১৪ লক্ষ টাকার মরনোত্তর বীমা দাবীর চেক তুলে দিয়েছে ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স

    0
    1

    আমার সিলেট ডেস্ক,২১ আগস্ট, কানাইঘাট প্রতিনিধি : ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীর কানাইঘাট জোনাল অফিসের গ্রাহক সম্প্রতি কুয়েতে মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত কানাইঘাট পৌরসভার দূর্লভপুর গ্রামের মরহুম বুলবুল হাসানের পরিবারকে মরনোত্তর বীমা দাবীর ১৪ লক্ষ ৩৭ হাজার ৯শ ৯৭ টাকার চেক তার পরিবারের কাছে তুলে দেওয়া হয়েছে।

    গতকাল বুধবার সকাল ১১টায় কোম্পানীর কানাইঘাট জোনাল অফিসে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশের মাধ্যমে বুলবুল হাসানের স্ত্রী নাজমিন বেগম ও সন্তানদের হাতে বীমা দাবীর চেকটি তুলে দেন কোম্পানীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ। এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিশিষ্ট বীমা বিশেষজ্ঞ জামাল মোহাম্মদ আবু নাসের।

    কানাইঘাট অফিসের চীফ জোনাল ম্যানেজার হরিপদ রায়ের সভাপতিত্বে ও কোম্পানীর ঢাকা দক্ষিণ-গোলাপগঞ্জ মডেল অফিসের জোন প্রধান আব্দুল মালেক মামুনের উপস্থাপনায় চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীর এসইভিপি কাজিম উদ্দিন,কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী, কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র লুৎফুর রহমান, কানাইঘাট বাজার বণিক সমিতির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম খোকন, ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ চৌধুরী।

    কোম্পানীর বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কানাইঘাট জোনাল অফিসের জোন প্রধান আব্দুল হাই,নূরুল আলম পাটোয়ারী, নির্মলেন্দু বাড়ৈ, এডভোকেট মঈনুল ইসলাম, জাফর আহমদ, মিজানুর রহমান, জিএম হেলাল, শাহেদ আহমদ, নাসির উদ্দিন, সুহেল আহমদ, গোলাম হোসেন প্রমুখ।

    প্রসঙ্গ যে, কোম্পানীর গ্রাহক বুলবুল হাসান ২০১২ সালের  এপ্রিল মাসে ১৬ বৎসর মেয়াদী একটি ইসলামী তাকাফুল বীমার ১০ লক্ষ টাকার একটি পলিসি গ্রহণ করে একটি মাত্র কিস্তি বাবদ ৮৫ হাজার টাকা প্রদান করে কুয়েতে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান। বীমা চুক্তি অনুযায়ী তার নমিনী স্ত্রীকে ১৪ লক্ষ ৩৭ হাজার ৯শ ৯৭ টাকার চেক প্রদান করা হয়।

     

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here