Monday 21st of May 2018 03:50:08 AM

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,ডেস্ক নিউজঃ   রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি কানাডার সমর্থন অব্যাহত রাখার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আশ্বস্ত করেছেন সফররত কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড। তিনি বলেছেন, ‘এই সমস্যার দ্রুত সমাধান চায় কানাডা।’ খবর বাসস’র

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে শনিবার দুপুরে সাক্ষাৎ করেন কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমরা ১০ লাখেরও অধিক রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা করি এবং এই সমস্যার সমাধানে বাংলাদেশকে আমরা সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত রয়েছি।’

আজ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ওআইসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের ৪৫তম সম্মেলনের উদ্বোধনী পর্ব শেষে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বলেন, বর্ষাকাল মৌসুম এবং এ সময়ে অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেমন সাইক্লোনের সম্ভাবনা থাকায় প্রধানমন্ত্রী এ সময় রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিরাপত্তার বিষয় নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ সংলাপের মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধান চায়। যে কারণে বাংলাদেশ মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনার উদ্যোগ নেয় এবং রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে একটি সমঝোতায় উপনীত হয়। কিন্তু, মিয়ানমার সমঝোতা অনুযায়ী কাজ করেছে না।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ সমস্যাটি নিয়ে মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গেও আলোচনা করছে যারাও এর শান্তিপূর্ণ সমাধানই চাইছে। তিনি এ সময় রোহিঙ্গা ইস্যুতে কফি আনান কমিশনের রিপোর্টের বাস্তবায়নের ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।’

স্থানীয় জনগণের দুর্দশার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘রোহিঙ্গারা চাষাবাদযোগ্য অনেক জমি দখল করে নেওয়ায় অনেক কৃষক তাদের পেশা হারিয়েছে এবং সরকারকে ত্রাণ সহায়তা প্রদানে বাধ্য করছে।’

প্রেস সচিব বলেন, ‘কানাডায় আশ্রয় গ্রহণকারী বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে প্রত্যার্পণের বিষয়টিও বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী উত্থাপন করেন।’

ক্রিস্টিয়া এ বিষয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন বলেও প্রধানমন্ত্রীকে আশ্বাস দেন।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার হাইকমিশনার বেনোই প্রিফনটেইন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব সাজ্জাদুল হাসান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,ডেস্ক নিউজঃ কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার পাঁচজন আইনজীবী দেখা করেছেন। সাক্ষাৎ করতে যাওয়া আইনজীবীদের খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘আমি গুরুতর অসুস্থ। এটা কোর্টকে জানাবেন।’

খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে শনিবার (৫ মে) বিকাল ৫টার দিকে কারা ফটকের সামনে অপেক্ষমান সাংবাদিকদের একথা জানান তার আইনজীবী রেজ্জাক খান। এর আগে বিকাল ৪টার দিকে কারাগারে যান খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন, আবদুর রেজ্জাক খান, এ জে মোহাম্মদ আলী, জয়নুল আবেদীন ও মাহবুব উদ্দিন খোকন।

আইনজীবী রেজ্জাক খান বলেন, ‘‘ম্যাডাম বলেছেন, ‘আমি অত্যন্ত অসুস্থ। এটা কোর্টকে জানাবেন।’’

তিনি আরও বলেন, ‘জেলে স্যাঁতসেঁতে পরিবেশে থাকার কারণে দিন দিন তার স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটছে। মেডিকেল গ্রাউন্ডে জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট, এটা সর্বোচ্চ আদালতে উপস্থাপনের জন্য তিনি আমাদের বলেছেন।’

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্টের ইতিহাসে এবং আমার ৫০ বছরের ক্রিমিনাল প্র্যাকটিসে পাঁচ বছর সাজার পর হাইকোর্ট বিভাগ যখন জামিন দেয় উচ্চ আদালত সেই জামিন কখনো স্থগিত করেননি। এখানে শুধু স্থগিতই করেননি, এখানে তারা পূর্ণাঙ্গ শুনানির জন্য দীর্ঘ সময় দিয়ে তারিখ নির্ধারণ করে দিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘৮ মে শুনানির দিন রয়েছে। আমরা আশা করি, দেশে যদি বিচারের বিন্দুমাত্র পথ এখনো খোলা থাকে, তাহলে অবশ্যই আমাদের চেয়ারপারসনকে জামিন দেয়া হবে।’

জয়নাল আবেদীন বলেন, ‘ম্যাডাম খুবই অসুস্থ। বাম হাত তিনি নাড়াতে পারেন না, হাত শক্ত হয়ে গেছে। ঘাড়েও সমস্যা আছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আগেও বলেছি, এখনো বলছি- ম্যাডামের যে চিকিৎসা দরকার তা জেলখানায় সম্ভব নয়। জেল কর্তৃপক্ষ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে লিখেছে তার চিকিৎসার জন্য। কিন্তু এখন পর্যন্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে না।’

উল্লেখ্য জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন। আগামী ৮ মে এই মামলায় তার জামিন প্রশ্নে আপিল বিভাগে শুনানির দিন ধার্য আছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,নড়াইল প্রতিনিধিঃ  নড়াইলে নজরুল সঙ্গীতের ওপর ৩ দিনব্যাপি উচ্চতর প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে শনিবার (৫ মে) বিকেল ৩টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমীর প্রশিক্ষণ ভবনে এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ এমদাদুল হক চৌধুরী।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভপতি আসলাম খান লুলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সহ-সভাপতি রওশনারা কবির লিলি, নারী নেত্রী আঞ্জুমান আরা , জেলা শিল্পকলা একাডেমী কর্মকর্তাগন,সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট,জেলা নেতৃবৃন্দ, শিক্ষার্থী,অভিভাবকসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
প্রশিক্ষন প্রদান করবেন নজরুল সঙ্গীতের প্রশিক্ষক ছায়ানটের সঙ্গীত বিষয়ক শিক্ষক তানভীর আহম্মেদ ও মোঃ রেজাউল করিম।

এ প্রশিক্ষণে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের ৭০জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করছে। সোমবার (৭মে) বিকেলে এ প্রশিক্ষণ সমাপ্ত হবে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ নওগাঁর আত্রাইয়ে শাপলা বানু (২৭) নামে এক মহিলা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।শনিবার (৫ মে) সকালে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত শাপলা আক্তার উপজেলার শাহাগোলা ইউনিয়নের তারাটিয়া গ্রামের আলহাজ্ব আব্দুল জব্বারের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত শাপলা শুক্রবার গভীর রাতে সবার অজান্তে তার নিজ শয়ন কক্ষের ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সে আত্মহত্যা করে। পরে সকালে তার শিশু সন্তান তার মাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে কান্না করতে থাকে এবং তার পরিবারের লোকজন কান্না শুনতে পেয়ে ঘর খুলে দেখে ঘরের ফ্যানের সাথে সে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

এ ব্যাপারে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: মোবারক হোসেন জানান, আত্মহত্যার খবর পেয়ে শনিবার সকালে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। শনিবার থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ  চুনারুঘাট উপজেলার উবাহাটা ইউনিয়নের কেউন্দা গ্রামের মীর নূর আহাম্মদ (সিরাজ মিয়া) এর ছেলে মামুন মিয়া (১৬) কে হত্যার ঘটনায় এজাহারভূক্ত আসামী কেউন্দা গ্রামের আমজাদ উল্লা ওরফে টকা মিয়ার পুত্র মনসুর মিয়া (৩০) কে গ্রেফতার করেছে চুনারুঘাট থানা পুরিশ।

জানা যায়, শনিবার সকাল ১০টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুনারুঘাট থানার এএসআই সামছুদ্দিন ও এ.এস.আই আউলাদ মিয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ চুনারুঘাট উপজেলার শ্রীকুটা বাজার এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে মামুন হত্যা মামলার এজাহারনামীয় আসামী মনসুর মিয়া (৩০) কে গ্রেফতার করে চুনারুঘাট থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। পুলিশ জানায়, মনসুর মিয়া মামুন হত্যা মামলার এজাহারভূক্ত পলাতক ওয়ারেন্টের আসামী। সে এতদিন পুলিশের চোখে ফাঁকি দিয়ে আত্মগোপন করে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল।

উল্লেখ্য যে, গত বছরের ২৪ জুলাই সোমবার সকাল অনুমান ৮টার সময় কেউন্দা গ্রামের মৃত আঃ খালেকের পুত্র ছুরুক মিয়ার পুকুর পাড় থেকে কিশোর মামুন মিয়ার লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। এ ব্যাপারে মামুন মিয়ার পিতা নূর আহম্মদ (সিরাজ মিয়া) ২৪ জুলাই রাতে ১৬ জনকে আসামী করে চুনারুঘাট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

থানার জি.আর মামলা নং- ৩৭। পুলিশ আরও জানায়, জি.আর ৫৫/১৭, সি.আর ৩৫৪/১৭, সি.আর ৭৭৩/১৭ মামলায় মনসুর মিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী ছিল। এ ব্যাপারে চুনারুঘাট থানার ওসি কে.এম আজমিরুজ্জামান আসামী মনসুর মিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। উক্ত মামলাটি ডি.বি হবিগঞ্জ এর এস.আই ইকবাল বাহার তদন্ত করছেন।

পরে দুপুরের দিকে আসামী মনসুর মিয়াকে হবিগঞ্জ জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মেঃ জুড়ী (মৌলভীবাজার) সংবাদদাতাঃ মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় সংবাদ সম্মেলনে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করলেন মতিউর রহমান চুনু।আজ শনিবার (৫ মে) জুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সম্মেলনে মতিউর রহমান চুনু অভিযোগ করে বলেন, আমার মামাদের সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয়াদি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিলো।

আমার ধারণা এরই জের ধরে আমার মামাতো ভাইয়েরা সাংবাদিকদের মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালসহ প্রিন্ট মিডিয়ায় “জুড়ীতে ইয়াবার রমরমা ব্যবসা” “ইয়াবা ব্যবসায় সয়লাব জুড়ী, ধরা ছোঁয়ার বাইরে ইয়াবা সম্রাট চুনু” ইত্যাদি শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে। প্রকাশিত সংবাদে পরিবেশন করা তথ্য সঠিক নয়, মূলতঃ আমি একজন ব্যবসায়ী মানুষ এবং রাজনীতির সাথেও জড়িত। পাশাপাশি সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের উপজেলা সভাপতি।

এছাড়া গত নির্বাচনে পূর্ব জুড়ী ইউ.পি নির্বাচনে বিএনপি মনোনিত (ধানের শীষ) প্রতিকে আমি চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছি এবং আগামীতেও আমি প্রতিদ্বন্ধিতা করব। এসব কারণে একটি মহল আমার বিরুদ্ধে ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার সামাজিক সম্মান হানির চেষ্টা করছে। মহল বিশেষের ষড়যন্ত্রের শিকার আমি।

ইয়াবা ব্যবসা একটি রাষ্ট্র ও সমাজ বিরোধী ঘৃণিত কাজ। এ ব্যবসা প্রসারের সাথে আমাকে ও আমার সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিকদের জড়িয়ে অহেতুক মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ পত্রে রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে। তার সাথে আমার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই বলে তিনি দাবী করেন।সংবাদ সম্মেলনে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সংবাদ সম্মেলনকারী মতিউর রহমান চুনু।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,নিজস্ব প্রতিনিধিঃ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশের অন্যতম সিপাহশালার, আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন আলেমেদ্বীন,পীরে তরিকত রাহনুমায়ে শরীয়ত ওয়াত তরিকত,ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি প্রতিষ্ঠান হবিগঞ্জের “দিনারপুর গাউছিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদ্রাসা “সহ দেশ-বিদেশে বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা  এবং অধ্যক্ষ মাওলানা শেখ ফরহাদ ছা’দ উদ্দিন আহমদের পিতা হবিগন্জ জেলার দিনারপুর নিবাসী ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী মুফতিয়ে আযম,শেরে পান্জাব আল্লামা মুফতি শেখ গিয়াস উদ্দিন আহমদ দিনারপুরী ছাহেব ক্বিবলা আজ ৫ মে ২০১৮ ঈসায়ী শনিবার বাংলাদেশ সময় প্রায় ১টা ৩০ মিনিটে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামের নিজ বাস ভবনে ইন্তেকাল করেন,ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।মাওলানা সুলাইমান খান রাব্বানি সংবাদটি জানিয়ে বলেন জানাজা সংক্রান্ত বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

আল্লামা মুফতি শেখ গিয়াস উদ্দিন আহমদ দিনারপুরীর ইন্তেকালে মৌলভিবাজার জেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত  এর সভাপতি পীর আলী নুরুল্লাহ,জেলা সেক্রেটারি কাজী কুতুব উদ্দিন ও আন্তর্জাতিক সম্পাদক আনিসুল ইসলাম আশরাফী  লিখিত শোক বার্তায়  মহান আল্লাহর দরবারে বরেণ্য এ সুন্নি  রাহবারের ধর্মীয় খেদমতকে কবুল করে তাকে জান্নাতে নসীব করে  তার পরিবার পরিজন ও শুভাকাঙ্গিদের সবুর করার  ক্ষমতা কামনা করেন।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,এম এস জিলানী আখনজীঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার রাজার বাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ভালবাসার গান কবিতা ও গল্পকথা’র আয়োজনে গুণিজনদের সাহিত্যকর্ম শীর্ষক আলোচনা সভা ও সাহিত্য কর্মের স্বীকৃতি স্বরূপ মরণোত্তর সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। সম্মাননা প্রাপ্ত দুই জন গুণিজন হলেন মরমী কবি ও পুঁথি-সাহিত্যিক পীরে কামেল মরহুম মৌলানা শাহ্ শামসুদ্দীন আখঞ্জী (র:) ও লোক-গবেষক ও লেখক মরহুম মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান।

গতকাল (৪ই এপ্রিল) রোজ শুক্রবার ভালবাসার গান কবিতা ও গল্পকথা’র সংগঠনের কেন্দ্রীয় সিনিয়র পরিচালক কামাল আহমেদর উদ্যোগে উক্ত আলোচনা সভার পরিচালনা করেন সংগঠনের সিলেট বিভাগের সমন্বয়ক আখতারুজ্জামান চৌধুরী সুমন। সংগঠনের কেন্দ্রীয় প্রধান সমন্বয়ক সৈয়দ আসাদুজ্জামান সুহানের সভাপতিত্বে এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলন প্রয়াত সমাজকল্যাণ মন্ত্রী পুত্র জননেতা নিজামুল হক রানা, আহম্মদাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবেদ হাসনাত চৌধুরী সনজু, ধামালী সভাপতি এডভোকেট মোস্তাক আহমেদ, কবি অপু চৌধুরী, উপজেলা তাঁতী লীগের আহবায়ক মোঃ কবির মিয়া খন্দকার, সদস্য সচিব মোঃ মিজানুর রহমান বাবুল, মাওঃ শাহ্ জালাল আহমদ আখঞ্জী, বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক হোসাইন মোঃ আল-আমিন, শাহীন চৌধুরী, হাফিজুর রহমান বাবুল, কামরুল হাসান শামীম।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সিলেট বিভাগীয় প্রধান সমন্বয়ক ইউনুছ আকমাল, শাহ্ আলম, জহিরুল ইসলাম, রুমন আহমেদ, আনিসুজ্জামান মোল্লা, শাহ্ রিয়াজ উদ্দিন আখঞ্জী, শফিকুল আলম, সুমন কান্তি দেবরায়, আলী হায়দার, ফজল মিয়া, রুবেল মিয়া, মহিলা সদস্য সাফিয়া খাতুন, পূঁথি পাঠ করেন মহিউদ্দিন আখঞ্জী, ও সাংবাদিক নুরুল আমিন।

অনুষ্ঠান শেষে সংশ্লিষ্ট গুণীজনদের পক্ষে সম্মাননা গ্রহন করেন- শাহ্ জামাল উদ্দিন আখঞ্জী, কুতুব উদ্দিন আখঞ্জী ও তানভীর রায়হান সিদ্দিকী প্রমূখ।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,ডেস্ক নিউজঃ  চলতি মাসের ১১ ও ১২ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলন। সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর থেকেই নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরাজ করছে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনা। সংগঠনের শীর্ষ পদে যেতে ছাত্রনেতারা চালিয়ে যাচ্ছেন জোর লবিং ও তদবির। তবে সেই দৌড়ে কোন অংশেই পিছিয়ে নেই বিভিন্ন অভিযোগে অভিযুক্তরা। তারাও সাধ্যমত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সংগঠনের শীর্ষ নেতৃত্বে যেতে।

জানা যায়, পদ প্রত্যাশীরা বিভিন্নভাবে তাদের যোগ্যতা এবং দলের জন্য ত্যাগকে সামনে এনে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে সঠিক নেতৃত্ব বাছাই করতে নড়ে চড়ে বসেছেন তবে ছাত্রলীগের কাউন্সিলের সঙ্গে জড়িত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। তারা বলছেন, ছাত্রলীগের ত্যাগী এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী, মেধাবী এবং সংগঠনের জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত এমন নেতাকর্মীরাই ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসবেন।

অন্যদিকে বিতর্কিত ও অনুপ্রবেশ ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে ছাত্রলীগের নীতি নির্ধারকরা। তারা বলছেন, কোন ভাবেই যাতে অনুপ্রবেশকারীদের জায়গা না হয় সেজন্য বিভিন্ন সংস্থার রিপোর্ট এবং পারিবারিক ব্রাকগ্রাউন্ড যাচাই করা হবে। অতীতে কেউ যদি ছাত্রদল বা শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকে তাদেরকে কোনভাবেই ছাত্রলীগে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

২০১৭ সালে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ছাত্রলীগ নেতাদের উদ্দেশ করে কাদের বলেছিলেন ২০১৭ সালের অঙ্গীকার, অনুপ্রবেশকারী ও পরগাছামুক্ত ছাত্রলীগ চাই। এই পরগাছা ও অনুপ্রবেশকারীরা হচ্ছে ছাত্রলীগের এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে প্রধান বাধা। তিনি বলেন, আপনার এক ভাগ, আরেকজনের আরেক ভাগ। এই জনের এই গ্রুপ। আরেকজনের আরেক গ্রুপ। এই গ্রুপের ভাগাভাগি ছাত্রলীগে চলবে না, চলতে দেওয়া যাবে না।

তবে কেন্দ্রীয় সম্মেলনের ঠিক আগ মুহূর্তে সেই বিতর্কিত, অনুপ্রবেশকারী ও পরগাছাদের দৌড়ঝাপ চলছে চোখে পড়ার মত। অনেক প্রার্থীর বিরুদ্ধে চাদাবাজি, ছিনতাই, টেন্ডারবাজি এবং মাদক সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ রয়েছে, কারো কারো বিরুদ্ধে বিয়ে বা চাকুরীর অভিযোগ রয়েছে। আবার এমন অনেক প্রার্থী রয়েছেন যাদের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী নয় এমন ছাত্রসংগঠন থেকে অনুপ্রবেশের সুস্পষ্ট অভিযোগ রয়েছে।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিদার মোহাম্মদ নিজামুল ইসলাম। তিনিও ছাত্রলীগের শীর্ষ পদ পেতে চালাচ্ছেন লবিং এবং তদবির। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, ছিনতাই ও মাদকের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ রয়েছে। তিনি যখন এসএম হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন, তখন থেকেই মাদক কেনাবেচায় যুক্ত হন।

এছাড়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বায়েজিদ আহম্মেদ খানের বিরুদ্ধেও রয়েছে শিক্ষাভবনে টেন্ডারবাজি ও বিয়ের অভিযোগ রয়েছে। তিনিও ছাত্রলগের শীর্ষপদে যেতে তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন।

আগামী সম্মেলনে শীর্ষ নেতৃত্বে যেতে মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন বর্তমান দফতর সম্পাদক দেলোয়ার শাহাজাদা। তার বিরুদ্ধে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির পদধারী এক নেত্রীর সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক থাকার অভিযোগ রয়েছে।

ছাত্রদলের রাজনীতি করার অভিযোগ রয়েছে ছাত্রলীগের পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুল্লাহ বিপ্লবের নামে। জানা যায়, ছাত্রলীগ সভাপতির ঘনিষ্টতার সূত্র ধরে তিনি বর্তমান কমিটির পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে মনোনিত। পূর্বে ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে হাজী মুহম্মদ মহসীন হল থেকে বের করে দেয়া হয়েছিল তাকে।

ছাত্রদল করার আরো অভিযোগ রয়েছে প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম শামীম এবং ছাত্রবৃত্তি বিষয়ক সম্পাদক শেখ সাগর আহম্মেদের বিরুদ্ধ। ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের ঘনিষ্টজন হিসেবে পরিচিত সাগর এবং মাজহারুল ইসলাম শামীম ৫ জানুয়ারী নির্বাচনের পরে রাজনীতিতে সক্রিয় হন।

এসব অভিযোগের বিষয়ের জানতে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন বলেন, কোন ধরণের অপরাধীদের ছাত্রলীগে জায়গা হবে না। প্রার্থীদের বায়োডাটা পর্যালোনার ভিত্তিতে কমিটি করা হবে। সুতরাং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ডখ্যাত ছাত্রলীগের কমিটিতে অভিযুক্তদের ঠাঁই পাওয়ার কোন সুযোগ নেই। এসব অভিযোগের বিষয়ের জানতে ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমানের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেন নি।আলোকিত বাংলাদেশ

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫মে,ডেস্ক নিউজঃ  তিন মাসের  ছেলে শিশু সন্তানকে নিয়েই পবিত্র ওমরাহ্‌ পালন করলেন মুশফিকুর রহিম। বৃহস্পতিবার (৩ মে) রাতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড পেজে একটি ছবি পোস্ট করেছেন মুশফিক নিজেই।

চলতি বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের সাবেক টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও জান্নাতুল কিয়াফাত মন্ডির ঘর আলো করে জন্ম নেয় মোহাম্মদ শাহরোজ রহিম মায়ান।

ছবিতে দেখা যায়, এই মায়ানকে কোলে নিয়েই কাবা শরীফের সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন মুশফিক। ছবির ক্যাপশনে লেখা ছিল, ‘আলহামদুলিল্লাহ।’

সামনেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ রয়েছে বাংলাদেশের। কিছুদিন আগেই শেষ হলো ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) ও বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল)। টানা খেলার পর বর্তমানে বিশ্রামে রয়েছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। এরই ফাঁকে ছোট্ট মায়ানকে নিয়ে পবিত্র মক্কা নগরীতে চলে গেছেন বাংলাদেশের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিক। সঙ্গে স্ত্রী মন্ডিও রয়েছেন।

আফগানিস্তান সিরিজের জন্য কিছুদিনের মধ্যেই জাতীয় দলের প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হবে। পবিত্র ওমরাহ পালন শেষে দেশে ফিরে ক্যাম্পে যোগ দেবেন মুশফিক।