Friday 27th of April 2018 10:20:37 AM

চুনারুঘাটে এই প্রথম গ্রাম আদালতের উদ্বোধন

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১১জানুয়ারী,এম এস জিলানী আখনজীঃ চুনারুঘাটে আশা জাগাবে এই প্রথম গ্রাম আদালতের মাধ্যমে, গ্রাম্য সাধারণ বিচার ব্যবস্থা জনগণের দ্বোরগোড়ায় পৌছে দিতে চুনারুঘাট উপজেলার ২ নং আহম্মদাবাদ ইউনিয়ন পরিষদে গ্রাম আদালতের উদ্বোধন করা হয়। গতকাল ১০ জানুয়ারী বুধবার দুপুরে এ গ্রাম আদালত উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি হিসেবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাইজার মোহাম্মদ ফারাবী। গ্রাম্য আদালত উদ্বোধনীর পূর্ব মুহুর্তে ইউপি সচিব শিউলি চৌধুরীর পরিচালনায় ও আহম্মদাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবেদ হাসনাত চৌধুরী সনজু এর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত হয় উন্নয়ন সমন্বয় সভা। সমন্বয়
সভা ও আদালত উদ্বোধনীকালে বিষেশ অতিথি ছিলেন অমুরোড হাই স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আলাউদ্দিন, বীর-মুক্তিযোদ্ধা হাজ্বী আঃ রহমান আজাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মোঃ হাসন আলী, ইউনিয়ন বি.এন.পির সভাপতি সালেহ উদ্দিন বাবরু, সাংবাদিক নুরুল আমিন, চুনারুঘাট থানার এস আই আলমাছ মিয়া, ইউপি সদস্য দুলাল ভূইয়া, সোহেল কালাম আজাদ
চৌধুরী, হাজ্বী আঃ রউফ, শফিকুর রহমান সাফু, আজগর আলী, মাখন গোষামী, নটবর, ফরিদ মিয়া, ইউপি সদস্যা শাফিয়া আক্তার, গুলবাহার বেগম, বিজলা খানুসহ
স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কার্য্যালয় থেকে বিশেষ বরাদ্ধ এ  গ্রাম আদালত। পুরো এজলাস তৈরি হয়েছে কাঠ দিয়ে। এ ইউনিয়নে গ্রাম আদালত পদ্ধতি চালু হওয়ায় অপরাধ প্রবণতা ও মামলা-মোকদ্দমা অনেক কমে আসবে বলে ধারনা করছেন অনেকেই।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০জানুয়ারী,ডেস্ক নিউজঃ রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলমানদের গণকবরের কথা এই প্রথম স্বীকার করল মিয়ানমার সেনাবাহিনী। দেশটির সেনাপ্রধানের কার্যালয় আরও স্বীকার করেছে, গণকবরে পাওয়া ১০ রোহিঙ্গাকে হত্যা করেছে সেনাসদস্যরাই। তবে নিহতদের ‘বাঙালি সন্ত্রাসী’ বলে অভিহিত করেছে তারা। বুধবার ফেসবুকের একটি পোস্টে এ স্বীকারোক্তি করা হয়েছে। খবর এএফপির।
মিয়ানমারের সেনাপ্রধান জেনারেল মিন অং হ্লাইয়াংয়ের ফেসবুক পেজে বলা হয়, রাখাইনের রাজধানী সিত্তে থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার উত্তরে ইন দিন গ্রামে সন্ধান পাওয়া গণকবরে ১০ জনের লাশ ছিল। গ্রামের কিছু বাসিন্দা ও সেনাসদস্যদের হাতে তারা প্রাণ হারিয়েছে। গত ২ সেপ্টেম্বর তাদের হত্যা করে মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে।
গত ১৯ ডিসেম্বর ওই গণকবর আবিস্কৃত হয়। তখন সেনাবাহিনী জানায়, অজ্ঞাতপরিচয় লোকজনের একটি গণকবর আবিস্কৃৃত হয়েছে। লোকজনকে হত্যা করে মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে- এমন রিপোর্ট পাওয়ার পর নিরাপত্তা বাহিনী ওই এলাকায় তদন্ত চালিয়ে গণকবরের সন্ধান পায়।
গত বছরের ২৫ আগস্ট রাখাইনে নির্বিচারে রোহিঙ্গা নিধন শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে গত কয়েক মাসে সাড়ে ছয় লাখের বেশি রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশু বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। মানবাধিকার সংগঠনগুলো জানিয়েছে, রোহিঙ্গাদের শত শত গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে। শত শত নারীকে ধর্ষণ করা হয়েছে তাদের উৎখাত করার অস্ত্র হিসেবে। জাতিসংঘ সেনা অভিযানকে আখ্যা দিয়েছে জাতিগত নিধন বলে। তবে সেনাবাহিনীর গণহত্যা বা জাতিগত নিধন অভিযানের কথা বরাবরই অস্বীকার করে এসেছে মিয়ানমারের নোবেলজয়ী নেত্রী অং সান সু চির সরকার।
রয়টার্সের ২ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন :রাখাইনে রোহিঙ্গাদের খবর তুলে ধরা রয়টার্সের দুই সাংবাদিক ওয়া লোন ও কিয়া সু ও’র বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে মিয়ানমারের পুলিশ। অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট ভঙ্গের দায়ে বুধবার তাদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগ প্রমাণ হলে তাদের ১৪ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। তাদের মুক্তির জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আহ্বান সত্ত্বেও অভিযোগটি দায়ের করা হলো।
ইয়াঙ্গুন আদালতের বিচারক বলেন, তাদের বিরুদ্ধে একজন পুলিশ কর্মকর্তা স্টেট সিক্রেটস অ্যাক্টের ৩.১ (সি) ধারায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।
দুই সাংবাদিকের জামিনের আবেদনের শুনানির তারিখ আগামী ২৩ জানুয়ারি ধার্য করেছেন ওই আদালত। গত ১২ ডিসেম্বর তাদের আটক করে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ।সমকাল

Prank Vedio: Problems and solutions

January 11, 2018 9:05 am

Amarsylhet24.com,11 january,Juman Hussan:Prank Vedio is a vary popular term especially for young generation of this modern age. According to Cambridge Dictionary Prank refers to “a trick that is interned to be funny but not to be cause harm or damage”. Oxford Dictionary defines prank as a “Play a trick or practical joke on (someone)”. It is clear that the main intention of prank should be to entrainment without creating any problems. Now a days prank Vedio creates some adverse effects on our sociocultural life. I will try to find out major problems and solutions of this issue.
Problems
1. It creates bad habits of laying especially for young generation.
2. Personal conflict is a common outcomes of prank vedio.
3. Personality crisis also created by bad prank .
4. Most of the time there are no moral education of prank.
5. It open the secret issue that negatively impact on society.
6. Recently suicide occurred due to this reason.
7. It teach bad language especially for children.
8. It natively effects on social values.
9. Sometimes people are emotionally harassed by it.
10. Sometimes it creates adverse effects on confidence level.
Solutions
1. Prank should be informative.
2.Bad language Strictly prohibited.
3. Social and moral issue should be considered.
4. Entertain people without harm or damage.
5. Personal and emotional issue should be avoided.