শ্রীমঙ্গল ইউএনও’র অভিযানে পৌনে দুই লক্ষাধিক ঘনফুট বালু জব্দ

    0
    14

    “শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দিনভর অভিযানে প্রায় পৌনে দুই লক্ষাধিক ঘনফুট বালু জব্দ”

    সাদিক আহমেদ,নিজস্ব প্রতিনিধি: শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভূনবীর ও সাতগাও ইউনিয়নের কয়েকটি স্থানে প্রায় দিনভর অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকটি বালুমহাল থেকে অবৈধভাবে উত্তোলিত ১ লক্ষ ৮১ হাজার ঘনফুট বালু জব্দ করেছে শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রশাসন।

    আজ ১৪ জুলাই,মঙ্গলবার উপজেলা প্রশাসন শ্রীমঙ্গল ও শ্রীমঙ্গল থানার সহযোগিতায় সকাল থেকেই অভিযান শুরু হয়।

    অভিযানের নেতৃত্ব দেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নজরুল ইসলাম।সাথে আরো ছিলেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা সহকারী ভূমি কমিশনার মামুনুর রহমান মামুন,শ্রীমঙ্গল থানার এএসআই রোকন উদ্দীনসহ শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশের একটি টিম।

    এ সময় সরেজমিনে দেখা যায়,ছড়ার পাশের পাহাড় ও লেবু বাগান কেটে অবৈধভাবে শ্যালো মেশিনের মাধ্যমে বালু উত্তোলন করে স্তুপ করে রাখা হয়েছে।তবে এ সময় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের ধরা যায় নি।অভিযানের খবর পেয়ে আগেই বালু উত্তোলনের মেশিন,পাইপসহ পালিয়ে যায় অপরাধীরা।
    অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম।
    আমার সিলেট টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন,”অবৈধভাবে যারা বালু উত্তোলন করছে তাদের বিরুদ্ধে আমরা নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছি।ইতোমধ্যে আমরা প্রায় ৬০/৭০ লক্ষ টাকার বালু নিলামে বিক্রি ও জরিমানার মাধ্যমে আদায় করেছি।যেহেতু এই এলাকাগুলো প্রত্যন্ত এলাকা তাই বালুর অভিযান এখানে সময়সাপেক্ষ বিষয়।তবুও আমরা নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছি এবং মামলাও দায়ের করছি।আজও আমরা প্রায় দুই লক্ষ ঘনফুট বালু জব্দ করেছি এবং নিলামে বিক্রি করে দিবো।অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী কালপিটদের বিরুদ্ধে শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে”।

    পাহাড় এবং লেবু বাগান কেটে বালু উত্তোলন করার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,বালু উত্তোলনের জন্য যারা এসব জমি বিক্রি করছে আমরা তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।