হবিগঞ্জসহ ৫ জেলায় বজ্রপাতে ৭ জনের মৃত্যু

0
36
হবিগঞ্জসহ ৫ জেলায় বজ্রপাতে ৭ জনের মৃত্যু
বজ্রপাতের প্রতীকি ছবি

নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধিঃ ঈদের দিন সকালে বজ্রপাতে দেশের পাঁচ জেলায় প্রাণ গেছে সাতজনের।এর মধ্যে হবিগঞ্জ জেলায় বজ্রপাতে ১ জনের মৃত্যু।অন্য জেলা গুলো হচ্ছে টাঙ্গাইলে তিনজন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া,বাগেরহাট ও মেহেরপুরে একজন করে মারা গেছেন। 

হবিগঞ্জ

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ উপজেলায় গোসল করতে গিয়ে বজ্রপাতে শাহজাহান মিয়া (৬০) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৩ মে) সকালে এ ঘটনা ঘটে। আজমিরীগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুক আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, ঈদের দিন সকাল ৯টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের নয়ানগর গ্রামের শাহজাহান মিয়া বাড়ির পাশের পুকুরে গোসল করতে যান। এ সময় হালকা বৃষ্টির সময় বজ্রপাত ঘটলে তিনি আহত হন।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

টাঙ্গাইল

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে নিউ ধলেশ্বরী নদীতে ঈদের নামাজের জন্য গোসল করতে গিয়ে বজ্রপাতে দুই স্কুল ছাত্রসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এতে আরও দুজন আহত হন। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার দশকিয়া ইউনিয়নের হাতিয়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি দশকিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক ভূঁইয়া নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন হাতিয়া দক্ষিণপপাড়া গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে আরিফুল (১৪), দশকিয়া বাড়ারিপাড়ার জুলহাস বাড়ারির ছেলে ফয়সাল মিয়া (১৪) ও রাকিব মিয়া (৩৩)। রাকিব হাতিয়া গ্রামের রাজ্জাক মিয়ার মেয়ের জামাই। আরিফুল ও ফয়সাল দশকিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।

মেহেরপুর

মেহেরপুর সদর উপজেলার মনোহরপুর গ্রামে মঙ্গলবার সকালে বজ্রপাতে আব্দুর রাজ্জাক (৫৩) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তখন তার ভাই মন্টু (৪৮) আহত হন।

স্থানীয়রা জানান, সকালে ঈদের জামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন রাজ্জাক ও মন্টু। পথে বজ্রপাত হলে দুজনই আহত হন। এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আব্দুর রাজ্জাককে মৃত ঘোষণা করেন।

বাগেরহাট

বাগেরহাটের মোংলায় কাঠ নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে আজ সকালে বজ্রপাতে মহির উদ্দিন শেখ (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। মোংলা উপজেলার আগা মাদুরপাল্টা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মহির উদ্দিন শেখ মোংলা উপজেলার মাদুরপাল্টা গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য অজিত মজুমদার জানান, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢালিরখন্ড এলাকা থেকে জ্বালানি কাঠ নিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন মহির উদ্দিন শেখ। পথিমধ্যেই বজ্রপাতের শিকার হন তিনি। স্থানীয়রা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওনাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় আজ সকালে বাবার কবর জিয়ারত করার সময় বজ্রপাতে রনি মিয়া (৩৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়।  উপজেলা সদরের দুর্গাপুরে এ ঘটনা ঘটে। রনি ওই এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, রনি ঈদের নামাজ আদায় শেষে বাবার কবর জিয়ারত করতে স্থানীয় একটি কবরস্থানে যান। কবর জিয়ারত করা অবস্থায় বজ্রপাত হলে তিনি গুরুতর আহত হন। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here