স্বাস্থ্যসচিবের বাড়িতে এসিল্যান্ডকে পুকুরে ফেলে লাঞ্চিত

    0
    5

    কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলায় কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ নিয়ে স্বাস্থ্যসচিব আবদুল মান্নানের বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে। শনিবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার চাঁনপুর গ্রামে লাঠিসোঁটা নিয়ে এই হামলা চালানো হয়। এসময় কটিয়াদী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল আলম ঘটনা জানতে এগিয়ে আসা মাত্র তাকে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়। স্বাস্থ্যসচিবের পরিবারের দাবি, নিজেদের জমিতে কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণের জেরে স্থানীয় সাংসদ নূর মোহাম্মদের অনুগতরা এই ন্যাকারজনক হামলা চালিয়েছেন।

    প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, স্বাস্থ্যসচিব ও সাংসদ নূর মোহাম্মদের বাড়ি একই গ্রামে। সচিবের জমিতে কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হচ্ছে তা সাংসদকে অবগত করা হয়নি। এ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে গ্রামে উত্তেজনা ছিল। শনিবার বেলা ১১ টার দিকে হামলার ঘটনা ঘটলো। স্বাস্থ্যসচিবের বাড়িতে হামলার সময়ে ভূমি কর্মকর্তা বিষয়টি জানতে গেলে তাকে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়।

    আরও জানা যায়, স্বাস্থ্যসচিব বাড়িতে গেলে তার সঙ্গে  দেখা করতে জান স্থানীয় উপজেলার এসিল্যান্ড আশরাফুল আলম। তিনি ঘটনা জানতে এগিয়ে আসামাত্র তার ওপর হামলা চালানো হয়। হামলাকারীরা তাকে পুকুরে ফেলে দেন। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও উত্তেজনা থেকে যায়। পরে ঘটনাস্থলে যায় র‌্যাব।

    এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম বলেন, কটিয়াদী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল আলমকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। স্বাস্থ্যসচিবের ছোট ভাই নাসির উদ্দিন দাবি করেন, হামলাকারীদের অনেকেই তাদের পরিচিত। হামলাকারীদের বেশির ভাগ আওয়ামী লীগের কর্মী–সমর্থক। হামলাটি হয়েছে মূলত চাঁনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুরাদ মিয়ার নেতৃত্বে। অভিযোগের বিষয়ে জানতে সাংসদ নূর মোহাম্মদের মুঠোফোনে চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি।