Saturday 18th of August 2018 03:58:42 PM

নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের নামে ফেসবুক ও ম্যাঞ্জেজারে বিভিন্ন গুজব ছড়িয়ে দেয়াসহ তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা 

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের নামে ফেসবুক ও ম্যাঞ্জেজারে বিভিন্ন গুজব ছড়িয়ে দেয়াসহ নাশকতা পরিকল্পনার অভিযোগে নড়াইলে ৬ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেসব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম। এদিকে, মঙ্গলবার এই ৬ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলাসহ তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
আটককৃত শিক্ষার্থীরা হলেন-যশোরের কোতয়ালী থানার বসুন্দিয়া এলাকার মহিবুল্লাহ গালিব (২০), যশোরের চান্দুটিয়া এলাকার রাকিব হাসান (২২), নড়াইলের নড়াগাতি থানার টোনা গ্রামের মুন্সী সাবের আহম্মেদ (২১) ও মিলন মোল্যা (২০), নড়াগাতি থানার মাউলী গ্রামের রেজা শেখ মিলন (২১) ও কালিয়া উপজেলার চাঁদপুর এলাকার হাসান সরদার (১৯)। আটককৃতরা নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজসহ বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থী। এদের কাছ থেকে পাঁচটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে।
পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম জানান, নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের পাশে সুলতান ম এলাকায় বসে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে ষড়যন্ত্র করছিল এই ৬ শিক্ষার্থী। এছাড়া নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের নামে ফেসবুক ও ম্যাঞ্জেজারে বিভিন্ন গুজব ছড়িয়ে দেয়াসহ নাশকতার পরিকল্পনা করছিল তারা। তাদের কাছ থেকে তাদেও ব্যবহৃত মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। আটকৃতদের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা করা হয়েছে এবং তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইলে যশোর -নড়াইল সড়কের পাশ থেকে তরিকুল ইসলাম (২৮) নামে বাঘারপাড়ার এক যুবলীগ নেতার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
বুধবার (৮ আগষ্ট) সকাল ৮টার দিকে নড়াইল-যশোর সড়কের শহর সংলগ্ন সীতারামপুর ব্রীজের পশ্চিম পার্শে¦ও এলাকা থেকে তার গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ উদ্ধার করে নড়াইল সদর থানা পুলিশ।

নিহত তরিকুল যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার জামদিয়া গ্রামের মিজানুর বিশ^াসের ছেলে এবং বাঘারপাড়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য বলে জানা গেছে। তিনি জামদিয়া বাজারের একজন সার ও কীটনাশক ব্যবসায়ী।
সদর থানার এসআই মাসুদ রানা জানান, বুধবার সকালে স্থানীয় লোকজন পথচারীরা নড়াইল-যশোর সড়কের সীতারামপুর ব্রীজ এলাকায় রাস্তার পাশে একটি মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
বাঘারপাড়ার নিহতের পরিচিত করিমপুরের মোঃ ইমান আলী জানান, গত শুক্রবার (৩ আগষ্ট) সন্ধ্যায় জামদিয়া বাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে সাদা পোষাকধারী পুলিশ তরিকুলকে ধরে নিয়ে যায়। পরে যশোরে ডিবি পুলিশের সাথে যোগাযোগ করা হলে আটকের বিষয়টি অস্বীকার করে। এ বিষয়ে বাঘারপাড়া থানায় জিডি করতে গেলেও পুলিশ জিডি গ্রহণ করেনি। ঘটনার ৫দিন পর তার গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া গেল। তার পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ নিহত তরিকুল সংসদ সদস্য রণজিত রায়ের গ্রুপ করে। দলীয় কোন্দলের কারনে তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।
যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির যুগ্ম-আহায়ক কামরুজ্জামান লিটন জানান, নিহত তরিকুল বাঘারপাড়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য। তরিকুল একজন সাংগঠনিক ছেলে। সে যশোর এম এম কলেজ থেকে এম,এ পাশ করে ব্যাবসা করত। তার বিরুদ্ধে থানায় কোন মামলা নেই। মাদকের সাথেও কোন সম্পৃক্ততা নেই। তাকে ডিবি পুলিশ ধরে নিয়ে বিনা কাননে ক্রস ফায়ার দিয়ে হত্যা করেছে। এঘটনার সঠিক তদন্ত ও বিচার দাবি করেছেন তিনি।
বাঘার পাড়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ) মোঃ মঞ্জুরুল আলম জানান, তরিকুলের নামে বাঘারপাড়া থানায় কোন মামলা নেই, অন্য কোন থানায় মামলা আছে কিনা  এ বিষয়ে আমার জানা নেই।
বাঘার পাড়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ) জানান, মোঃ আনোয়ার হোসেন, তরিকুল নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নড়াইল থানায় কোন মামলা নেই। তার পরিবারের থেকে পক্ষ এ বিষয়ে যদি কোন অভিযোগ করা করা হয় , তাহলে আমরা তদন্ত করে ব্যাবস্থা গ্রহন করবো।

বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোরের বেনাপোল সীমান্তে থেকে ২৯ লাখ টাকা মুল্যের বিপুল পরিমান ভারতীয় শাড়ি কাপড় জব্দ করেছে বিজিবি সদস্যরা। বুধবার পুটখালী অভয়বাশ বাওড়পাড় এলাকা থেকে শাড়িগুলো উদ্ধার করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র খুলনা-২১ ব্যাটালিয়নের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর সৈয়দ সোহেল আহমেদ সাংবাদিকদেরকে জানান, বেনাপোল পুটখালি সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় শাড়ির একটি চালান প্রবেশ করেছে এমন সংবাদের ভিক্তিতে খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় বিজিবির সদস্যরা। এ সময় বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে পাচারকারিরা শাড়ী কাপড়ের চালানটি ফেলে পালিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে ৫৮১টি ভারতীয় শাড়ি পাওয়া যায়। যার বাজার মূল্য আনুমানিক ২৯ লাখ ৩৩ হাজার ৫শ’ টাকা বলে এ বিজিবি জানায়।

এ ঘটনায় বেনাপোল থানায় একটি মামলার করার হয়েছে।

নড়াইল   প্রতিনিধিঃ নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে নড়াইলে ছাত্র-ছাত্রীদের আনন্দ র‌্যালী  অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার  নড়াইল পৌর মেয়রের আয়োজনে বঙ্গবন্ধু চত্বর থেকে শুরু হয়ে র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে একই স্থানে এসে শেষ হয়।

পরে ঐ স্থানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, পৌর মেয়র মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন বিশ্বাস,  পৌর কাউন্সিলর কাজী জহিরুল হক, যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য জাহাঙ্গীর কবির ইকবাল, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নিলয় রায় বাধন, ,নড়াইল ভিক্টোরিয়া কলেজিয়েট স্কুলর প্রধান শিক্ষক নিমাই চন্দ্র পাল, ছাত্রলীগ নেতা শেখর সিংহ পল্টু, মোঃ জামিল আহম্মেদসহ অনেকে।

র‌্যালীতে বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীসহ জেলা  ছাত্রলীগের নেতা, কর্মি উপস্থিত ছিলেন।

চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ সারা বাংলাদেশের ন্যায় চুনারুঘাট উপজেলায় ট্রাফিক সপ্তাহ পালন করা হচ্ছে। মঙ্গলবার ট্রাফিক সপ্তাহের তৃতীয় দিনে চুনারুঘাট থানা পুলিশ ও ট্রাফিক পুলিশদের সমন্বয়ে চুনারুঘাট মধ্য বাজারে চেক পোস্ট বসিয়ে যানবাহনের লাইসেন্স, চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স সহ আনুষাঙ্গিক কাগজপত্র যাচাই করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,চুনারুঘাট থানার ওসি কে এম আজমিরুজ্জামান, এস আই ওমর ফারুক, এস আই অলক বড়ুয়া,এস আই সজিব, এস.আই নাজমুল হাসান সহ একদল পুলিশ। সারাদিন পুলিশের  চেক পোস্টে ফিটনেসবিহীন, লাইসেন্স বিহীন অটো টেম্পু, মোটরসাইকেল, টমটম গাড়ি, সিএনজি অটোরিক্সা সহ প্রায় ৬০টি গাড়ি আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

প্রত্যেকটি গাড়ির বিরুদ্ধে ট্রাফিক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ সময় চুনারুঘাট থানার ওসি কে.এম আজমিরুজ্জামান বলেন, ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সবিহীন গাড়ির চালক বা ট্রাফিক আইন লংঘনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে আইন-শৃংখলা বাহিনী। আমরা এখন ট্রাফিক রুলের কঠোর প্রয়োগে উদ্যোগ নিয়েছি।

চুনারুঘাটে আগামী ১১ই আগষ্ট পর্যন্ত ট্রাফিক সপ্তাহ পালিত হবে।অন্যদিকে লক্ষ্য করা যায়, গাড়ির কাগজপত্র যাচাইয়ের কারণে চুনারুঘাট পৌর শহরে অনেক সিএনজি অটোরিক্সা শূন্য হয়ে পড়েছে।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল শহরে মঙ্গলবার ভোররাতে গুহ্য রোডস্হ গ্রামীন ফোনের ডিস্ট্রিবিউটর সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী সাজুর মালিকানাধীন নাজমা এন্টারপ্রাইজ অফিসে এক চুরির ঘটনা ঘটেছে এবং এতে প্রায় সাড়ে তিন লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে গেছে চোরের দল।

জানা গেছে নাজমা এন্টারপ্রাইজ এর অফিসের ৪র্থ তলা থেকে ক্ল্যাপসিবল গেইট ও উপর তলার দিয়ে  কয়েকটি দরজার তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে গ্রামীন ফোনের বিভিন্ন মূল্যের মোবাইল কার্ড যার মূল্য সাড়ে তিন লক্ষাধিক টাকার বেশী মূল্যের মোবাইল কার্ড চুরি করে নিয়ে গেছে।

সেন্টারটিতে স্থাপিত সিসি টিভির ফুটেজ থেকে জানা গেছে চোরের দল ভোররাত ৪ টা ৩৮ মিনিট থেকে ৫ টা ১৮ মিনিট পর্যন্ত অফিসের ভিতরে অবস্থান করে চুরির কাজ সংঘটিত করে পালিয়ে যায়।তবে এ সময় সেখানে কোন পাহারাদার ছিলেন না বলে একটি সুত্র জানিয়েছে।

ডিস্ট্রিবিউটর নাজমা এন্টারপ্রাইজ এর মালিক সুত্রে জানা যায়,ঘটনার দিন সকালের দিকে তার এক কর্মচারী খবর দিলে তিনি তাৎক্ষনিক স্থানীয় থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল ইসলামকে জানান,পরে সার্কেল এসপি আশরাফুজ্জামান,জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মনসুরুল হকসহ ওসি সাহেব ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন বলে তিনি জানান।

শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল ইসলাম উক্ত ঘটনার ব্যাপারে বলেন দ্রুত তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বেনাপোল থেকে এম ওসমান : খুলনা-বেনাপোল-কলকাতা রুটে সরাসরি চলাচলকারী ট্রেন বন্ধন এক্সপ্রেসে যাত্রী দিন দিন কমতে শুরু করেছে। ১০টি কোচের এই ট্রেনে ৪৫৬ টি আসন থাকলেও যাতায়াত করছে ১শ’ থেকে ১২০ জন যাত্রী।

অথচ বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট দিয়ে প্রতিদিন ৪-৫ হাজার পাসপোর্টধারী যাত্রী ভারতসহ বিভিন্ন দেশে যাতায়াত করে থাকে। দুই দেশে তেমন কোনো প্রচার প্রচারণা না থাকায় এবং শুধুমাত্র নির্দিষ্ট দুটি স্টেশনে টিকিট বিক্রি করায় যাত্রীদের মাঝে অনিহা দেখা দিয়েছে। তবে যাত্রী সংখ্যা কম হওয়ার কারণ সম্পর্কে রেল কর্তৃপক্ষ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

রেল কর্তৃপক্ষের রেল পরিচালনার পদ্ধতিগত ভুলের কারণে যাত্রী স্বল্পতার অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন এ রুটে যাতায়াতকারী যাত্রীরা। তাদের বক্তব্য, যশোর ও বেনাপোল রেলস্টেশনে টিকিট বিক্রি না করা, যশোর ও বেনাপোল রেলস্টেশনে এ অঞ্চলের মানুষের জন্য স্টপেজ না দেয়া, অন্যদিকে সপ্তাহে মাত্র এক দিন এ রুটে ট্রেন চলাচলসহ বিভিন্ন কারণ সামনে আসছে যাত্রী কম হওয়ার পেছনে।

এছাড়া ভাড়ার পরিমাণও যাত্রী স্বল্পতার অন্যতম বড় একটি কারণ। ১২০ কিলোমিটার সড়কে এসি সিটে ভাড়া নেয়া হচ্ছে ভ্রমণকরসহ ২ হাজার টাকা ও এসি চেয়ারে নেয়া হচ্ছে ভ্রমণকরসহ ১ হাজার ৫০০ টাকা। অথচ বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে একজন পাসপোর্ট যাত্রীর কলকাতা যেতে ভ্রমণকরসহ খরচ হয় মাত্র ৬০০ টাকা।

বন্ধন এক্সপ্রেস কলকাতা থেকে প্রতি বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় ছেড়ে এসে দুপুর সাড়ে ১২টায় খুলনায় পৌঁছে। এরপর খুলনা থেকে দুপুর দেড়টায় ছেড়ে সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে কলকাতা পৌঁছে।

এ ব্যাপারে যশোর নাগরিক কমিটি যশোর রেলস্টেশনে টিকিট বিক্রি ও যাত্রী ওঠানো-নামানোর দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। তাতেও তেমন একটা সাড়া মেলেনি রেল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে।

খুলনা-বেনাপোল-কলকাতা রুটে আন্তঃদেশীয় যাত্রীবাহী ট্রেন বন্ধন এক্সপ্রেসের পরীক্ষামূলক যাত্রা শুরু হয় ২০১৭ সালের ১৭ নভেম্বর। গত ৭ মাসে ট্রেনের যাত্রীসংখ্যা বৃদ্ধি না পেয়ে ক্রমাগত কমতে শুরু করেছে। ফলে লোকসানের বোঝা টানতে হচ্ছে রেল কর্তৃপক্ষকে। লোকসানের বোঝায় যেন বন্ধ হয়ে না যায় খুলনা-কলকাতার বন্ধন মৈত্রী ট্রেন।

ভারতীয় একটি সূত্রে জানা গেছে, নিরাপত্তার স্বার্থে আপাতত খুলনা ও কলকাতা ছাড়া কোথায়ও স্টপেজ বা টিকিট বিক্রি করা যাচ্ছে না। বিভিন্ন রেলস্টেশনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার হলে অন্যান্য স্টপেজে যাত্রী উঠানামা ও টিকিট বিক্রির বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।

এ রুটে চলাচলকারী বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী যাত্রী আসাদুল হক বলেন, ভারতীয় কাস্টমসে যাত্রী হয়রানি বন্ধসহ সম্প্রতি বাংলাদেশি যাত্রীদের ভারতে গিয়ে কমপক্ষে দুই রাত অবস্থান বাধ্যতামূলক করায় এবং সপ্তাহে এই রুটে এক দিন বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেন চালু থাকায় ট্রেনে করে কেউ আর যাতায়াত করতে চায় না। সপ্তাহে ২-৩ দিন ট্রেন চলাচল ও ভাড়ার পরিমাণ কমালে যাত্রীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

ভারতীয় পাসপোর্টধারী যাত্রী মনতোষ বসু খুলনা-কলকাতা রুটে ট্রেন চলাচলের প্রচার না হওয়া, নির্দিষ্ট দুটি স্টেশনে টিকিট বিক্রি করায় যাত্রীরা ট্রেন যাতায়াতে আগ্রহ হারাচ্ছে বলে মনে করেন। অনলাইনের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি ও স্টপেজ বাড়ালে যাত্রী বাড়বে বলে তিনি মনে করেন।

বেনাপোল রেলস্টেশন মাস্টার শহিদুল ইসলাম বলেন, গত বছরের ১৭ নভেম্বর খুলনা-কলকাতার মধ্যে বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেনটি চালু হয়। বন্ধন এক্সপ্রেসে ১০টি কোচ রয়েছে। এর মধ্যে ইঞ্জিন ও পাওয়ার কার দুটি। বাকি আটটি কোচে ৪৫৬টি আসন রয়েছে। সবই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। গত ৭ মাসে ৩ হাজার ৪৪৫ জন যাত্রী কলকাতা থেকে বাংলাদেশে এসেছে এবং বাংলাদেশ থেকে ৪ হাজার ৫৭৯ জন যাত্রী কলকাতায় গেছে। নিরাপদে ও সুষ্ঠুভাবে যাত্রী চলাচল করার পরও যাত্রী সংখ্যা দিন দিন কমছে। বন্ধন এক্সপ্রেসটি সপ্তাহে একাধিক দিন চলাচল করলে এবং যশোর ও বেনাপোলের মানুষের জন্য টিকিট বিক্রি ও স্টপেজ দেয়া হলে এ অবস্থার পরিবর্তন হবে বলে তিনি জানান।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম জানান, বন্ধন এক্সপ্রেসে যেসব যাত্রী সরাসরি যাতায়াত করেন, আমরা তাদের ভালো সার্ভিস দিচ্ছি। আপাতত যাত্রীসংখ্যা একটু কম। আমরা যত দ্রুত সম্ভব ইমিগ্রেশনের কাজ সম্পন্ন করি। তবে ট্রেনে খরচ একটু বেশি পড়ে। খুলনাসহ আশপাশের লোকজন ট্রেনে যাতায়াত বেশি করছেন।

বেনাপোল কাস্টম হাউসের সহকারী কমিশনার বলেন, বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেনের বেশির ভাগ যাত্রী হয় রোগী। না হয় আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে বেড়াতে যায়। তাই কাস্টমসের পক্ষ থেকে যথাসাধ্য সেবা দেয়া হয়। ট্রেন আসার সঙ্গে সঙ্গে হল রুমে ইমিগ্রেশন ও কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা দ্রুত সম্পন্ন করে থাকি আমরা।

বেনাপোল থেকে এম ওসমান: বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট এলাকা থেকে মঙ্গলবার দুপুরে ৪০ হাজার মার্কিন ডলারসহ এসকে জিশান (৩০) নামে ভারতীয় এক মূদ্রা পাচারকারীকে আটক করেছে বেনাপোল কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। আটক জিশান কোলকাতা শহরের ইকবালপুর এলাকার এস কে মোশাররফ হোসেনের ছেলে।

বেনাপোল কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তা  ছবি রানি দত্ত জানান, ভারত থেকে এক পাসপোর্ট যাত্রী বিপুল পরিমান মার্কিন ডলার নিয়ে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে এমন ধরনের গোপন সংবাদ পেয়ে শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা প্যাসেঞ্জার টার্মিনালে অভিযান চালিয়ে জিশানের ব্যাগ তল্লাশী করে ৪০ হাজার মার্কিন ডলারসহ তাকে আটক করা হয়। আটক মার্কিন ডলার বেনাপোল কাস্টমস হাউসে জমা দেয়া হয়েছে এবং  এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি মামলা হয়েছে।

বেনাপোল থেকে এম ওসমান: বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট এলাকা থেকে মঙ্গলবার দুপুরে ৪০ হাজার মার্কিন ডলারসহ এসকে জিশান (৩০) নামে ভারতীয় এক মূদ্রা পাচারকারীকে আটক করেছে বেনাপোল কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। আটক জিশান কোলকাতা শহরের ইকবালপুর এলাকার এস কে মোশাররফ হোসেনের ছেলে।

বেনাপোল কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তা  ছবি রানি দত্ত জানান, ভারত থেকে এক পাসপোর্ট যাত্রী বিপুল পরিমান মার্কিন ডলার নিয়ে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে এমন ধরনের গোপন সংবাদ পেয়ে শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা প্যাসেঞ্জার টার্মিনালে অভিযান চালিয়ে জিশানের ব্যাগ তল্লাশী করে ৪০ হাজার মার্কিন ডলারসহ তাকে আটক করা হয়। আটক মার্কিন ডলার বেনাপোল কাস্টমস হাউসে জমা দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি মামলা হয়েছে।

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাই উপজেলায় গত কয়েক দিনের টানা ভারী বর্ষণে ও উজানের ঢলে উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। মাঠে মাঠে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় আমন চাষ নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে কৃষকরা। এতে উপজেলার কয়েকটি মাঠে শতাধিক হেক্টর জমির রোপণকৃত ধান পানির নিচে তলে গেছে। এ ছাড়া প্রায় ৮হেক্টর বীজতলাও ডুবে গেছে। এদিকে পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথে এলাকায় ধানের চারার সঙ্কট দেখা দিতে পারে বলে এমনটি মনেকরছেন কৃষকেরা।

আত্রাই উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে প্রায় ৬ হাজার ২০০ হেক্টর জমিতে রোপা-আমন ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। মৌসুমের শুরু থেকেই বৃষ্টির অভাবে ধান রোপণে কিছুটা দেরি হলেও উপজেলার বেশ কয়েকটি স্থানে শ্যালো মেশিনের পানি দিয়ে ধান রোপণ শুরু করে কৃষকরা। গত কয়েক দিনের টানা ভারী বর্ষণের ফলে আগাম বন্যার আশংকায় হাল ছেড়ে দিয়েছেন।

উপজেলার কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, গত এক সপ্তাহের টানা ভারী বর্ষণে উঁচু জমি ব্যতিত অপেক্ষাকৃত নিচু, নদী সংলগ্ন কিংবা বিল এলাকার ধান ক্ষেতগুলো এখন পানির নিচে নিমজ্জিত। উপজেলার ১নং শাহাগোলা ইউনিয়নের শাহাগোলা, চাপড়া, বহলা, ঝনঝনিয়া, ছোটডাঙ্গা, কয়সা, ভবানীপুর। ভোঁপাড়া ইউনিয়নের জামগ্রাম, শিমুলিয়া, আহসানগঞ্জ ইউনিয়ন ও মনিয়ারি ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকার মাঠ প্লাবিত হয়েছে। এতে সদ্য রোপণকৃত শতাধিক হেক্টর জমির ধান ও প্রায় ৬ হেক্টর জমির বীজতলা পানির নিচে তলিয়ে গেছে। এ ছাড়া দুই দিন ধরে উজান থেকে নেমে আসা বৃষ্টিপাতের ঢলের পানিতে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। এতে করে উপজেলার কৃষকরা তাদের রোপনকৃত আমন ধান এবং অবশিষ্ট চাষকৃত জমি নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন।

শাহাগোলা গ্রামের কৃষক আজাদ সরদার বলেন, চলতি আমন মৌসুমে খরার কারণে ধান রোপন করা কিছুটা দেরিতে হলেও আমরা সেচ দিয়ে জমি প্রস্তুুত করেছিলাম এবং কিছু জমিতে ধান রোপনও করেছিলাম কিন্তু কয়েকদিনের টানা বর্ষনে ও উজান থেকে নেমে আসা পানিতে সেই সব ধান এখন পানির নিচে। পানি নেমে গেলে আবার এই সব জমিতে নতুন করে ধান রোপন করতে হবে। এতে করে লাভের চেয়ে লোকসানই বেশি বলে আমি আশঙ্কা করছি।

উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মো: সাজ্জাদ হোসেন বলেন, যে সব ধান এখন পানির নিচে সেই সব জমি থেকে পানি নেমে গেলে আবার ধান রোপন করতে হবে। তবে কিছু ধানের জাত আছে যেগুলো একটু দেরিতে রোপন করতে হয় সেই সব ধান যদি কৃষকরা পুনরায় রোপন করেন তাহলে এই লোকসানটা কৃষকরা কিছুটা হলেও পূরন করতে পারবেন।

এ ব্যাপারে আত্রাই উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ কেএম কাউছার হোসেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগের উপর মানুষের কোন হাতে নেই। যেখানেই সমস্যা সেখানেই আমাদের উপস্থিতি এবং সমস্যা সমাধানে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। বর্তমান অবস্থায় করনীয় সম্পর্কে মাঠ পর্যায়ে কর্মরত আমাদের কৃষি কর্মকর্তারা পরামর্শ দিয়ে আসছেন। পানি নেমে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আবার ধান রোপন করলে তেমন একটা ক্ষতির মধ্যে কৃষকরা পড়বেন না। ধান রোপনে একটু দেরি হলেও ফলনের কোন তারতম্য হবে না।

রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধিঃ  সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা মঈন উদ্দিন (৭০) গত ৬ অাগষ্ট সোমবার দিবাগত রাত ৯টায় নিজ বাড়ীতে ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি …… রাজীউন)৷
গতকাল ৭ অাগষ্ট মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় দরবস্ত ইউনিয়নের খলাগ্রাম জামে মসজিদ মাঠে নিহতের নামাজে জানাজা শেষে খলাগ্রাম পাঞ্জেখানা কবরস্থানে দাফন করা হয়৷ সকাল সাড়ে ৯টায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে সহকারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ অাজিজুল ইসলাম খোকন এর নেতৃত্বে জৈন্তাপুর মডেল থানার পুলিশের একটি চৌকাস দল রাষ্ট্রীয় ময়ার্দা প্রদান করে৷
এদিকে মঈন উদ্দিনের নামাজে জানাজায় অংশ গ্রহন করেন জৈন্তাপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক দফহর সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা সিদ্দিক অালী, অাব্দুর রশিদ, সামাদ মিয়া অন্যান্য মুক্তিযোদ্ধা, সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের গন্যমান্য মুরব্বী সহ ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা৷  মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রী পুত্র, কন্যাসহ অসংখ্যা আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন।