হাসনাত আবদুল হাইকে গ্রেপ্তারের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

    0
    3

    ঢাকা, ২১ এপ্রিল: প্রথম আলো পত্রিকার বাংলা নববর্ষ সংখ্যায় প্রকাশ ‘টিভি ক্যামেরার সামনের মেয়েটি’ গল্পের লেখক হাসনাত আবদুল হাইকে গ্রেফতার ও তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। আজ রবিবার রিট আবেদনটি করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. এম অহিদুজ্জামান। আগামীকাল সোমবার এ আবেদনের ওপর শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি এবিএম আলতাফ হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। গত ১৪ এপ্রিল দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত গল্পটি যুক্ত করে এ রিট করা হয়।

    হাসনাত আবদুল হাইকে গ্রেপ্তারের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
    হাসনাত আবদুল হাইকে গ্রেপ্তারের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

    রিটে স্বরাষ্ট্র সচিব, আইজিপি, ডিএমপি কমিশনার, ঢাকা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশের উপকমিশনার-ধানমন্ডি জোন, ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবং লেখক হাসনাত আবদুল হাইকে বিবাদী করা হয়েছে। এ আবেদনে লেখককে স্বশরীরে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দেয়ার জন্য নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। কেন তাকে গ্রেপ্তার ও তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হবে না তার কারণ জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন করা হয়েছে।
    রিটে বলা হয়, এ গল্প লেখার মাধ্যমে শাহবাগে আগত সব নারীকে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়েছে। দেশে দাঙ্গা বাধানোর জন্য উস্কানি দেয়া হয়েছে। শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চ সম্পর্কে দেশের মানুষের মধ্যে ঘৃণা ছড়িয়ে দিতেই এ লেখা। এই লেখার মাধ্যমে গোটা মানবতার প্রতি আঘাত করা হয়েছে।
    রিট আবেদনকারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. এম অহিদুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, গত ১৪ এপ্রিল দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় ‘টিভি ক্যামেরার সামনের মেয়েটি’ নামে গল্প প্রকাশের মাধ্যমে লেখক ফৌজদারি অপরাধ করেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। তিনি বলেন, এ লেখার মাধ্যমে শাহবাগের উপস্থিত থাকা সব মেয়েকে অপমান করা হয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here