শ্রীমঙ্গলে জুয়া খেলার অপরাধে আটক ১২জনকে আদালতে প্রেরণ

0
41

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ শ্রীমঙ্গল উপজেলার ১নং মির্জাপুর ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে জুয়ার আসর থেকে ১২জনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (২৫ জুলাই) রাত সাড়ে ১০ টায় তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।এ সময় তাদের কাছ থেকে জুয়া খেলার সামগ্রী ও নগদ টাকা জব্দ করা হয়।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ূন কবিরের নেতৃত্বে এসআই নূরুল ইসলাম ও অন্যান্য অফিসার এবং ফোর্সদের সহায়তায় গতকাল রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শ্রীমঙ্গল থানাধীন ১নং মির্জাপুর ইউপির বৌলাশি এলাকার জনৈক কামাল মিয়ার ফিসারির পূর্ব দিকে টিনশেড বিল্ডিং এর সামনের কক্ষে অভিযান পরিচালনা করে জুয়া খেলারত অবস্থায় আব্দুল মন্নান (৩৭) পিতা-মৃত আব্দুল আলী, সাং-উত্তর উত্তরসুর। আজাদ মিয়া (৩) পিতা-মদরিছ মিয়া, সাং-বৌলাশির। মোঃ উমর আলী (৪১) পিতা-মৃত ইয়াদ আলী, সাং-মির্জাপুর লামাপাড়া। ময়না মিয়া (৪২) পিতা-মহব্বত উল্লাহ, সাং-সাইটুলা।সফিক মিয়া (৪০) পিতা-মৃত নুর আলী মিয়া, সাং-ইসলামাবাদ বালুচর। মনির হোসেন (৩৮) পিতা-মহরম আলী, সাং-মুসলিমবাগ। কফিল মিয়া (৪০) পিতা-মৃত কনুই মিয়া, সাং-বাদে আলীসা। রফিক মিয়া (৩৬) পিতা-মৃত আব্দুল মন্নান, সাং-মুসলিমবাগ। খলিল মিয়া (৫০) পিতা-মৃত ইউনুছ মিয়া, সাং-রূপসপুর, সর্ব থানা-শ্রীমঙ্গল, জেলা-মৌলভীবাজার,এবং চুনু মিয়া (৪৮) পিতা-মৃত আবুল হোসেন, সাং-মন্দুরি, থানা-বানিয়াচং, জেলা-হবিগঞ্জ, বর্তমান সাং-শাহীবাগ, থানা শ্রীমঙ্গল, জেলা-মৌলভীবাজার। সামছু মিয়া (৪০) পিতা-মৃত আব্দুস সামাদ, সাং-হরিপাশা (মিরপুর বাজার), থানা- বাহুবল, জেলা- হবিগঞ্জ। ফরমান মিয়া (৪২) পিতা-মৃত আফতাব মিয়া, সাং-সাতহাল, থানা মৌলভীবাজার সদর,জেলা-মৌলভীবাজারদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় জুয়া খেলার স্থান তল্লাশী করিয়া (ক) একটি পুরাতন কম্বল, (খ) ১০০০ টাকার নোট ০৬টি, (গ) ৫০০ টাকার নোট ১১৯টি, (ঘ) ২০০ টাকার নোট ০৫টি, (৫) ১০০ টাকার নোট ৯৮ টি, (চ) ৫০ টাকার নোট ২৮ টি, (ছ) ২০ টাকার নোট ২০টি, (জ) ১০ টাকার নোট ১৮টি সহ সর্বমোট ৭৮,২৮০/- (আঠাত্তর হাজার দুইশত আশি) টাকা এবং (ঝ) ০৪ সেট তাসের বান্ডের যাহার প্রতিটি বান্ডেলে ৫২ টি করিয়া মোট ২০৮টি তাসসহ ২৫/৭/২০২২ ইং তারিখ প্রায় ১১ টার দিকে এসআই মোঃ নুরুল ইসলাম জব্দ তালিকা রেকর্ড করেন।

উক্ত বিষয়ে জুয়া আইনে একটি মামলা রুজু পূর্বক আসামীদের যথাযথ পুলিশ স্কটের মাধ্যমে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির আমার সিলেট টোয়েন্টিফোর ডটকমকে নিশ্চিত করেছেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here