সিলেটের বিশিষ্ট আলেম ফয়জুল বারী মহেষপুরী সমাহিত

    0
    3

    আমারসিলেট24ডটকম,১১জানুয়ারী,বদরুলঃ বৃহত্তর সিলেটের প্রখ্যাত আলেমেদীন হাদিস বিশারদ কানাইঘাট দারুল উলূম কৌমি মাদ্রাসার সাবেক মুহতমিম, সিলেট নয়াসড়ক জামে মসজিদের খতিব শায়খুল হাদীস আল্লামা ফয়জুল বারী (মহেষপুরী হুজুরের) জানাযা গতকাল সকাল ১১টায় দারুল উলূম মাদ্রাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় লাখো শোকাহত মানুষ শরীক হন। পরে দারুল উলূম মাদ্রাসার সাবেক প্রিন্সিপাল উপ-মহাদেশের প্রখ্যাত আলেমেদীন আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরীর মাজারের পাশে লাখো শোকার্থ মানুষের শ্রদ্ধা, ভালোবাসায় সমাহিত করা হয় মহেষপুরী হুজুরকে। গত শুক্রবার বেলা ১টার দিকে মহেষপুরী হুজুরের মৃত্যুর সংবাদ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে বৃহত্তর সিলেট এবং দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে তাঁর জানাযায় শরীক হওয়ার জন্য শুক্রবার রাত থেকে হাজার হাজার আলীম উলামা, ছাত্র, ভক্ত, আশেকানগণ দারুল উলূম মাদ্রাসা সহ বিভিন্ন স্থানে সমবেত হতে থাকেন। সিলেটের প্রবীণ এ আলেমেদ্বীনের জানাযায় অংশগ্রহণের জন্য গতকাল ভোর থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শত শত যানবাহনে করে এবং দূর দূরান্ত থেকে সর্বস্তরের মানুষ পায়ে হেটে দারুল উলূম মাদ্রাসায় জড়ো হন। সকাল ১১টায় জানাযা’র নামাজ শুরু হওয়ার পূর্বে মাদ্রাসার সু-বিশাল মাঠ ও আশপাশের খোলা মাঠে হাজার হাজার মানুষ কাতারবন্দি হয়ে দাড়িয়ে পড়েন। লাখো জনতার অংশ গ্রহণে মাওলানা ফয়জুল বারীর জানাযার ইমামতি করেন হুজুরের একমাত্র পুত্র দারুল উলূম মাদ্রসার শিক্ষক সাহেবজাদা মাওলানা আব্দুল লতিফ। জানাযা পূর্বে মহেষপুরী হুজুরের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের উপর আলোকপাত করে বক্তব্য রাখেন, দারুল উলূম মাদ্রাসার মুহতমিম শায়খুল হাদিস আল্লামা মোহাম্মদ বীন ইদ্রিস শায়খে লক্ষীপুরী, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ আব্দুল কাহির চৌধুরী, মাশুক উদ্দিন আহমদ, কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র লুৎফুর রহমান, আল্লামা আলিম উদ্দিন দুর্লভপুরী, মাওঃ সামছুদ্দিন, আল্লামা মুহিবুল হক গাছবাড়ী, মাওঃ শামসুল ইসলাম রেঙ্গা, মাওঃ সিহাব উদ্দিন রেঙ্গা, মাওঃ শফিকুল হক আমকোনী, মাওঃ এডভোকেট আব্দুর রকিব, মাওঃ আব্দুল গণি হারিকান্দী, মাওঃ মাহমুদুল হাসান রায়গড়ী, মাওঃ মোস্তাক আহমদ খান, মাওঃ হুসেইন আহমদ বারকুটী, মাওঃ শায়কে জিয়া উদ্দিন, মাওঃ আব্দুল মান্নান, মাওঃ মাহমুদুল হাসান, মুফতি নুরুল হক জকিগঞ্জি, মাওঃ নুরুল ইসলাম এলএলবি, মাওঃ জমিল আহমদ বায়মপুরী, মাওঃ আবুল হোসেন চতুলীসহ সিলেটের শতাধিক আলিম উলামা বক্তব্য রাখেন। তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, মহেষপুরী হুজুর মৃত্যুর পূর্ব মুহুর্থ আজীবন দ্বীন ইসলামের খেদমতের জন্য নিজেকে নিয়োজিত রেখেছিলেন। আধ্যাত্মিক ময়দানে তিনি ফেদায়ে মিল্লাত আল্লামা আসআদ মাদানীর খলিফা ও আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরী (র.) এর খাস শাগরিদ ছিলেন। দারুল ঊলূম মাদ্রাসার মুহতমিমের দায়িত্ব পালনের সময় মাদ্রাসার উন্নয়নে তিনি যে অবদান রেখে গেছেন, তা চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তার মৃত্যুতে জাতি আজ একজন মহান অভিভাবক প্রবীণ আলেমেদ্বীনকে হারালো এ ক্ষতি সহজে পূরণ হওয়ার নয় বলে উল্লেখ করেন। তার কৃতকর্মের জন্য চিরকাল মানুষ তাঁকে স্মরণ রাখবে। মহান আল্লাহ রাব্বুল আল-আমিনের কাছে তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।

     কানাইঘাট প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের শোক

    কানাইঘাট দারুল উলূম মাদ্রাসার সাবেক প্রিন্সিপাল বৃহত্তর সিলেটের ওলীকূল শিরমনি সিলেট নয়াসড়ক জামে মসজিদের খতিব শায়খুল হাদীস আল্লামা ফয়জুল বারী (মহেষপুরী হুজুরের) মৃত্যুতে শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোক প্রকাশ করেছেন কানাইঘাট প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ। এক শোক বার্তায় নেতৃবৃন্দ বলেন, মহেষপুরী হুজুরের ইন্তেকালে সমগ্র দেশবাসী একজন সর্বজন শ্রদ্ধেও প্রবীণ আলেমেদ্বীনকে হারালো যা সহজে পূরণ হওয়ার মতো নয়। শোক দাতারা হলেন, প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম.এ.হান্নান, সহসভাপতি বাবুল আহমদ, আব্দুর রব, সাধারণ সম্পাদক এখলাছুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আম্বিয়া চৌধুরী, দপ্তর ও পাঠাগার সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, ক্রীড়া সম্পাদক জামাল উদ্দিন, সমাজসেবা সম্পাদক মিছবাউল ইসলাম চৌধুরী, সদস্য ময়নুল হক বুলবুল, শাহজাহান সেলিম বুলবুল, কুহিনুর চৌধুরী, মাহবুবুর রশিদ, আব্দুন নুর, কাওসার আহমদ, সাংবাদিক ফয়সল উদ্দিন, বদরুল ইসলাম, আমিনুল ইসলমা, মাহফুজ সিদ্দিকী, রাসেল চৌধুরী, রুহুল আমিন, ফটো সাংবাদিক সুজন চন্দ অনুপ।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here