Wednesday 28th of October 2020 09:11:35 AM
Monday 27th of July 2015 05:14:48 PM

সুনামগঞ্জে চাঁদাবাজ কর্তৃক সাংবাদিকের প্রাণনাসের হুমকি

অপরাধ জগত ডেস্ক
আমার সিলেট ২৪.কম
সুনামগঞ্জে চাঁদাবাজ কর্তৃক সাংবাদিকের  প্রাণনাসের হুমকি

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৭জুলাই,মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়াঃ সুনামগঞ্জে সংবাদ প্রকাশের জের ধরে দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ও মানবাধিকার কমিশনের জেলা সাধারণ সম্পাদক আল-হেলালকে প্রাণে মারার হুমকি দিয়েছে ধোপাজান ও যাদুকাটা নদীর ফাজিলপুর বালিপাথর মহালের চিহ্নত চাঁদাবাজ তোফাজ্জল হোসেন ও তার সন্ত্রাসীরা। এঘটনার প্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় সাংবাদিক আল-হেলাল পৌরশহরের মহিলা কলেজ রোড এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে চাঁদাবাজ তোফাজ্জল হোসেন ও তার ছেলে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে থানায় জিডি নং-১১৬৭ দায়ের করেছেন।

এর আগে গত রোববার সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে চাঁদাবাজ তোফাজ্জল ও তার বাহিনী সাংবাদিক আল-হেলালের ওপর হামলা চালানোর চেষ্টা করলে ওই কার্যালয়ে কর্মরত কর্মকর্তা,কর্মচারী ও উপস্থিত লোকজনের সহায়তায় তিনি রক্ষা পান। কিন্তু ওই সময় চাঁদাবাজারা সকলের সামনেই ওই সাংবাদিকের হাত-পা ভেঙ্গে প্রাণে মারার হুমিক দেয়।

থানায় দায়েরকৃত জিডি ও একাধিক অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, সরকারের কোটি কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের অন্যতম ক্ষেত্র জেলার তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা,ফাজিলপুর ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার ধোপাজান নদীর বালিপাথর মহাল। কিন্তু সিন্ডিকেডের মাধ্যমে চাঁদাবাজ তোফাজ্জল হোসেন তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে ড্রেজার ও বোমা মেশিন দিয়ে ধোপাজান নদীর তীর কেটে বালি-পাথর উত্তোলন করে বিক্রি করাসহ তাদের উত্তোলিত বালি ও পাথর পরিবহণকারী ইঞ্জিনের নৌকা,ভলগেট ও কার্গো থেকে টোলটেক্সের নামে ফাজিলপুর ও ধোপাজানসহ বিভিন্নস্থানে আবার তারাই অবৈধভাবে প্রতিদিন প্রায় ১৫লক্ষ টাকা চাঁদা উত্তোলন করেছে। অন্যদিকে যাদুকাটা নদীর তীর কেটে লক্ষ লক্ষ বালি ও পাথর বিক্রি করেছে তাহিরপুরের বাদাঘাট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিনের ভাই রিপন মিয়া ও বোরহান মিয়া।

আর বাদাঘাট পুলিশ ক্যাম্পের নামে প্রতিনৌকা থেকে ৩থেকে ৫হাজার টাকা চাঁদা নিয়েছে এএসআই ফরহাদ। এছাড়া যাদুকাটা নদীর তীর দখল নিয়ে নিজাম বাহিনী ও এলাকাবাসীর মধ্যে হয়েছে একাধিক সংঘর্ষ ও মামলা-মোকদ্দমার ঘটনা। আর চাঁদাবাজদের কথা মতো চাঁদার টাকা না দিলে ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদের মারপিট করাসহ নৌকা আটক করে পুলিশ দিয়ে করা হতো হয়রানী। এসব কারণে ধোপাজান ও ফাজিলপুর বালিপাথর মহালের চাঁদাবাজ তোফাজ্জল হোসেনসহ যাদুকাটা নদীর সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী,ভূমিমন্ত্রী,জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপার বরাবরে একাধিক লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

সুনামগঞ্জ পৌরশহরের ট্রাফিক পয়েন্ট,যাদুকাটা ও ধোপাজান নদীর তীরে মানববন্ধন করেছে মানবাধিকার কমিশন,বালি-পাথর ব্যবসায়ী, শ্রমিক ও এলাকার ভূক্তভোগী অসহায় মানুষ। পরে দায়েরকৃত অভিযোগের প্রেক্ষিতে সাংবাদিকরা পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত করলে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে র‌্যাব,বিজিবি ও পুলিশ নিয়ে টিম গঠন করে ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে যাদুকাটা ও ধোপাজান নদীর তীর কাটাসহ চাঁদাবাজি বন্ধ করে দেয়। একারণে চাঁদাবাজ তোফাজ্জল হোসেন ও বালিপাথর খেকো সন্ত্রাসীরা সাংবাদিকদের ওপর ক্ষেপে যায়।

এব্যাপারে সাংবাদিক আল-হেলাল বলেন,আমি সড়ক দূর্ঘটনায় পা ভেঙ্গে বর্তমানে অসুস্থ। কিন্তু সংবাদ প্রকাশের জেরে চাঁদাবাজ তোফাজ্জল হোসেন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী আমাকে অব্যাহত হুমকি দেওয়ায় আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছি,আমি এর সুবিচার চাই। সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসি আব্দুল হাই বলেন,এব্যাপারে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


সম্পাদনা: News Desk, নিউজরুম এডিটর

আমারসিলেট২৪.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Place for advertisement
Place for advertisement

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc