শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে ‘যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব’ বিষয়ক আলোচনা

0
257
শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে ‘যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব’
শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে ‘যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব’

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ পবিত্র রামাদান কারিম উপলক্ষে রোজ শুক্রবার (২৯ এপ্রিল ২০২২) শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব এর উদ্যোগে বিকাল ৫ ঘটিকা থেকে ইফতার পুর্ব পর্যন্ত সংস্থার অস্থায়ী কার্যালয় বিরতি হোটেল এর তৃতীয় তলায় “যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব” বিষয়ক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে অনলাইন প্রেস ক্লাবের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণির নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম চৌধুরী, সঞ্চালনা করেন সহসাধারণ সম্পাদক আব্দুল মজিদ।

প্রধান বক্তা ছিলেন, শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও amarsylhet24.com এর প্রধান সম্পাদক মোহাম্মদ আনিসুল ইসলাম আশরাফী।

শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে ‘যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব’ বিষয়ক আলোচনা
জাকাত ও ফেতরার সামাজিক গুরুত্ব নিয়ে আলোচনার একটি মুহুর্ত।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোহাম্মদ আনিসুল ইসলাম আশরাফী বলেন, “যাকাত ও ফিতরা যথাযথভাবে প্রদান করা ঈমানদার মুসলমানদের উপর অবশ্য কর্তব্য। অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী নেসাবের অধিকারী ঈমানদার মুসলিমদের উপর যাকাত যেমন ফরয অন্যদিকে প্রত্যেক মুসলমানের উপর ফিতরা প্রদান করাও অবশ্য কর্তব্য। প্রত্যেকটি কাজের মান নির্ভর করে তার নিয়তের উপর। সেজন্য যাকাত এবং ফেতরা আদায় করার সময় নিয়ত সহি শুদ্ধ হতে হবে। যাকাত ও ফিতরা দিয়ে অন্যের হক নষ্টের চিন্তাভাবনা করা যাবে না। স্মরণ রাখতে হবে যাকাত গরিবের হক আর ফিতরা প্রদান করা ও সকল প্রকার মুসলিম জনগোষ্ঠীর জন্য অবশ্যকর্তব্য। সেজন্য সঠিকভাবে যাকাত প্রদান করলে সমাজে বিত্তশালী ও বিত্তহীনদের যে ব্যবধান রয়েছে তা কমে আসবে এবং পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ফিতরা যথাযথভাবে আদায় করলে ফিতরা পেয়ে বিত্তহীনরাও অন্যান্যদের সাথে সমান তালে আনন্দ খুশিতে ঈদ উদযাপন করা সম্ভব হবে। সঠিক ভাবে জাকাত ও ফিতরা আদায়ে সমাজের সবাইকে নিয়ে খুশি থাকার নামই হচ্ছে আনন্দ শুধু শুধু একা খুশি থাকার নাম আনন্দ নয়, সেই বিষয়টি মাথায় রেখেই নিজের সম্পদ পবিত্র করতে যাকাত প্রদান করতে হবে এবং রোজা উপলক্ষে যে দান সেটিকেও সাদকাতুল ফিতর বলা হয় যা যথাযথভাবে পালন করে নিজের উপর অর্পিত দায়িত্ব পূরণ করতে হবে।”

শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে ‘যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব’ বিষয়ক আলোচনা
শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে ‘যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব’ বিষয়ক আলোচনায় উপস্থিতির একাংশ।

তিনি আরও বলেন,”শুধুমাত্র ছবি তুলে সেলফি তোলে দান করা থেকে বিরত থাকতে হবে। স্মরণ রাখতে হবে যাকাত দান নয় ফিতরাও দান নয় এটি আল্লাহর নির্দেশ। সামাজিক শৃঙ্খলা রক্ষা করতে হলে যাকাত ও ফিতরার সমবন্টন করা উচিত। অপরদিকে নিজের যে খাদ্য পছন্দনীয় সে অনুযায়ী ফিতরা আদায় করা উচিত অনেকেই শুধুমাত্র সর্বনিম্ন ফিতরাকে প্রদান করে বাঁচতে চাই, যা উচিত নয়, পারিবারিক খাবারের ঐতিহ্যের সাথে ফিতরা প্রদান করা উচিত। সেজন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক সর্বনিম্ন ৭৫ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২৩১০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। অনেকে হোটেলে উন্নতমানের খাবার খেতে পছন্দ করেন কিন্তু যাকাতের বেলায় সর্বনিম্ন মানের মূল্য খুঁজে যা মোটেও উচিত নয়। আসুন আমরা লোক দেখানো ইবাদত থেকে বিরত থাকি এবং আল্লাহ ও তাঁর প্রিয় রাসূলের সন্তুষ্টি অর্জনে সচেষ্ট হই।”

শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে ‘যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব’ বিষয়ক আলোচনা
শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে ‘যাকাত ও ফিতরার সামাজিক গুরুত্ব’ বিষয়ক আলোচনার একাংশ।

এ সময় পবিত্র মিলাদ ও কিয়াম পরিচালনা করেন নুর মুহাম্মদ সাগর।পরিশেষে মুসলিম উম্মার জন্য দেশ ও জাতির কল্যাণে এবং মৃতদের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত প্রদান করেন হাফেজ মোঃ গোলাম মোস্তফা। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংস্থার সহ-সভাপতি রোমান আহমেদ শিফুল চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মনসুর আহমেদ, সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন এর সভাপতি ফারুক আহমেদ সহ-সভাপতি আবু হানিফ ও অন্যান্য সাংবাদিক এবং মিডিয়া কর্মী বৃন্দ।  

পবিত্র মিলাদএ কিয়াম পরিচালনা করছেন নুর মোহাম্মদ সাগর।

অনুষ্ঠান শেষে ইফতারের সময় হল সভাস্থলে সবাই একসাথে ইফতার করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here