Sunday 21st of October 2018 02:53:30 PM

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০১ফেব্রুয়ারি,মিনহাজ তানভীরঃ   আজ  বৃহস্পতিবার বৃহত্তর সিলেটের মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার ঐতিহ্যবাহী সুন্নি দ্বীনি প্রতিষ্ঠান সিরাজনগর গাউসিয়া জালালিয়া মমতাজিয়া সুন্নিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসা ময়দানে রাতদিন অনুষ্ঠিত হচ্ছে “সিরাজনগর দরবার শরিফের ৪৩তম উরসে আওলিয়া আন্তর্জাতিক সুন্নি সম্মেলন”।

এতে দেশ বিদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বক্তাগণ তাদের ধর্মীয় বক্তব্য পেশ করবেন।এ সময় দেশের বিভিন্ন দরবারের পীর মাশায়েখ ও সুন্নি নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন।

প্রতি বছর দেশের পূর্বাঞ্চলে আলা হজরত মাসলাকের সর্ববৃহৎ গনজমায়েত হয় সিরাজনগর দরবারে।

দরবার সুত্রে জানা গেছে,প্রতি বৎসরের ন্যায় এবারো এই সম্মেলনের সভাপতিত্ব করছেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত সুলতানুল মুনাজেরিন,পীরে তরিকত,রাহনুমায়ে শরীয়ত, উস্তাজুল উলামা আল্লামা ছাহেব কিবলা সিরাজনগরী (মা,জি,আ,)।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০১ ফেব্রুয়ারি,ডেস্ক নিউজঃ    ‘আমার ভাই এর রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ আজ থেকে শুরু হলো রক্তে রাঙানো সেই ভাষা আন্দোলনের মাস। ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে ফেব্রুয়ারি ছিল ঔপনিবেশিক প্রভুত্ব ও শাসন-শোষণের বিরুদ্ধে বাঙালির প্রথম প্রতিরোধ এবং জাতীয় চেতনার প্রথম উন্মেষ।

একদিকে শোকাবহ হলেও অন্যদিকে ফেব্রুয়ারি মাস গৌরবোজ্জ্বল। পৃথিবীর একমাত্র জাতি বাঙালি; যে জাতি ভাষার জন্য জীবন দিয়েছিল। যা এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবেও স্বীকৃত।

১৯৫২ সালের ফেব্রুয়ারির সেই আন্দোলনে সালাম, জব্বার, শফিক, বরকত ও রফিকের রক্তের বিনিময়ে বাঙালি জাতি পায় মাতৃভাষার মর্যাদা এবং আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রেরণা। তারই পথ ধরে আমরা পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ।

বিশ্বের ইতিহাসে বায়ান্নর আগুনঝরা সে দিনগুলো স্মরণীয় হয়ে আছে, থাকবে। প্রতি বছরের মতো আবারও এল ভাষার মাস। বইমেলা প্রিয় মানুষের প্রাণের মাস। বইমেলাকে ঘিরে আমরা উজ্জীবিত হবো এক আলাদা দ্যোতনায় । ভাষা শহীদদের স্মৃতিবিজড়িত ফেব্রুয়ারি এই দেশের মানুষের চেতনায় এক অনির্বাণ বাতিঘর। এই আলোর স্পর্শে অন্যায়ের কাছে মাথানত না করার এবং প্রবল দেশাত্মবোধের অন্যরকম এক আবেগ ও উদ্দীপনায় জেগে ওঠে সর্বস্তরের মানুষ।

প্রতিবারের মতো আজ থেকে জাতীয় শহীদ দিবস সামনে রেখে প্রাণে প্রাণ মিলবে নানা কর্মসূচীতে। বেদনা সেই দিন হয়ে উঠবে বাঙ্গালী জাতির প্রাণের মিলনমেলা। লাখ কণ্ঠে গাওয়া হবে অমর সেই সেই গানটি। ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি/ আমি কি ভুলিতে পারি…।’ অমর একুশের চেতনার রঙে সাজতে শুরু করবে বাংলা। ভাষার মাস ঘিরে সৃষ্টি হবে নতুন জাগরণের ।

বাংলা একাডেমিতে আজ বিকেল তিনটায় অমর একুশে বই মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে তিনি মেলার ওয়াই-ফাই সংযোগ ও ওয়েবসাইট উদ্বোধন করবেন। মেলায় আয়োজিত আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলনও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন। বইমেলা চলাকালে ২২ থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারি এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়াও ‘দেশহারা মানুষের সংগ্রামে কবিতা’ স্লোগানে আজ শুরু হচ্ছে ২ দিনের কবিতা উৎসব। প্রতি বছরের মত এবারও উৎসব হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার প্রাঙ্গণে। সকালে উৎসবের উদ্বোধন করবেন কবি আসাদ চৌধুরী। উৎসবে অতিথি হিসেবে নয় দেশের ১৭ জন কবি অংশগ্রহণ করবেন।

বইমেলা উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা একাডেমি, দোয়েল চত্বর, শিশু একাডেমি, টিএসসি ও আশপাশের এলাকায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান প্রাঙ্গণে এই মেলা চলবে। মেলা চলাকালে মাসব্যাপী এ নিরাপত্তা ব্যবস্থা বলবৎ থাকবে।

দোয়েল চত্বর থেকে টিএসসি চত্বর পর্যন্ত কোন গাড়ি চলাচল করতে দেয়া হবে না। শুধুমাত্র বাংলা একাডেমির স্টিকারযুক্ত গাড়ি প্রবেশ করতে পারবে। এই এলাকায় কোন প্রকার হকার বা ভ্রাম্যমাণ দোকান প্রবেশ করতে পারবে না। বইমেলায় কোন প্রকার ব্যাগ, ব্যাগ প্যাক, ভ্যানিটি ব্যাগ, ট্রলি ব্যাগ, দাহ্য পদার্থ, ধারালো অস্ত্র, আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আসা যাবে না বলে জানিয়েছে ডিএমপি।

যানবাহনসমূহ (দোয়েল চত্বর কেন্দ্রিক) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জিমনেশিয়াম মাঠ, মোকাররম ভবন মাঠ ও দোয়েল চত্বর ক্রসিং হতে শহিদুল্লাহ হল পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে এক লেনে এবং (টিএসসি কেন্দ্রিক) রেজিস্ট্রার ভবন (মলচত্বর) মাঠ, ফুলার রোড রাস্তার দুই পাশে এক লেনে পার্কিং করার জন্য ডিএমপি’র পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০১ ফেব্রুয়ারি,কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বৃহষ্পতিবার (১ফেব্রুয়ারী ) সকাল দশটায় কমলগঞ্জ পৌর মেয়রের পারিবারিক অর্থায়নে দুঃস্থ শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র(কম্বল) বিতরণ করা হয়। পৌর মেয়র ও কমলগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মোঃ জুয়েল আহমেদের সভাপতিত্বে ও বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের সম্পাদক সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় প্রায় সাড়ে চারশ শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহমুদুল হক।

এছাড়া বিশেষ অতিথি ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ সদস্য অধ্যক্ষ মোঃ হেলাল উদ্দিন,কমলগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ রমুজ মিয়া,কাউন্সিলর আনসার শোকরানা মান্না, সৈয়দ জামাল হোসেন,নারী কাউন্সিলর মুসলিমা বেগম, আয়েশা আক্তার, সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জণ দেবনাথ, মাইটিভির মৌলভীবাজার প্রতিনিধি সঞ্জয় দে,সাংবাদিক বিক্রম বর্ধন,শাহিন আহমেদ প্রমূখ।

কমলগঞ্জ পৌর মেয়র মোঃ জুয়েল আহমেদ জানান, দূঃস্থ শীর্তাত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য তার পরিবারের সদস্যদের আর্থিক অনুদানে ক্রয় করা শীত বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, কমলগঞ্জ পৌর মেয়রের উদ্যোগে চলিত শীত মৌসুমে প্রায় প্রতিদিনই শীর্তাতদেরকে কম্বল,সোয়েটার শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০১ ফেব্রুয়ারি,নাজমুল হক নাহিদ,আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাই উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যায়ে কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের আবাসিক ভবন হিসেবে ব্যবহৃত বিএস কোয়াটার গুলোর এখন বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। এসব কোয়াটারগুলো পরিত্যক্ত থাকায় অনেকগুলোই অসামাজিক কার্যকলাপের আখড়ায় পরিণত হতে পারে বলেও মনে করছেন উপজেলার সচেতন মহল। সেই সাথে সরকার বি ত হচ্ছে বিপুল পরিমান রাজস্ব আয় থেকে।

জানা যায়, উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নে কৃষি বিভাগের বিএস কোয়ার্টার রয়েছে ৮টি। এর মধ্যে ৪ টি একেবারেই জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে রয়েছে দীর্ঘদিন থেকে। এসব কোয়ার্টারগুলো মাঠ পর্যায়ে কর্মরত কৃষি বিভাগের বিএস (বর্তমানে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের) আবাসিক -কাম অফিস হিসেবে ব্যবহার হওয়ার কথা থাকলে ও বর্তমানে তা আর ব্যবহার হচ্ছেনা। সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্তৃপক্ষের রক্ষণা বেক্ষণের অভাব এবং কোয়ার্টার গুলো অব্যবহৃত অবস্থায় ফেলে রাখার কারনেই বিপুল পরিমান অর্থ ব্যয়ে নির্মাণ করা সরকারী সম্পদ এখন বেহাত হতে চলেছে। এমন কি এসব ভবনের দরজা-জানালা থেকে শুরু করে ইট পর্যন্ত খুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটছে। এভাবেই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বিপুুল পরিমান মূল্যের সরকারী সম্পদ। সেই সাথে এসব পরিত্যাক্ত ভবন এখন অসামাজিক কর্মকান্ডের আখড়ায় পরিনত হয়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, ১৯৬০-৬১ অর্থ বছরে তৎকালীন পাকিস্তান সরকার এসব ভবন গুলো হতে স্ব স্ব এলাকার প্রয়োজনে প্রথমে সিড গোডাউন বা বীজাগার হিসাবে নির্মান করে। ইউনিয়ন পর্যায়ে বিভিন্ন ফসলের প্রয়োজনীয় উন্নত বীজ কৃষকদের মাঝে বিতরনের সুবিধার্থে সীড গোডাউনগুলো সে সময় নির্মান করা হয়। পরবর্তীতে সরকারী সীড গোডাউনগুলো গত ৮০’র দশকে রি-মডেলিং করে ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মরত কৃষি বিভাগের ব্লক সুপারভাইজারদের (বর্তমানে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা) বসবাসের জন্য রুপান্তরিত করা হয়।

বর্তমানে কোয়াটার গুলো বসবাসের অনুপযোগী বলে ব্লক সুপারভাইজাররা সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেন। এর পরও কৃষি বিভাগ এব্যাপারে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি । জরুরী ভিত্তিতে পুনরায় সংস্কারের মাধ্যমে বসবাসের উপযোগী করে গড়ে তোলা হলে প্রতি বছর সরকারি রাজস্ব খাতে আয় বৃদ্ধি পাবে বলে এলাকার সচেতন মহল মনে করেন । সেই সাথে কৃষকদের কাছাকাছি উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের অবস্থান নিশ্চিত হলে কৃষকরাও অনেক উপকৃত হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের কৃষি কর্মকর্তা কে এম কাউছার হোসেন বলেন, উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের প্রতিটি বিএস কোয়াটারগুলো পরিত্যক্ত অবস্থায় যুগ যুগ ধরে পড়ে রয়েছে। আমরা বার বার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি কিন্তু কোন লাভ হয়নি।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০১ফেব্রুয়ারিঃ   বর্তমান রাষ্টপতি ভাঁটির রত্ন আলহাজ্জ মোঃ আব্দুল হামিদ দ্বিতীয় মেয়াদে আবারো ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত করলেন দেশের রাষ্ট্রপতি হিসেবে।বুধবার রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে দলটির সংসদীয় বোর্ডের সভা শেষে এ তথ্য জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।
পার্লামেন্টরি বোর্ডের সভায় রাষ্ট্রপতি পদে বর্তমান রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এর নাম প্রস্তাব করেন ওবায়দুল কাদের। সমর্থন করেন তোফায়েল আহমেদ। বিকল্প কোন প্রস্তাব না আসায় আবদুল হামিদের নাম চূড়ান্ত বলে বিবেচিত হয়।সভা শেষে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, ‘সভায় সর্বসম্মতিক্রমে মাননীয় রাষ্ট্রপতিকে দ্বিতীয় মেয়াদে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে মনোনয়নের সিদ্ধান্ত হয়েছে। দ্বিতীয় কোনো প্রার্থীর নাম আসেনি। জাতীয় স্বার্থে তাকে দ্বিতীয়বার মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।
প্রথা অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে প্রকাশ্য ভোট দেবেন সংসদ সদস্যরা। ভোট গণনাও হবে প্রকাশ্যে। এরপরই নির্বাচিত হবেন দেশের একুশতম রাষ্ট্রপতি। তবে, একক প্রার্থী হলে ভোটের প্রয়োজন হবে না।
নির্বাচন কমিশনের তফসিল অনুযায়ী, আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা ৫ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে। প্রার্থীর সংখ্যা একজনের বেশি না হলে রাষ্ট্রপতি পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়। আর একাধিক প্রার্থী হলে সংসদের অধিবেশন কক্ষে বিধিমালা অনুযায়ী ভোট হবে।
সংসদীয় গণতন্ত্র চালুর পর ১৯৯১ সালে একাধিক প্রার্থী হওয়ায় একবারই রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দেন সংসদ সদস্যরা। পরে প্রতিবারই ক্ষমতাসীন দলের মনোনীত প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে আসছেন।
২০১৩ সালের ২৪ শে এপ্রিল দেশের ২০তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব নেন মো. আবদুল হামিদ। তার মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২৩ এপ্রিল।

ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা তিনটি মামলায় দলটির ৯০০ নেতাকর্মী আসামী

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০১ফেব্রুয়ারিঃ বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আদালতে হাজিরা দিয়ে ফেরার পথে হাইকোর্টের সামনে পুলিশের গাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও প্রিজনভ্যান থেকে আটক ২ ব্যক্তিকে ছিনিয়ে নেয়া হয়। এ ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা তিনটি মামলায় দলটির ৯০০ নেতাকর্মীকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে রমনা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মহিবুল্লাহ রমনা থানায় একটি এবং শাহবাগ থানার এসআই রহিদুল ইসলাম ও এসআই চম্পক বাদী হয়ে আরো দুটি মামলা করেন। বিশেষ ক্ষমতা আইন এবং পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে এ তিনটি মামলা করা হয়েছে।

রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাঈনুল ইসলাম বলেন, ‘এসআই মহিবুল্লাহ রমনা থানায় শতাধিক বিএনপির নেতাকর্মীর নামে মামলা করেছেন। যার ভেতরে ৩৬ জন গ্রেফতার আছে। বাকিদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে।’

অন্যদিকে, শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু জাফর বলেন, গত (৩০ জানুয়ারি) রাত থেকে দুই মামলায় ১৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের ধরতে অভিযান চলবে বলেও জানান তিনি।

দুটি থানায় দায়ের করা সব মামলার এজাহারে হামলায় নির্দেশদাতা হিসেবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহসাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিতসহ বিএনপির শীর্ষ নেতাদের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।
এসব মামলায় সব মিলিয়ে ৯০০ বিএনপির নেতাকর্মীকে আসামী করা হয়েছে বলে বার্তা সংস্থা ইউএনবির এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আদালতে হাজিরা শেষে বাসায় ফেরার পথে পুলিশের প্রিজনভ্যান ভেঙে বিএনপি কর্মীরা- তিন নেতাকে ছিনিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা যায়,এ সময় পুলিশের ওপর হামলার ঘটনাও ঘটে।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় হাজিরা দিয়ে মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) বিকেলে খালেদা জিয়া গুলশানের বাসায় ফেরার পথে হাইকোর্ট এলাকায় বিএনপির কর্মীরা হামলা চালায় বলে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়। প্রিজনভ্যানে উঠে পুলিশের হাতে আটক ২ জনকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগ করেন ডিএমপির রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার।

এরপর পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৬৯ জনকে গ্রেফতার করে।

বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, এর পরই রাতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে আটক এবং সহসাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিতকে তুলে নেয়া হয়। অমিত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলামের ছেলে।

মধ্যরাতের পর থেকে বিএন‌পির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, যুগ্ম মহাস‌চিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান এবং স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবুর বাসায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তল্লাশি চালায় বলে দলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। তল্লাশি চালানোর সময় তিন নেতার কেউ বাসায় ছিলেন না।

৩১ জানুয়ারি বুধবার এসবের পরিপ্রেক্ষিতেই জরুরি সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘বলা হচ্ছে, পুলিশের ভ্যান থেকে দুজনকে ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে। কারা এই হামলা চালিয়েছে, তাদের আমরা চিনতে পারছি না। আমরা আশঙ্কা করছি, তারা অনুপ্রবেশকারী। তাদের সম্পর্কে আমরা কোনো কিছু জানি না। আমরা ধারণা করছি, নাশকতার করার জন্য তারা এটা করেছে।’

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc