শ্রীমঙ্গলে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে আহত আল-আমিন অবশেষে মারা গেলেন

    0
    32

    নূর মোহাম্মদ সাগর,শ্রীমঙ্গল: মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলে নির্মান শ্রমিক বিদ্যুৎস্পষ্ট গুরুতর আহত আল-আমিন (২১) অবশেষে মারা গেলেন। গত শনিবার সন্ধ্যা (৩০ জানুয়ারি) প্রায় একমাস চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে শেষ নি:শ্বাষ ত্যাগ করেন। মৃত আল-আমিন উপজেলার জিলাদপুর গ্রামের মৃত মনফর মিয়ার ছেলে। তার মৃত্যুতে পুরো এলাকা জুড়ে নেমে এসে শোকের ছায়া।
    স্থানীয়রা জানান, আল-আমিন খুব ভালো ছেলে ছিল। দুই ভাই এক বোন, সবার মধ্যে সে ছিল বড়, তার উপার্জনেই চলতো ছোট ভাইয়ের লেখাপড়াসহ তার পরিবার। আল-আমিনের মৃত্যুতে তার পরিবারটি অসহায় হয়ে পড়েছে।
    নিহতের মা রোকেয়া বেগম কান্না জড়িতকন্ঠে বলেন, বাবা আমার এই ছেলের উপার্জনে চলতো আমাদের সংসার, আমি কাউকে দোষী না, আল্লাহর ইচ্ছা।
    উল্লেখ্য, গত (১৪ ডিসেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার আশিদ্রোন গ্রামের আইয়ূব আলী মার্কেটের পশ্চিম পার্শ্বে রফিকুল ইসলামের মালিকানাধীন নব-নির্মিত ভবনের দ্বিতীয় তলায় ছাদ ঢালাইয়ের কাজ চলাকালীন সময় দুইজন নির্মাণ শ্রমিক মোহাম্মদ রোমান মিয়া ও আল-আমীন একই সঙ্গে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হয়। ছাদের খুব নিকটবর্তী পল্লী বিদ্যুতের মেইন লাইনে তাদের হাত লেগে যায়। এতে তারা দুইজনই গুরুতর আহত হয়।
    এ ঘটনায় মো. রোমন মিয়া সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরলে ও লাশ হয়ে বাড়ী ফিরলেন আল-আমিন।
    ৬নং আশীদ্রোণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রণেন্দ্র প্রসাদ বর্ধন বলেন ‘ছেলেটির পরিবার থেকে জানানো হয়। বিল্ডিং মালিক ছেলেটির উন্নত চিকিৎসা চালিয়ে গেছে। তবে আমরা ছেলেটির পরিবারকে নিয়ে সামাজিক ভাবে বিল্ডিং মালিকের সাথে আজকে বসবো।’
    শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল ছালেক বলেন, থানায় কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।