Saturday 22nd of September 2018 05:00:27 PM

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৮অক্টোবর,নড়াইল প্রতিনিধিঃনড়াইলে শহর পুলিশ উপ-পরিদর্শক (টিএসআই) পান্নু শেখের বিচারের দাবিতে পুলিশ সুপারের কার্যালয় ঘেরাও করেছে ইজিবাইক শ্রমিকরাা। রবিবার দুপুরে শতাধিক ইজিবাইক ড্রাইভার ও মালিক পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনের সড়কের পাশে ইজিবাইক রেখে পুলিশ সুপারের কার্যালয় ঘেরাও করে।

ইজিবাইক চালকরা অভিযোগ করে বলেন, টিএসআই পান্নু শেখ ইজিবাইক শ্রমিকদের শহরের বাইরে ইজিবাইক চালাতে দিচ্ছেনা।  গাড়ী চালালে প্রতি নিয়ত ইজিবাইক শ্রমিকদের মারধর করে  এবং অকথ্য ভাষায় গালাগালি  করে ও গাড়ী আটকিয়ে রাখেন তিনি। দির্ঘদিন যাবৎ পান্নু শ্রমিকদের বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন চালিয়ে আসছেন। এ ঘটনার তদন্ত পূর্বক সুষ্ঠ বিচার দাবিও জানান এই শ্রমিকরা।

তবে অভিযুক্ত (টিএসআই) পান্নু শেখ তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে বলেন, শহরের বাইরে মহাসড়ক গুলোতে ইজিবাইক চলাচল করতে না দেওয়ায় তারা এ মিথ্যা অভিযোগ করছেন।

“লুটপাটের অভিযোগে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ  ও বিছালী ইউপি চেয়ারম্যানের নামে মামলা”

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৮অক্টোবর,নড়াইল প্রতিনিধিঃ   নড়াইল সদর উপজেলা বিছালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মিদের বাড়িতে পুলিশের ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগে নড়াইল আমলী আদালতে বিছালী ফাড়ির ইনচার্জ খায়রুল ইসলাম, বিছালী ইউপি চেয়াম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা অনিচুর রহমানসহ ৮ জনের নাম উল্লেখসহ আরও ৫-৬ জন নেমপ্লেট বিহীন পুলিশ সদস্যকে আসামী করে মামলা দায়ের হয়েছে। রবিবার দুপুরে নড়াইল আমলি আদালতের বিচারক মোঃ  জাহিদুল হাসান আদালতে মামলাটি দায়ের করেন বিছালী ইউনিয়নের চাকই গ্রামের ইদ্রিস শেখের কন্যা দশম শ্রেণির ছাত্রী স্বর্নালী  খানম। বিচারক মামলাটি গ্রহন করে জুডিশয়াল তদন্ত করে আগামী ১৫ নভেম্বর  প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। মামলার অন্য আসামীরা হল, চাকই গ্রামের মামুন শেখ, জুয়েল শেখ, এরশাদ বিশ^াস, মাজেদ শেখ, লাবলু শেখ, মনিরুল মল্লিকসহ আরও ৫/৬ জন নেমপ্লেট বিহিন পুলিশ সদস্য।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, আসামীরা যোগসাজগে বাদীর পিতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা ইদ্রিস শেখের বাড়িতে গত ১ অক্টোবর ১০ থেকে ১২জন পুলিশ ঘরে ঢুকে চেয়ার, বাক্স, ফ্যান, হাড়ি-পাতিল সহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর চালায়। এ সময় বাড়ির মধ্যে সদর উপজেলার বিছালী ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই খায়রুল বাদী স্বর্ণালীর  মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে তার বাবা কোথায় জানতে চায়। না বললে তার বাবাকে গুলি করে হত্যার হুমকি দেয়। পরে ঘরের মধ্যে থাকা নগদ অর্থসহ স্বর্নালংকার লুট করে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। মামলার বাদী স্বর্নালী খানম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, স্থানীয় আওয়ামী লীগের তিন নেতা-কর্মীর বাড়ি পুলিশি হামলার বিচার চেয়ে সোমবার (২ অক্টোবর) চাকই বাজারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের নারী ও শিশুরা। মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো ইউপি চেয়ারম্যানের সঙ্গে না থাকায় তাদের বাড়িতে পুলিশ দিয়ে হামলা ও লুটপাট করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সে সময় বিছালী ইউপি চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদকে কেন্দ্র করে এলাকায় বেশ কিছুদিন যাবত উত্তেজনা চলছে। এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। তবে, এ ঘটনায় বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট হয়নি বলে দাবি করেন তিনি। এ সময় বিছালী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই খায়রুল তার বিরুদ্ধে আনা বাড়িঘর ভাংচুরের অভিযোগ অস্বীকার করেন।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৮অক্টোবর,শাহনাজ পারবীনঃ   পদ্মার বুকে পদ্মা সেতুর দৃশ্যমান শুধু বঙ্গবন্ধু’র কন্যা শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব আর অদম্য বিশ্বাসের প্রতিচ্ছবিই নয়; বিশ্বাসঘাতক, বেঈমান দেশদ্রোহী ও দেশের উন্নয়ন বিরোধী হিসেবে কতিপয় ষড়যন্ত্রকারীর মুখোশ উন্মোচিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ) সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময়।

রবিবার (৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১১টায় রাজধানীর শাহবাগ কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরি ভিআইপি সেমিনার হলে বাংলাদেশ নাগরিক সেবা আয়োজিত ‘সাম্প্রদায়িক চলমান অপশক্তি রোধ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিঁনি এমন মন্তব্য করেন।

কবীর চৌধুরী তন্ময় বলেন, বিশ্বাসঘাতক, বেঈমান দেশদ্রোহী ও দেশের উন্নয়ন বিরোধীদের পরিচয় মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় চিহ্নিত হয়েগেছে। পদ্মাসেতুর ষড়যন্ত্রকারী ও তাদের দোসর মহলের মুখে চুন-কালি মেখে বঙ্গবন্ধু’র কন্যা শেখ হাসিনার একক সাহস আর বাঙালির স্বপ্নের পদ্মাসেতু আজ দৃশ্যমান। এই সাম্প্রদায়িক অপশক্তি রোধ, ধ্বংস করতে না পারলে, শুধু পদ্মাসেতুই নয়; দেশের সকল উন্নয়নকাজে বাধা প্রদানে ষড়যন্ত্র করবে।

তিঁনি আরও বলেন, আমাদের নিজেদের ভিতরেই অসাম্প্রদায়িক চেতনাবোধ সৃষ্টি করতে হবে। শক্ষিা, ধর্মীয় মূল্যবোধ, সংস্কৃতিচর্চা আর মানবিক গুণাবলি নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। সাম্প্রদায়িক ব্যক্তি ও অপশক্তিকে নিজ-নিজ পরবিার থেকে আরম্ভ করে সমাজ-রাষ্ট্র থেকেও বয়কট করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবোধ ও দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করার মাধ্যমে আমাদের রাজনৈতিক সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি শাহ আলম সম্রাট-এর সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় নেতা মো. আবুল আওয়াল, এএসডি এন্টারপ্রাইজ আবু সাইদ দেওয়ান, বিশিষ্ট্য সমাজসেবক মির হোসেন মোল্লা, সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক, খলিলুর রহমান মজুমদারসহ আরও অনেকে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৮অক্টোবর,হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জের রূপন অপহরনের মূল মুক্তিপন দাবীকারী রূপনের বন্ধু মো: আব্দুল্লাহ প্রকাশ টিপু (৩২) কে অনেক চেষ্টার পর ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশ।

৬ অক্টোবর শুক্রবার বিকাল ৩ টায় শায়েস্তাগঞ্জ থানার এস আই শাহীনুর রহমানের নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকা জেলার আশুলিয়া থানা পুলিশের সহযোগীতায় ঢাকার আশুলিয়ার ভাড়াটিয়া বাসা হইতে টিপুকে গ্রেফতার করে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে। পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে ঘটনা ফাঁস করে দিয়েছে কথিত রুপনের বন্ধু টিপু। পুলিশ আসামী টিপুকে মামলার ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করিলে সে জানায় গত ১৭ আগষ্ট সকালবেলা অত্র মামলার রূপন মিয়ার মোবাইল ফোন দ্বারা তাহার মায়ের মোবাইলে ফোন করে এক লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবী করি। এবং রূপন মিয়া গত ১৬ আগষ্ট হইতে ১৯ আগষ্ট তারিখ পর্যন্ত তাহার সাথে ছিল এ কথা স্বীকার করে।

আটককৃত আসামী নোয়াখালী জেলার সেনবাগ থানার নবীপুর গ্রামের মোঃ আব্দুল গোফরানের ছেলে। সে আশুলিয়া চারাবাগ সাকিনে সবুজ মিয়ার বাড়ীতে ভাড়ায় থাকিয়া রাজমিস্ত্রি কাজ করিত। উল্লেখ্য যে, গত ১৬আগষ্ট অনুমান বিকাল ৩ ঘটিকার সময় রূপন মিয়া প্রতিদিনের মত চরহামুয়া বাড়ির নিকট বাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে এবং ঐদিন গভীর রাত হওয়া স্বত্বেও বাড়ীতে না আসিলে তাহার পরিবারের লোকজন তাকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজিতে থাকেন । পরদিন সকাল ৮টার সময় রূপনের মোবাইল হইতে তাহার মায়ের মোবাইলে ফোন করে এক লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবী করে আসামী টিপু।

উক্ত ঘটনার বিষয়ে বাদী রূপনের মা হেলেনা খাতুনের আবেদনের প্রেক্ষিতে শায়েস্তাগঞ্জ থানার নং ৬১৭,তাং ১৭/০৮/১৭ ইং এন্ট্রি করে। ২০আগষ্ট ভোর বেলা স্থানীয় লোকজন অচেতন অবস্তায় শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজ রাস্তার পাশে রূপন মিয়াকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে গেলে রূপনের মা হেলেনা রূপনের অবস্থা আশংকাজনক দেখিয়ে তাকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করিলে কর্তব্যরত ডাক্তার রূপনের উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, এ ঘটনায় রুপন মিয়া ও তাহার মা পলাতক রয়েছেন। শায়েস্তাগঞ্জ  থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ নাজিম উদ্দিন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন পুলিশ তাকে ধরতে তৎপর রয়েছে। এস আই শাহীনুর রহমান এ মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে গুরত্বপূর্ণ তথ্য পান এ তথ্য নিয়ে তিনি অগ্রসর হতে থাকেন। প্রতারণার জাল বের করে নিয়ে আসতে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী তৎপর আছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৮অক্টোবর,শংকর শীল,হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজ এলাকায় ইউসুফ আলীর মার্কেটে বিদ্যুৎ শর্টসার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় ৬ টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ৮ অক্টোবর রবিবার সকাল ৬ টার দিকে এঘটনাটি ঘটেছে। এতে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। স্হানীয় লোকজন প্রায় ১ কোটি টাকার মালামাল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত দোকান গুলো হচ্ছে,
লাকী হোটেল এন্ড রেষ্টুরেন্ট, চা-স্টল, পাইপ স্টার টায়ার সেন্টার, নুরু মিয়া টায়ার সেন্টার, শাহজাহান ভেরাইটিজ স্টোর, লাল বানু চা-স্টল। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে পাওয়া, রবিবার সকাল ৬ টার দিকে লাকী হোটেলে বিদ্যুৎ শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

মুহুর্তের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে পাশের দোকানগুলোতে। স্থানীয় লোকজন আগুন নেভাতে চেষ্টা করেন। কিন্তু আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি। তৎক্ষণাৎশায়েস্তাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও হবিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের খবর দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিসের ৪টি ইউনিট দেড় ঘন্টা চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

শায়েস্তাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার নজরুল ইসলাম সত্যতা স্বিকার করে জানিয়েছেন, আমরা আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি। এ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ৬টি দোকান পুড়ে গেছে এবং প্রায় কোটি টাকার মালামাল আগুন থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৮অক্টোবর,নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই  প্রতিনিধি: মৎস্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত নওগাঁর আত্রাইয়ে এ বছর স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যার পানি নামার সাথে সাথে জেলেদের জালে ধরা পড়তে শুরু করেছে দেশি প্রজাতির নানা ধরনের মাছ। শুঁটকি ব্যবসায়ীদের চোখে মুখে হাসির ঝিলিক ফুটে উঠেছে। এর সাথে সাখে শুঁটকি তৈরিতে এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন আত্রাইয়ের শুটকি ব্যবসায়ীরা। এলাকা জুড়ে এখন চলছে নানা ধরনের মাছের শুঁটকি তৈরি ধুম। গত কয়েক বছরে শুঁটকি ব্যবসায়ীরা ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হলেও এবার তা পুসিয়ে নিতে তারা কোমর বেঁধে শুঁটকি তৈরিতে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন।
এবার বন্যায় এলাকার শত শত চাষকৃত মাছের পুকুর ডুবে যাওয়ায় নদীতে দেশি মাছের বিচরণ অনেক বেড়ে গেছে। তাই জেলেরা নদীতে উৎসাহ নিয়েই মাছ ধরছেন। ধরাও পড়ছে দেশিয় প্রজাতির বিভিন্ন রকম মাছ। আর এ মাছগুলো প্রতিদিন ভোর থেকে বিক্রি হচ্ছে আত্রাই আহসানগঞ্জ রেলওয়ে ষ্টেশান সংলগ্ন টোলমুক্ত ঐতিহ্যবাহী মাছ বাজার আড়ৎতে। এলাকার ব্যবসায়ীরা দেশি মাছ বিশেষ করে পুঁটি, রাইখোর, চাঁন্দা, শোল, টাকি, বোয়াল মাছ দিয়ে শুঁটকি তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, নওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলা থেকে রেল, সড়ক ও নৌ পথে দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রতিদিন শতশত টন মাছ বাজারজাত করা হয়। রাজধানী ঢাকা, নারায়নগঞ্জসহ উত্তরা লের সৈয়দপুর, রংপুর, কুড়িগ্রাম, নিলফামারী, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁসহ দেশের প্রায় ১৮/২০টি জেলায় বাজারজাত হয় ঐতিহ্যবাহী খ্যাতি সম্পন্ন আত্রাইয়ের শুঁটকি মাছ। আর এ মাছের শুঁটকি তৈরি করে এখন জীবিকা নির্বাহ করছে আত্রাইয়ের শুঁটকি ব্যবসায়ীরা।
উপজেলার ভরতেঁতুলিয়া গ্রাম শুঁটকি তৈরিতে বিশেষভাবে খ্যাত। শুধু বর্ষা মৌসুমে শুঁটকি তৈরি করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বাজারজাত করা হতো। আর এ অর্থ দিয়ে তারা পরিবারের সারা বছরের ভরণ পোষণ নিশ্চিত করতো। কিন্তু গত বছর বাজার মন্দা থাকায় এসব ব্যবসায়ীরা হতাশ হয়ে পড়েছিলেন।। কাঁচা মাছের আমদানী কম,বাজারে মুল্য বেশি থাকায় শুঁটকির বাজারে নেমেছিল ধস। সব কিছু মিলিয়ে ব্যবসায়ীদের গত বছর লাভের পরিবর্তে গুণতে হয়েছিল লোকসান। বর্তমানে মাছের ব্যাপক আমদানি, মূল্য কম এবং শুঁটকির বাজার মূল্য বেশি থাকায় ব্যবসায়ীদের চোখে- মুখে ফুটে উঠেছে আনন্দের উচ্ছাস।

ভরতেঁতুলিয়া গ্রামের শুঁটকি ব্যবসায়ী শ্রী রামপদ শীলের সাথে কথা হলে তিনি জানান, গত বছর প্রতি চালানেই আমাদের লোকসান গুনতে হয়েছিল। শুঁটকি তৈরির আসল টাকাই উঠে আসেনি। এ বছর কাঁচা মাছের চাহিদা বেশি, দাম কম থাকায় শুঁটকিতে লাভ ভালো হবে বলে আশা করছি।
শুঁটকি ব্যবসায়ী জাহেদুল ইসলাম জানান, পরিবার- পরিজন নিয়ে শুঁটকি তৈরি করছেন। দেশের বিভিন্ন স্থানে আত্রাইয়ের শুঁটকির চাহিদা আছে। তিন মন মাছ শুকালে এক মনের মতো শুঁটকি তৈরি হয়। মাছ শুকানো মানেই মানুষ শুকানো। এটা খুব কষ্টের কাজ। তবে লাভ ভালো হলে সব কষ্ট লাঘব হবে।

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৮অক্টোবর,নিজস্ব প্রতিনিধিঃ উপজেলার কালিঘাট চা বাগানের মসজিদের বারান্দায় ফাঁস লাগানো অজ্ঞাতনামা মৃত ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া গেছে। মৃত ব্যক্তির নাম মো: রন্জন আলী (৮৩) পিতা মৃত আবদুল গফুর, সাং পশ্চিম ফতেপুর, থানা লাকশাম, জেলা কুমিল্লা।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, তিনি গত ৪ দিন পূৃর্বে বাড়ী হইতে বের হয়ে চলে আসে।

উল্লেখ্য,শনিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে কালিঘাট মসজিদে ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশের একটি টিম সেখানে গিয়ে তার পকেটে ট্রেনের টিকিট,ব্যাগে কাফনের কাপড়, আগরবাতি, গোলাপজল ও আতর  মজুদসহ অজ্ঞাত ওই লোককে মসজিদের বারান্দায় গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় উদ্ধার করে।

পরে ঝুলন্ত এ মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ থানা কম্পাউন্ডে নিয়ে আসে এবং ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।এ ব্যাপারে পুলিশ থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে।অপরদিকে ঘটনাটি হত্যা না আত্মহত্যা এ ব্যাপারেও সন্দেহ করছে অনেকে।

শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল বলেন, মরদেহের পরিচয় জানা গেছে।এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

  

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc