Tuesday 12th of December 2017 12:19:56 PM

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০অক্টোবর,নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইলে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আবুল বাশার মুন্সী এ আদেশ দেন। দন্ডাদেশ প্রাপ্তরা হলেন-যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালির আবুল হোসেনের ছেলে মাহবুব হোসেন রাজু (২৪) এবং একই গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে আব্দুল আজিম (৩০)। এর মধ্যে রাজু আদালতে উপস্থিত থাকলেও আজিম পলাতক আছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১২ সালের ২০ ডিসেম্বর নড়াইল-যশোর সড়কের চাঁচড়া এলাকা থেকে পুলিশ ৮৯ বোতল ফেনসিডিলসহ রাজু ও আজিমকে আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় নড়াইল সদর এএসআই ওলিউল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। ছয়জনের সাক্ষ্য শেষে বিজ্ঞ বিচারক এ রায় দেন।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০অক্টোবর,কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি, মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সাবেক সভাপতি, জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট-এনডিএফ সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা, সাম্রাজ্যবাদ সামন্তবাদ বিরোধী নেতা, ভাষা আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক, প্রখ্যাত চা-শ্রমিক নেতা মফিজ আলী-এর ৯ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ১০ অক্টোবর বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে পালন করা হয়।

এদিন সকাল ১১ টার সময় বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ, জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট, বাংলাদেশ কৃষক সংগ্রাম সমিতি, ধ্রুবতারা সাংস্কৃতিক সংসদ, হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন, চা শ্রমিক সংঘ, রিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন ও স’মিল শ্রমিক সংঘসহ বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তিবর্গের পক্ষ থেকে কমলগঞ্জ উপজেলার শ্রীসূর্য-ধূপাটিলাস্থ প্রয়াত নেতার সমাধিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে স্থানীয় মাঠে বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।

সংগঠনের জেলা সভাপতি মোঃ নুরুল মোহাইমীনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রজত বিশ্বাসের স ালনায় অনুষ্টিত আলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সভাপতি কবি শহীদ সাগ্নিক, প্রয়াত নেতার অনুজ রেজাউল করিম, বিশিষ্ট বাম রাজনীতিবিদ ও সাংবাদিক ডা. আব্দুল হান্নান চিনু, বাংলাদেশ কৃষক সংগ্রাম সমিতি মৌলভীবাজার জেলা কমিটির আহবায়ক ডা. অবনী শর্ম্মা। আলোচনা সভার শুরুতে প্রয়াত নেতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ইউপি সদস্য নারায়ান মল্লিক সাগর ধ্রুবতারা সাংস্কৃতিক সংসদ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সম্পাদক অমলেশ শর্ম্মা, জাতীয় ছাত্রদল মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাবেক আহবায়ক নুর মোহাম্মাদ তারাকী ওয়েছ, চা শ্রমিক সংঘের নেতা দিবা বৈদ্য, হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ মোস্তফা কামাল, রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সোহেল আহমেদ, স’মিল শ্রমিক সংঘের সহ-সভাপতি মোঃ মতিউর রহমান, জাতীয় ছাত্রদলের সাবেক নেতা আশরাফুল ইসলাম উজ্জল প্রমূখ।
সভায় বক্তারা প্রয়াত নেতার অসমাপ্ত কাজ শোষণহীণ সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বৃহত্তর আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তোলার দৃপ্ত অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেন মফিজ আলীর জীবন ও সংগ্রাম নতুন প্রজন্মের কাছে অনুকরণীয়। সংগ্রামী এই জননেতা ১৯২৭ সালের ১০ ডিসেম্বর মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলা শ্রীসূর্য-ধূপাটিলা গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। দীর্ঘ ৬০ বছরের বেশি রাজনৈতিক জীবনে তিনি ছাত্র আন্দোলন, ভাষা আন্দোলন, ৬৯-এর গণ আন্দোলন, চা শ্রমিক আন্দোলন, বালিশিরা কৃষক আন্দোলনসহ বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্ব প্রদান করেন। বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্ব প্রদান করার কারণে তিনি বৃটিশ আমল, পাকিস্তান আমল ও বাংলাদেশ আমলে মোট ৭ বার কারাবরণ করেন।

মার্কসবাদ-লেনিনবাদে বিশ্বাস মফিজ আলী জননেতা হিসেবে শোষিত নির্যাতিত শ্রমিক কৃষক মেহনতি মানুষের মুক্তির লক্ষ্যে যেমন নিরলস সংগ্রাম করে গেছেন তেমনি তাঁর ক্ষুরধার লেখনীর মাধ্যমে সংশোধনবাদ, সুবিধাবাদীদের মুখোশ উন্মোচন করেছেন। তিনি ইংরেজি ডন, সংবাদ, ইত্তেফাক, সাপ্তাহিক জনতা, লালবার্তা প্রভৃতি পত্রিকায় লেখালেখি করতেন। তিনি গণতন্ত্রের নির্ভীক মূখপত্র সাপ্তাহিক সেবা পত্রিকায় মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে লেখালেখি করে গেছেন। ২০০৮ সালে ১০ অক্টোবর সংগ্রামী এই জননেতা ৮১ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।
সভায় এক প্রস্তাবে সম্প্রতি সিলেটের রাবার শ্রমিকনেতা সুজন মিয়াকে গ্রেফতার করে পরিকল্পিতভাবে হত্যা চেষ্ঠার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে সুজন মিয়াসহ সকল নেতাকর্মীদের উপর থেকে দায়ের মিথ্যা মাললা প্রত্যাহার ও সুজন মিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করা হয়। এছাড়া গত ৫ সেপ্টেম্বর সরকার দলীয় সন্ত্রাসীরা ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ ও নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তি দাবি করা হয়।
আলোচনা সভা থেকে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ ও রামপাল কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পসহ সাম্রাজ্যবাদী দেশ ও সংস্থা সমূহের সাথে সম্পাদিত জাতীয় ও জনস্বার্থ বিরোধী সকল চুক্তি বাতিল, চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যে কমানো, বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার, শ্রমিক-কর্মচারিদের জন্য বাজারদরের সাথে সংগতি রেখে মজুরি নির্ধারণ ও গণতান্ত্রিক শ্রমআইন প্রণয়ন, চা-শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি ৪শ টাকা, ভূমিহীন দরিদ্র কৃষকের হাতে জমি ও কাজ, কৃষি উৎপাদনের খরচ কমানো এবং ফসলের ন্যায্যমূল্য, সার, ডিজেল. কীটনাশকের দাম কমানোর দাবিতে প্রয়াত মফিজ আলী জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০অক্টোবর,নাজমুল হক নাহিদ,আত্রাই প্রতিনিধিঃ নওগাঁর আত্রাইয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ মোখলেছুর রহমান প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৭ এ রাজশাহী বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্বাচিত হয়েছেন।
গত মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর ) রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে বিভাগীয় পর্যায়ে বাছাই কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক তিনি ইউএনও পদে রাজশাহী বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি প্রথমে উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব নির্বাচিত হয়ে এখন রাজশাহী বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হন।
আত্রাই উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় রাজশাহী বিভাগীয় নির্বাচন কমিটি বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসাবে তাকে নির্বাচিত করেন। গত মঙ্গলবার তাকে বিভাগের শ্রেষ্ঠ নির্বাহী অফিসার হিসাবে নির্বাচিত করা হয় বলে তথ্যটি নিশ্চিত করেন আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিস।
এ খবরে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন উপজেলার বিভিন্ন স্তরের মানুষ। ইউএনও’র এ সম্মান অর্জনে তারাও গর্বিত।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ মোখলেছুর রহমান ইতোপূর্বে শ্রেষ্ঠ উপজেলা পরিষদ মনোনীত হয়ে রাজশাহী বিভাগের শ্রেষ্ঠ ইউএনও নির্বাচিত হয়ে ছিলেন।
সূত্রমতে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৭ নভেম্বরে আত্রাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে যোগদান করেন মোঃ মোখলেছুর রহমান। যোগদানের পর থেকে আত্রাই উপজেলার শিক্ষা, বেকারত্ব দুরীকরণ, বাল্যবিবাহ রোধসহ বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডসহ সকল ক্ষেত্রে আমূল পরির্তন আনয়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি।
গত ১বছর ১০ মাসে শিক্ষাক্ষেত্রে কঠোর পরিশ্রম করে আত্রাই উপজেলায় তিনি ব্যাপক পরিবর্তন এনেছেন। বিভিন্ন বিদ্যালয়ে মনিটরিং ব্যবস্থার কারণে ঝরে পড়া রোধ, শিক্ষার্থিদের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, মিড-ডে মিল কার্যক্রম, মা সমাবেশ, কাব স্কাউট সম্প্রসারণসহ ব্যতিক্রমীর সফল উদ্যোক্তাসহ প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখায় তাকে রাজশাহী বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্বাচিত করা হয়।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ মোখলেছুর রহমান জানান, সরকারের দেয়া দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করে যাচ্ছি। বর্তমানে আত্রাই উপজেলার কয়েকটি প্রাথমিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ,খাতা কলম এবং মিড ডে মিল কর্মমসূচি চালু করায় ছাত্রছাত্রী ঝরে পরার হার ১ ভাগে নেমে এসেছে এবং শিক্ষার মান পূর্বের তুলনায় অনেক উন্নতি হয়েছে। মানসম্পন্ন পাঠদানসহ শিক্ষক, শিক্ষা কর্মকর্তা, অভিভাবকদের সমন্বয়ে প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে সবরকম প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। তিনি বলেন, হাওর বাওর ও দুর্গম এই এলাকার শিক্ষা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে অব্যাহত রাখার জন্য সরকারের পক্ষ্য থেকে আরও সহযোগিতা দিতে পারলে এ এলাকার সার্বিক প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রমের আরও উন্নতি করা সম্ভব হবে।
এ ব্যাপারে আত্রাই প্রেসক্লাবের প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক নাজমুল হক নাহিদ জানান, নিজ দায়িত্বের বাইরেও আত্রাই উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো: মোখলেছুর রহমান অনেক সেবা মূলক কার্যক্রম করে এলাকার মানুষের আস্থা ও ভালবাসা অর্জন করেছেন। তাঁর মত দেশের সকল অফিসারগণ এগিয়ে আসলে সরকারের অভিষ্ট লক্ষ্য গুলো দ্রুত বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।

বিভাগীয় পর্যায়ে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৭ এর এর শ্রেষ্ঠে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ক্যাটাগরীতে মনোনীত হওয়ায় আত্রাইয়ের বিভিন্ন স্কুল কলেজ, প্রেসক্লাবসহ ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে মো: মোখলেছুর রহমানকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়েছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০অক্টোবর,রাকিবুল বাসারঃ ছোট পর্দার বেশ পরিচিত মুখ লাবণ্য লিজা। নাটক,টেলিফিল্ম,বিজ্ঞাপন এর কাজ দিয়েই আলোচনায় আসেন তিনি। ছোট পর্দায় কৃতিত্বের ছোঁয়া রেখে এরই মধ্যে কাজ করলেন বড় পর্দায়। রয়েল খান পরিচালিত ‘গেম রিটার্নস’ ছবিতে লাবণ্য’র বিপরীতে অভিনয় করেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় চিত্রনায়ক নিরব।

 ত্রিভুজ প্রেম ও আন্ডারওয়ার্ল্ডের নানা ঘটনা নিয়ে নির্মিত ‘গেম রিটার্নস’ মুক্তি পাচ্ছে আগামী ৩ নভেম্বর। । অ্যাকশন থ্রীলারধর্মী এই ছবির সংলাপ ও কাহিনী লিখেছেন আবদুল্লাহ জহির বাবু। এই ছবির গানে কন্ঠ দিয়েছেন ধ্রুব গুহ, আরফিন রুমী ও বেলাল খান। রোনিও মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘গেইম রিটানর্স’ ছবিতে নিরবের সাথে লাবণ্য লিজার পাশাপাশি দ্বিতীয় নায়িকা হিসেবে দেখা যাবে  তমা মির্জাকে। এর আগে আনকাট সেন্সর ছাড়পত্র পায় ‘গেম রিটার্নস’। গত ৫ ফেব্রুয়ারি ছবিটি সেন্সর বোর্ডে জমা দেয়া হয়।

ছবিটিতে আরো অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, ডনসহ আরও অনেকে।

ছবিটি প্রসঙ্গে  লাবণ্য লিজা বলেন, ছবিটি ৩রা নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে। ‘গেম রিটার্নস’ অনেকটা থ্রীলার ও অ্যাকশন ধর্মী ছবি। এর পাশাপাশি রয়েছে প্রেমের গল্পও। এটি আমার প্রথম ছবি। এই ছবিতে নিরব ও আমি জুটি বেঁধে কাজ করেছি। আমি ছবিটা নিয়ে অনেক আশাবাদী। এই ছবিটা আমার জন্য টার্নিং পয়েন্টও হতে পারে।

নিরব বলেন, ছবিতে দর্শকদের জন্য থাকবে অ্যাকশন-থ্রিলার। সেই সঙ্গে প্রেম ভালোবাসাও ফুটে উঠবে। এক কথায় চমৎকার গল্পে নির্মিত হয়েছে ছবিটি। ছবিটি সব শ্রেণির দর্শকের কাছে ভালো লাগবে ।

এ সিনেমায় নিরবকে দেখা যাবে এক অপরাধী রূপে, যে টাকার বিনিময়ে একের পর এক খুন করে। চরিত্রটি নিয়ে নিরব বললেন, “গল্পের সঙ্গে নিজেকে প্রেজেন্ট করার জন্য নিয়মিত জিম করেছি, ফাইটিংও প্র্যাকটিস করতে হয়েছিল । সেই সঙ্গে নিজের লুকেরও পরিবর্তন আনার চেষ্টা করেছি । ‘গেম রিটার্নস’ ছবির গল্পে দর্শকরা একেবারে নতুনত্ব পাবেন। তাছাড়া এ ছবির চরিত্রের সঙ্গে নিজেকে ম্যাচ করাতে অনেক পরিশ্রম করেছি ।  সব মিলিয়ে বলবো দর্শক ‘গেম রিটার্নস’-এ একেবারে ভিন্ন নিরবকে দেখতে পাবেন। নিজের সেরাটা দিয়েছি আমি,  আশা করছি ছবিটি সব মহলে দারুণ প্রশংসিত হবে এবং ব্যবসায়িকভাবে দুর্দান্ত সফলতা পাবে।

সিনেমাটি পরিচালনা করছেন রয়েল খান,  নির্মাতা বলেন,  “২০১৫ সালের ২ জানুয়ারি আমার নির্মিত ‘গেম’ ছবিটি মুক্তি পায়। বিগত ছবিটির সাফল্যের পর তার সিকুয়াল ‘গেম রিটার্নস’ নির্মাণ করেছি । পুরো ছবিতেই দর্শকরা থাকবেন টান টান উত্তেজনার মধ্যে । একই সঙ্গে প্রেম-ভালোবাসাও ফুটে উঠবে। এককথায় চমৎকার গল্পে নির্মিত ‘গেম রিটার্নস’। আশা করি ছবিটি সব শ্রেণির চচ্চিত্রপ্রেমী দর্শকদের ভালো লাগবে।”

 

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০অক্টোবর,ডেস্ক নিউজঃ কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গাদের বহনকারী নৌকা ডুবির ঘটনায় আরও পাঁচটি লাশ উদ্ধার হয়েছে। এ নিয়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ জনে।সোমবার রাতে টেকনাফ থানার ওসি মো. মাইনুদ্দিন খান এ কথা জানান।

মিয়ানমারের দিক থেকে আসা রোহিঙ্গাদের বহনকারী একটি নৌকা রোববার রাত ১০টার দিকে নাফ নদীর গোলারচর পয়েন্টে এসে ডুবে যায়।

এরপর থেকে সোমবার বিকাল পর্যন্ত একজন পুরুষ ও দুইজন নারী ও দশ শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

ওসি মাইনুদ্দিন বলেন, রাত ১০টার দিকে আরও পাঁচটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮জনে।আমাদের সময়

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০অক্টোবর,নড়াইল প্রতিনিধিঃনানা আয়োজনে নড়াইলে বিশ্ববরেণ্য য চিত্র শিল্পী এস, এম , সলতানের ২৩ তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার ১০ অক্টোবর দিনটি পালন উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও এস, এম, সুলতান ফাউন্ডেশনের আয়োজনে এস এম সুলতান কমপ্লেক্স ও শিশুস্বর্গে কোরআন খানি, শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা, শিল্পীর সমাধিতে পুস্পমাল্য অর্পন ও মাজার জিয়ারত, আলোচনা সভা , দোয়া মাহফিল ও পুরস্কার বিতরণের আয়োজন করা হয়।

জেলা প্রশাসন, এস, এম সুলতান ফাউন্ডেশন, নড়াইল প্রেসক্লাব, এস,এম, সুলতান বেঙ্গল চারুুকলা মহাবিদ্যালয়সহ সরকারি ও বে-সরকারি বিভিন্ন সমাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শিল্পীর সমাধিতে পুস্পমাল্য অর্পন করা হয়। পরে শিশুস্বর্গের সভাকক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ এমদাদুল হক চৌধুরী।

এ সময় স্থানীয় সরকার বিভাগ নড়াইলের উ-পরিচালক মোঃ সিদ্দিকুর রহমান,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) মোঃ মাহবুবুর রহমান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সালমা সেলিম, নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি এ্যাডঃ আলমগীর সিদ্দিকী ,এস,এম, সুলতান বেঙ্গল চারুুকলা মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ অশোত কুমার শীলসহ সহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় শতাধিক শিশু প্রতিযোগী অংশ গ্রহন করে।
উল্লেখ্য , বিশ্ববরেণ্য এই শিল্পী ১৯২৪ সালের ১০ আগস্ট নড়াইল শহরের মাছিমদিয়া গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। ১৯৯৪ সালের ১০ অক্টোবর যশোরের সম্মিরিত সামরিক হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০অক্টোবর,চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ চুনারুঘাট উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রামের অনু মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ রেজিয়া খাতুন (৩৫) কে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে  কুপিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, গতকাল সোসবার দুপুরে উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামে রেজিয়া খাতুনের নিজ বসতবাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটে। এসময় আহত রেজিয়া খাতুনের আত্মচিৎকারে স্থানীয় আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত রেজিয়া খাতুন জানান, তার মেয়ে আলীনগর প্রাইমারী স্কুলের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী মাজেদা আক্তার (৮) প্রতিদিনের ন্যায় স্কুল থেকে বাড়ি ফিরার পথে প্রতিপক্ষের লোকজনরা মাজেদাকে নিয়ে হাস্য ঠাট্টা মশকারি ও উত্ত্যক্ত করলে তার মাতা রেজিয়া খাতুন এর প্রতিবাদ করাতে প্রতিপক্ষের লোকজনের সাথে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে একই গ্রামের আঃ জলিলের পুত্র উমরুজ মিয়া (৩৮), জলফু মিয়া (৩০), মৃত ছায়েদ আলীর পুত্র শাহিন মিয়া (২৮), কাউছার মিয়া (২২), মকছুদ মিয়া (৩৫) সহ একদল দূর্বৃত্তরা উত্তেজিত হয়ে রেজিয়া খাতুনের মাথায় কুপিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে এবং তার চিৎকার শুনে মেয়ে মাজেদা আক্তার এগিয়ে আসলে প্রতিপক্ষের লোকজনরা তাকেও বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় এলাকার চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবির, মেম্বার আব্দুল শহিদ মুন্সীসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ রেজিয়া খাতুন ও তার মেয়ে মাজেদা আক্তারকে হাসপাতালে দেখতে এসে দুঃখ প্রকাশ করেন। এ ব্যাপারে রেজিয়া খাতুনের স্বামী অনু মিয়া বাদী হয়ে ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা যায়।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০অক্টোবর,শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি:   শ্রীমঙ্গলে প্রথম স্ত্রীর অনুমতি না নিয়ে ৭ মাসের ও ২বছরের দুটি সন্তান রেখে আবার বিয়ে করায় স্বামীর বিরুদ্ধে প্রথম স্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
সোমবার বিকেলে শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাবে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল ভুনবীর ইউনিয়নের শাষন গ্রামের আক্তাপাড়ার আবুল কালামের প্রথম স্ত্রী রুমি বেগম (২৫) সংবাদ সম্মেলন করে লিখিত বক্তব্যে এ অভিযোগ করেন। এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন রুমি বেগমের পিতা আছকর মিয়া, মা রেণু বেগম, ছেলে মারিয়ান (২বছর) ছোট ছেলে মাহিন (৭ মাস)।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ২০১১ সালে দুই লক্ষ ২৫ হাজার টাকা দেনমোহরে ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী শ্রীমঙ্গল ভুনবীর ইউনিয়নের শাষন গ্রামের আক্তাপাড়ার মৃত আবুল হোসেনের পুত্র আবুল কালামের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী বিদেশ চলে যায়। বিদেশ যাওয়ার আগে ও পরে কয়েকবার সে শশুরের কাছ থেকে টাকা এনে দিতে বলে। কিন্তু পিতার বাড়িতে কথা বলে রুমি বেগম তা দিতে ব্যর্থ হন। এর পর থেকেই স্বামীর সাথে শুরু হয় মনমালন্য। একাধিকবার তিনি স্বামী কর্তৃক নির্যাতনের স্বীকার হন। এক পর্যায়ে নির্যাতন সইতে না পেরে প্রায় দেড় বছর আগে চলে আসেন বাবার বাড়ি শ্রীমঙ্গল উপজেলার কালাপুর ইউনিয়নের রাজা পুরে এবং এ বিষয়ে মৌলভীবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন আদালতে একটি মামলা করেন। এরই মধ্যে গত ৪ অক্টোবর স্বামী তার কোন অনুমতি বা আইনি কোন নির্দেশনা ছাড়াই শ্রীমঙ্গল মতিগঞ্জ এলাকায় বিয়ে করেন। এ বিয়ের খবর পেয়ে স্বামীর সাথে তিনি যোগাযোগ করলে স্বামী তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেন বলে জানান।
এ ব্যপারে স্বামী আবুল কালামের মোবাইল ফোনে উপজেলা প্রেসক্লাব থেকে তার সাথে যোগাযোগ করলে সাংবাদিক পরিচয় দিতেই তিনি ফোন কেটে দেন। এর পর আরও কয়েকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।
পরে তার বড়ভাই সালাম মিয়ার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি আরও একটি বিয়ের কথা স্বীকার করেন এবং তার সাথে তার সম্পর্ক নেই বলে জানান।
এ ব্যপারে শ্রীমঙ্গল থানা ওসি কে এম নজরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি এক স্ত্রী রেখে আবার বিয়ে করার আইন নেই বলে জানান। এসময় তিনি বলেন এ বিষয়ে বা পারিবারিক নির্যাতনের বিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিবেন।
রুমি বেগম জানান সংবাদ সম্মেলন শেষে তিনি এ বিষয়ে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
এ ব্যাপারে ভুনবীর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: চেরাগ আলী জানান, এক স্ত্রী বর্তমান রেখে তার অনুমতি ব্যতিরেখে আবার বিয়ে করা একটি অপরাধ মুলক কাজ। এ বিষয়ে তিনি অভিযোগ পেলে রুমি বেগমকে সহায়তা করবেন বলে জানান।
এদিকে সংবাদ সম্মেলনে রুমি বেগমের মা রেণু বেগম বলেন, তারা নিজেরাই দারিদ্রের কষাঘাতে জর্জড়িত এর মধ্যে ছোট ছোট দুটি বাচ্চাকে প্রতি পালন করা তাদের পক্ষে খুবই কষ্টকর।