Thursday 21st of June 2018 07:05:47 AM

আমারসিলেট  টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪জুন,শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে হৃদয়ে শ্রীমঙ্গল ওয়াটসআপ গ্রুপের উদ্যোগে অসহায় ও দরিদ্রদের মধ্যে ইফতার সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে আজ সোমবার (০৪ জুন) সকালে। শ্রীমঙ্গলের মৌলভীবাজার রোডস্থ নজরুল কমিউনিটি সেন্টারে বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হৃদয়ে শ্রীমঙ্গল লন্ডন এর সহ সভাপতি আব্দুল মালিক।

অনুষ্ঠানে হৃদয়ে শ্রীমঙ্গল ওয়াটসআপ গ্রুপের এডমিন সালেহ আহমদের সভাপতিত্বে ও তুহিন চৌধুরির সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন হৃদয়ে শ্রীমঙ্গলের সদস্য  সাংবাদিকমামুন আহমেদ, কামরুল হাসান দোলন, মো: আলমগীর সেলিম, ইকরামুল ইসলাম ইমন, দেলোয়ার মামুন প্রমুখ।

এছাড়াও হৃদয়ে শ্রীমঙ্গলের স্থানীয় সদস্যবৃন্দদের মধ্যে আমার সিলেট পত্রিকার সহকারী সম্পাদক,আব্দুল মজিদ ও মকবুল হাসান ইমরানসহ গুরত্বপুর্ণ ব্যাক্তিবর্গ এবং বিভিন্ন  মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় শতাধিক অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে ইফতার সামগ্রী চাল ৫কেজি, ছানা ১ কেজি, ডাল ১ কেজি, চিনি ১ কেজি, সেমাই ২ প্যাকেট, খেজুর ৫০০ গ্রাম, পিয়াজ ৩ কেজি, রসুন ৫০০ গ্রাম, ট্যাং ১ প্যাকেট, তেল ২ লিটার, গুড়া দুধ ২৫০ গ্রাম বিতরন করা হয়।

হৃদয়ে শ্রীমঙ্গলের সিনিয়র সদস্য দেলোয়ার মামুন বলেন হৃদয়ে শ্রীমঙ্গলে দেশী বিদেশী সদস্যদের নিয়ে গঠিত। আমাদের উদ্যেশ্য দরিদ্র ও অসহায়দের সাহায্যে এগিয়ে আসা। এবার প্রথমবারের মতো শ্রীমঙ্গল উপজেলার সকল ইউনিয়ন পৌরসভায় দরিদ্রদের মধ্যে ইফতার সামগ্রী বিতরন করেছি। এছাড়াও আমরা অসহায়দের যে কোন সহযোগীতায়  প্রস্তুত থাকব।

আমারসিলেট  টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪জুন,নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলে পুলিশের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে বিভিন্ন মামলা ও অভিযোগে ২৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
জেলা পুলিশের কন্ট্রোলরুমসূত্রে জানাগেছে, রবিবার থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় জেলার বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানকালে নড়াইল সদর থানা পুলিশ বিভিন্ন মামলা ও অভিযোগে ৬ জন, লোহাগড়া থানা পুলিশ বিভিন্ন মামলা ও অভিযোগে ১১ জন, কালিয়া থানায় ৬ জন এবং নড়াগাতী থানা পুলিশ সহ ৫ জনকে গ্রেফতার করে।
নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন জানান, জেলার আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এবং মাদক নিয়ন্ত্রণে পুলিশের অভিযান চলমান থাকবে। মাদক ব্যবসায়ীসহ অপরাধীদের ধরিয়ে দিতে তিনি জনগনের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

আমারসিলেট  টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪জুনঃ     “অসহায় বৃদ্ধা ও এতিম শিশুদের সাথে নিয়ে ইফতার” নোয়াখালী সদরের সোনাপুরের মতিপুরে ফুল হয়ে ফুটুক কলি ফাউন্ডেশনের আয়োজনে  শনিবার পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে অসহায় এতিম শিশু, দরিদ্র বৃদ্ধা দের সাথে নিয়ে রমজানের রহমতমাখা খুশি ভাগাভাগি করে নেন ফুল হয়ে ফুটুক কলি ফাউন্ডেশন।

এ সময় ইফতার দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা প্রণয়িনী প্রমী,উপদেষ্ট্রা আকবর হোসেন সোহাগ,সহ সভাপতি কিংমান মারমা,সম্পাদক ইসরাত সুমনা ।এসময় সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা প্রণয়িণী বলেন,আমাদের সমাজের ঝড়ে পড়া প্রতিটি শিশু এক একটি ফুলের মত,আর এই ফুল গুলোকে নিয়ে মালা গাথাঁর মাধ্যমে একটি সুন্দর সমাজ গঠন করা সম্ভব। ইফতার মাহফিলে প্রায় শতাধিক অসহায় বৃদ্ধা ও এতিম শিশুদের ইফতার করানো হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সকল সদস্যরা। আগামি ১৪ জুন ফুল হয়ে ফুটুক কলি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নোয়াখালীর সুবর্ণ চর উপজেলায় অসহায় বৃদ্ধাও দরিদ্র শিশুদের মাঝে ঈদের নতুন জামা কাপড় বিতরণ করা হবে বলে জানান ওই সংগঠন কর্তৃপক্ষ।

আমারসিলেট  টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪জুন,নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: “ঈদে চাই নতুন পোশাক” ঈদের আর মাত্র কয়েকদিন বাকি। মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। এদিকে নওগাঁর আত্রাইয়ে ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠেছে ঈদের কেনাকাটা। রমজান মাস শুরুর সাথে সাথে নতুনরুপে সাজতে শুরু করেছে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো।
ঈদকে সামনে রেখে এখন বড় বড় শোরুম সাজাতেও ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে ব্যবসায়ীরা। ফলে দিন দিন বদলে যেতে শুরু করেছে বিভিন্ন মার্কেটের সৌন্দর্য। বাহারী পোশাক থেকে শুরু করে সব ধারনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান লেগেছে যেন নতুনের ছোয়া।

ইতোমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন বাজার যেমন আত্রাই নতুন বাজার, কলেজে রোড বাজার ও আত্রাই উপজেলা পরিষদ বাজারসহ গ্রামের বাজারগুলোতে ভীর জমতে শুরু করেছে।

বিশেষ করে কাটা কাপড়ের (টু-পিস, থ্রি-পিস) দোকানে দোকানে ভিড় শুরু হয়েছে রোজা শুরুর পর থেকেই। এরই মধ্যে চরম ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন দর্জি কারিগররা । এছাড়াও জুতা সেন্ডেলের দোকানেও ভীর লক্ষ্যে করা যাচ্ছে। মেয়েরা কসমেটিক দোকানে তাদের পছন্দের প্রসাধনী কেনাকাটা করছে।
আত্রাই কলেজ রোড বাজারের হিমেল গামের্ন্টের স্বত্বাধীকারী মোছাদ্দেক হোসনে পলাশ ও আত্রাই নতুন বাজারের বাবু-মুনি বস্ত্রালয়ের মালিক শাহাবুল ইসলাম বাবু বলেন, রমজানের প্রথম দিকে বৃষ্টিপাতের কারণে বেচাকেনা একটু কম ছিল্ । বর্তমানে বেচাকেনা খুবই ভালো এবং গত বছরের তুলনায় পোশাকের দাম একটু বেশি হওয়ায় সাধারণ ক্রেতারা হিমশিম হয়ে পড়ছে।
আত্রাই উপজেলা পরিষদ বাজারের সিটি বস্ত্রালয়ের মালিক আবুল কালাম আজাদ বলেন, রমজানের প্রথম দিকে ক্রেতাদের ভীর কম লক্ষ্যে করা গেলেও আস্তে আস্তে তা বৃদ্ধি পাচ্ছে । আশা করা যাচ্ছে দিন দিন ক্রেতার সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। তবে এবার ছোট শিশুদের পোশাকের চাহিদা বেশি।
ঈদের কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতা শারমিন আক্তার বলেন, এবারের ঈদের বাজারে জামা-কাপড়ে দাম একটু বেশী হলেও শেষ পযন্ত কিনতে পেরেছি।

রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় থাকায় চলতি ঈদের মৌসুমে ভালো ব্যবসা বাণিজ্যের আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। ব্যবসায়ীদের আশা আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থতি সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে এবার ঈদে ব্যবসা-বাণিজ্য ভালো হবে। এ দিকে রোজার শুরু থেকেই চাঙ্গা হয়ে উঠেছে আত্রাইয়ের ব্যবসানির্ভর সকল প্রতিষ্ঠান। সেই সাথে চাঙ্গা । ব্লক বুটিক থেকে শুরু করে শোরুম সবখানে লেগেছে ঈদের আমেজ। ভ্রাম্যমান ব্যবসায়ীরা ও বসে নেই। পণ্য নিয়ে পাড়া মহল্লা চষে বেড়াতে শুররু করেছেন।

বিক্রেতাদের সাথে কথা বললে তারা জানান, ১০ রমজানের পর থেকেই তাদের ব্যবসা বেশ জমে উঠেছে। বর্তমানে অতন্ত ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা।
এবারের ঈদে মেয়েদের জন্য আকর্ষণীয় পোশাকের মধ্যে রয়েছে হরেক রকম নাম বাহুবলি টু, রাখিবন্ধন, পটল কুমার, বাজরাঙ্গি ভাইজা, ফ্লোর টার্চ, লাসা, লং স্কাট, শর্ট স্কাটসহ বিভিন্ন নামের থ্রি-পিস ও ফোর পিস পোশাক। তবে দেশী অনেক পোশাক ক্রেতাদের আকৃষ্ট করেছে। আকৃষ্ট করেছে দেশীয় পণ্য টাঙ্গাইল শাড়ি, জামদানী, খদ্দর, মনীপুরী, বালুচুরী, জর্জেট শাড়ি ইত্যাদি।
গত বছরের তুলনায় এবারে পোশাকের দাম একটু বেশি হওয়ায় বিপাকে পড়েছেন নিম্নবিত্তরা। এর কারণেই এদের শেষ আশ্রয় ফুটপাতের দোকানগুলো। তবে যাই হোক ঈদের দিনে নতুন জামা কাপড় পরে সবার সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করবে এই প্রত্যাশা সবার।

আমারসিলেট  টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪জুন,ডেস্ক নিউজঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জি-সেভেন আউটরিচে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। আগামী ৮-৯ জুন ব্যাপী জি-সেভেন শীর্ষ সম্মেলনের সঙ্গে ওই বিশেষ আউটরিচ সেশনের আয়োজন করা হয়েছে। এবারের সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবে কানাডা। খবর বিডিনিউজ।

বিশ্ব অর্থনীতির সাত পরাশক্তির জোট জি-সেভেনের সম্মেলনের পাশাপাশি আঞ্চলিক উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক আগ্রগতির বিষয়ে আলোচনার জন্য জোটের (কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, জাপান, ইতালি, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন) বাইরে থেকে বিভিন্ন দেশকে আলাদা বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। একেই বলা হয় জি-সেভেন আউটরিচ মিটিং। এবার সেশনের মূল প্রতিপাদ্য হবে সমুদ্রকে দূষণ থেকে রক্ষা করা এবং উপকূলীয় এলাকার বাসিন্দাদের প্রতিকূলতা মোকাবেলার সক্ষমতা বৃদ্ধি।

বাংলাদেশের পাশাপাশি এবার আর্জেন্টিনা, হাইতি, জ্যামাইকা, কেনিয়া, মার্শাল দ্বীপপূঞ্জ, নরওয়ে, রুয়ান্ডা, সেনেগাল, সিচিলিস, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভিয়েতনামকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। জাতিসংঘ, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল, অর্থনৈতিক সহযোগিতা ও উন্নয়ন সংস্থা এবং বিশ্বব্যাংকও আছে অতিথির তালিকায়।