Wednesday 18th of October 2017 10:34:47 PM

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর প্রতিনিধিঃ জৈন্তাপুরে সিলেট-তামাবিল মহাসড়কে দূর্ঘটনায় ২ জন নিহত ও ৭ জন আহত হয়েছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় আজ শনিবার বিকাল ২ ঘটিকার সময় সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের চিকনাগুল বাজার এলাকায় সিলেট থেকে ছেড়ে আসা হরিপুর গামী লেগুনা নং সিলেট-ছ-১১-২১৯৮ এর সাথে জাফলং থেকে ছেড়ে যাওয়া ট্রাক নং ঢাকা মেট্রো-ট- ১১-২৩৭০ এর সাথে মুখোমুখি সংঘষের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে লেগুনা চালক নিহত হয়েছে।

এছাড়া সিলেটে নেওয়ার পথে এক মহিলা নিহত হয়েছেন। এছাড়া এক শিশু সহ প্রায় ৭জন মারাত্বক আহত হয়েছেন। নিহত চালক জৈন্তাপুর উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ বাগেরখাল গ্রামের মোবারক আলীর ছেলে বিলাল হোসেন(২২)।

অপর নিহত মহিলার পরিচয় সহ আহতদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। এঘটনার সংবাদ পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার সেকেন্ড ইন কমান্ড ইন্দ্রনীল ভট্টাচাজ ঘটনাস্থলে পৌছে যান চলাচল স্বাভাবিক করেন।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ সংসদীয় নির্বাচনী আসন (মৌলভীবাজার-৪)-এ বিএনপির নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচী শুরু হয়েছে।

আজ শনিবার বিকালে কমলগঞ্জ উপজেলার খোশালপুর গ্রামে বিএনপি নেতা হাজী মুজিব এর বাড়ীতে কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব মোঃ মুজিবুর রহমান চৌধুরী (হাজী মুজিব)।

কমলগঞ্জ উপজেলার খোশালপুর গ্রামের বাসিন্দা হিসেবে আলহাজ্ব মোঃ মুজিবুর রহমান চৌধুরী (হাজী মুজিব) প্রথম নিজের সদস্যপদ নবায়ন করেন।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি  নুরুল আলম সিদ্দিকী, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক অলি আহমদ খাঁন এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা মোঃ সিরাজুল ইসলাম, সোয়েব আহমদ, মোছাব্বির আলী মুন্না, আবুল হোসেন, এডঃ তফাজ্জল হোসেন টিটু, কমলগঞ্জ উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক আনছার শোকরানা মান্না, কমলগঞ্জ পৌর যুবদলের আহ্বায়ক সৈয়দ জামাল হোসেন, শ্রীমঙ্গল উপজেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আবু জাফর চৌধুরী সোয়েব, কমলগঞ্জ স্বেচ্ছাসেবকদলের আহ্বায়ক ছরওয়ার শোকরানা নান্না, শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মহিউদ্দিন ঝাড়ু, শ্রীমঙ্গল উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক টিটু আহমেদ প্রমুখ।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর প্রতিনিধিঃ উত্তর সিলেটের জৈন্তাপুরে প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বসতঘর সহ উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে অনেক গ্রামে। টানা কয়েক দিনের অতিবর্ষণ ও পহাড়ী ঢলে সৃষ্ট বন্যায় জৈন্তাপুরের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে অনেক মানূষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। প্রবল বৃষ্টিপাতে ও পাহাড়ী ঢলে’র কারনে বিভিন্ন এলাকায় পানি বন্দি হয়ে জন দুর্ভোগ বাড়ছে।
এদিকে গত ৪দিনের অতি বৃষ্টি এবং পাহাড়ী ফলে সৃষ্ট বন্যায় জৈন্তাপুর উপজেলার বিরাইমারা, ১নংলক্ষিপুর,২ নং লক্ষীপুর,চাতলারপাড়,বাওনহাওর,গড়েরপাড়,খারুবিল,মোয়াখাই, মুক্তাপুর, লামনীগ্রাম,তিলকইপাড়া,কাটাখাল,ঘিলারতৈল,গোয়াবাড়ী,হর্নি,বাইরাখেল,নায়াখেল,আগফৌদ,কাঞ্জর, হাজারী সেনগ্রাম,নয়াগাতি,বারগাতি,এছাড়া ফতেপুর,চিকনাগুল ও চারিকাটা ইউনিয়নের নিমাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

কয়েক দিনের টানা বর্ষনের ফলে কর্মজীবি মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়ার কারনে না খেয়ে কোন রকমে বেচে আছে। রাতভর টানা বৃষ্টির ফলে এবং পাহাড়ী ঢলের পানিতে জৈন্তাপুর উপজেলার  বিপদ সীমার .৮০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

অপরদিকে পানী বন্দি এলাকায় প্রশাসন কিংবা জনপ্রতিনিধিদের পানি বন্দি এলাকায় পরিদর্শন করতে কিংবা পানি বন্দিদের কাছে ছুটে যেতে দেখা যায়নি।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় দাওয়া বিলে নৌকা ডুবির ঘটনায় আরো জনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া লাশ গুলো হল,ফতেহপুর ইউনিয়নের পাচঁগাও গ্রামের নেহের জামালের মেয়ে তানহা বেগম (১২) ও তাহিরপুর উপজেলার চিকসা গ্রামের বাসিন্দা হারুন রশিদ (৪৮)। গত শুক্রবার শিশু সাজনা বেগম (৫) নামে এক শিশুর লাশ সকাল সাড়ে দশটায় ঘটনাস্থল থেকে ১কিলোমিটার দূরে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এ পর্যন্ত ৩জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নৌকা ডুবির ঘটনায় এখনো নিখোঁজ রয়েছে,বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের হাসিমপুর গ্রামের সোনা মিয়ার মেয়ে জুমা বেগম (৮)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,গতকাল শনিবার দুপুর ১টায় তাহিরপুর উপজেলার শনির হাওরের মধ্য খানে হারুন মিয়ার মৃত লাশ ভাসমান অবস্থায় ও আনোয়ারপুর গ্রামের পাশে তানহা বেগম (১২) লাশ দেখতে পায় স্থানীয় লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। আরো জানাযায়,গত বৃহস্পতিবার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ফহেতপুর ইউনিয়নের শান্তিপুর থেকে তাহিরপুর উপজেলার বালিজুড়ি ইউনিয়নের দক্ষিনকুল গ্রামের শফিকুল ইসলামের বাড়ী থেকে বিয়ের দাওয়াত খেয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। পথে মধ্যে ধাওয়া বিলে যাওয়া মাত্রই দমকা হাওয়ার সাথে প্রচন্ড ডেউয়ের কবলে পড়ে প্রায় ৪০জন যাত্রীসহ ইঞ্জিন চালিত নৌকাটি ডুবে যায়।

নৌকার অন্যান্য যাত্রীরা সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও ঐ দিন ৪জন যাত্রী নিখোঁজ ছিল বলে জানান,এসআই আমির হোসেন। ঐ দিন ঘটনাস্থলে থাকা প্রত্যক্ষদর্শী ও উদ্ধারকারী ফহেতপুর শাহপুর গ্রামের বাসিন্ধা আসাদ হোসেন কাগজী জানান,ঐ দিন আমি মটর সাইকেল দিয়ে আনোয়ারপুর থেকে ফতেহপুর যাওয়ার পথে দেখতে পাই একটি নৌকা ডুবে যাচ্ছে।

সাথে সাথে রাস্তার পাশে থাকা একটি ছোট নৌকা নিয়ে উদ্ধার করতে যাই। নৌকার যাত্রীদের চিৎকারে শুনে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসে। তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর এঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করেন।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্টঃ নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ইউনিভার্সিটির গবেষণা প্রকাশনা ‘এনইইউবি জার্ণাল’ এর ২য় সংখ্যার মোড়ক উম্মোচন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড.আতফুল হাই শিবলী প্রধান অতিথি হিসেবে জার্ণালের মোড়ক উম্মোচন করেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার এ এফ মুজতাহিদ, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. তোফায়েল আহমদ, রেজিস্ট্রার সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া, প্রক্টর রথিন্দ্র চন্দ্র গোপ, এপ্লাইড সোসিওলোজি ও সোস্যাল ওয়ার্ক বিভাগের প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক মোঃ তানভীর আহমেদ চৌধুরী, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক আহসান হাবিব, আইন ও বিচার বিভাগের প্রধান ও সহকারী অধ্যাপক আবুল হাসনাত ইবনে আবেদীনসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ।

নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর বিভিন্ন বিভাগের  শিক্ষকবৃন্দ ও অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের প্রবন্ধসহ মোট ১২টি গবেষণা প্রবন্ধ উক্ত জার্ণালে প্রকাশ করা হয়েছে। জার্ণালটি দেশের শিক্ষা গবেষনা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে উপস্থিত সবাই মত প্রকাশ করেন।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,নাজমুল হক নাহিদ,আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ দেশের জনগোষ্ঠিকে শত ভাগ শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার। পাশাপাশি কাজ করছে বেসরকারি সংগঠনগুলোও। এ ক্ষেত্রে অনেকটা সফলতা এলেও এখনও পিছিয়ে রয়েছে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার ১নং শাহাগোলা ইউনিয়নের রসুলপুর জেলে পাড়ার কোমলমতি শিশুরা। এ পর্যন্ত কোন মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেনি বলে খবর পাওয়া গেছে। এ জেলে পাড়াতে প্রায় শতাধিক পরিবারের বসবাস। পরিবার গুলোতে বিদ্যালয়ে গমন উপযোগী হিন্দু সম্প্রদায়ের অর্ধশতাধিক শিশু রয়েছে। এদের লেখাপড়ার কোন সুযোগ নেই। ফলে যুগ যুগ ধরে শিক্ষার আলো থেকে বি ত হচ্ছে পিছিয়ে পড়া হিন্দু ধর্মের জেলে সম্প্রদায়ের শিশুরা।

জানা যায়, এই গ্রামে যুগ যুগ ধরে হিন্দু সম্প্রদায়ের জেলে পরিবার বসবাস করে আসছে। এ এলাকার প্রতিটি পরিবারই দরিদ্র এবং অধিকাংশ পরিবার পেশায় মৎস্যজীবি। এ জেলে পাড়াতে এ পর্যন্ত কোন মন্দির ভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেনি। নেই কোন প্রাইভেট পাঠশালাও। আছে শুধু একটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান রসুলপুর বামাকালী মন্দির। শিক্ষা, বিদ্যুৎ, সড়কসহ সকল উন্নয়ন থেকে পিছিয়ে পড়া এই গ্রামে কোন মন্দির ভিত্তিক স্কুল না থাকায় শিক্ষা থেকে বি ত হচ্ছে এলাকার অসংখ্য কোমলমতি শিশু। স্কুলে পড়ার বয়সেই তারা খেলাধুলা করে মূল্যবান সময় নষ্ট করছে। পার্শ্ববর্তী ভবানীপুর গ্রামে মন্দির ভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকলেও ছোট্ট কচিকাচা কোমলমতি শিশুদের যাতাযাতের দুরুত্ব বেশী হওয়ায় তাদের হিমশিম খেতে হয়।

এ বিষয়ে নাগরিক উদ্যোগের শাহাগোলা ইউনিয়নের দলিত মানবাধিকার কর্মী শ্রীঃ দিনেশ কুমার পাল বলেন, শাহাগোলা ইউনিয়নের বিভিন্ন মন্দিরে স্কুল প্রতিষ্ঠিত হলেও রসুলপুর জেলে পাড়া বামাকালী মন্দিরে কোন মন্দির ভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপন না হওয়ায় এ এলাকার কোমলমতি শিশুরা শিক্ষা থেকে দিন দিন পিছিয়ে পড়ছে। তিনি আরো বলেন এখানে এলাকার নিরক্ষরতা দুর করতে দ্রুত প্রয়োজন একটি মন্দির ভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

রসুলপুর জেলে পাড়া বামাকালী মন্দিরের সভাপতি শ্রীঃ মিলন চন্দ্র সরকার জানান, আমরা মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে এখানে একটি মন্দির ভিত্তিক স্কুল স্থাপনের জন্য কর্তৃপক্ষের নিকট বেশ কয়েক বার ধর্ণা দিয়েছি কিন্তু কোন লাভ হয়নি।

এ ব্যাপারে ১নং শাহাগোলা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ শফিকুল ইসলাম বাবু জানান, রসুলপুর জেলে পাড়াতে মন্দির ভিত্তিক একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা হলে এলাকার শিশুরা লেখাপড়ার প্রতি আরো বেশি আগ্রহী হতো এবং তিনি রসুলপুর বামা কালী মন্দিরে একটি মন্দির ভিত্তিক স্কুল প্রতিষ্ঠার উপর গুরুত্বারোপ করে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

এ ব্যাপারে উপজেলার মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের ফিল্ড সুপারভাইজার মোঃ বাবুল মিয়া জানান, রসুলপুর বামা কালী মন্দিরে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করার জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্র্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। আশাকরি দ্রুত এখানে একটি স্কুল স্থাপন হবে।

এদিকে অতিদ্রুত রসুলপুর বামা কালী মন্দিরে মন্দির ভিত্তিক স্কুল চালু করে এলাকাবাসীর শিক্ষা ব্যবস্থার উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করবেন কর্তৃপক্ষ, এমনটিই মনে করেন এলাকার সচেতন মহল।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,ডেস্ক নিউজঃ  আগামী ৭২ ঘণ্টায় (৩ দিন) আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।
আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রী সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে। ঢাকায় বাতাসের গতি ও দিক দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ১০ থেকে ১৫ কি. মি.। আজ সকাল ৬টায় ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৯৭ শতাংশ।
আবহাওয়া চিত্রের সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়েছে, মৌসুমি বায়ুর বর্ধিতাংশের অক্ষ পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।
ঢাকায় শনিবার সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬টা ৩৪ মিনিটে এবং আগামীকাল সূর্যোদয় ভোর ৫টা ৩৩ মিনিটে।সুত্রঃবাসস

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,আলী হোসেন রাজনঃ  মৌলভীবাজারে কাউয়াদিঘি হাওরে পানি বেড়ে প্লাবিত ৮টি ইউনিয়নের জলাবদ্ধতা অপরিবর্তিত রয়েছে। পানি বন্দি অন্তত ১০০টি গ্রামের মানুষ। জলাবদ্ধতায় বিপর্যস্থ হাওড় পাড়ের মানুষের স্বাভাবিক জীবন যাত্রা। দূর্গতদের মাঝে ত্রান বিতরন করছে স্থানীয় প্রশাসন ও ব্যাংক অফিসার্স এসোসিয়েশন, মৌলভীবাজার।

পাহাড়ী ঢল আর টানা বৃষ্ঠিতে কাউয়াদীঘি হাওরের পানি বেড়ে মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার ফতেপুর,পাঁচগাও সহ ৬টি ইউনিয়ন ও সদর উপজেলার আখাইলকুড়া ইউনিয়নে বেশির ভাগ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন হাজার হাজার পরিবার। টানা জলাবদ্ধতার কবলে পড়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন হাওড় পাড়ের মানুষ।

সরকারী ত্রান বিতরনের পাশা পাশি ত্রাণ নিয়ে এগিয়ে এসেছেন  ব্যাংক অফিসার্স এসোসিয়েশন, মৌলভীবাজার ।  আজ শনিবার ১২আগষ্ট মৌলভীবাজার সদর উপজেলার আখাইলকুড়া ইউনিয়নে জেলা প্রশাসন,মৌলভীবাজার এর বাস্তবায়নে ও ব্যাংক অফিসার্স এসোসিয়েশন মৌলভীবাজার জেলার উদ্যোগে এবং চেয়ারম্যান সেলিম আহমদের পরিচালনায়  আখাইলকুড়া ইউনিয়ন পরিষদে সংক্ষিপ্ত এক আলোচনা করে  আখাইলকুড়া ইউনিয়নের বন্য দূর্গত মানুষের মাঝে  ১শ দূর্গত পরিবারকে ত্রান দিয়েছে। প্রতি প্যাকেটে ছিলো চাল, ডাল, তেল, আলু,পিয়াজ ও লবণ।

এসময়  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো: তোফায়েল ইসলাম.বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইকবাল হোসেন খান, ব্যাংক অফিসার্স এসোসিয়েশন মৌলভীবাজার এর সভাপতি,মোহাম্মাদ আবু তাহের। এসময় জেলা প্রশাসক মো: তোফায়েল ইসলাম বলেন বন্যার পানিতে পানিবন্দি হয়ে আছে সাধারন মানুষ।সরকারী ত্রাণ সহযোগীতার পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহব্বান করেন। আজকে যারা ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে এসেছে ব্যাংক অফিসার্স এসোসিয়েশন, মৌলভীবাজার তাদেরকে আমি ধন্যবাদ জানাই। তাদের মত সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসবে বলে আমি মনে করি।

এসময় আরো উপস্তিত ছিলেন ব্রাক ব্যাংকের ব্যবস্থপক সাইফুল আলম,ঢাকা ব্যাংকের ব্যবস্থপক সদরুল ইসলাম সুয়েব,ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থপক সাইয়েদুর রহমান, ইষ্টার্ণ ব্যাংকের সাজ্জাদুর রহমান টিটু,সাউথ ইষ্ট ব্যাংকের হারুনুর রশীদ প্রমুখ।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,বেনাপোল প্রতিনিধিঃ  বেনাপোল পোর্ট থানার গাতিপাড়া সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসার সময় ৩ ভারতীয় নাগরিকসহ ৯ অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে আটক করেছে বেনাপোল কোম্পানি সদরের বিজিবি সদস্যরা।
শনিবার ভোরে সীমান্তের গাতিপাড়া গ্রামের পাকা রাস্তার উপর থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।
আটকরা হলো-মামুন খলিফা(৩০),তাসলিমা খাতুন(২৭),আঃ রাজ্জাক(২২),সুমন মিয়া(২০),দ্বিন ইসলাম(৪৫),জোছনা বেগম(৩০),ভারতীয় মিতলেস(৪০),শ্রীরাম সেবাগ(১৭) ও শিশু লক্ষীবর। এদের বাড়ি মোড়গঞ্জ, বাগেরহাট ও ভারতের বেরুলি জেলার আওলে থানার বিভিন্ন এলাকায়।
বিজিবি জানায়,গোপন একটি খবর আসে অবৈধ পথে ভারত থেকে বেশকিছু নারী-পুরুষ বাংলাদেশে প্রবেশ করে যশোরের দিকে যাবে। এ ধরনের সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি সদস্যরা গাতিপাড়া সীমান্তের পাকা রাস্তার উপর অভিযান চালিয়ে এক শিশুসহ ৯ জন অবৈধ অনুপ্রবেশকারী নারী-পুরুষকে আটক করে।
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র বেনাপোল কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার শহিদুল ইসলাম অবৈধভাবে ভারত থেকে আসার সময় ১ শিশুসহ ৯ নারী-পুরুষকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আটককৃতদের বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্টঃ লন্ডনে বসবাসরত সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার কৃতি সন্তান ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আতিকুর রহমানের ফ্রান্স আগমন উপলক্ষে বুধবার (৯ আগস্ট ২০১৭) প্যারিসে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।স্হানীয় গারে দ্যু নর্দের একটি রেস্টুরেন্টে ফ্রান্সে বসবাসরত কানাইঘাটের প্রবাসীদের উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
প্যারিসের কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব জালাল খান – এর সভাপতিত্বে এবং সিনিয়র সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিম এর পরিচালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট সমিতি ফ্রান্সের সাবেক সভাপতি হারিছ উদ্দিন,সাংবাদিক আবু তাহির,আওলাদ হোসেইন,সমসু মিয়া,আবু সাইদ,শরীফ আহমদ,কুতুব উদ্দিন,ইয়াহইয়া,সালেহ আহমদ,মামুনুর রশীদ,তোফায়েল আহমদ,জামিল রহমানসহ প্রবাসীরা।
এ সময় ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আতিকুর রহমান বলেন,লন্ডনের মতো ফ্রান্সের বাংলাদেশ কমিউনিটি এগিয়ে যাচ্ছে।ইউরোপে বাংলাদেশ কমিউনিটি বৃদ্ধির সাথেই বেড়ে যাবে বাংলাদেশের সুনাম।তিনি আগামী প্রজন্মকে বাংলাদেশের সাথে সম্পৃক্ত করার জন্য সব সংগঠনকেই কাজ করার আহবান জানান।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  হবিগঞ্জের বাহুবলে দু’দলের সংঘর্ষে নিহত হয়েছে প্রবাসীসহ ২ জন এবং আহত হয়েছে অর্ধশতাধিক।এর মধ্যে গুরুত্বর আহত রয়েছে আরও কয়েকজন।স্থানীয় সুত্রে পাওয়া তথ্যে হবিগঞ্জ জেলার বাহুবলে বালি মহাল ও সিরামিক কোম্পানিতে কাচামাল প্রদানকে জের ধরে অবশেষে মসজিদ কমিটি ও ইমাম পরিবর্তনকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে এ ঘটনা ঘটে। আজ শনিবার ভোররাতে উপজেলার সাতকাপন ইউনিয়নের মুগকান্দি জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- মুগকান্দি গ্রামের সাবু মিয়ার ছেলে কবির আখনঞ্জী (৪৫) ও একই গ্রামের মতিন মিয়া (৫০)। স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার সাতকাপন ইউনিয়নের মুগকান্দি জামে মসজিদের কমিটি গঠন ও ইমাম পরিবর্তনকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষেের বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে শুক্রবার জুম্মার নামাজে সাতকাপন ইউপি চেয়ারম্যান মুগকান্দি গ্রামের আবদাল মিয়া আখনঞ্জী গ্রুপের সোহেল মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের শফিক মাস্টারের বাকবিতণ্ডা হয়। পরে বাদ জুম্মা উভয় পক্ষ দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারী-শিশুসহ অর্ধশতাধিক আহত হয়।
পরে আবারো শনিবার ভোরেও তারা ফের সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এই সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে একজন নিহত হন। পরে সিলেট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরো একজনের মৃত্যু হয়। আহতদের উদ্ধার করে বাহুবল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
অন্যান্য আহতরা হলেন, ফরিদ মিয়া তালুকদারের পুত্র আজাদ (২৬), মৃত আপ্তান মিয়ার পুত্র সুহেল মিয়া (৩০), মৃত আমির হোসেন আখঞ্জীর পুত্র সেলিম আখঞ্জী (৩০), আব্দুল আউয়াল ফটিকের পুত্র মহিবুর রহমান (২৫), মৃত সিকান্দর উল­ার পুত্র সমাই মিয়া (৩৫), মৃত ছন্দু মিয়ার পুত্র রুনু মিয়া (৫০), আব্বাস উদ্দিনের পুত্র সানু মিয়া (৬০), মৃত আমির হোসেনের পুত্র সিজিল মিয়া (২৮), কাছন মিয়ার পুত্র নূর উদ্দিন (১৮), সুলতান মিয়ার পুত্র নূর মিয়া (৬০), আব্দুল সোবহানের পুত্র আরশ মিয়া আখঞ্জী (৫৫), উস্তার মিয়ার পুত্র তোফায়েল (২৫), হাজী ছন্দু মিয়ার পুত্র বাবুল মিয়া (৩৫), সমাই মিয়ার পুত্র রুবেল (১৮), মৃত সিকান্দর উল­ার পুত্র কাছন মিয়া (৫০), আরজ মিয়ার পুত্র সুজন আখঞ্জী (২৭), কাপ্তান মিয়া আখঞ্জীর পুত্র সোহান আখঞ্জী (২২), সুলতান মিয়ার পুত্র জাহাঙ্গীর মিয়া (৬০), সানু মিয়ার পুত্র জাহিদ মিয়া (২৮), মৃত মতির মিয়ার পুত্র মমিন মিয়া (২৭), মৃত আবিদ আলীর পুত্র জুনাব আলী (৫০), রুনু মিয়ার পুত্র রাজিব (১৩) ও রাফিন (১৫), মোজাম্মেল উদ্দিনের পুত্র মোঃ জসিম (৩৮), জাহাঙ্গীর আখঞ্জীর পুত্র মোছাব্বির আখঞ্জী (২০), কুরুশ মিয়ার পুত্র রাজন মিয়া (২২), ফুল মিয়ার পুত্র আনোয়ার মিয়া (৫৫), এএসআই সুহেল শাহ (৩৩), কনস্টেবল জাহিদ খান (২৬) ও আনোয়ার হোসেন (২০) প্রমুখ সহ আরও অনেকে।
এ ব্যাপারে বাহুবল-নবীগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র এএসপি রাসেলুর রহমান জানান, নিহতদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,এম এস জিলানী আখনজীঃ আসছে রক্তাক্ত ১৩‘ই আগস্ট। অজ¯্র শোক, বেদনা ও মর্মাহত জড়ানো একটি দিন। যে দিন সুন্নীয়তের নীলাকাশে খসে পড়েছিল একটি উজ্জ্বল নক্ষত্র। আর সে নক্ষত্র হলেন নিউইয়র্কে দূর্বৃত্তের গুলিতে নির্মমভাবে নিহত, কুইন্স ওজনপার্কে অবস্থিত আল-ফুরকান জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব জনপ্রিয় ইসলামী চিন্তাবিদ, পীরজাদা আল্লামা শহীদ শাহ্ আলাউদ্দিন আখঞ্জী (রহ:)।

যিনি ২০১৬ সালের ১৩‘ই আগষ্ট সত্যের আদর্শে পরাজিত শক্তি, নরপিশাচ ঘাতক হায়েনাদের হাতে আল ফুরকান জামে মসজিদের সামনে রোজ শনিবার ইউ.এস.এ দুপুরের সময় ১:৫০ মিনিটে আততায়ীদের গুলিতে নির্মমভাবে শাহাদাত বরণ করেন। তিনি জোহরের নামাজ শেষে বাসায় ফিরছিলেন। তিনি ছিলেন একটি বিস্ময়কর হিরন্ময় জ্যোতি। ছিলেন সকলের প্রাণের ব্যক্তিত্ব ও হৃদয়ের স্পন্দন। ইসলামী বিশ্বে তিনি ছিলেন সুন্নীয়তের শান্তির দূত ও নির্ভীক সিপাহশালা। তিনি আমৃত্যু ইসলামের সঠিকরূপ রেখা তথা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আদর্শ প্রচার ও প্রসারে নিয়োজিত ছিলেন।

তিনি হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের (গোছাপাড়া) গ্রামের শামছুল আরেফীন আল্লামা শাহ্ শামছুদ্দিন আখঞ্জী (রহ:) ঔরশে জন্ম নেয়া এই মহান বীরের জীবন কেটেছে প্রথমে শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জামে মসজিদ, অতপর হবিগঞ্জ চৌধুরী বাজার কেন্দ্রীয় সুন্নি জামে সসজিদ এবং সর্বশেষ নিউইয়র্ক কুইন্স ওজনপার্কে অবস্থিত আল-ফুরকান জামে মসজিদে। জীবনের সর্বাঙ্গে তিনি ছিলেন অবিচল, আস্থাশীল ও সক্রিয়। তিনি সরলমনা মুসলমানদের শিখিয়েছেন আল্লাহ, নবী ও ওলীদের কিভাবে ভালবাসতে হয়।

তিনিই একমাত্র ব্যক্তি যার অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থানে ইয়ানবী সালামু আলাইকা’র সাথে মোস্তফা জানে রহমত পেঁ লাখো সালাম এর সুর লহরী প্রতিধ্বনিত হয়েছিল। যা শ্রবণে নবী প্রেমিকদের হৃদয় প্রশান্তিতে ভরে যেত। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি ছিলেন খুবই সাধারণ। জীবন যাপন ছিল অনাড়ম্বর ও অতি সাদামাটা। মূলত সত্য, ন্যায়, ইসলামের সঠিক শিক্ষা ও আদর্শ প্রচারে তিনি ছিলেন সক্রিয় ব্যক্তিত্ব। যার উজ্জ্বল প্রমাণ মানুষকে সত্যের পথিক বানানো। যার কারণে সারা বিশ্বের প্রায় মুসলিম বিশেষ করে প্রবাসী বাঙ্গালীরাও ছিল তাঁর প্রতি ভক্ত ও শ্রদ্ধাশীল। মূলত তাঁর শাহাদাতের পেছনে এটাই আসল কারণ যে, তিনি কেন এ ভাবে মানুষকে সত্যের পথিক বানাচ্ছেন।

তাই অন্যায়, অসত্য ও তাগুতীবাদের প্রেতাত্মারা ভারাটিয়া কিলারের মাধ্যমে গুলি করে নির্মমভাবে শহীদ করে দেয়। আল্লামা শাহ্ আলাউদ্দিন আখঞ্জী (রহ:) এমন উচুঁমাপের ইসলামী চিন্তাবিদ ছিলেন, যা তাঁর ইন্তিকালের সময়ে প্রমাণিত হয়েছে। তাঁর জানাযার নামাজ জন সমুদ্রে পরিনত হয়েছিল। প্রিয় ব্যক্তিত্বকে হারানোর শোকে অশ্রু“ ঝড়াচ্ছিল দু’নয়নে। তিনি শাহাদাতের সুধা পান করেই আজ জান্নাতী। মূলত শাহাদাত তাঁর একটি কামনা ছিল।

তাঁর প্রতিটি দোয়া মোনাজাতে বলতেন, আল্লাহ আমাকে শহীদি মৃত্যু দাও। আর মকবুল বান্দার দোয়া কবুল করেন আল্লাহ তায়ালা। প্রিয় নবী (দ:) বলেছেন, “যে ব্যক্তি আল্লাহর কাছে সত্যিই শাহাদাতের মৃত্যু চায়, সে তার বিছানায় মৃত্যুবরণ করলেও আল্লাহ তায়ালা তাকে শহীদের মর্যাদায় পৌঁছে দেন”। (মুসলিম শরীফ) এভাবে হাজারো গুণে-বৈশিষ্ট্যে আল্লামা আখঞ্জী (রহ:) ছিলেন স্বমহিমায় সমুজ্জ্বল। আজ দীর্ঘ এক বছর পরও মানুষ তাকে শ্রদ্ধাভরে স্বরণ করছে এবং ন্যায় বিচারের দিকে থাকিয়ে আছে। তিনি আজ আমাদের মাঝে নেই। আছে হাজারো স্মৃতি ও কথা। তিনি আজীবন সকল সুন্নী মুসলমানদের প্রাণে চীর স্বরণীয় হয়ে থাকবেন।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,নবীগঞ্জ প্রতিনিধি: শোকাবহ ১৫ আগস্টকে সামনে রেখে নবীগঞ্জ পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড যুবলীগের উদ্যোগে গতকাল এক মিলাদ ও দোয়া মাহফিল হয়েছে।
এতে উপস্থিত ছিলেন, নবীগনজ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক ও নবীগনজ পৌর যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মোঃ হাবিবুর রহমান, পৌর যুবলীগের সিনিয়র সদস্য রুবেল আহমেদ চৌধুরী, মাহবুর রহমান ময়না, হুমায়ন চৌধুরী, আজিজুর রহমান আজিজ, ২নং ওয়াড যুবলীগের সভাপতি রুদয় আহমেদ রুহেল, সাধারণ সম্পাদক সাজিদুর রহমান প্রমুখ।

আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১২আগস্ট,শিমুল তরফদারঃ দিনভর ভারি বৃষ্টিতে মাটি নরম হয়ে পাশের ঘরের মাটির দেয়াল ধ্বসে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের উত্তর পাঁচাউন গ্রামে নাহিদা আক্তার নামে ৮ বছরের এক শিশুর মত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছে নাহিদার অপর বোন নাঈমা আক্তার (৪)।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায় শুক্রবার রাত ৮টায় উত্তর শহশ্রী গ্রামের আলাল মিয়ার ঘরের মাটির দেয়াল পাশ্ববর্তী আব্দুল মালিকের ঘরের উপরে পড়লে আব্দুল মালিকের ঘরের বাঁশের বেড়া ভেঙ্গে তার দুই মেয়ের উপরে পড়ে। সাথে সাথে আশে পাশের লোকজন মাটি সরিয়ে আব্দুল মালিকের মেয়ে নাহিদা আক্তারের লাশ উদ্ধার করেন এবং গুরুতর আহতবস্থায় তার অপর মেয়ে নাঈমা আক্তারকে উদ্ধার করে শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করেন।

এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।