু খাঁনের নেতৃত্বে প্রেসক্লাবের সদস্যরা সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন।

সাক্ষাতকালে সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয় এবং এই পুলিশ সুপার মঈনুল হক (বিপিএম, পিপিএম) বলেন, নারায়ণগঞ্জ এ পেশাগত দায়িত্ব পালন কালে আমি সাংবাদিকদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা পেয়েছি। এ জন্য তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। এই জেলার মানুষকে আইনী সেবা দিতে আমার আন্তরিকতার কোন অভাব ছিল না। জেলাবাসীর মঙ্গল কামনা করে তিনি আরো বলেন, যেখানেই থাকি এ জেলাবাসীর কথা আমার মনে থাকবে।

নারায়ণগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম এ মান্নান ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ পুলিশ সুপারের কর্মকালে সততা, নিষ্ঠা ও কর্মদক্ষতার প্রশংসা করে তাঁরা বলেন, আপনার সময়ে নারায়ণগঞ্জে মাদক নিয়ন্ত্রণ, সন্ত্রাস দমন ও আইন শৃঙ্খলার যথেষ্ট উন্নয়ন হয়েছে। এজন্য নারায়ণগঞ্জের সাংবাদিক ও সাধারণ মানুষের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়েই পুলিশ সুপার মঈনুল হককে নারায়ণগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে কর্মস্থল বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। সংবর্ধনায় পুলিশ সুপারকে শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেহেদী হাসান ইমরান, নারায়ণগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি মোহাম্মদ নেয়ামত উল্লাহ (টাইমস নারায়ণগঞ্জ ২৪ ডটকম), যুগ্ম সম্পাদক মনির হোসেন (নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডটকম), সাহিত্য সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেন (একুশের কাগজ ডটকম), তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান ( সোনারগাঁও প্রতিদিন ডটকম), প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক শাহাদাত হোসেন তৌহিদ (বজ্রধ্বনি ডটকম), নির্বাহী সদস্য তৌকির আহমেদ রাসেল ( পথের সময় ডটকম), সদস্য সুলতান মাহমুদ ( সময়ের চিন্তা ডটকম), ইউসুফ আলী প্রধান (দৈনিক ডেসটিনি) ও মাজাহারুল ইসলাম রোকন (আজকাল নারায়ণগঞ্জ ডটকম) প্রমূখ।

উল্লেখ্য যে, গত ১লা আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে তিনি যশোরের পুলিশ সুপার হিসেবে বদলী হন বলে জানা গেছে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc