শ্রীমঙ্গলে খুন,পুলিশের হাতে আটক-১,মুল আসামী পলাতক

0
22

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  শ্রীমঙ্গল উপজেলার সিন্দুরখান ইউনিয়নের কুঞ্জবন গ্রামে প্রতিবেশী দুই যুবকের তর্কবিতর্কের জের ধরে একজন আরেকজনকে কাঠেরবর্গা দিয়ে মাথায় সজোরে আঘাত করলে গুরুতর আহত হয় এক যুবক। আহতকে চিকিৎসার জন্য সিলেট নিয়ে যাওয়ার পথে রাস্তায় মৃত্যুবরণ করে। ঘটনা সম্পর্কে স্থানীয় সূত্রে জানা যায় শুক্রবার ২৬ শে মার্চ বিকাল পৌনে ৪ টার দিকে কুঞ্জবন (জানাউরা) এলাকায় দুই যুবকের মধ্যে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে পুঞ্জি ব্যবসায়ী ফয়সল মিয়া (২১) পিতা জমশেদ আলী কাঠের টুকরা দিয়ে সুরুক মিয়া (৩৫) পিতা-মন্তাজ উল্লাহ’র মাথায় সজুরে আঘাত করলে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পরে। আহতকে অজ্ঞান অবস্থায় প্রথমে শ্রীমঙ্গল হাসপাতাল, পরে সেখান থেকে মৌলভীবাজারে সর্বশেষ ডাক্তারদের পরামর্শে সিলেটে উন্নত চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় রাস্তায় আহত সুরুক মিয়ার মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার আবদুস শহীদের সাথে কথা বললে তিনি বলেন তারা উভয়েই একে অপরের আত্মীয়, তর্কবিতর্কের একপর্যায়ে নির্মম এই ঘটনা ঘটেছে তবে সঠিক কারণ এখনো বলতে পারতেছি না তিনি আরো জানান ঘটনার সংবাদ পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানার তদন্ত কর্মকর্তা  হুমায়ুন কবির, এসআই  আল আমীন ও এস আই ইউসুফ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

স্থানীয়দের সুত্রে জানা যায় ফয়সালের আঘাতেই সুরুক মিয়া আহত হয়ে মৃত্যুবরন করেছে।

শ্রীমঙ্গল থানার তদন্ত কর্মকর্তা  হুমায়ুন কবির বলেন, ৫ জনকে আসামী করে হত্যার অভিযোগ করা হয়েছে একজনকে আটক করা হয়েছে,বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।নিহত ব্যাক্তির ময়না তদন্ত শেষে দাফন সম্পন্ন হয়েছে।