সিলেটে এনা ও লন্ডন এক্সপ্রেসের সংঘর্ষে নিহত-০৮,আহত-৪০

    0
    13

    নিজস্ব প্রতিনিধি: সিলেট-রশিদপুর হাইওয়ে রোডে আজ শুক্রবার ২৬ শে ফেব্রুয়ারি ভোর ৭টার দিকে ঢাকাগামী এনা পরিবহন ও সিলেটগমী লন্ডন এক্সপ্রেস মুখোমুখি সংঘর্ষে সর্বশেষ কমপক্ষে ০৮ জন নিহতের  সংবাদ পাওয়া গেছে তবে এই সংখ্যা বাড়তে পারে । প্রথমে স্থানীয়দের সুত্রে ১১ জনের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেলেও প্রশাসন বলেছিল সাতটি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গুরুতর আহত সহ প্রায় ৪০ জনের মতো আহত হয়েছে বলে বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়।

    এই সড়ক দুর্ঘটনায় ছিন্নভিন্ন দেহ ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখা গেছে বলে স্থানীয়রা ও প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানিয়েছে এ সময় আহাজারিতে আকাশ বাতাস বাড়ি হতে দেখা যায।

    জানা যায়,দক্ষিণ সুরমা থানার রশিদপুর নামক স্থানে এই ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। দক্ষিণ সুরমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেননিহতরা হলেন-সিলেটের উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক আল মাহমুদ সাদ ইমরান খান (৩৩), এনা পরিবহনের চালক ওসমানীনগর উপজেলার ধরখা গ্রামের মঞ্জুর আলী (৩৮), এনার সুপারভাইজার সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার মিঠাভরা গ্রামের সালমান খান (২৫), হেলপার ধরখা গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেন (২৪), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানার রাজানিয়াকান্দি পশ্চিম পাড়ার নুরুল আমিন (৫০), ঢাকার ওয়ারি এলাকার সাগর আহমদ (২৯) ও সিলেট নগরের আখালিয়া এলাকা শাহ কামাল (২৭)।নিহত চিকিৎসক ইমরান খানের স্ত্রী শারমিন আক্তার অন্তরা (২৯) গুরুতর আহত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি বিশেষ বিসিএস পরীক্ষার্থী।

    ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা লন্ডন এক্সপ্রেস (ঢাকা মেট্রো-ব ১৫-৩১৭৬) ও সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়া ঢাকামুখী এনা পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৭৩১১) দ্রুতগতির দুটি বাসের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় বাসের সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। এতে বহু যাত্রী হতাহত হয়েছেন। লন্ডন এক্সপ্রেসের যাত্রী জসিম আহমদ জানান, ঢাকা থেকে আসার পথে বারবার বাসের চালক ওভারটেক করছিলেন। তাকে কয়েকবার সর্তকও করা হয়। কিন্তু কথা শোনেননি। তিনি বাসটি খুব দ্রুতগতিতে চালাচ্ছিলেন বলে জানান জসিম।

    সুমন নামে আরেক যাত্রী জানান, লন্ডন পরিবহনের বাসে ২৯-৩০ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের সবাই আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে কয়েকজন মারাও গেছেন। ফায়ার সার্ভিস সিলেটের ভারপ্রাপ্ত ডিডি মো. কুবাদ আলী সরকার বলেন, ‌‘ঘটনাস্থল থেকে আমরা এসে ১০ জনকে উদ্ধার করেছি। এরমধ্যে সাতজনের মরদেহ রয়েছে। আরও বেশ কয়েকজন হতাহতকে এর আগেই ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’তাৎক্ষণিক সকল আহত-নিহতের পরিচয় নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি বিস্তারিত পরের সংবাদে