শাবির ভিসির সঙ্গে সচেতন সিলেটবাসীর বৈঠক

    1
    9

    আমার সিলেট24ডটকম,২৫নভেম্বরঃ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিতর্কিত গুচ্ছ ভর্তি কার্যক্রম নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আন্দোলনরত সচেতন সিলেটবাসীর নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠক করেছেন শাবি-ভিসি প্রফেসর ড. আমিনুল হক ভূঁইয়া।

    আজ সোমবার বিকেল ৪টায় ভিসির আমন্ত্রনে তার সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এক সভায় সচেতন সিলেটবাসীর নেতৃবৃন্দ গুচ্ছভর্তি কার্যক্রম বাতিল করে পুরনো স্বতন্ত্র পদ্ধতিতে পরীক্ষা গ্রহনের দাবী জানান।

    নেতৃবৃন্দ বলেন, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় সিলেটবাসীর আন্দোলনের ফসল। এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা এবং অগ্রযাত্রার ক্ষেত্রে সিলেটবাসী রক্ত ঝড়িয়েছে। অতীতে নামকরণ বিরোধী আন্দোলন, মূর্তি স্থাপন বিরোধী আন্দোলন এবং মাদ্রাসা ছাত্রদের ভর্তির দাবীতে সিলেটবাসী একসাথে তুমুল আন্দোলন করেছে। বর্তমান পরিস্থিতেও সিলেটের মানুষ এক হয়ে দুর্বার আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

    নেতৃবৃন্দ ভিসিকে জানান, গুচ্ছভর্তি কার্যক্রমের ফলে শাবিতে আবেদনকারীর সংখ্যা বেড়ে যাবে, এতে করে স্থানীয় পরীক্ষার্থীরা কঠিন প্রতিযোগিতায় পড়বে। তা ছাড়া মানের তারতম্য থাকায় সিলেট থেকে কেউই যশোরে পড়তে যেতে  চাইবে না, পক্ষান্তরে শাবিতে আবেদনের হার উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পাবে।

    সচেতন সিলেটবাসীর নেতৃবৃন্দ বলেন, শাবির সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা বুয়েটের মতো প্রথম সারির বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছভর্তি কার্যক্রমের ব্যবস্থা করলে কেউ বাধা দেবে না। অথচ সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে যশোরের মতো নবীন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সমন্নিত কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে যা মোটেও গ্রহণযোগ্য নয়।

    নেতৃবৃন্দ শাবিকে নিয়ে একটি কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্র করছে উল্লেখ করে বলেন, তাদেরকে উৎত্থাত করা না হলে এই বিশ্ববিদ্যালয় সামনে এগুতে পারবে না।

    আলোচনা অনুষ্ঠনে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বলেন, নগরবাসীর দাবী এই ভর্তি কার্যক্রম বাতিল করা। সিলেটের মানুষের আবেগ অনুভূতির প্রতি সম্মান জানিয়ে আশা করি কর্তৃপক্ষ তাদের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করবেন।

    সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ বলেন, সিলেটবাসী এই ভর্তি কার্যক্রম বাতিলের ব্যাপারে একমত। সবার সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে এই সিদ্ধান্ত বাতিলের জন্য তিনি কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ জানান।

    সচেতন সিলেটবাসীর আহবায়ক ও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র (প্রথম) রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর নেতৃত্বে সংগঠনের পক্ষে বৈঠকে যোগ দিয়ে আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও স্কলার্স হোমের অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) জুবায়ের সিদ্দিকী, মদন মোহন কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ লেঃ কর্ণেল এম. আতাউর রহমান পীর, জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ লেঃ কর্ণেল (অবঃ) সৈয়দ আলী আহমদ, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াছ, সচেতন সিলেটবাসীর সদস্য সচিব এডভোকেট আব্দুল মুকিত অপি, শাবি স্বতন্ত্র পরীক্ষা বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি জাহেদ আহমদ তালুকদার।

    অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট ছাত্র ও যুব কল্যাণ ফেডারেশনের সভাপতি এইচ.এম আব্দুর রহমান, শাবি স্বতন্ত্র পরীক্ষা বাস্তবায়ন কমিটির সেক্রেটারী আফসর খান, সচেতন সিলেটবাসীর সদস্য ওমর মাহবুব, সম্মিলিত শিক্ষার্থী জোটের সভাপতি মাহবুবুর রউফ, সেক্রেটারী শিশির সরকার।

    ভিসি ড. আমিনুল হক ভূইয়া তার বক্তব্যে বলেন, সিলেটবাসীর দাবীর প্রতি আমরা সহানুভূতিশীল। আমাদের একাডেমিক কাউন্সিলে আমরা বিষয়টি বিবেচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেব।

    সভায় শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।প্রেসবিজ্ঞপ্তি

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here