শ্রীমঙ্গলে ২০লাখ টাকা ডাকাতিঃএকজন গুরুত্বরসহ আহত-৩

    0
    12

    আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,০২এপ্রিল,হাবিবুর রহমান খানঃ শ্রীমঙ্গলের ভানুগাছ রোড থেকে দেশীয় অস্রদিয়ে কুপিয়ে মারাক্তক জখম করে বিকাশ এজেন্ট এক্সপেট্রা পিটিই লিমিটেড কোম্পানির কর্মিদের থেকে ২০ লক্ষ টাকা নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। এতে একজন গুরুত্বরসহ আহত হয়েছে ৩ জন।মারাক্তক আহত উত্তম দাস নামের এক  যুবক বর্তমানে সিলেটে চিকিৎসাধীন।

    ঘটনা সম্পর্কে আহত এক জন বিপুল চক্রবর্তি বলেন,আমি,রাজিব ঘোষ ও উত্তম দাস মিলে আমরা ৩ জন পূবালী ব্যাংক থেকে ২০ লক্ষ টাকা উত্তোলন করে আজ রোববার সাড়ে তিনটার দিকে কমলগঞ্জ যাওয়ার পথে ভানুগাছ রোডের “বাংলাদেশ টি রিসোর্ট এন্ড মিউজিয়াম” এর একটু আগে রাবার বাগানের মধ্যে রাস্তায় হঠাৎ তিন জন লোক আমাদের মোটরসাইকেল রোধ করে থামার জন্যে সিগনাল দেয়।পুলিশের লোক মনে করে আমাদের ড্রাইভার রাজিব ঘোষ সাইকেল আটক করে,সাথে সাথে পাহাড়ের উপর থেকে আরও তিন জন দ্রুতবেগে নেমে আসে এবং একজন মুখোশবিহীন পিস্তল দিয়ে গুলি করার কথা বলে তখন মুখোশধারী অপর ৫ জন ধারালো দা,ঢেগার,বিভিন্ন দেশীয় অস্র নিয়ে আমাদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে এ সময় আমি সাইকেল থেকে পড়ে যায় এবং ডাকাতরা টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিতে চেষ্টা করে।ওই সময় উত্তম দাস টাকার ব্যাগে জোড় করে ধরে রাখলে মুখোশধারী ডাকাতেরা এলোপাতারী কুপাতে থাকে এতে উত্তমের বামহাতে ও গালে কুপ পড়ে মারাক্তক আহত হয়। এ সুযোগে ডাকাতেরা টাকার ব্যাগ নিয়ে শ্রীমঙ্গলের দিকে পালিয়ে যায়,সে সময় একটি সিএনজি ও একটি পিকআপ ঘটনার পাশে থাকলেও আমাদের বিপদে কেহ এগিয়ে আসেনি।

    এ ব্যাপারে এক্সপেট্রা পিটিই লিমিটেড কোম্পানি শ্রীমঙ্গলের ম্যানেজার সৈয়দ মোতাহির আলি শাকিল আমার সিলেটকে জানান,সপ্তাহের প্রায় দিনেই শ্রীমঙ্গল থেকে কমলগঞ্জে বিকাশের টাকা পাঠাইতে হয়,বিশেষ করে  রোববারে বেশি টাকা পাঠানোর প্রয়োজন হয়, তাই অন্যান্য দিনের তুলনায় আজ  বেশি টাকা পাঠানোর প্রয়োজন ছিলো,ফলে ২০ লক্ষ টাকা পূবালী ব্যাংক থেকে তুলে তারা তিন জনে মিলে মোটরসাইকেল যোগে কমলগঞ্জ যাবার সময় ৬ জনের একটি ডাকাত দল তাদের আক্রমণ করে ২০ লক্ষ টাকা নিয়ে গেছে বলে আহতরা আমাকে জানিয়েছে,আমরা প্রাথমিক ভাবে থানাকে জানিয়েছি।আমাদের আহত বিকাশ কর্মী উত্তমের অবস্থা আশংকাজনক সে সিলেট ওসমানীতে চিকিৎসাধীন তার অবস্থা দেখে আগামী কাল মামলা করার বিষয়ে চেষ্টা করবো।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here