সৌদিতে নির্যাতিত চুনারুঘাটের মরিয়ম দেশে ফিরতে চায়

0
33
সৌদিতে নির্যাতিত  চুনারুঘাটের মরিয়ম দেশে ফিরতে চায়
সৌদিতে নির্যাতিত  চুনারুঘাটের মরিয়ম দেশে ফিরতে চায়

মিজানুর রহমান,চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ সৌদি আরবে নির্যাতিত মরিয়ম দেশে ফিরতে চায়। হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার বরজুষ গ্রামের মোঃ সেলিম মিয়ার স্ত্রী মরিয়ম বেগমকে গত ৪ ফেব্রুয়ারী চুনারুঘাট উপজেলার হরিণমারা (আব্দুল্লাহপুর) গ্রামের মনজুর আলীর ছেলে সাহেব আলী (৪৫) ইস্ট ওয়েস্ট ট্রেড লিংকার্স ষ্টিট ২৮/এ ভিআইপি রোড কাকরাইল, ঢাকা অফিসের আব্দুল জলিল (৪০) ও আব্দুস ছামাদ (৩৫) মরিয়ম বেগমকে সৌদিআরবে পাঠায়।

মরিয়ম বেগম সৌদিআরব পৌছার পর সৌদি আরবের দাম্মাম হতে ছায়েব আলী নিয়োজিত দালালরা মরিয়মকে তাদের কবলে নিয়ে যায় এবং একটি নির্জন কক্ষে আটক করে রাখে। জবর দস্তি মূলক কাজে বাধ্য করে। দালালরা কন্ট্রাক ফর্মে বর্নিত কোন কাজ দেয়নি মরিয়মকে। তাকে পারিশ্রমিক না দিয়ে জোর পূর্বক বেআইনি শ্রমে বাধ্য করে এবং পাশবিক নির্যাতন করতে থাকে। তাকে কোন প্রকার খাবার না দিয়ে শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে যায়। মরিয়ম সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

এ দিকে মরিয়মকে না পেয়ে তার স্বামী মোঃ সেলিম মিয়া বাদী হয়ে গত ৬ জুলাই  হবিগঞ্জের মানব পাচার দমন ও প্রতিরোধ ট্রাইব্যুনাল ০২ এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হলেন চুনারুঘাট উপজেলার হরিণমারা গ্রামের (আব্দুল্লাপুর) গ্রামের মৃত মনজুর আলীর ছেলে সাহেব আলী, তার ঢাকা অফিসের সহযোগি আবদুল জলিল ও আব্দুল ছামাদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here