হেফাজতের ১৩ দফা দাবি অপ্রয়োজনীয় ও অগ্রহণযোগ্য : তথ্যমন্ত্রী

    0
    5

    Inuহেফাজতে ইসলামের ১৩ দফা দাবি অপ্রয়োজনীয় ও অগ্রহণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু।
    বিবিসির সংবাদদাতা আকবর হোসেনের উপস্থাপনায় তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু ছাড়াও শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানী বিয়াম অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত বিবিসি বাংলাদেশ সংলাপে প্যানেলে ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে: জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, মাসিক আল কাওসার পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক শরীফ মোহাম্মদ, ব্লগার আইরিন সুলতানা।
    তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেন, বাংলাদেশে এমন কোন ঘটনা ঘটেনি যে, ইসলাম কটূক্তিকারীদের সবোর্চ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বিধান করতে হবে।
    তিনি জানান, দেশের কোন মসজিদ, মাদ্রাসা বা আলেমদের উপর এ রকম কোন হামলা বা ইসলাম অবমাননা করা হয়নি যে এই মুহূর্তে ব্লাসফেমি আইনের মতো পাকিস্তান বা আফগানিস্তানের মতো কোন আইন করতে হবে।
    তিনি বলেন, হেফাজত যে দাবিগুলো তুলেছে সেগুলো সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত। একটি গোষ্ঠী এটিকে কাজে লাগিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করতে চায়।
    তথ্যমন্ত্রী জানান, সংবিধানে কোন ধর্মকে কটূক্তি করলে তাদের ২-১০ বছরের শাস্তির বিধান রয়েছে। তাই এখন এ দাবি তোলা অমুলক ও অযৌক্তিক।
    আখতারুজ্জামান নামে একজন দর্শক প্রশ্ন করেন, ইসলাম অবমাননার জন্য সর্বোচ্চ শাস্তির আইন করা উচিত হবে কী না?
    এমন প্রশ্নের জবাবে মাসিক আল কাওসার পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক মওলানা শরীফ মোহাম্মদ বলেন, যে প্রেক্ষাপটে এ দাবি তোলা হয়েছে তা অমুলক নয়। তাদের দাবি যে নতুন করে তোলা হচ্ছে তাও কিন্তু ঠিক না। এর আগেও এ দাবি করা হয়েছে।
    তিনি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশে এই আইন চালু আছে। ইদানিং নবী মুহাম্মদকে (দ.) যেভাবে অবমাননা করা হয়েছে তাতে এ দাবি তোলা অকল্পনীয় নয়।
    ব্লগার আইরিন সুলতানা বলেন, কটূক্তির উপর নির্ভর করে এই আইন করা উচিত। কী রকম অবমাননা হয়েছে তার উপর নির্ভর করে আইনের দিকে যেতে হবে। সামান্য একটি অবমানার জন্য কাউকে সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়াও প্রস্তাবে আমি একমত নই।
    বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য লে: জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান বলেন, তারা যে ১৩ দাবি উথাপন করেছে তা তাদের নিজস্ব বিষয়। এসব দাবির অন্যতম হলো- ইসলাম কটূক্তিকারীদের সবোর্চ্চ শাস্তি দেওয়া। এর পক্ষে আমি না।
    হেফাজতের ইসলামের সমাবেশে বিএনপির পক্ষ থেকে গিয়ে সংহতি প্রকাশ করে এসেছে। তার মানে, তাদের দাবি প্রতি আপনাদের সমর্থন আছে- সঞ্চালকের এ প্রশ্নে মাহবুবুর রহমান বলেন, এটি দলের বিষয়। আমি যা বলেছি তা আমার ব্যক্তিগত মতামত।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here