Saturday 25th of November 2017 04:19:56 AM

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,ডেস্ক নিউজঃ    আমতলীতে চাঞ্চল্যকর কলেজ ছাত্রী মালা আকতারকে সাত টুকরো করে হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লবের বাসা সংলগ্ন পুকুর থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দুটি চাপাতি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বিপ্লবের কথিত মতে তার উপস্থিতিতে শনিবার দুপুরে এ চাপাতি উদ্ধার করা হয়। এ সময় তার ব্যবহৃত মোটর সাইকেলটি জব্দ করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, কলেজ ছাত্রী প্রেমিকা মালা আকতারকে গত ২২ অক্টোবর সন্ধ্যায় প্রেমিক আলমগীর হোসেন পলাশ তার আত্মীয় আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লবের বাসায় বেড়াতে নিয়ে আসে।

তিন দিন ধরে পলাশ ওই বাড়ীতে অবস্থান করে। গত ২৪ অক্টোবর (মঙ্গলবার) মালা পলাশকে বিয়ের চাপ দেয়। কিন্তু পলাশ এতে রাজি হয়নি। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে ঝগড়া ঝাটি হয়।

এক পর্যায় ওইদিন দুপুরে আলমগীর হোসেন পলাশ মালা আকতারকে ধারালো অস্ত্র (বটি) দিয়ে কুপিয়ে মাথা, দু’হাত, দু’পা, গলার নিচ থেকে কোমর পর্যন্ত দু’টুকরো মোট সাত টুকরো করে হত্যা করে।

ঘাতক পলাশ ও তার সহযোগীরা লাশ সাত টুকরো করে ওই বাসার গোসলখানায় দুটি ড্রামে ভরে লুকিয়ে রাখে।

এ ঘটনায় সাথে সম্পৃক্ত বাসার মালিক আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লবকে ওইদিন রাত সাড়ে ১০ টার দিকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

আমতলী থানার ওসি (তদন্ত) নুরুল ইসলাম বাদল বাদী হয়ে ঘাতক আলমগীর হোসেন পলাশ ও আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লবের নাম উল্লেখ করে চারজনের নামে ওইদিন হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

গত ২৫ অক্টোবর আলমগীর হোসেন পলাশ আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হুমায়ূন কবিরের আদালতে ঘটনার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। ওইদিন পুলিশ অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লব তালুকদারকে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

আদালতের বিজ্ঞ বিচারক হুমায়ুন কবির রিমান্ড আবেদনের শুনানী শেষে গত ৩১ অক্টোবর আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লবকে পাঁচ দিনের পুলিশ রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

রিমান্ডে থাকা অবস্থায় শনিবার দুপুরে মাইনুল আহসান বিপ্লবের কথিত মতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তার বাসার গোসলখানা সংলগ্ন পুকুর থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দুটি চাপাতি উদ্ধার করেছে।

আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লব উপস্থিতিতে তার ব্যবহৃত মোটর সাইকেলটি পুলিনের গ্যারেজ থেকে পুলিশ জব্দ করে।

আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লব বলেন এ মোটর সাইকেলে করে মালা আক্তারকে ঘটনার দুইদিন আগে আমার বাসায় বেড়াতে নিয়ে আসি।

আমতলী থানার ওসি ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোঃ শহিদ উল্যাহ জানান আসামী আইনজীবি মাইনুল আহসান বিপ্লবের স্বীকারোক্তি অনুসারে শনিবার দুপুরে বিপ্লবের উপস্থিতিতে তার বাসার গোসলখানা সংলগ্ন পুকুরে অভিযান চালাই।

এ সময় ওই পুকুর থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দুটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরো বলেন মালাকে আইনজীবি বিপ্লবের বাসায় বেড়াতে আনা তার মোটর সাইকেলটি জব্দ করেছি।আমাদের সময়

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,চুনারুঘাট প্রতিনিধি:বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিকদল চুনারুঘাট উপজেলার ৯নং রাণীগাঁও ইউনিয়ন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে গত ৩ নভেম্বর শুক্রবার বিকালে রাণীগাঁও বাজার অস্থায়ী কার্যালয়ে মোঃ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এক কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা শ্রমিকদলের আহ্বায়ক ও উপজেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল করিম সরকার।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা শ্রমিকদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম খান, মোঃ আব্দুল হাই, মোঃ আলী হোসেন, উপজেলা বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক মোঃ নূরুল আমিন, মোঃ তৈয়ব আলী, উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক সৈয়দ আবু নাঈম হালিম, ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান কাউছার, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল কদ্দুছ, বদরুজ্জামান সুমন, ইয়াহিয়া তালুকদার সুমন প্রমুখ।

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে মোঃ নজরুল ইসলামকে আহ্বায়ক, আঃ সালামকে সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক, কাজল মিয়া, সামছু উদ্দিন ও মোঃ রাসেল মিয়াকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট রাণীগাঁও ইউনিয়ন শ্রমিকদলের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের তাহিরপুর বাজার থেকে গবিন্দশ্রী সড়কের বেহাল দশা বিরাজ করছে দীর্ঘ দিন ধরে। ফলে চরম দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে ৩টি গ্রামের প্রায় ৫হাজারের অধিক জনসাধারন। প্রতিদিন এই সড়ক দিয়ে শত শত স্কুল,কলেজের ছাত্র-ছাত্রী,বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্টানের লোকজন,ব্যবসায়ীসহ সকল স্থরের লোকজন উপজেলা সদরে ও বাজারে চরম দূর্ভোগের মধ্য দিয়ে চলাচল করছে। যেন দেখার কেউ নেই। এলাকাবাসী ও বিভিন্ন সুত্রে জানাযায়,উপজেলা সদর থেকে সুনামগঞ্জ জেলা সদরে বিভিন্ন যানবাহন দিয়ে যে কোন সময় চলাচল করতে পারলেও তাহিরপুর বাজার থেকে গবিন্দশ্রী পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার সড়ক দিয়ে চলাচল করা যাচ্ছে না।

এই সড়কটি মধ্যে ভাটি তাহিরপুর গ্রামে (উপজেলা সদর থকে প্রায় ১কিলোমিটার দূরে) রয়েছে তাহিরপুর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়,একটি মডেল স্কুল এ দুটি স্কুলে প্রায় ২হাজারের অধিক শিক্ষার্থী আসা-যাওয়া করে প্রতিদিন। স্কুলের পাশেই রয়েছে একটি তহশীল অফিস সেখানেও প্রতিদিন শত শত মানুষ আসা যাওয়া করছে। পাশেই ঠাকুরহাটি গ্রামে একটি কমিউনিটি ক্লিনিক রয়েছে যেখানেও প্রতিদিন বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত মা,শিশুসহ সকল নারী-পুরুষ চিকিৎসা নিতে আসছে। অন্যদিকে শুষ্ক মৌসুমে এই সড়ক দিয়ে এই উপজেলার দক্ষিন শ্রীপুর ইউনিয়ন ও পাশ্বভর্তি মধ্যনগড় থানা ও ধর্মপাশা উপজেলার হাজার হাজার জনসাধারন চলাচল করে এই একটি মাত্র সড়ক দিয়ে।

যার জন্য এই সড়কটি একটি গুরুত্বপূর্ন সড়ক এ উপজেলার বাসীর জন্য। বর্ষায় হাওরের ঢেউয়ে কয়েকটি স্থানে ভাঙ্গন দেখা দেয়। মেরামত করা হয় কিন্তু গত ৪বছর ধরে এই সড়কের ডালাই ও রড উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় চলাচলে অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে জরুরী প্রয়োজনে সিএনজি,রিক্সা সহ কোন প্রকার যানবাহন নিয়ে ৩টি গ্রামের জনসাধারন চলাচল করতে পারছে না। পায়ে হেটে চলাচল করতে হচ্ছে বাধ্য হয়ে। আরো জানাযায়,প্রায় সাড়ে ৩বছর পূর্বে এই সড়কে নাম মাত্র কাজ করে বিশাল অংকের টাকা হাতিয়ে নেয় সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ। কিন্তু কাজে কাজ কিছুই হয় নি। ভাঙ্গাছুড়া এই সড়কে দিয়ে বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে অনেক দূর্ঘটনা গঠেছে।

এতে করে আহত হয়েছে স্কুল,কলেজের ছাত্র-ছাত্রীসহ স্থানীয় অর্ধশতাধিক জনসাধারন। যার জন্য স্থানীয় এলাকাবাসীর মাঝে র্দীঘ দিনের চরম ক্ষোব বিরাজ করছে। স্থানীয় এলাকাবাসী ক্ষোবের সাথে জানান,সরকার উন্নয়নের জোয়ার বসাইয়া দিছে তাইলে এই সড়কটা কি? র্দীঘ দিন ধইরা এই অবস্থা থাকা সরকারের উন্নয়ন কওয়া যায়ব। আমরা কি তাহলে এই সরকারের কেউ না এই দেশের বাইরের মানুষ। এই সড়ক দিয়া স্কুলে,ক্লিনিকে,তহশীল অফিসে যায়তে হয় পায়ে হাইটা এই টা কেমন উন্নয়ন সরকারের।

একাধিক শিক্ষক ক্ষোবের সাথে জানান,এই সড়ক দিয়ে গুরুত্বপূর্ন ৪টি প্রতিষ্টানে নিজেদের প্রয়োজনে সর্বস্থরের জনসাধারন চলাচল করে। আমাকেও শিক্ষক হিসাবে স্কুলে যাওয়ার জন্য প্রতিদিন চলাচল করতে হয এই সড়ক দিয়েই। র্দীঘ দিন ধরে এসড়কটির এই বেহাল অবস্থা দেখে নিজের কাছে খুব খারাপ লাগে বেশি কিছু বলতেও পারি না। তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল জানান,এই সড়কটির বিষয়ে সবার সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,নবীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  “উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ৪৬ তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত হয়েছে। এ দিবস উপলক্ষে শনিবার সকালে উপজেলা প্রশাসন ও সমবায় বিভাগের আয়োজনে র‌্যালী, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বর্ণাঢ্য র‌্যালীটি উপজেলা পরিষদের সামন থেকে শুরু করে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিন শেষে উপজেলা পরিষদের হল রুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাজিনা সারোয়ারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের সংসদ সদস্য এম এ মুনিম চৌধুরী বাবু।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক রুবেল মিয়ার পরিচালনায় শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমবায় কর্তকর্তা হফিজুল রহমান। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট আলমগীর চৌধুরী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা বেগম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুল, সাধারন সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নূর উদ্দিন (বীর প্রতিক)।

এতে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কুর্শি ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহমেদ মুসা, আরুয়া কলকলিয়া পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিঃ এর সভাপতি মোঃ শফিকুর রহমান, পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ইকবাল আহমেদ বেলাল, দৈনিক বিবিয়ানা পত্রিকার বার্তা সম্পাদক মতিউর রহমান মুন্না, আইডিয়া জীবিকা প্রকল্পর ব্যবস্থাপক আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ মোঃ রফিকুজ্জামান ও গীতা পাঠ করেন নয়নমনি সরকার। আলোচনা সভা শেষে নবীগঞ্জ উপজেলার ৫টি সফল সমবায় সমিতির সভাপতির হাতে পুরস্কার হিসেবে সনদ ও ক্রেষ্ট তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,হৃদয় দাশ শুভ,স্টাফ রিপোর্টার:বিপিএলের প্রথম ম্যাচে আজ সিলেট সিক্সার্সের প্রতিপক্ষ তারকাবহুল ঢাকা ডায়নামাইটস। অপেক্ষাকৃত সাদামাটা দল নিয়ে উদ্বোধনী ম্যাচেই চমক দিল স্বাগতিক সিলেট সিক্সার্স।

নাসির হোসেনের নেতৃত্বাধীন সিলেট আজ ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সাকিবের ঢাকা ডায়নামাইটসকে হারিয়ে টুর্নামেন্টে শুভযাত্রা শুরু করেছে।

১৩৭ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেন সিলেট সিক্সার্সের দুই ওপেনার উপুল থারাঙ্গা এবং আন্দ্রে ফ্লেচার। ঢাকার বোলাররা যেন বোলিং করতে ভুলে গিয়েছিল। কোনোভাবেই আউট করা যাচ্ছিল না তাদের। দুজনেই তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। ৫১ বলে ৫ চার এবং ৩ ছক্কায় ৬৩ রান করা ফ্লেচার আদিল রশিদের শিকার হলে ভাঙে ১২৫ রানের জুটি। এতে অবশ্য কোনো ক্ষতি হয়নি। কেবল ১০ উইকেটের জয়টাই হাতছাড়া হয়েছে।
এর আগে আজ শনিবার টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ২ রানে নাসিরের বলে মেহেদী মারুফ (০) প্যাভিলিয়নে ফিরলে বিপদে পড়ে ঢাকা।
এরপর কুমার সাঙ্গাকারার সঙ্গে ৪৮ রানের জুটি গড়ে নাসিরের দ্বিতীয় শিকার হন এভিন লুইস (২৬)। ইনিংসের সর্বোচ্চ রান করা লঙ্কান লিজেন্ড সাঙ্গাকারাকে (৩২) আবুল হাসানের তালুবন্দী করেন প্ল্যাঙ্কেট।
সাঙ্গাকারার বিদায়ের সাকিবের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি হওয়ায় রান-আউট হয়ে যান ৬ রান করা মোসাদ্দেক। বিধ্বংসী হওয়ার আগেই কায়রন পোলার্ডকে (১১) নাসির হোসেনের তালুবন্দী করেন আবুল হাসান। অধিনায়ক সাকিব ২১ বলে ২৩ রান করে প্ল্যাঙ্কেটের দ্বিতীয় শিকার হন। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৩৬ রান করে ঢাকা ডায়নামাইটস। ২টি করে উইকেট নেন নাসির এবং আবুল হাসান।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বরঃডেস্ক নিউজঃ    রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি পুতিনকে হত্যার ষড়যন্ত্রে জড়িত বলে মস্কোর অভিযুক্ত চেচেন নেতা আদম ওসমায়েভের স্ত্রী আমিনা ওকুয়েভাকে সোমবার কিয়েভে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, উভয়ে অনেকদিন থেকে কিয়েভে রয়েছেন। এদিন তারা গাড়িতে করে কোথাও যাচ্ছিলেন। কিয়েভের উপকন্ঠে একটি রেলক্রসিংয়ের কাছে একটি ঝোপ থেকে তাদের গাড়ির উপর গুলিবর্ষণ করা হলে, আমিনা মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে শহীদ ও ওসমায়েভ আহত হন। তবে তিনি এখন শংকামুক্ত।

ওসমায়েভ বলেন, তাদের দু’জনকে হত্যা করতেই এ হামলা করা হয় বলে তার ধারণা। তিনি এ হামলার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করেন। ইউক্রেনীয় কর্মকর্তাদেরও একই ধারণা।

এটি এ বছর ওসমায়েভের জীবনের উপর দ্বিতীয় হামলা। চেচেন ওসমায়েভ কিয়েভে থাকেন। তিনি ও তার স্ত্রী আমিনা ওকুয়েভা রাশিয়াপন্থী ইউক্রেনীয় বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ইউক্রেন সামরিক বাহিনীর চেচেন স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীতে লড়াই করে ব্যাপক খ্যাতি লাভ করেন। ওসমায়েভ ছিলেন চেচেন স্বেচ্ছাসেবক ব্যাটালিয়নের কমান্ডার। অন্যদিকে আমিনা বীরত্বের জন্য উচ্চ প্রশংসা লাভ করেন। ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী ভলোদিমির গ্রইসম্যান আমিনাকে একজন প্রকৃত দেশপ্রেমী আখ্যায়িত করে বলেন, জাতি তাকে চিরদিন স্মরণ করবে।

গত জুনে এক বন্দুকধারী ওসমায়েভের উপর গুলি চালায়। এ সময় আমিনা আকুয়েভা পাল্টা গুলি চালালে হামলাকারী আহত হয়। আমিনা ওকুয়েভা রাশিয়ার চেচেন নীতি ও রুশ অনুগত চেচেন নেতা রমজান কাদিরভের আপসহীন সমালোচক ছিলেন।

কিয়েভে ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা জানান, ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ওসমায়েভকে অবৈধ বিস্ফোরকসহ ইউক্রেনের কৃষ্ণসাগর বন্দর ওডেসায় আটক করা হয়। তখন রুশ কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে পুতিনকে হত্যার ষড়যন্ত্র করার অভিযোগ আনে এবং তাকে মস্কোর হাতে তুলে দেয়ার দাবি জানায়। কিন্তু ইউরোপীয় মানবাধিকার আদালত ওসমায়েভকে মস্কোর কাছে হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা জারি কর্। আড়াই বছর পর তিনি জেল থেকে মুক্ত হন। তারপর তিনি রুশপন্থী বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ইউক্রেনের পক্ষে লড়াইরত চেচেনদের নিয়ে গঠিত জোহার দুদায়েভ স্বেচ্ছাসেবক ব্যাটালিয়নের কমান্ডার নিযুক্ত হন। তারপর আইরিশ টাইমসের সাথে এক সাক্ষাতকারে ওসমায়েভ বলেন, ইউক্রেন স্বাধীন থাকলে ও শক্তিশালী হলে, চেচেনদের স্বাধীনতা লাভে সহায়ক হবে। তখন থেকে তিনি রুশদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হন বলে ধারণা করা হয়।

কিয়েভে গত বৃহস্পতিবার একটি গাড়ির উপর বোমা হামলার পর এ ঘটনা ঘটে। ঐ বোমা হামলায় ২ ব্যক্তি নিহত ও ইউক্রেনের বিরোধী নেতা আইহর মসিচুকসহ ৩ জন আহত হন। মসিচুক এ হামলার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করেন। অবশ্য রাশিয়া তা নাকচ করেছে।

মসিচুকের সাথে আমিনার যোগাযোগ ছিলো। তিনি এক সময় মসিচুকের উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেন।

উল্লেখ্য, ১৯৯১ সালের পর চেচেনরা স্বাধীনতার জন্য মস্কোর সাথে দু’দফা বড় ধরনের লড়াই করে। কিন্তু তা নির্মমভাবে দমন করে মস্কো। মুসলিম অধ্যুষিত চেচনিয়া এখন পুরোপুরি রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে। ডয়চে ভেলে, রয়টার্স, এপি, এএফপি, আরব নিউজ।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বরঃশ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি:  ৪৬তম জাতীয় সমবায় দিবস ২০১৭ উপলক্ষে ‘উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে অনুষ্টিত হয়েছে র‌্যালী ও আলোচনা সভা।
সমবায় দিবস উপলক্ষে শনিবার সকালে উপজেলা সমবায় দপ্তর ও সমবায়ীবৃন্দের আয়োজনে, ব্র্যাক, সেভরন, দিশারীসহ বিভিন্ন সমবায় সমিতির সহযোগীতায় শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদ হতে এক র‌্যালী বের হয়। পরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও আলোচনা সভা অনুষ্টিত । অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক চীফ হুইপ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ এমপি।
শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রনধীর কুমার দেব এর সভাপতিত্বে ও ব্র্যাক এর প্রোগ্রাম অরগানাইজার রেজা ই রাব্বি হিমেল এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রেম সাগর হাজরা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হেলেনা চৌধুরী, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা জাহাঙ্গির আলম, ইউপি চেয়ারম্যান ভানু লাল রায় প্রমুখ।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,শংকর শীল,হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার ছয়শ্রী গ্রামে এখন উৎসবের আমেজ। বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শনিবার সারা রাত সেখানে উদযাপিত হবে মুনিপুরীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব মহারাসলীলা। মুনিপুরী ঐতিহ্যের ১৭৪তম বাৎসরিক প্রধান ধর্মীয় উৎসব উত্তর ছয়শ্রী মহাপ্রভু মন্ডপে শনিবার সকাল ৫টায় মঙ্গল আরতির মাধ্যমে শুরু হবে উৎসব রবিবার ভোররাত পর্যন্ত তা চলবে।
মহারাস লীল উদযান কমিটির সহ- সভাপতি বীরেশ্বর সিংহ জানান, মঙ্গল আরতির মাধ্যমে উৎসব শুরুর পর দুপুর ১টায় মহাপ্রভুর ভোগ আরতি ও মহাপ্রসাদ বিতরণ করা হবে। আড়াইটা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত শ্রী কৃষ্ণের গোচারণ লীলা এবং রাত সাড়ে ১০টা থেকে রবিবার ভোর পর্যন্ত হবে মহারাসলীলা। রাতের অনুষ্ঠান হয় আকর্ষনীয়। সেখানে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার বিধান ত্রিপুরাসহ গণ্যমান্য অতিথিরা
উপস্থিত থাকবেন।
তিনি আরও জানান, মহারাসলীলা উপলক্ষে সেখানে গ্রাম্য মেলা বসেছে। কৃষি সরঞ্জাম, মাটির তৈরী জিনিসপত্র, ঘর কন্যার সামগ্রীসহ নানা দ্রব্যের পসরা সাজিয়ে বসেছেন বিক্রেতারা।
প্রতি বছর কার্তিক মাসের পূর্নিমা তিথিতে অনারম্ভর ভাবে অনুষ্ঠিত হয় মহারাসলীলা। চুনারুঘাট উপজেলার মুনিপুরী অধ্যুষ্যিত ছয়শ্রী গ্রামে আশ্বিন মাসের শুরুতেই উৎসবের সাড়া পাওয়া যায়। জেলার বিভিন্ন স্থান থেকেও মুনিপুরী সম্প্রদায়সহ জাতি ধর্ম নির্বিশেষে অনেকেই ছুটে আসেন মহারাসলীলা উপভোগ করতে। মুনিপুরী নৃত্যকলা শুধু ছয়শ্রী নয়; গোটা ভারতীয় উপমহাদেশ তথা বিশ্বের নৃত্যকলার মধ্যে একটি বিশেষ স্থান দখলে করে আছে। মহারাসলীলায় শিশু থেকে শুরু করে কিশোর কিশোরী সবার স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহনে রাতের বেলায় রাস উৎসব হয়ে উঠে সবচেয়ে আকর্ষণীয়।
রাখাল নৃত্য দিনের বেলায় হলেও রাখাল নৃত্যের পর থেকেই সন্ধায় শুরু হয় রাসলীলা। শুরুতেই পরিবেশিত হয় রাসধারীতের অপুর্ব মৃদঙ্গ নৃত্য। মৃদঙ্গ নৃত্য শেষে প্রদীপ হাতে নৃত্যের তালে তালে সাজানো মঞ্চে প্রবেশ করেন শ্রী রাধা সাজে সজ্জিত একজন নৃত্যশিল্পী বৃন্দা। তার নৃত্যের সঙ্গে বাদ্যের তালে তালে পরিবেশিত হয় মুনিপুরী বন্দনা সঙ্গীত। শ্রীকৃষ্ণ রূপধারী বাশিঁ হাতে মাথায় কারুকার্য্য খচিত ময়ূর গুচ্ছধারী এক কিশোর নৃত্যশিল্পী তার বাশিরঁ সুর শুনে রজগোপী পরিবেশিত হয়ে শ্রী রাধা মঞ্চে আসেন। শুরু হয় সুবর্ন কংকন পরিহিতা মুনিপুরী কিশোরীদের নৃত্য প্রদর্শন। স্থানীয় শিল্পীদের এই পরিবেশনা সবাইকে বিমোহিত করে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বরঃ  শনিবার মাঠে গড়াতে যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম আসর। নামতে থাকা শীতের সময়ে উত্তাপ ছড়াতে এরই মধ্যে বিপিএলের দলগুলো সম্পন্ন করেছে প্রস্তুতি। দেশের ক্রিকেটাররা তো বটেই, বিদেশি ক্রিকেটাররাও চরম উত্তেজনা নিয়ে অপেক্ষা করছেন বিপিএলের জন্য। বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা ক্রিকেট সমর্থকরাও চোখ মেলে আছেন বাংলাদেশের দিকে। টিম রিভিউয়ের এই পর্বে থাকছে কাগজে-কলমে টুর্নামেন্টের দুর্বলতম দল সিলেট সিক্সার্সের হালচাল।

বিপিএলের গত আসরে সিলেটভিত্তিক কোনো দল ছিলো না। এক আসর বিরতির পর আবার বিপিএলে ফিরেছে সিলেটের দল। এবার নাম সিলেট সিক্সার্স। বিরতি দিয়ে ফিরলেও তেমন আশাজাগানিয়া দল গড়তে পারেনি নতুন এই ফ্রেঞ্চাইজিটি। ফলে আসরের প্রায় শুরুতেই ব্যাকফুটে সিলেট সিক্সার্স।
দলটির সবচেয়ে বড় তারকা সাব্বির রহমান। গত বিপিএলে রাজশাহী কিংসে ছিলেন তিনি। পাকিস্তানের বাবর আজম, তরুণ পেসার ওসমান খানও আছেন এই দলে। কিন্তু এ দুজন ১৭ নভেম্বরের আগে দলে যোগ দিতে পারবেন না। তাদের আসার আগে সিলেটকে নির্ভর করতে হবে লঙ্কান উপুল থারাঙ্গা, চতুরঙ্গা ডি সিলভাদের উপর। আছেন আন্দ্রে ফ্লেচার, লিয়াম প্লাঙ্কেটরাও।
স্থানীয়দের মধ্যে আবুল হাসান রাজু, মোহাম্মদ শরিফ, নাবিল সামাদ, শুভাগত হোমরা সিলেটের অন্যতম ভরসা। সব মিলিয়ে কাগজে-কলমে দুর্বল দলগুলোর একটি হলেও আসরে দুই একটা অঘটন ঘটিয়ে দিতে পারে সিলেট সিক্সার্স।
বিপিএল ২০১৭-এ সিলেট সিক্সার্স স্কোয়াড:
সাব্বির রহমান, বাবর আজম, ক্রিসমার সান্তোকি, ওসমান খান, আন্দ্রে ফ্লেচার, ডেভি জ্যাকবস, লিয়াম প্লাংকেট, রস হোয়াইটলি, চাতুরঙ্গা ডি সিলভা, দসুন শানাকা, নাসির হোসেন, নুরুল হাসান, ওয়েনিদু হাসারঙ্গা, তাইজুল ইসলাম, আবুল হাসান, শুভাগত হোম, কামরুল ইসলাম রব্বি, নাবিল সামাদ, গোলাম মুদাসসার, মোহাম্মদ শরিফ, ইমতিয়াজ হোসেন, শরিফুল্লাহ, উপুল থারাঙ্গা, আন্দ্রে ম্যাকার্থি।
সিলেটের খেলা কবে কখন:
চার ও পাঁচ নভেম্বর সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে বেলা দুইটায় সিলেট সিক্সার্স খেলবে ঢাকা ডায়নামাইটস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে। সিলেট পর্বে নিজেদের শেষ দুই ম্যাচে সাত ও আট নভেম্বর সিক্সার্স খেলবে রাজশাহী কিংস ও খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে, সন্ধ্যা সাতটায়। এরপর একই সময়ে ঢাকায় ১১ নভেম্বর ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে খেলবে তারা। ১৫ ও ১৭ নভেম্বর বেলা দুইটা ও আড়াইটায় তারা খেলবে খুলনা টাইটান্স ও রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে।
২০ তারিখ সন্ধ্যা সাতটায় তাদের প্রতিপক্ষ রংপুর রাইডার্স। ২৪ ও ২৮ তারিখ সন্ধ্যা সোয়া সাতটা ও বেলা দুইটায় চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিলেট খেলবে চিটগাং ভাইকিংস ও রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে। তিন ও ছয় ডিসেম্বর লিগ পর্বের শেষ দুই ম্যাচে ঢাকায় বেলা দুইটা ও সন্ধ্যা সাতটায় তারা খেলবে চিটাগং ভাইকিংস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,নড়াইল প্রতিনিধি:“উদ্ভাবনে বাড়বে কর, দেশ হবে স্বর্নিভর ” এ শ্লোগানকে সামনে নিয়ে নড়াইলে শুরু হয়েছে ৪দিন ব্যাপী (৪-৭ নভেম্বর) আয়কর মেলা ২০১৭। শনিবার ৪ নভেম্বর সকাল ১১ টায় নড়াইল উপকর কমিশনারের কার্যালয়,সার্কেল-১৫, নড়াইল,কর অ ল-খুলনা এর আয়োজনে নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মেলার উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি নড়াইল-২ সংসদ সদস্য এ্যাডঃ শেখ হাফিজুর রহমান।

যুগ্ম কর কমিশনার,পরিদর্শী রেঞ্জ-২,কর অ ল-খুলনা গনেশ চন্দ্র মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোঃ এমদাদুল হক চৌধুরী , পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সালমা সেলিম, সহকারি কর- কমিশনার, সার্কেল-১৫, নড়াইল,কর অ ল-খুলনা মোঃ আমিনুল হক, চেম্বার অব কমার্স নড়াইলের সভাপতি মোঃ হাসানুজ্জামান, আয়কর আইনজীবি সমিতির সভাপতি শরীফ হুমায়ুন করীর, শেরা করদাতা, সার্কেল-১৫,নড়াইল মোঃ ওহাহিদুজ্জামান, জেলা পরিষদের সদস্য ও আকর উপদেষ্টা বেগম রওশান আরা কবির লিলি, আয়কর অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারি, আইকর আইনজীবি, উপদেষ্টাসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

এ মেলায় মোট ৮টি ষ্টল খোলা হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ০৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এ মেলা চলবে। আইকরের টিন নাম্বার খোলা, রির্টান জমা প্রদানসহ আয়কর বিষয়ে বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করা হবে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,নড়াইল প্রতিনিধি:  “উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে সারা দেশের ন্যায় নড়াইলেও পালিত হল ৪৬ তম জাতীয় সমবায় দিবস।

শনিবার ৪ নভেম্বর জেলা সমবায় বিভাগ ও সমবায়ীবৃন্দের আয়োজনে দিবসটি পালন উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে র‌্যালী শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে এসে শেষ হয়।

পরে একাডেমি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক মোঃ এমদাদুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন নড়াইল-২ সংসদ সদস্য এ্যাডঃ শেখ হাফিজুর রহমান।

এ সময় পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহি অফিসার সালমা সেলিম, বিআরডিবি নড়াইলের চেয়ারম্যান এ্যাডঃ হেমায়েত উল্লাহ হিরু,জেলা সমবায় অফিসার (দায়িত্ব প্রাপ্ত) মোঃ মোমেন হোসেন ভ’ইয়া, সাংবাদিক, সমবায়ীবৃন্দ,সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,আবু তাহির,ফ্রান্সঃ   গভীর শ্রদ্ধার মধ্যদিয়ে জেলহত্যা দিবসে জাতীয় চার নেতাকে স্মরণ করল ফ্রান্স আওয়ামীলীগ । শুক্রবার বিকালে প্যারিসের গার্দ নর্দে ফ্রান্স আওয়ামী লীগ কর্তৃক জেলহত্যা দিবসের এক স্মরণসভায় সভাপতিত্ব করেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মঞ্জুরুল হাসান সেলিম । অনুষ্টান পরিচালনা করেন, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিলওয়ার হোসেইন কয়েছ।

স্বরণ সভায় বক্তব্য রাখেন ইউরোপিয়ান আওয়ামীলীগ এর সহসভাপতি আব্দুল্লাহ আল বাকি , ফ্রান্স আওয়ামীলীগ এর উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক , ফ্রান্স আওয়ামীলীগ এর সহসভাপতি শাহজাহান রহমান , জসিম উদ্দিন ফারুক , শাহজাহান সারু , আজম খান , মোতালেব খান , যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আকরাম খান , অধ্যাপক আলম অপু , হাসান সিরাজ , শাহীন আরমান চৌধুরী , প্যারিস নগর আওয়ামীলীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম খান , হারুন রশিদ , সহ ফ্রান্স আওয়ামীলীগ এর নেতারা ।

এসময় বক্তারা বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার হত্যাকান্ড ছিল একই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতা। বক্তারা বলেন জাতীয় চার বঙ্গসন্তানই বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তারা যেমন ছিলেন নির্ভিক এবং সৎ, ঠিক তেমনই দূরদৃষ্টিসম্পন্ন। এই কলঙ্কিত হত্যাকান্ডই প্রমাণ করে বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ড ছিল বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একটি পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র।

বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণকে ইউনেস্কো কর্তৃক আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য ইউনেস্কো ডিরেক্টর জেনারেল ইরিনা বাকুবাকে ধন্যবাদ জানান তারা , পাশাপাশি ২৫শে মার্চকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস ঘোষণার দাবি জানান নেতারা ।

স্বরণ সভা শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জতীয় চার নেতা সহ সকল বীর শহীদদের আত্মার মাগফেরাত ও জননেত্রী প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ূ কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৪নভেম্বর,হাবিবুর রহমান খানঃ  মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলার গোয়ালবাড়ীতে বিশ্বসেরা হাফিজ ক্বারীদের তিলাওয়াত সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠান আগামী ৮ ডিসেম্বর ২০১৭ রোজ শুক্রবার বিকাল ৪ টায় হাজী ইনজাদ আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুস্টিত হবে।

বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী দানবীর মরহুম “হাজী ইনজাদ আলী স্মৃতি পরিষদ” এর উদ্যোগে তিলাওয়াত সংবর্ধনা পর্বে প্রধান ক্বারী হিসেবে উপস্হিত থাকবেন তাহফিজুল কুরআন ওয়াসসুন্নাহ মাদ্রাসা সিলেট শাখার পরিচালক হাফিজ ক্বারী মাওলানা ওলিউর রহমান খান এবং ইসলামিক ট্যালেন্ট হার্ট আরটিভি ২০১৪ এর প্রথম স্হান অধিকারী হাফিজ ক্বারী মুর্শেদ সিরাজী, ঢাকা। বিশ্বসেরা কুরআনের পাখিদের ঐতিহাসিক মিলনমেলার অন্যতম বিশেষ আকর্ষন সৌদিআরব, দুবাই, ভারত হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্হান অধিকারী আন্তর্জাতিক বিশ্বজয়ী ক্ষুদে হাফিজ নাজমুস সাকিব, বাহরাইন, দুবাই, কুয়েত, কাতার, জর্ডান, সুদান হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় পুরস্কারজয়ী বিশ্বজয়ী হাফিজ মুহাম্মদ জাকারিয়া, সৌদিআরব, দুবাই, মিশর, কুয়েত, হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় পুরস্কারজয়ী বাংলাদেশের অহংকার বিশ্বজয়ী হাফিজ আব্দুল্লাহ আল মামুন- ঢাকা ও সৌদিআরবে ২০১৭ এ অনুস্টিত হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় পুরস্কার জয়ী বিশ্বজয়ী হাফিজ নাইমুল হক সাদী- সিলেট।

অনুষ্ঠানের ২য় পর্বের সাংস্কৃৃতিক পর্বে রয়েছে কুরআনের বুলবুলিদের সমন্বয়ে মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা। উক্তপর্বে প্রধান আকর্ষন হিসেবে রয়েছেন বিশিষ্ট আলেম, দার্শনিক, রাস্ট্রচিন্তাবিদ, ইসলামিক সংগীতদ কিংবদন্তী জাগ্রত কবি মুহিব খান ও আল মজিদ সাংস্কৃতিক ফোরাম সিলেটের পরিচালক ফয়েজ আহমদ শাহরুখ। আরো থাকবেন বাংলার শ্রেষ্ঠ ইসলামিক সংগীত শিল্পী কলরব শিল্পী গোষ্ঠীর আবির হাসান, বিএফবির আরিফ বিল্লাহ, আশরাফ বিন হাসান ও জাকারিয়া সারওয়ার। আবৃতি উপস্হাপনায় থাকবেন আলী হোসাইন খান ইমন।

কুরআনের সার্বজনীন সৌন্দর্যকে বিশ্বব্যাপি আরো সমাদৃত করতে এবং সামাজিক অপসংস্কৃতিকে প্রতিরোধ করতে দানবীর মরহুম “হাজী ইনজাদ আলী স্মৃতি পরিষদের” কর্নধার সভাপতি লন্ডন প্রবাসী, বাঙ্গালী কমিউনিটি লিডার শরীফ আহমদ ও পরিষদের সাধারন সম্পাদক হাজী পরিবারের সদস্য সিদ্দিক আহমদ রাহাত সকল ধর্মপ্রিয় মুসলমানদের অংশগ্রহন ও উপস্হিতি কামনা করছেন।